Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

ঠাকুরগাঁওয়ে কলেজের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে অশ্লীল নৃত্য ফেসবুকে ভাইরাল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মার্চ 20২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১৭৫জন দেখেছেন

Image

জসীমউদ্দীন ইতি ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার চন্দ্ররিয়া ডিগ্রি কলেজের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে অশ্লীল নৃত্য পরিবেশন করার অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) দুপুরে কলেজ মাঠে নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের এ অশ্লিল নৃত্য পরিবেশন করা হয়। অশ্লীল নৃত্যে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বিভিন্ন মহলে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় বইছে। তবে আয়োজকরা বলছেন, তেমন কিছু হয়নি। এ নিয়ে পত্রিকায় সংবাদ না করার জন্য অনুরোধ জানান তারা।

স্থানীয়রা জানায়, গত মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার ১০ নং জাবরহাট ইউনিয়নের চন্দ্ররিয়া ডিগ্রি কলেজ মাঠে নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে অশ্লীল নৃত্য পরিবেশন করা হয়। ওই অশ্লীল নৃত্যের একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসকুলে ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল হওয়া ভিডিও’তে দেখা যায়, অনুষ্ঠান মঞ্চে জিন্স প্যান্ট ও শার্ট পড়া এক তরুণী হিন্দি গানের তালে তালে আপত্তিকর ও অশ্লীল নৃত্য পরিবেশন করছে। মঞ্চে যুবকদের টেনে এনে ঢুলাঢুলি করছেন। উড়তি বয়সের যুবকেরা মঞ্চের সামনে দল বেধে নাচানাচি করছে। এ ভিডিও’টি এখন এলাকায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ বিষয়ে মতামত জানতে বুধবার সন্ধায় চন্দরিয়া কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) শহিদুল ইসলামের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, অনুষ্ঠানটি কলেজ কর্তৃপক্ষ আয়োজন করেননি। ছাত্রলীগ আয়োজন করে ছিল। তারা তাকে তোয়াক্কা না করেই অনুষ্ঠান করেছেন। সেখানে কি হয়েছে, সেটা তিনি ছাত্রলীগের নেতাদের কাছে জানতে বলেন।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের চন্দ্ররিয়া ডিগ্রি কলেজ শাখার সভাপতি সাকিবের কাছে মুঠোফোনে জানতে চাওয়া হলে, প্রথমে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করেন। পরে ভুল স্বীকার করে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ না করার সাংবাদিকদের অনুরোধ জানান তিনি।

পীরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভির রহমান মিঠু বলেন, অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে তিনি ছিলেন। পরে সেখানে কি হয়েছে, সেটা তিনি জানেন না। যদি এমনটি হয়ে থাকে তাহলে এটি দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন তিনি।


আরও খবর



বই মানুষকে জ্ঞানের আলোয় আলোকিত করে..পুলিশ সুপার মুক্তা ধর পিপিএম (বার)

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ২৭জন দেখেছেন

Image
জসীম উদ্দিন জয়নাল,পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি:খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে বই পাঠের প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি করতে পুলিশ সুপারের উদ্যোগে প্রথমবারের মতো নতুন কুঁড়ি ক্যান্টনমেন্ট হাই স্কুলে ’’বই পাঠ” উৎসব অনুষ্ঠিত।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি)  খাগড়াছড়ি নতুন কুঁড়ি ক্যান্টনমেন্ট হাই স্কুলে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি  জেলার  পুলিশ সুপার  মুক্তা ধর পিপিএম (বার)।

