Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

মধুপুরে কৃষি জমিতে মাটি কাটার মহোৎসব

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ডিসেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৩৪৯জন দেখেছেন

Image

বিশেষ প্রতিনিধি মধুপুর টাঙ্গাইল 

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় চলছে ফসলি জমিতে মাটি কাটার মহোৎসব। 

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অমান্য করে প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে ফসলি জমিতে মাটি কাটার প্রতিযোগিতা।

জানা যায়, মধুপুরে মাটি ব্যবসায়ী সমিতির মাধ্যমে বিভিন্ন এলাকায় চলছে ফসলি জমিতে মাটি কাটা। মাটি ব্যবসায়ীগন সমিতির মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা দিয়ে অনুমতি নিয়ে বিভিন্ন পয়েন্টে বেকু বসিয়ে ফসলি জমির উর্বর মাটি কেটে বিক্রি করছেন স্থানীয় ইট ভাটায়। 


ফলে কৃষি জমি আবাদে অনুপযোগী হয়ে পড়ছে বলে জানান ভুক্তভোগী কৃষকগন। মাটি ব্যবসায়ীগন কৃষকদের ভুল বুঝিয়ে এক ফিট গর্ত করে মাটি কাটার কথা বলে ৩/৪ ফিট গভীর গর্ত করে মাটি কেটে নিচ্ছে যার ফলে পাশের ফসলি জমি সেই গর্তে ভেঙে বিলীন হয়ে পড়ছে।পরবর্তীতে সেই আবাদি জমির মাটি বিক্রি করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকেনা কৃষকের। 


এভাবেই কৃষকের হাজার হাজার একর ফসলি জমি ডোবা নালায় পরিনত হচ্ছে। দিনরাত মাটির গাড়ি যাতায়াতের কারণে এলাকার নতুন পাকা রাস্তা ভেঙে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। 

বিশেষ করে উপজেলার কুড়ালিয়া, আলোকদিয়া, আউশনারা, মহিষমারা, মির্জাবাড়ী, পিরোজপুর, কুড়াগাছা, গোলাবাড়ি ইউনিয়ন সহ পৌরসভা এলাকায় চলছে ফসলি জমিতে মাটি কাটার প্রতিযোগিতা।


এলাকার বাসিন্দারা জানান, দিনরাত মাটির গাড়ি চলাচলের কারণে ঘরবাড়ি দোকানপাট রান্না করা খাবার ধূলায় ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এসব খাবার খেয়ে ছোট বড় সব বয়সের মানুষের ডায়রিয়া সহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। ভুক্তভোগীরা জানান,উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে বারবার জানানোর পরেও তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি।

কুড়ালিয়া কেওটাই এলাকার গ্রামবাসী রাস্তায় শুয়ে মাটির গাড়ি বন্ধের জন্য প্রতিবাদ জানায় পরে সেই পয়েন্ট থেকে বেকু উঠিয়ে নিতে বাধ্য হয় মাটি ব্যবসায়ীগন। কুড়ালিয়া সহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ মাটির গাড়ি চলাচল বন্ধ না করলে অচিরেই মানববন্ধন করে এর প্রতিবাদ জানাবে বলে জানান।


বিশিষ্টজনেরা বলছেন, এ বছরের মতো ফসলি জমিতে মাটি কাটার মহোৎসব অতীতে আর চোখে পড়েনি। এ বছর প্রশাসনিক ভাবে কোন ব্যবস্থা না নেওয়ার কারনে মাটি ব্যবসায়ীগন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।


প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী এক ইঞ্চি জায়গাও অনাবাদি রাখা যাবেনা, সেই  নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে কাদের অনুমতিতে এই আবাদি  জমির মাটি কাটা হচ্ছে তা আমাদের বোধগম্য নয়। 

প্রশাসন এ বিষয়ে অতিদ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন না করলে দেশের কৃষিখ্যাত ধ্বংসের মুখে পড়বে বলে জানান বিশিষ্টজনেরা।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর



সিরাজগঞ্জে বাবা-মা ও মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৩৫জন দেখেছেন

Image
রাকিব সিরাজগঞ্জ থেকে:সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা সদরের বারোয়ারি বটতলা মহল্লার নিজ বাড়িতে একই পরিবারের তিনজন কে কুপিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে ।

নিহতরা হলেন তাড়াশ পৌর এলাকার কালিচরণ সরকারের ছোট ছেলে বিকাশ সরকার (৪৫), তাঁর স্ত্রী স্বর্ণা রানী সরকার(৪০) ও মেয়ে তাড়াশ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী পারমিতা সরকার তুষি (১৫)।

