Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

দেশের বাজারে ‘অসাম’ সিরিজের গ্যালাক্সি এ২৪ উন্মোচন করল স্যামসাং

প্রকাশিত:সোমবার ২১ আগস্ট ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৫৪৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:স্যামসাং এর ‘অসাম’ সিরিজের বহুল প্রতীক্ষিত স্মার্টফোন গ্যালাক্সি এ২৪ উন্মোচন করেছে। স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৬.৫ ইঞ্চি এফএইচডি+ সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে, ওআইএস ও ভিডিআইএস সহ ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা এবং ফ্ল্যাগশিপ অনুপ্রাণিত ডিজাইন সহ আরও অনেক কিছু। ব্যবহারকারীদের স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে নতুন গ্যালাক্সি এ২৪। স্যামসাংয়ের নতুন গ্যালাক্সি এ২৪ -এ রয়েছে লাইট গ্রিন, সিলভার ও ডার্ক রেড, এই তিনটি অনন্য রঙের ফ্ল্যাগশিপ অনুপ্রাণিত ডিজাইন। ব্যবহারকারীদের জন্য দুর্দান্ত ও আকর্ষণীয় ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে ডিভাইসটির ডিসপ্লে। পাশাপাশি, এর ১০০০ নিটস ব্রাইটনেস সারাদিন, এমনকি প্রচণ্ড সূর্যের আলোতেও ব্যবহারকারীদের নিরবচ্ছিন্নভাবে কনটেন্ট দেখার সুযোগ করে দিবে। ক্যামেরার ক্ষেত্রে বলা যায়, ফোনটিতে ৫০ মেগাপিক্সেল ওআইএস মেইন ক্যামেরা, ৫ মেগাপিক্সেল আলট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রোক্যামেরা ও ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। মানসম্পন্ন পোর্ট্রেট, ট্রেন্ডিং সেলফি ও নানারকম ফটোগ্রাফি বা ঝকঝকে ভিডিও, সবই এই নতুন গ্যালাক্সি এ২৪ -এ করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। পাশাপাশি, ডিভাইসটিতে সুপার-ফাস্ট চার্জিং এর সাথে ৫,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের সুবিশাল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। স্যামসাং ফ্যানরা এখন ব্যাটারি ফুরিয়ে যাওয়ার দুশ্চিন্তা করা ছাড়াই গেমস খেলা বা মুভি সহ অন্যান্য পছন্দের কনটেন্ট দেখতে পারবেন আরও স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে। এ ছাড়াও, হেলিও জি৯৯ ৬ ন্যানোমিটার প্রসেসর, সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সহ আরও অনেক আকর্ষণীয় ফিচারে ভরপুর গ্যালাক্সি এ২৪ ডিভাইস। এ বিষয়ে স্যামসাং মোবাইলের হেড অব এমএক্স বিজনেস বলেন, “বাংলাদেশের বাজারে স্যামসাংয়ের লেটেস্ট ডিভাইস গ্যালাক্সি এ২৪ নিয়ে আসতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। এই স্মার্টফোনের আকর্ষণীয় ফিচারগুলো ব্যবহারকারীরা উপভোগ করবেন বলে আমরা আশাবাদী। আমরা এ ধরনের স্মার্টফোন আরও নিয়ে আসতে ও ফোন ব্যবহারের সামগ্রিক অভিজ্ঞতাকে আরও সমৃদ্ধ করতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছি।” একই প্রাইস-রেঞ্জের ফোনগুলোর মধ্যে ব্যবহারোপযোগিতা আর আকর্ষণীয় ফিচারের কারণে গ্যালাক্সি এ সিরিজের হ্যান্ডসেটগুলো অন্যতম জনপ্রিয় স্মার্টফোনে পরিণত হয়েছে। বিগত বছরগুলোতে নানান অফার নিয়ে এসেছে এই সিরিজের ফোনগুলো, এরই ধারাবাহিকতায় এবার নিয়ে আসা হয়েছে নতুন গ্যালাক্সি এ২৪। ডিভাইসটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ৩৭,৯৯৯ টাকা। সরাসরি অভিজ্ঞতা নিতে ফ্যানরা নিকটস্থ স্যামসাং অনুমোদিত স্টোর অথবা স্যামসাং বাংলাদেশের ফেসবুক পেইজ থেকে ঘুরে আসতে পারেন।