 পুলিশ সুপার মহোদয় উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের বলেন, যখন বই পড়বে তখন আশপাশে কোনো স্মার্টফোন বা ডিজিটাল ডিভাইস রাখবে না। বই পড়ছো এ সময় মোবাইলের একটা নোটিফিকেশনের আওয়াজ তোমার পড়ার বিঘ্ন ঘটাতে পারে। মনোযোগে যেন ব্যাঘাত না ঘটে তার জন্য নিরিবিলি পরিবেশ বই পড়ার স্থান হিসেবে নির্বাচন করবে। প্রযুক্তি আমাদের মনোযোগের ক্ষমতা অনেকটাই নষ্ট করেছে। একদিকে মেসেজের রিপ্লাই, আরেকদিকে ব্রাউজিং, আবার ইমেইল চেক। একসঙ্গে অনেক কাজের এমন বিরূপ আচরণে আমাদের স্ট্রেস বাড়ে। ফলে আমরা মনোযোগ হারাই। বই মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা এবং মনোযোগ দুটোই বৃদ্ধি করে। পাশাপাশি বয়ে আনে মানসিক প্রশান্তি।

প্রধান অতিথি,র বক্তব্যে খাগড়াছড়ি  জেলার  পুলিশ সুপার  মুক্তা ধর পিপিএম (বার) বলেন, বই মানুষকে জ্ঞানের আলোয় আলোকিত করে। জীবন চলার পথ দেখায়। বই পড়ার অভ্যাস গড়তে পারলে জীবন হয় সুন্দর ও সমৃদ্ধ। অন্যান্য সুকর্মের মতোই বই পড়া অভ্যাসে পরিণত হয় সচেতন পরিশ্রম দ্বারা।বক্তব্য শেষে পুলিশ সুপার মহোদয় শিক্ষার্থীদেরকে দুটি দলে (৬ষ্ঠ - ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নিয়ে জুনিয়র টিম এবং ৯ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নিয়ে সিনিয়র টিম) ভাগ করেন। তিনি নির্ধারিত দুটি দলের জন্য দুটি বই পাঠ করার জন্য নির্ধারণ করে দেন। সিনিয়র টিমকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা ’’কারাগারের রোজনামচা” এবং জুনিয়র টিমকে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্নদ্রষ্টা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মুজিবকন্যা শেখ হাসিনার লেখা ’’আমাদের ছোট রাসেল সোনা” নামক বইগুলো পাঠ করার জন্য প্রদান করা হয়। বই পাঠ শেষে শিক্ষার্থীদেরকে পাঠ্য বিষয় থেকে ১০টি করে প্রশ্ন লিখতে বলা হয়। 

বই পাঠ অনুষ্ঠানের সমাপ্তিতে ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে মাননীয় পুলিশ সুপার মহোদয় শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে প্রাপ্ত প্রশ্নসমূহ থেকে গুরুত্বের বিবেচনায় সবচেয়ে সৃজনশীল প্রশ্নকারীকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরষ্কৃত করবেন। মূলত শিক্ষার্থীদের মাঝে বই পড়ার আগ্রহ সৃষ্টি করার লক্ষ্যেই খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মহোদয়  "বাংলাদেশ পুলিশের” পক্ষ থেকে প্রথমবারের মতো খাগড়াছড়ি জেলার প্রতিটি উপজেলায় এই ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন করা হয়।

এসময় সম্মানীত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি রিজিয়ন লেডিস ক্লাবের সহ-সভানেত্রী  ফারহানা চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস্) জনাব মোঃ জসীম উদ্দিন, পিপিএম, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ তানভীর হোসেন, নতুন কুঁড়ি ক্যান্টনমেন্ট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক রুশদীনা আখতার জাহান, বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরির জেলা কর্মকর্তা জনাব আজিমুদ্দিন সহ অত্র হাই স্কুলের অন্যান্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

আরও খবর



যদুনাথ স্কুল এ্যান্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরুস্কার বিতরণ

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০০জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাট যদুনাথ স্কুল এ্যান্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাহিত্য-সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরুস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও কলেজের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মোঃ রাশেদুজ্জামানের সভাপতিত্বে সোমবার (২৯ জানুয়ারি) বিকেলে কলেজ প্রাঙ্গনে এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বক্তব্য দেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ, খুলনা অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর শেখ হারুনর রশীদ, সহকারি পরিচালক মোঃ ইনামুল ইসলাম, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. ভুইয়া হেমায়েত উদ্দিন, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এস.এম ছায়েদুর রহমান, কলেজের অধ্যক্ষ ঝিমি মন্ডল, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শরীফা খাতুন, প্রাক্তন শিক্ষার্থী সৈয়দ মাহবুবুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকগন ও স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন। এদিন বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরুস্কার এবং শিক্ষার্থীদের মাঝে পোশাক বিতরণ করেন অতিথিগণ।  


আরও খবর



শরণখোলায় মা-মেয়ে হত্যার রহস্য উদঘাটন: পিবিআই

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩২জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের শরণখোলায় চাঞ্চল্যকর মা ও শিশু মেয়েকে কুপিয়ে নিঃশংসভাবে হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) মামলার এজাহারভুক্ত আসামী ওই নারীর স্বামী জাফর হাওলাদার পরকিয়া সন্দেহের জের ধরে ভাড়াটিয়া খুনি দ্বারা নিজেই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটিয়েছে এমন তথ্য উদঘাটন করেছে পিবিআই। এদিন বিকেলে হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে বাগেরহাট জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: আছাদুল ইসলামের আদালতে জবানবন্দী দিয়েছেন আবু জাফর হাওলাদার।

বাগেরহাটের পুলিশ সুপার (পিবিআই) আব্দুর রহমান বলেন, তদন্তের সূত্র ধরে পাপিয়ার স্বামী মোঃ আবু জাফর হাওলাদারকে জিজ্ঞাসাবাদে সে স্ত্রী ও মেয়েকে হত্যাকান্ডের বিষয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন। আবু জাফরের স্বীকারোক্তি মতে, আবু জাফর হাওলদার লোক দিয়ে তার স্ত্রীকে মেরেছে। তবে তার মেয়েকে মারার কথা ছিলো না। সে জানায় তার স্ত্রী এর সাথে পারিবারিক টানপেড়ন চলছিল। তার বউ সব সময় মোবাইলে কার সাথে কথা বলে বিষয়টি জানতে চাইলে তার স্ত্রী ভিকটিম পাপিয়া তাকে জুতা দিয়ে প্রহার করে এবং বাড়ি থেকে বের করে দেয়। স্ত্রী পাপিয়া এর আগেও স্বামীকে ঝাড়ু দিয়ে প্রহার করেছিল। এসব বিষয় নিয়ে স্ত্রীর প্রতি সংক্ষুব্ধ ছিল আবু জাফর হাওলাদার।  মনির তাকে জিজ্ঞেস করে "কী জাফর ভাই, তোমাকে নাকি তোমার বউ জুতা দিয়ে মেরেছে, তখন মনির প্রস্তাব দেয় তাকে ১ লক্ষ টাকা দিলে সব সমস্যার সমাধান করে দেবে। তখন আবু জাফল বলে "চিন্তা করে দেখি”। পরে আবু জাফর তার ভাই আবু তালেবের মাধ্যমে মনিরকে ৩০ হাজার টাকা দেয়। মনির টাকা পেয়ে আবু জাফরকে তার সাথে যোগাযোগ করতে নিষেধ করে, কাজ হলে বাড়ির লোকজন তাকে জানাবে বলে জানায়। কথা অনুযায়ী ২০২৩ সালের ১১ আগস্ট আবু জাফরের স্ত্রী পাপিয়া ও মেয়ে সওদা জেনিকে কুপিয়ে হত্যা করে মনির হাওলাদার।

ঘটনার পরের দিন মনির হাওলাদারসহ তার তিন ভাইকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। কিন্তু মনির জামিনে বের হলে,আবু জাফর মনিরকে জিজ্ঞেস করে তার বউকে মারার কথা ছিলো, সে কেন তার মেয়েকে মেরে ফেলল। মনির জবাবে  তাকে জানায় তার মেয়ে তাকে চিনে ফেলেছিল তাই তাকে মেরে ফেলেছে। তার লাশ কেন টুকু মাষ্টারের বাড়ি নিলো সে প্রশ্নের জবাবে মনির আবু জাফর কে বলে টুকু মাষ্টারের সাথে তার অন্য বোঝাপড়া আছে।

উল্লেখ, ২০২৩ সালের ১১ আগস্ট সন্ধ্যায় শরণখোলা উপজেলার উত্তর রাজাপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে পাপিয়া আক্তার (৩৮) ও তার মেয়ে ছাওদা জেনি (০৫)কে কুপিয়ে হত্যা করে মনির হাওলাদার ও তার লোকজন। হত্যার পরের দিনই মনিরসহ তার তিন ভাইকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তিনমাস কারাভোগের পরে তারা জামিনে মুক্ত হয়। পরবর্তীতে পিবিআই বাগেরহাট মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পায়। পরবর্তীতে চলতি বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি ওই মামলার এজাহারভুক্ত আসামী পাপিয়ার স্বামী মোঃ আবু জাফর হাওলাদার (৩৯), ভাসুর আবু তালেব হাওলাদার (৫৫) ও তার স্ত্রী আসমা বেগম (৪৫) এবং পাপিয়ার আরেক ভাশুর মোঃ আবু বক্কার হাওলাদার আদালতে আত্মসম্পর্ন করেন। পরে পিবিআই এর তদন্তকারী কর্মকর্তা তাদেরকে হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে এসব চাঞ্চল্যকর তথ্য। 

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে আসামীদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। 


আরও খবর



তানোরে এমপিকে গণ সংবর্ধনা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮৪জন দেখেছেন

Image

আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহী -১ আসনে টানা চতুর্থ বারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় এমপি ফারুক চৌধুরী কে গণ সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে তানোর  উপজেলার পাঁচন্দর ইউনিয়ন ( ইউপি) আ"লীগ ও সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে প্রানপুর পাঠাকাটা বালিকা স্কুল মাঠে ইউপি দক্ষিণ ইউপি  শাখার সভাপতি আব্দুল মতিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় গণ সংবর্ধনা। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন এমপি ফারুক চৌধুরী। শেষ বিকেলের দিকে উপজেলার কলমা ইউনিয়ন ইউপির দরগাডাংগা স্কুল মাঠে কলমা ইউপির পূর্ব শাখার সভাপতি আব্দুর রহিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় গণ সংবর্ধনা। সন্ধ্যার পর কামারগাঁ ইউনিয়ন ইউপির ছাঐড় বালিকা স্কুল মাঠে ইউপি চেয়ারম্যান ইউপি দক্ষিণ শাখার সভাপতি ফজলে রাব্বি ফরহাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন আওয়ামী ও সহযোগী সংগঠন।


সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না, সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রদীপ সরকার, কামারগাঁ ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান উত্তর শাখার সভাপতি আলাউদ্দিন প্রামানিক, সম্পাদক নির্মল সরকার, পাঁচন্দর উত্তর শাখার সভাপতি হাজী ইসরাইল হোসেন, সম্পাদক একরামুল, কলমা ইউপি পশ্চিম শাখার সভাপতি শিক্ষক মুনসুর রহমান, সম্পাদক আতাউর রহমান, পূর্ব শাখার সম্পাদক শিক্ষক আনোয়ার হোসেন, কলমা ইউপি সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি তানভীর রেজা, কামারগাঁ ইউপি উত্তর শাখার যুবলীগ সভাপতি সাফিউল ইসলাম, সম্পাদক হায়দার আলী প্রমুখ।

আরও খবর



স্বতন্ত্র এমপিদের গণভবনে ডাকলেন শেখ হাসিনা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার:দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদের সরকারি বাসভবন গণভবনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী ২৮ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদের এমপিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেন ।

তিনি জানান, আগামী রোববার (২৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সেখানে নতুন সংসদ সদস্যদের সুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নিজেও এমপিদের শুভেচ্ছা গ্রহণ করবেন।  


উল্লেখ্য, এবারের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে ২২২ জন এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ৬২ জন, যাদের প্রায় সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। আর জাতীয় পার্টি থেকে ১১ জন, কল্যাণ পার্টি, ওয়ার্কার্স পার্টি ও জাসদ থেকে একজন করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

আরও খবর