Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

পরীক্ষা চলাকালে ঢাবি ছাত্রীদের মুখ-কান খোলা রাখতে হবে: আপিল বিভাগ

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ২৮৯জন দেখেছেন

Image

আদালত প্রতিবেদক:ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে পরীক্ষা ও প্রেজেন্টেশন চলাকালে প্রত্যেক ছাত্রীর কানসহ মুখ খোলা রাখার নোটিশ বহাল রেখেছন আপিল বিভাগ। পাশাপাশি এ বিষয়ে জারি রুল দুই মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতেও হাইকোর্টকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মো. নুরুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ এই আদেশ দেন

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন। রিটের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার বেলায়েত হোসেন; সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মো. ফয়জুল্লাহ ফয়েজ।

আদেশের পরে ফয়জুল্লাহ বলেন, আপিল বিভাগ বলেছেন- যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু মুখ-কান খোলা রাখা যাবে।

গত ২৮ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে পরীক্ষা ও প্রেজেন্টেশন চলাকালে প্রত্যেক ছাত্রীর কানসহ মুখ খোলা রাখার নোটিশের কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি রুলও জারি করা হয়। পরে ৭ মে হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনটি শুনানির জন্য আপিল বিভাগে পাঠিয়ে দেন চেম্বার আদালত। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার আদেশ দেন আপিল বিভাগ।

এর আগে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে পরীক্ষা ও প্রেজেন্টেশন চলাকালে প্রত্যেক ছাত্রীর কানসহ মুখ খোলা রাখার নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। ভুক্তভোগী তিন শিক্ষার্থীর পক্ষে আইনজীবী মো. ফয়জুল্লাহ ফয়েজ এ রিট দায়ের করেন।

গত বছরের ১১ ডিসেম্বর বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান সৈয়দ মো. আজিজুল হক স্বাক্ষরিত নোটিশে বলা হয়, বাংলা বিভাগের সব শিক্ষার্থীকে জানানো যাচ্ছে, ২০২২ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত বাংলা বিভাগের একাডেমিক কমিটি সর্বসম্মতভাবে নিম্নোক্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুযায়ী বাংলা বিভাগের প্রতি ব্যাচের সংযোগ ক্লাস (টিউটোরিয়াল প্রেজেন্টেশন), মিডটার্ম পরীক্ষা, চূড়ান্ত পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষার সময় পরীক্ষার্থীকে পরিচয় শনাক্ত করার জন্য কানসহ মুখমণ্ডল পরীক্ষা চলাকালীন দৃশ্যমান রাখতে হবে।

পরে অপর এক নোটিশে একই বিষয়ে বলা হয়, ‘লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, কোনো কোনো শিক্ষার্থী এই সিদ্ধান্ত পালনে শৈথিল্য দেখাচ্ছে। এই সিদ্ধান্ত যথাযথভাবে যারা পালন করবে না তাদের ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ পরে ওই নোটিশের কার্যকারিতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিটটি দায়ের করা হয়।


আরও খবর



মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ বাড়লো

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৬৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মোবাইলফোনের কল রেটের ওপর সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটে। এতে গ্রাহকদের মোবাইলফোনে কথা বলার খরচও বাড়বে।

আগে মোবাইলফোনের কল রেটের ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট এবং ১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক দিতে হতো গ্রাহকদের। এখন তা আরও ৫ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। এর সঙ্গে ভোক্তাদের ১ শতাংশ সারচার্জ দিতে হবে।

নতুন করে সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়ানোয় একজন গ্রাহক এখন ১০০ টাকার রিচার্জ করলে ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক কেটে নেওয়ার পর ৬৯ টাকা ৩৫ পয়সার কথা বলতে পারবেন। আগে ১০০ টাকা রিচার্জ করলে ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক কেটে নেওয়ার পর গ্রাহকরা ৭৩ টাকার কথা বলতে পারতেন। অর্থাৎ ১০০ টাকা রিচার্জে আগের চেয়ে ৩ টাকা ৬৫ পয়সার কথা কম বলতে পারবেন গ্রাহকরা।