আরও খবর



বাংলাদেশিদের জন্য ভুটান ভ্রমণে সুখবর

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১২৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ভুটান ভ্রমণ নীতি সংশোধন করেছে বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য । দেশটির পর্যটন বিভাগ জানিয়েছে, নতুন ভ্রমণ নীতি অনুযায়ী, বাংলাদেশি পর্যটকদের টেকসই উন্নয়ন ফি (এসডিএফ) হিসেবে শুধুমাত্র ১৫ মার্কিন ডলার দিতে হবে, যা আগে ২০০ ডলার ছিল।

সোমবার (৩ জুন) এ তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য ভুটান এখন যে ফি নির্ধারণ করেছে, সেটা ভারতীয় পর্যটকদের ওপর আরোপিত ফির সমতুল্য। নতুন নীতিমালার আওতায় ১৫ হাজার বাংলাদেশি পর্যটক বার্ষিক ১৫ মার্কিন ডলার কম খরচে ভুটান ভ্রমণ করতে পারবেন। ভিসা নীতি গত ২ জুন থেকে কার্যকর হয়েছে।

বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ সম্পর্ক আরও সুসংহত হয়েছে।


আরও খবর



ঈদের দিন বৃষ্টির পূর্বাভাস

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:১৭ জুন পবিত্র ঈদুল আজহা। গত এক সপ্তাহের বেশি সময় থেকে সারাদেশে বৃষ্টির আভাস দিয়ে আসছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সে অনুযায়ী, ঈদের দিনও দেশের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি সম্ভাবনা রয়েছে।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ শাহনাজ সুলতানা সংবাদমাধ্যমকে বলেন, সারাদেশে কমবেশি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে ঈদের দিনও বৃষ্টি হবে এটা স্বাভাবিক। তবে অঞ্চলভেদে বৃষ্টির পরিমাণ কমবেশি হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রামে বিভাগে বৃষ্টির সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। এই অঞ্চলগুলোতে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বৃষ্টি হতে পারে। ঢাকা বিভাগের কয়েকটা জেলায় সামান্য পরিমাণে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে, রাজশাহী খুলনা ও বরিশালে খুবই সামান্য বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।ঈদের পর থেকে সারাদেশে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে বলে জানান আবহাওয়াবিদ শাহিনুল ইসলাম। ঈদের দিন তাপমাত্রা নিয়ে তিনি বলেন, যে অঞ্চলে বৃষ্টির সম্ভাবনা কম সে জায়গায় তাপপ্রবাহ থাকবে। সে অনুযায়ী খুলনা, বরিশাল, রাজশাহীতে তাপপ্রবাহ থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।


আরও খবর



ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত মেধাবী শিক্ষার্থী তাসলিমা চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১২০জন দেখেছেন

Image
সাইদুর রহমান মাগুরা থেকে:স্ত্রী আর তিন সন্তান নিয়ে টেনেটুনে সংসার চলছিল জুয়েল হোসেনের। ভ্যান চালিয়ে যা আয় হয়, তা দিয়ে চলত জুয়েলদের পরিবার। এরই মধ্যে তাঁর আদরের বড় কন্যা তাসলিমার দেহে বাসা বাঁধে মরণব্যাধি ব্লাড ক্যানসার। ক্যানসার আক্রান্ত মেয়েকে নিয়ে দিশেহারা জুয়েল ও রাশিদা দম্পতি। হাতপায়ের ব্যাথায় বাড়িতে বিছানায় ছটফট করলেও অর্থাভাবে মিলছে না তাসলিমার চিকিৎসা। 

 নহাটা রাণী পতিত পাবনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী তাসলিমা৷ মাগুরা জেলার মহম্মদপুর উপজেলার নহাটা ইউনিয়নের ইন্দ্রপুর গ্রামে বসবাস তাদের। জেলা সদর থেকে শুরু করে দেশের নামীদামী সব হাসপাতালে চিকিৎসার একপর্যায়ে তাসলিমার ঠাঁই হয় ঢাকা মেডিকেলের হেমাটোলজি ডিপার্টমেন্টে।  বহু পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে জানা যায় তাসলিমা ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত। নিজেদের সামান্য অর্থ, ধারদেনা, আত্মাীয়স্বজনের সহায়তা ও স্থানীয়দের আর্থিক অনুদানে পরীক্ষা- নিরীক্ষা আর হাসপাতালে ঘুরতে ঘুরতে সব শেষ। 