নিহতের বড়ভাই প্রকাশ সরকার তাড়াশ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ।পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হত্যাকারীরা পরিকল্পিত ভাবে গোপনে তাদের কে হত্যা করে ফ্লাটে তালা লাগিয়ে দিয়ে যায়। স্বজনরা দুদিন যাবত তাদের  খোঁজ না পেয়ে  পুলিশ কে খবর দিলে পুলিশ সোমবার দিবাগত রাত তিন টার দিকে তালা ভেঙ্গে মেঝেতে ও বিছানায় তাদের লাশ দেখতে পায়। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত পুলিশ বাড়িটি ঘিরে রেখেছে।

তা[ড়াশ থানার ওসি ( তদন্ত) মো: নূরে আলম বলেন, নিহতের স্বজনরা জানায়, তাদেরকে গত দুইদিন ধরে  না পেয়ে স্বজনরা মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে বাসায় গিয়ে বাইরে থেকে তালা ঝোলানো দেখতে পেয়ে পুলিশ কে খবর দিলে, পুলিশ তালা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে দেখতে পায় তাদের কে কুপিয়ে ও জবাই হত্যা করা হয়েছে।

স্বজনদের ধারনা রোববারের রাত থেকে সোমবার দিনের কোন এক সময়ে এ হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়ের করার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

আরও খবর



সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আ'লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. আব্দুর রাশেদ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image

মো. রুবেল মিয়া:-

আসন্ন উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে জনসমর্থন নিয়ে সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হয়েছেন এড. আব্দুর রাশেদ  তিনি উপজেলা আওয়ামী সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা এড.  আব্দুর রাশেদ। তিনি সরাইল সদর ইউনিয়নের কুট্টাপাড়া গ্রামের প্রয়াত আব্দুল আলীর ছেলে৷তিনি একজন জনবান্ধব নেতা ও  যোগ্য ব্যক্তি।


সকল শ্রেণি পেশার মানুষ এড. আব্দুর রাশেদ কে  উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়।মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার লক্ষ্যে তিনি চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন। তিনি পেশায় একজন সিনিয়র আইজীবী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ। ইতিমধ্যে উপজেলার বিশিষ্টজনেরা উনাকে সমর্থন দিয়েছেন।


গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী এড. আব্দুর রাশেদ বলেন, মানুষের জীবন মানের উন্নতি ও আধুনিক সরাইল উপজেলা গড়তে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছি।আমি জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত মানুষের কল্যাণে কাজ করতে চাই।তিনি আরও বলেন, আমি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে গরীব-দুঃখী ও অসহায়  মানুষের কল্যাণে কাজ করব। সমাজে ন্যায় বিচার ও শান্তি প্রতিষ্ঠা করব।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



এগিয়ে ইমরানের সমর্থকরা ২৫০ আসনের ফলাফলে

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:সবচেয়ে বেশি আসন দখলে নিয়েছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা, পাকিস্তানে গণপরিষদ নির্বাচনে ২৬৫ আসনের মধ্যে ২৫০টির ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে পাকিস্তান নির্বাচন কমিশনের (ইসিপি) ওয়েবসাইট থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) পাকিস্তানে জাতীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়। এরপর থেকে শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাত ৬টা পর্যন্ত ঘোষিত ফলে দেখা যাচ্ছে, এবারের নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি ৯৯ আসনে জয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। যাদের প্রায় সবাই পিটিআইয়ের সমর্থন নিয়ে নির্বাচনে লড়েছেন। যদিও এককভাবে সরকার গঠনে প্রয়োজন ১৩৪ আসন।

বাকি আসনগুলোর মধ্যে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) পেয়েছে ৭১টি আসন। প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর দল পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) দখলে গেছে ৫৩টি আসন। এ ছাড়া অন্যান্য দলের দখলে গেছে ২৭টি।

এদিকে, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের তুলনায় পরিষ্কার ব্যবধানে পিছিয়ে থাকলেও সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং পিএমএল-এন নেতা নওয়াজ শরিফ বলেছেন, সাধারণ নির্বাচনে তার দল ‘একক বৃহত্তর দল’ হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।

তবে সরকার গঠনের জন্য দলটি একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না স্বীকার করে বিলাওয়াল ভুট্টোর পিপিপিসহ মাওলানা ফজলুর রহমান ও মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্টের খালিদ মকবুল সিদ্দিকীকে জোট সরকার গঠনের প্রস্তাব দেন।

গতকাল শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে লাহোরে সমর্থকদের উদ্দেশে এক ভাষণে নওয়াজ বলেন, আমরা সব দল এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ম্যান্ডেটকে সম্মান করি।

তিনি আরও বলেন, সব দলের দায়িত্ব একসঙ্গে সরকার গঠন করা এবং পাকিস্তানকে বর্তমান সংকট থেকে বের করে আনা। আমরা যদি সবাই একসঙ্গে কাজ করি, তবেই পাকিস্তান এই সংকট থেকে বেরিয়ে আসবে।

তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ বলেন, পাকিস্তানের অন্তত ১০ বছরের স্থিতিশীলতা দরকার। যারা সংঘাতের মেজাজে আছেন, তাদের বলতে চাই—আমরা কোনো লড়াই চাই না।

