Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

যমজ শিশুর সম্ভাবনা বাড়ে যে কারনে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৯ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৩৭৫জন দেখেছেন

Image

অনলাইন ডেস্ক: ৩০ এর আগে এখন মহিলারা সন্তানধারণ করার খুব বেশি পরিকল্পনা করেন না। তবে বাড়তি বয়সে সন্তানধারণের ক্ষেত্রে বেশ কিছু শারীরিক অসুবিধা দেখা যায়। ফলে অনেককেই সন্তানধারণের জন্য আইভিএফ পদ্ধতির সাহায্য নিতে হয়। অনেকে আবার আইভিএফ পদ্ধতি শুরু করার আগে বেশ ভয় ভয় থাকেন। এই পদ্ধতিতে মহিলাদের উপর অনেক বেশি ধকল পড়ে। অনকের আবার ধারণা, এই পদ্ধতিতে সন্তানধারণ করলে নাকি যমজ সন্তানের সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তবে কাদের যমজ সন্তান হবে, তা নির্ভর করে বেশ কিছু বিষয়ের উপর। আপনিও কি সন্তানধারণ করার পরিকল্পনা করছেন? জেনে নিন, আপনার যমজ সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা কতখানি।

১) বর্ণ: ২০১৮ সালে আমেরিকার জন্মহারের সমীক্ষা অনুযায়ী যাঁদের গায়ের রং চাপা, তাঁদের ক্ষেত্রে যমজ সন্তানধারণ করার সম্ভাবনা বেশি।

২) ওজন: বিভিন্ন সমীক্ষার দেখা গিয়েছে যাঁদের ওবেসিটি রয়েছে, তাঁদেরও যমজ বা আরও বেশি সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। বিশেষত যাঁদের বডি মাস ইনডেস্ক (বিএমআই) ৩০ এর উপর থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে এই সম্ভাবনা আরও বাড়ে। অনেকের ধারণা, বাড়তি ওজন হলে সন্তান উৎপাদনের হার কমে যায়। সে ধারণা ঠিক নয়। ওবিসিটি নিয়ে সন্তানধারণ করলে নানা রোগের ঝুঁকি বাড়ে, তাই চিকিৎসকরা গর্ভধারণের আগে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার কথা বলেন।

৩) উচ্চতা: খুব বেশি লম্বা মেয়েদের যমজ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। মেয়েদের গড় উচ্চতা ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি। ২০০৬ সালের একটি সমীক্ষা বলছে ১২৯ জন মেয়ে যাঁদের যমজ সন্তান হয় তাঁদের সকলেরই উচ্চতা ৫ ফুট ৫ ইঞ্চির কাছাকাছি ছিল। গবেষকদের মতে, উচ্চতার জন্য দায়ী কিছু হরমোন যমজ সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়।

৪) জিন: আপনার পরিবারে কোনও যমজ ভাই বা বোন থাকলে, আপনারও যমজ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অনেক মহিলাদের শরীরে দুই বা তার বেশি সংখ্যক ডিম্বাণু উৎপাদন হয়। একে বলে হাইপার ওভিউলেশন। এই প্রবণতা মেয়েদের মধ্যে মায়েদের ডিএনএ থেকে আসতে পারে। এ সব ক্ষেত্রে যে যমজ সন্তনের জন্ম হয়, তাঁদের দেখতে এক রকম হয় না।

৫) বয়স: বেশি বয়সে সন্তানধারণ করলে যমজ শিশুর সম্ভাবনা বাড়ে। বিশেষ করে ৩৫ বা ৪০ বছরের বেশি হলে। মেয়েরা যত ঋতুবন্ধের দিকে এগিয়ে যান, ততই তাঁদের শরীরে কিছু হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট হতে শুরু করে। এবং তাতেই বাড়ে যমজ সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা।


আরও খবর

"নোবেলের ম্যাজিক শুধু প্রতারণা"

মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24

ভালোবাসার দিন আজ

বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় গলায় ফাঁস দিলো কলেজ ছাত্র

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৪জন দেখেছেন

Image

মিরসরাই প্রতিনিধি:মিরসরাইয়ে মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়েছেন জাহিদ উদ্দিন (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্র। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার ধুম ইউনিয়নের নাহেরপুর এলাকার আসাদ মুহুরী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। জাহিদ নাহেরপুর এলাকার আসাদ মুহুরী বাড়ির জসীম উদ্দিনের ছেলে। সে উপজেলার মহাজনহাট ফজলুর রহমান কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কয়েকদিন ধরে পরিবারকে মোটরসাইকেল কিনে দিতে বলে। তার বাবা-মা কিনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সে অভিমান করে সোমবার রাতের যেকোনো সময় তার কক্ষে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে।

জাহিদের প্রতিবেশী মুনতাসির ভূঁইয়া জানান, রাতে জাহিদ তার কক্ষে ঘুমাতে যায়। সকাল ১১ টার দিকে তার মা ডাকলে ঘুম থেকে না উঠায় দরজা ভেঙ্গে দেখে তার লাশ ফ্যানের সাথে ঝুলতে থাকে। পরে সেখান থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

জোরারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল হারুন জানান, ধুম ইউনিয়নের নাহেরপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।


আরও খবর



নতুন করে বাড়ি-গাড়ি কিনতে পারবেন না ঋণখেলাপিরা

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:এখন থেকে নিয়মিত ঋণ পরিশোধ না করে যারা ইচ্ছা খেলাপি হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন তারা বিভিন্ন সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন।তারা নতুন করে জমি বাড়ি-গাড়ি কিনতে পারবেন না। নতুন কোনো ব্যবসাও খুলতে পারবেন না।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। সভা শেষে এসব তথ্য জানান ডেপুটি গভর্নর আবু ফারাহ মো. নাসের।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, নতুন পথনকশায় খেলাপি ঋণ অবলোপন, অবলোপন ঋণ আদায় জোরদার, খেলাপিদের আর ছাড় না দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। পাশাপাশি শেয়ারধারী পরিচালকদের যোগ্যতা নির্ধারণ, যোগ্য স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ, সীমার বেশি ঋণ না দেওয়া, দুর্বল ব্যাংককে ভালো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিকল্পনা এখন একজন গ্রাহক যে ঋণ নিতে পারে, তার বেশি ঋণ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে না। কয়েকটি দুর্বল ব্যাংককে অপেক্ষাকৃত ভালো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করা হবে। এতে একীভূত হওয়ার তিন বছর পর্যন্ত কাউকে চাকরিচ্যুত করা যাবে না। এর মাধ্যমে দুর্বল ব্যাংকগুলোর পরিচালনা পর্ষদ শক্তিশালী হবে, মূলধন ঘাটতি দূর হবে ও খরচ কমে আসবে। ব্যাংক কর্মকর্তাদের পদোন্নতিতে মৌলিক প্রশিক্ষণ ও ব্যাংকিং প্রফেশনাল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ বাধ্যতামূলক করা হবে।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীর কাছে টাঙ্গাইল শাড়িসহ ৩ পণ্যের জিআই সনদ হস্তান্তর

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শিল্প মন্ত্রণালয়ের পেটেন্ট, শিল্প-নকশা ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর টাঙ্গাইল শাড়ি, নরসিংদীর অমৃত সাগর কলা, গোপালগঞ্জের রসগোল্লার জিআই সার্টিফিকেট ও টাঙ্গাইলের শাড়ি হস্তান্তর করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রী পরিষদের সভার শুরুতে জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া এ তিন পণ্যের সনদ তুলে দেন শিল্প মন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন ও সচিব জাকিয়া সুলতানা।

এ সময় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সেখানে উপস্থিত ছিলেন। এরপর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেজ ওসমানের ‘পিতারই প্রতিচ্ছবি’ বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর



মির্জা ফখরুল-আমীর খসরুর মুক্তিতে বাধা নেই

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে জামিন দিয়েছেন আদালত, প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার ঘটনায় রমনা থানায় দায়ের করা মামলায়।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সল আতিক বিন কাদের তাদের আবেদন মঞ্জুর করে এ আদেশ দেন।