জরুরি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা না দিলে বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়বে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। তাসলিমার চিকিৎসা এগিয়ে নিতে কমপক্ষে দুই লাখ টাকার প্রয়োজন। সেই অর্থ জোগাড়ের উপায়ন্তর না দেখে সংকটাপন্ন মেয়ে ও পরিবার নিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছেন জুয়েল। 

তাসলিমার জীবন বাঁচাতে সে তার সহপাঠী, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী, দেশে এবং প্রবাসে অবস্থিত বিত্তবান ও মানবিক মানুষদের কাছে অর্থ সহায়তা চেয়েছে।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা
সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর ০১০০২২২৭৯৫৩৮৩। 

আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সরকারি চাকরির শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ পরিসংখ্যান সহকারীর বিরুদ্ধে

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬৯জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার:ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার শোলাবাড়ি গ্রামের মৃত শাহজাহান মিয়ার ছেলে বদিউজ্জামান বাদল ওরফে মোঃ বাদল মিয়া (৪২) এর বিরুদ্ধে সরকারি চাকরি শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার  মো: ফয়সাল হোসেন।

দূর্নীতি দমন কমিশন ও জন প্রশাসন মন্ত্রনালয়ে করা অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, মোঃ বাদল মিয়া বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো এর ব্রাহ্মণবাড়িয়া কার্যালয়ের পরিসংখ্যান সহকারী পদে চাকরিতে কর্মরত আছে। বাদল মিয়া রাজনীতি করে পূর্ব থেকেই। সে চাকরি পাওয়ার পরেও পূর্বের ন্যায় রাজনীতিতে সক্রিয় আছে। রাজনীতির সকল অনুষ্ঠানে সে সবসময় উপস্থিত থাকে। যে কোন নির্বাচনে বাদল মিয়া সরাসরি কোন প্রার্থীর পক্ষে নিয়ে নির্বাচনের মাঠে ভোট নিয়ে প্রার্থীর পক্ষে কাজ করে। ভোটারদের কাছে ভোট চায়।

সম্প্রতি বাদল মিয়া পানিশ্বর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবে বলে প্রচার করতাছে। সে তার শুভাকাঙ্ক্ষীদেরকে দিয়ে ফেইসবুকে এ বিষয়ে পোস্ট দেওয়াচ্ছেন। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে ঘোষণা করেছেন।

অভিযোগ, বাদল মিয়া চাকরি করে অবৈধভাবে অঢেল সম্পদের মালিক হয়েছেন। বাদল মিয়ার ফেইসবুক আইডি ঘুরলে দেখা যায় সে বর্তমানে রাজনীতিতে সক্রিয় ভাবে জড়িত আছে। নির্বাচনে ভোটারদের কাছে প্রার্থীর জন্য ভোট চাচ্ছেন। আগামী নির্বাচনে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবে প্রচার করছেন ফেইসবুকে।

সরকারি কর্মচারী ( আচরণ) বিধিমালা – ১৯৭৯ এর ২৫ নম্বর ধারা অনুযায়ী কর্মকর্তা – কর্মচারীরা কোন রাজনৈতিক দল বা অঙ্গসংগঠনের সদস্য হতে পারবে না। রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ বা কোনো ধরনের সহায়তা করতে পারবে না।২০০৮ সালের সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালায় ও সরকারি চাকরিজীবীদের ভোটের প্রার্থীর অংশগ্রহণ বা সহায়তা করার বিষয়ে নিষেধ রয়েছে। এছাড়া নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের` গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ `- এর ২০২১ সালের ২৮ জুন জারি করা প্রজ্ঞাপনের(চ) ধারায় বলা হয়েছে, সরকারি চাকরি থেকে অবসরের পর তিন বছর পর না হওয়া পর্যন্ত কোনো সরকারি কর্মকর্তা – কর্মচারী কোনো ধরনের নির্বাচন বা রাজনৈতিক দলের সদস্য নির্বাচিত হতে পারবেন না।