আগে মোবাইলফোনের কল রেটের ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট এবং ১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক দিতে হতো গ্রাহকদের। এখন তা আরও ৫ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। এর সঙ্গে ভোক্তাদের ১ শতাংশ সারচার্জ দিতে হবে।

এদিকে প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণার পরপরই নতুন এ শুল্ক হার কার্যকর করবে মোবাইলফোন অপারেটরগুলো। জানা যায়, বাজেট ঘোষণার জন্য অর্থমন্ত্রী জাতীয় সংসদে বক্তব্য দেওয়া শুরু করলেই এ সংক্রান্ত আদেশ (এসআরও) পাঠানো হয়। ফলে বৃহস্পতিবার (৬ জুন) বিকেল ৩টার পর থেকেই নতুন হারে গ্রাহকের কাছ থেকে কর কর্তন শুরু করা হতে পারে।


আরও খবর



দুদককে সময় চেয়ে বেনজীরের স্ত্রী ও মেয়ের চিঠি

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদের স্ত্রী ও দুই মেয়ে সময় চেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) চিঠি দিয়েছেন। রোববার (৯ জুন) দুদকে তাদের পক্ষে এ চিঠি দেওয়া হয়।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানের জন্য বেনজীর আহমেদের স্ত্রী জিশান মির্জা, বড় মেয়ে ফারহিন রিশতা বিনতে বেনজীর ও ছোট মেয়ে তাহসিন রাইসা বিনতে বেনজীরকে আজ তলব করেছিল দুদক। এরই পরিপ্রেক্ষিতে দুদকে সময় চেয়ে চিঠি দেন তারা।

গত ১৮ এপ্রিল বেনজীর আহমেদের বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অনুসন্ধানে নামে দুদক। পরে দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বেনজীর আহমেদ, তার স্ত্রী ও সন্তানদের নামে থাকা স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোক ও ফ্রিজের আদেশ দেন আদালত।

এদিকে, ঢাকা মেট্রোপলিটন সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আশ-শামস জগলুল হোসেন বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের স্থাবর সম্পত্তি দেখভালের জন্য তত্ত্বাবধায়ক নিয়োগের আদেশ দিয়েছেন।

আদেশ অনুযায়ী, বেনজীরের সাভারের সম্পত্তি দেখবেন সেখানকার ইউএনও এবং গোপালগঞ্জের মাছের খামার দেখবেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা। এ ছাড়া মাদারীপুর ও কক্সবাজারের সম্পত্তি দেখাশোনা করবেন সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক।


আরও খবর



নবীনগরের সাতঘর হাটি নিজের খামারি মহিষের আক্রমণে যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ১৬৮জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মদ হেদায়েতুল্লাহ  নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি:ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের সাতঘর হাটি গ্রামের মোঃ ছালাম মিয়ার ছেলে মোঃ সোহাগ মিয়া(৩০) নিজের খামারি মহিষের আক্রমণে মৃত্যু হয়,

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্যমতে সোহাগ মিয়া দীর্ঘদিন প্রবাসে থেকে বাড়ীতে এসে প্রায় দু মাস আগে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন, দীর্ঘ দিন ধরে সোহাগের বাবা খামারি মহিষের ব্যবসা করে আসছেন,জীবিকার তাগিদে তার বাবার একটি মহিষের খামারে সোহাগ মিয়া মহিষ গুলোকে দেখা শোনা করতেন, প্রতিদিনের মতো আজও সোহাগ মিয়া সকাল আনুমানিক ১০ঘটিকার সময় খামারের কাছে আসিলে কিছু বুঝে ওঠার আগেই দুটি মহিষ পাগলা হয়ে সোহাগ মিয়ার উপর অতর্কিত ভাবে আক্রমণ করেন, এতে ঘটনাস্থলেই সোহাগ মিয়ার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