তিনি বলেন, আমাদের সবাইকে একসঙ্গে বসে সমস্যা সমাধান করতে হবে এবং পাকিস্তানকে একবিংশ শতাব্দীতে নিয়ে যেতে হবে। কিন্তু ভুলের কারণে আমরা তা আগে করতে পারিনি।

এ সময় পিএমএল-এন একক দল হিসেবে সরকার গঠনের অবস্থানে নেই স্বীকার করে নওয়াজ তার সাবেক জোটের শরিকদের একসঙ্গে বসে ঐক্য সরকার গঠন করার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, আমি শেহবাজ শরিফকে আজ রাতে এই বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার দায়িত্ব দিয়েছি। আমি তাকে আসিফ আলী জারদারি, মাওলানা ফজলুর রহমান ও খালিদ মকবুল সিদ্দিকীর সঙ্গে দেখা করতে বলেছি।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের মোট আসনসংখ্যা ৩৩৬টি। এর মধ্যে ২৬৬ আসনে সরাসরি ভোট হয়। এ ছাড়া বাকি ৭০টি আসন সংরক্ষিত। এসব আসনের মধ্যে ৬০টি নারীদের ও ১০টি সংখ্যালঘুদের।


আরও খবর

সোনার খনি ধসে ভেনেজুয়েলায় নিহত ২৩

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




হাসপাতালে শয্যা সংকট,মেঝেতেও হচ্ছে না ঠাঁই

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৩জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নান, নাসিরসগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে দেখা দিয়েছে শয্যা সংকট,মেঝেতেও হচ্ছেনা ঠাঁই।সরেজমিন হাসপতালে গিয়ে দেখা গেছে এমনই চিত্র।

হাসপাতালে সীট না পেয়ে রােগীদের মেঝেতে শুয়ে চিকিৎসা নিতে দেখা যাচ্ছে।হাতপাতাল সুত্রে জানা গেছে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল হলেও এখানে প্রতিদিন ৮০ থেকে ৯০ জন রোগীকে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

অতিরিক্ত রোগীর চাপ সামলাতে ডাক্তার আর নার্সদের খেতে হচ্ছে হিমশিম।এমন হওয়ার কারন কি জানতে চাইলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়,এখানে ডাক্তারদের ব্যবহার,পর্যাপ্ত ঔষধ পত্র আর সেবার মান ভাল হওয়া পার্শ্ববর্তী সরাইল,লাখাই,মাধবপুর,অষ্টগ্রাম থেকেও চিকিৎসা নেয়ার জন্য রোগীরা আসেন।

আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আর,এম,ও) ডাঃ সাইফুল ইসলাম জানান উক্ত হাসপাতালে আউটডোরে প্রতিদিন প্রায় ৫ থেকে ৬ শ রোগী দেখতে ডাক্তারদেন হিমশিম খেতে হচ্ছে। নাসিরনগর হাসপাতালের চিকিৎসকদের  মাঝে ডাক্তার অভিজিৎ রায়,ডাক্তার মোঃ সাইফুল ইসলাম,ডাক্তার জীবণ চন্দ্র দাস,ডাক্তার মৌমিতা বসাকের চিকিৎসা ব্যবস্থা অন্যতম।তাই হাসপাতালের শয্যা সংকট দুর করতে স্থানীয়রা মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সৈয়দ একে একরামুজ্জামজন এমপি সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সু দৃষ্টি কামনা করছেন।


আরও খবর



বাগেরহাটে প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৮জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ ও ঝুকিপূর্ণ শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় উপজেলার খাউলিয়া এলাকার কুলসুমগনী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রে  দাতা সংস্থা জার্মানির দিয়াকোনি ক্যাটাস্ট্রোফেনহিল্প (ডিকেএইচ) এর অর্থায়নে খ্রিষ্টিয়ান কমিশন ফর ডেভেরপমেন্ট ইন বাংলাদেশ (সিসিডিবি)‘র স্টেপ এ্যান্ড বিল্ডইন প্রকল্পের পক্ষ থেকে এই কম্বল বিতরণ করা হয়।

কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, খাউলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার মোঃ সাইদুর রহমান। এসময় খাউলিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড সদস্য মোঃ কামরুজ্জামান, সিসিডিবি‘র প্রকল্প ব্যবস্থাপক মি. মুকুট ফ্রান্সিস হালদার, ফিল্ড সুপারভাইজার মোঃ জলিলুর রহমানসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও উপকারভোগীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিন স্থানীয় শীতার্তদের মাঝে ৬‘শ কম্বল বিতরণ করা হয়। তীব্র শীতে কম্বল পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন  দরিদ্ররা।



আরও খবর

গাংনীতে বালাইনাশক ব্যবহারে উদাসিন কৃষকরা

শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