এ বিষয়ে, সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এমন আচরণ চাকরিবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। তাঁরা জনগণের কাছ থেকে বেতন-ভাতা পেয়ে থাকেন এবং তাঁরা কোনো দলের কর্মী নন।

এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে বাদল মিয়ার সাথে কথা বলে জানতে চাইলে,তিনি বলেন একজনের ব্যাক্তি পছন্দ থাকতেই পারে।অনেক সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারীর ফেসবুকেই এমন পোষ্ট দেখতে পাবেন।চেয়ারম্যানের বিষয় হয়তো আমার শুভাকাঙ্খিরা পোষ্ট করেছেন।তবে এমন সিদ্বান্ত নিলে চাকুরী ছেড়েই নেব বলে জানান বাদল মিয়া।

      -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানোর ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন বাংলাদেশি কর্মীরা মালয়েশিয়া যেতে না পারার জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে।

বুধবার (৫ জুন) জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুর সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান সরকারপ্রধান। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়।

মুজিবুল হক চুন্নুর সম্পূরক প্রশ্নে- নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে মালয়েশিয়ায় লোক পাঠানোর ব্যর্থতা কার জানতে চান। জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কর্মসংস্থানের জন্য যাওয়া স্বাভাবিক বিষয়। অনেকেই যেয়ে থাকে। মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানোর বিষয়ে কী সমস্যা হয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বৈদেশিক কর্মসংস্থানে সরকার সহযোগিতার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কিছু লোক দালালের মাধ্যমে করে, দালালের মাধ্যমে যেতে চায়। যেতে গিয়ে সমস্যায় পড়ে। এতে সমস্যা তৈরি হয়।

মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠাতে সরকার বিশেষ ফ্লাইট চালু করেছিল বলে উল্লেখ করে সরকারপ্রধান বলেন, বিশেষ ফ্লাইট, অন্যান্য ফ্লাইটের সঙ্গে সংযুক্ত করে সবাইকে পাঠানো হয়েছে। কিন্তু অনেকেই বাদ পড়ে গেছে। বাদ পড়ার কারণ কি সেটা অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, যখনই আমরা আলোচনা করে ঠিক করি কত লোক যাবে, কীভাবে যাবে। তখনই দেখা যায় আমাদের দেশের এক শ্রেণির লোক, যারা জনশক্তির ব্যবসা করে, তারা তড়িঘড়ি করে লোক পাঠানোর চেষ্টা করে। এদের সঙ্গে মালয়েশিয়ার কিছু লোকও সংযুক্ত আছে। যার ফলে জটিলতার সৃষ্টি হয়। প্রতিবারই যখন সরকার আলোচনা করে সমাধানে যায়। তখনই কিছু লোক ছুটি যায়, একটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। যারা যায় তাদের কাজের ঠিক থাকে না, চাকরিও ঠিক থাকে না, বেতনের ঠিক থাকে না, সেখানে গিয়ে বিপদে পড়ে। এটা শুধু মালয়েশিয়া না, অনেক জায়গায় ঘটে।

বার বার আমি দেশবাসীকে বলেছি জমিজমা, ঘরবাড়ি বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা খরচ করার দরকার নেই। যদি দরকার হয় প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণ নিতে পারে। প্রয়োজনবোধে বিনা-জামানতে ঋণ দেওয়া হয়। সেখানে তাকে সুনির্দিষ্ট করতে হবে সে যে যাচ্ছে তার চাকরিটা সুনির্দিষ্ট কিনা, এটা হলে ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে পারবে।

সরকারপ্রধান বলেন, তারপরও আমাদের দেশে কিছু মানুষ আছে, কে আগে যাবে, সেই দৌড় দিতে যেয়ে হাতা-খাতা বাড়ি-ঘর সব বিক্রি করে তারপরে পথে বসে। অথবা সেখানে যদি চলেও যায় বিপদে পড়ে। সবাইকে বলেছি, এভাবে না যেতে। নিয়ম মেনে গেলে বিপদের সৃষ্টি হয় না। এবার যে সমস্যা হচ্ছে তা আমরা খতিয়ে দেখছি, কেউ দায়ী থাকলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর