Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

স্বর্ণের দাম কমল দেশের বাজারে

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২৯৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দেশের বাজারে স্বর্ণের দা‌ম কমা‌নোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। প্রতি ভরি ভালো মানের স্বর্ণের দাম কমানো হয়েছে ১ হাজার ৭৪৯ টাকা। নতুন দাম নির্ধারণ করা হ‌য়ে‌ছে ৯৬ হাজার ৬৯৫ টাকা।

আগামীকাল সোমবার থেকে স্বর্ণের নতুন দাম কার্যকর করা হবে। আজ রোববার এ তথ্য জানায় বাজুস।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, স্থানীয় বাজারে তেজাবী স্বর্ণের দাম কমেছে। তাই সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতি স্বর্ণের নতুন দাম নির্ধারণ করেছে, যা ২৯ মে থেকে কার্যকর হবে।

নতুন মূল্য অনুযায়ী, সব থেকে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম ১ হাজার ৭৪৯ টাকা কমিয়ে ৯৬ হাজার ৬৯৫ টাকা করা হয়েছে।

এ ছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৬৩৩ টাকা কমিয়ে ৯২ হাজার ৩২১ টাকা করা হয়েছে। ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৪০০ টাকা কমিয়ে ৭৯ হাজার ১৪০ টাকা করা হয়েছে। আর সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৬৫ হাজার ৯৬০ টাকা করা হয়েছে।

এর আগে, গত ১৬ এপ্রিল দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়। তার আগে ১১ এপ্রিল দাম কিছুটা কমানো হয়। তবে ২ এপ্রিল দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়। সব থেকে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৫১৬ টাকা বাড়িয়ে ৯৯ হাজার ১৪৪ টাকা করা হয়েছে।

এতে ভালো মানের এক ভরি স্বর্ণের গয়নার দাম লাখ টাকা ছাড়ি যায়। কারণ, বাজুস নির্ধারণ করা দামের ওপর ৫ শতাংশ ভ্যাট যোগ করে স্বর্ণের গয়না বিক্রি করা হয়। সেই সঙ্গে মজুরি ধরা হয় নূন্যতম ৩ হাজার ৪৯৯ টাকা। ফলে ২২ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের গয়না কিনতে ১ লাখ ৭ হাজার ৭৭৫ টাকা গুনতে হয় ক্রেতাদের। দেশের বাজারে এটিই স্বর্ণের সর্বোচ্চ দাম।

রেকর্ড ওই দাম নির্ধারণের পর ১১ এপ্রিল সব থেকে ভালো মানের স্বর্ণের দাম ভরিতে ১ হাজার ৯৮৩ টাকা কমানো হয়। সেই সঙ্গে কমানো হয় অন্যান্য স্বর্ণের দামও। তবে পাঁচ দিনের মাথায় ১৬ এপ্রিল আবার স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়।

দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ানোর পর আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দামে বড় পতন হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে এখন দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম কিছুটা কমানোর ঘোষণা এলো।


আরও খবর



মান্দায় বিদ্যালয়ের টিন শিক্ষক ও দপ্তরীর পেটে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image

এম এম হারুন আল রশীদ হীরা; নওগাঁ:নওগাঁর মান্দায় নিয়ম বহির্ভূত ভাবে রেজুলেশন ছাড়াই "উপজেলার ২৫ নং মান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের" টিন বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মান্দা সদর ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্য জিন্নাতুন নেছা ২৬মে অভিযুক্ত দুই শিক্ষকসহ দপ্তরীর বিরুদ্ধে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।অভিযুক্ত শিক্ষকরা হলেন, অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সুরুচী রানী হাওলাদার, সহকারি শিক্ষক খায়রুল আলম ও দপ্তরী সাইফুল ইসলাম। 

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, কয়েক মাস পূর্বে উপজেলার ২৫ নং মান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণের সময় পুরাতন ভবনটি ভেঙে ফেলার কারণে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের সুবিধার জন্য ঢেউটিন দিয়ে তিনটি রুম তৈরি করা হয়েছিল। নতুন ভবনের কাজ শেষ হয়ে গেলে, টিনের তৈরি তিনটি কক্ষ পরিত্যাক্ত হয়ে পড়ে। এমতাবস্থায় কয়েকদিন পূর্বে অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ও সহকারি শিক্ষক পরিত্যাক্ত শ্রেণী কক্ষের টিনগুলো গোপনে বিক্রি করে দেয়। বিষয়টি জানা জানি হলে প্রধান শিক্ষিকা নিজেকে বাঁচাতে এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে দেখানোর জন্য রাতারাতি কিছু পুরাতন টিন ক্রয় করেন।