এ নিয়ে গত বছরের ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশে সংঘর্ষের ঘটনায় করা সব মামলায় জামিন পেলেন বিএনপির ওই দুই নেতা। সেক্ষেত্রে তাদের কারামুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।

এর আগে, এ মামলায় ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর হয়। ওই আদেশের বিরুদ্ধে মহানগর দায়রা জজ আদালতে গত ৬ ফেব্রুয়ারি আবারও আবেদন করেন তাদের আইনজীবী। আদালত শুনানির জন্য ১৪ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেন।

গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশ শুরুর আগেই কাকরাইলে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। যা বিজয়নগর পানির ট্যাংক ও শান্তিনগর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটে।

একপর্যায়ে বিকেল ৩টার দিকে বিএনপির মহাসমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়। এ সংঘর্ষে পুলিশের একজন সদস্য ও যুবদলের ওয়ার্ড পর্যায়ের এক নেতা নিহত হন। আহত হন পুলিশের ৪১ ও আনসারের ২৫ সদস্য। এ ছাড়া কমপক্ষে ২০ জন সাংবাদিক আহত হন।

এ ঘটনার পর গুলশানের বাসা থেকে মির্জা ফখরুলকে আটক করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। এরপর তাকে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় বিএনপি মহাসচিবের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়।


আরও খবর



শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার জালিয়াতি:জয়পুরহাটে কলেজের অধ্যক্ষসহ গ্রেপ্তার-৩

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১২৬জন দেখেছেন

Image
এস এম শফিকুল ইসলাম জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃপ্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার জালিয়াতি চক্রে জড়িত অভিযোগেজয়পুরহাটে কলেজের অধ্যক্ষসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।বুধবার (৩১ জানুয়ারি) বিকেলে জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নূরে আলম তার কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে সংবাদ সম্মেলনে জানান, আগামী ২ ফেব্রুয়ারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা। এর মধ্যে কয়েকজন প্রার্থীকে টার্গেট করে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার বিনিময়ে করা হয় ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকার চুক্তি। আর পরীক্ষায় বসে প্রার্থীদের ব্যবহার করতে হবে ইলেকট্রনিক ডিভাইস। তবে পরীক্ষা দেওয়ার আগেই ভেস্তে গেছে চক্রের সদস্যদের কৌশল। গ্রেপ্তার করা হয়েছে তিনজনকে। উদ্ধার করা হয়েছে ইলেকট্রনিক ডিভাইসসহ বিভিন্ন সামগ্রী।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- পাঁচবিবি উচাই কলেজের অধ্যক্ষ ও একই উপজেলার পশ্চিম বালিঘাটা গ্রামের আনিছ উদ্দিনের ছেলে রুস্তম আলী (৫৩), বগুড়া সদর থানার গোকুল গ্রামের আব্দুল ওয়াহেদের ছেলে ইশান ইমতিয়াজ ওরফে হৃদয় (৩০) এবং কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার হরিণগাছী গ্রামের আরজ আলীর ছেলে রোকনুজ্জামান ওরফে রোকন (২৯)।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নূরে আলম বলেন, দেশের তিনটি বিভাগে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে একটি চক্র জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি থানা এলাকায় জালিয়াতি করার উদ্দেশ্যে অবস্থান করে। তারা ২৫ জন প্রার্থীকে টার্গেট করে ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকা করে চুক্তি করে। প্রার্থীরা ইলেকট্রনিক ডিভাইসের মাধ্যমে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেবেন। তাদের ট্রেনিংও দেওয়া হয়েছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাঁচবিবি থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ। অভিযানে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, হৃদয় ও রোকন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষে প্রতারণার কাজে জড়িয়ে পড়ে। তাদের কাছ থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র, চেকবই, এটিএম কার্ড, বিভিন্ন প্রকারের ডিভাইস, ছয়টি মোবাইল ফোন, সিম, অ্যান্টেনা, এয়ার পট, ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসসহ বিভিন্ন সামগ্রী জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আরও খবর