তানোরে সাব রেজিস্ট্রি অফিসে প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৭জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে সাব রেজিস্ট্রি অফিসের নকল নবিশ ও দলিল লেখকদের অভ্যন্তরীন দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষে একদিন ব্যাপি  প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার  দিনব্যাপী  সাব রেজিস্ট্রি অফিস চত্বরে অনুষ্ঠিত হয় প্রশিক্ষণ কর্মশালা। সকাল সাড়ে নয়টার দিকে প্রশিক্ষণ কর্মশালার শুভ উদ্ধোধন করেন তানোর অফিসের সাব রেজিস্ট্রার ইয়াসির আরাফাত। দলিল পরিচিতি, নিবন্ধন আইনের ৫২ ক ধারা, নিবন্ধন বিধিমালার বিধি ২০ এর বিধানাবলি ও দলিল লিখন পদ্ধতি এবং নকল নবিশ গণ কর্তৃক আদায়কৃত ফিস, নকল নবিশ গণের অনুলিপি কাজ বাবদ অর্থ আদায়, পরিশোধ করণ বিধিমালা ২০১৮, পাওয়ার অব অ্যাটর্নি আইন -২০১২, পাওয়ার অব অ্যাটর্নি  বিধিমালা ২০১৫ বিষয়ে বিস্তর আলোচনা করেন মোহনপুর সাব রেজিস্ট্রি অফিসের সাব রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহের। দলিল লেখক সনদ বিধিমালা ২০১৪, রেকর্ড সংরক্ষণ ও বিনষ্টকরণ, রেকর্ডরুম ব্যবস্থাপনা বিষয়ে উন্মুক্ত আলোচনা করেন সাব রেজিস্ট্রার ইয়াসির আরাফাত। এসময় দলিল লেখক সমিতির সিনিয়র সহসভাপতি ওবাইদুর রহমান দুলাল, সম্পাদক গোলাম রাব্বানী, সহসভাপতি রায়হান, আলহাজ্ব আব্দুস সামাদ, আলহাজ্ব খায়রুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ সোহেল রানা, নকল নবিশ শাহাদাত হোসেন, জাহাঙ্গীর আলমসহ দলিল লেখক সদস্য ও নকল নবিশ এবং অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর



সৈয়দপুরে চালকের গলা কেটে হত্যাচেষ্টা, ইজিবাইক ছিনতাই

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image
জহুরুল ইসলাম খোকন সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফামারীর সৈয়দপুরে আশরাফুল আলম জার্মান(১৮) নামে এক যুবককে গলা কেটে ইজিবাইক ছিনতাই করার খবর পাওয়া গেছে । মঙ্গলবার ৪ জুন রাত আনুমানিক প্রায় সাড়ে ১১টায় উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের চান্দিয়ার ব্রীজের নিকট দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার ফতেজংপুর ইউনিয়নের যত্রঘু এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আশরাফুল সৈয়দপুর শহরের মিস্ত্রিপাড়া হায়দার আলীর ছেলে। বুধবার ৫ জুন সকালে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম। 

পুলিশ জানায়, সৈয়দপুর শহর থেকে যাত্রীবেশে ৪ ছিনতাইকারী আশরাফুলের ইজিবাইকে ওঠে। তারা শহরের বিভিন্ন স্থান ঘুরে দিনাজপুরের ফতেজংপুর যাওয়ার জন্য ওই পথে যান। এরপর উল্লেখিত স্থানে নিয়ে গিয়ে তারা আশরাফুলের গলাকেটে হত্যার চেষ্টা চালায় এবং ইজিবাইক ছিনিয়ে পালিয়ে যায় । স্থানীয়রা তাকে আহত অবস্থায় ওই যুবককে ভুট্টা ক্ষেত থেকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়। পরে তারা আশরাফুলকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক রাত সাড়ে বারোটায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। এদিকে ঘটনার পর পরই নীলফামারীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সৈয়দপুর সার্কেল) কল্লোল কুমার দত্ত, সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহা আলম ও চিরিরবন্দর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। 

ওসি শাহা আলম বলেন, চিরিরবন্দর থানা পুলিশসহ আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। চিরিরবিন্দর থানা পুলিশ আলামত সংগ্রহ করেছে। সৈয়দপুর ও চিরিরবন্দর থানা পুলিশ যৌথভাবে ঘটনাটি যৌথভাবে তদন্ত করছে।তদন্ত শেষ হলেই ব্যবস্হা নেয়া হবে বলে জানান তিনি। 

আরও খবর