স্কুলের টিন ক্রেতা ভাঙ্গারী ব্যাবসায়ী মামুন বলেন, শিক্ষক খায়রুলের কাছ থেকে  সাড়ে ৩ মন টিন ৮ হাজার টাকায় ক্রয় করেছিলাম। এর পর হঠাৎ করে আমাকে  পুরাতন টিন কেনার জন্য খায়রুল মাস্টার ২৫০০ টাকা দেয় । আমি পুরাতন টিন না পেয়ে তাকে টাকা ফেরত দিয়েছি। তাদের জন্য আমি মিথ্যা বলে ঝামেলায় জড়াতে চাইনা।

প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষিকা সুরুচী রানী হাওলাদার বলেন, নিয়ম মেনে টিন বিক্রি করা হয়েছে। বিক্রিত টিনের টাকা সভাপতির নিকট জমা রাখা হয়েছে বলে তিনি আরও বলেন, আপনাদের যা করার করতে পারেন। এ বিষয়ে আপনাদের আর কিছু বলতে চাইনা।

টিন বিক্রির বিষয়টি স্কুলের সভাপতি শামীম হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ৭ থেকে ৮ হাজার টাকার টিন বিক্রি করে সেই টাকা ব্যাংকে জমা রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কেউ এবিষয়ে কিছু জানেন কিনা এমন প্রশ্ন তিনি এড়িয়ে যান।

এ ব্যাপারে দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা এ্যাডওয়ার্ড সরেন বলেন, টিনগুলো গুছিয়ে রাখতে বলা হয়েছিল। টিন বিক্রিয় করে থাকলে  তিনি অপরাধ করেছেন। টিন বিক্রির বিষয়ে আমি অবগত নই।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল বাশার শামসুজ্জামান বলেন, রেজুলেশন বা কোন প্রকার নিলাম ছাড়াই টিন গোপনে বিক্রিয় করার বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি । ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হবে। সত্যতা পাওয়া গেলে অবশ্যই জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ঈদুল আজহা উদযাপিত

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৫৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজধানীর পান্থপথেও সৌদি আরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে এবার। আজ রবিবার পান্থপথের একটি কনভেনশন সেন্টারে এই জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল সাড়ে ৭টায় কনভেনশন সেন্টারে শিশু ও নারীসহ মুসল্লিরা জামাতে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন। নামাজ শেষে একে অপরের সঙ্গে কোলাকুলি করে ভাগাভাগি করে নেন ঈদ আনন্দ। এ ঈদ উদযাপনে অংশ নেন দেশে অবস্থানরত বিদেশি মুসলিমরাও।

নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিরা জানান, সারা পৃথিবীতে ঈদ হচ্ছে সে হিসেবে আমরাও পালন করছি। এর আগেও ঈদ পালন করেছি।

এদিকে আজ চাঁদপুর, দিনাজপুর, মৌলভীবাজার, চট্টগ্রাম, ঝিনাইদহ ও বরিশালের বেশ কয়েকটি স্থানে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের একটি অংশের মুসল্লিরা ঈদের নামাজ আদায় করেছেন।

প্রতিবারের মত এ বছরও মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উদযাপন করছে চাঁদপুরের ৫০টি গ্রামের মানুষ। আজ সকালে পবিত্র ঈদুল আজহার জামাত আদায়ের মাধ্যমে এ উদযাপন করছেন।

আজ সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে হাজীগঞ্জে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় সাদ্রা দরবার শরীফের পীরজাদা আরিফ চৌধুরী সাদ্রাভী নামাজ ও দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন।

বাংলাদেশে জাতীয়ভাবে ঈদুল আজহা আগামীকাল সোমবার নির্ধারিত হলেও দেশের কিছু জায়গায় আজ উদযাপিত হচ্ছে ঈদ। বহু বছর ধরে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি ইসলামিক দেশের সঙ্গে মিল রেখে দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের একটি অংশ ঈদ জামাতে অংশ নেন।


আরও খবর



সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর ও শাহজাদপুরে পৃথক বজ্রপাতে তিন জন নিহত

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৮৪জন দেখেছেন

Image
রাকিব সিরাজগঞ্জ থেকে:সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরের বেতিল চরে বজ্রপাতে দুইজন নিহত হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরো একজন। অপরদিকে শাহজাদপুরেও বজ্রপাতে একজন নিহত হয়েছে।

নিহতরা হলেন, এনায়েতপুর থানার বেতিল চর এলাকার আবু তারার ছেলে দুই সন্তানের জনক আলামিন(২৮) ও খামার গ্রামের আঃ হাকিমের ছেলে মারুফ হোসেন (১৪)।  নিহত মারুফ হোসেন বেতিল স্কুল এন্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ও শাহজাদপুরের চর পোরজনা এলাকার
জয়নালের ছেলে আব্দুস সালাম (৩৭)। এদিকে আহত বেতিল চরের ময়েন উদ্দিনের ছেলে সিয়াম (৭) ও বেলাল হোসেনের ছেলে মেহেদি হাসান (৮) কে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এনায়েতপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক ও স্থানীযরা জানান আজ মঙ্গলবার বিকালে এনায়েতপুর থানার বেতিল স্পার বাধ সংলগ্ন বেতিল চরে ক্রিকেট খেলার সময় বজ্রপাতে বৃষ্টি শুরু হয় তখন হঠাৎ করে বজ্রপাত হলে শিশু সহ ৪জন ঝলসে যায়। এরপর তাদের স্থানীয় খাজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ২ জনকে মৃত ঘোষনা করে।অপরদিকে শাহজাদপুরের চর পোরজনা এলাকার আব্দুস সালাম তার জমি থেকে ধানের বোঝা মাথায় নিয়ে বাসায় ফেরার সময় নিহত হয়। 

এদিকে তাদের আকস্মিক মৃত্যুতে স্বজন ও এলাকাবাসীর মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




পত্নীতলায় উন্মুক্ত বাজেট সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ১৩৭জন দেখেছেন

Image
দিলিপ চৌহান, পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:পত্নীতলায় উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট সভা রবিবার ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত উন্মুক্ত বাজেট সভায় কৃষ্ণপুর ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ইউনিয়ন পরিষদের অন্যান্য সদস্যবর্গ এবং উক্ত ইউনিয়নের গনমান্য ব্যাক্তিবর্গ সহ উপস্থিত ছিলেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর ইউনিয়ন সমন্বয়কারী হামিদুল ইসলাম প্রমুখ।

এসময় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম উপস্থিত জনতার সামনে ইউনিয়নে ২০২৪-২৫ অর্থ বছরে যে কাজগুলো বাস্তবায়ন হয়েছে সেগুলো উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন ২০২৪-২৫ অর্থ-বছরের রাজস্ব আয় মোট অনুদান প্রাপ্তি ৪২ লক্ষ ৭৭ হাজার ৭২২, মোট রাজস্ব ব্যায় ৪২ লক্ষ ৭৭ হাজার ৭২২ এবং উন্নয়ন হিসাব প্রাপ্ত আয় ২ কোটি ৯১ লক্ষ ১৮ হাজার ৭০০ ও উন্নয়ন হিসাব প্রাপ্ত ব্যায় ২ কোটি ৯১ লক্ষ ১৮ হাজার ৭০০।

আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




ফুলবাড়ীর আলাদীপুর ইউনিয়নে রাস্তার বেহাল অবস্থা, দেখার কেউ নেই

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুর জেলা ফুলবাড়ী উপজেলার আলাদীপুর ইউপির বড় ভিমলপুর গ্রামের পাকা রাস্তাটিতে বৃষ্টির পানি জমে থাকায় এলাকাবাসী চরম দূর্ভোগে পড়েছে। গ্রামবাসীর অভিযোগে জানা যায় বড়ভিমলপুর গ্রামে মৃত্যু জহির উদ্দীন এর পুত্র মোঃ আবু মুসা ও মৃত আব্বাস উদ্দীনের পুত্র মোঃ হাসেম আলী দীর্ঘদিন ধরে ড্রেন বন্ধ করে রাখায় বর্ষাকালে এবং শীতকালে গ্রামের বাড়ীর পানি বাহির না হওয়ায় সমস্যায় পড়েছে গ্রামবাসীরা। গ্রামবাসীরা আরও অভিযোগ করে বলেন, পূর্বের নির্মাণকৃত ড্রেনগুলির নিচু হওয়ায় আর্বজনা জমে ভরাট হয়ে গেছে। এভাবে প্রায় তিনশতাধিক বাড়ীর পানি আটকে থাকছে। মূল ড্রেনের পানি বাহির হওয়ার কোন রাস্তা না থাকায় বর্ষার পানি বাড়ীতে ঢুকে পড়ছে। মসজিদের মুসল্লিরা মসজিদে নামাজ পড়তে যেতে পারছে না। মূল রাস্তাটির পাশ দিয়ে একটি ড্রেন নির্মাণ করে পাকা রাস্তার ব্রীজের মূখে নিয়ে গিয়ে দিলে গ্রামবাসীর বাড়ীর পানি ঐ ড্রেন দিয়ে বাহির হয়ে যাবে। এতে গ্রামবাসীরা উপকৃত হবে। কিন্তু গ্রামের গুটি কয়েক লোকের কারণে শতাধিক গ্রামবাসী ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা মোঃ আতাউর রহমান মিল্টন ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিদর্শন করে ড্রেন নির্মাণের আস্বাস দিলেও প্রতিপক্ষরা ড্রেন নির্মাণে বাঁধা প্রদান করেন। যার কারণেই সেখানে ড্রেন নির্মাণ করা সম্ভব হয় নি বলে ্এলাকাবাসী জানান। বিষয়টি দ্রুত তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে গ্রামবাসী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। 



আরও খবর