Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

বিশ্বকাপের শিরোপার লড়াইয়ে টস জিতল অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২৩৬জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:ভারত-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার ফাইনাল দিয়ে বিশ্বকাপের পর্দা নামছে আজ। ৫ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া আসরের শেষ হচ্ছে আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে। পাঁচবারের বিশ্বকাপজয়ী অস্ট্রেলিয়ার প্রতিপক্ষ দুইবার বিশ্বকাপজয়ী দল ভারত।

অজিদের লক্ষ্য ষষ্ঠ আর ভারতের লক্ষ্য তৃতীয় বিশ্বকাপ শিরোপা। তার আগে আহমেদাবাদে টস জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক প্যাট কামিন্স।

টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্যাট কামিন্স বলেন, 'উইকেট দেখতে অনেকটা শুষ্ক এবং আমরা প্রথমে বল করতেই চেয়েছিলেন। শিশির একটি কারণ এবং এখানে রাতে বেশ শিশির থাকে। আমি দল নিয়ে সত্যিই গর্বিত। টুর্নামেন্টের শুরুটা কঠিন কিন্তু এরপর তারা আর ভুল করেনি। সেমিফাইনালের যারা খেলেছে তারাই খেলছে আজ।

আগে ব্যাটিং পেয়ে রোহিত শর্মা বলেন, 'আমি আগে ব্যাটিং নিতাম। বড় ম্যাচ। আমাদের গুছানো এবং শান্ত থাকতে হবে। এটি দুর্দান্ত অনুভূতি এবং আমি গতকাল প্রেস কনফারেন্সে বলেছিলাম- ফাইনালে দলের অধিনায়কত্ব করা একটি স্বপ্ন, যা এখন সত্য। আমরা একই দল নিয়ে খেলছি।

ভারত: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শুভমান গিল, বিরাট কোহলি, শ্রেয়াস আইয়ার, কেএল রাহুল (উইকেটরক্ষক), সূর্যকুমার যাদব, রবীন্দ্র জাদেজা, মোহাম্মদ শামি, জাসপ্রীত বুমরাহ, কুলদীপ যাদব, মোহাম্মদ সিরাজ।

অস্ট্রেলিয়া: ট্র্যাভিস হেড, ডেভিড ওয়ার্নার, মিচেল মার্শ, স্টিভেন স্মিথ, মারনাস লাবুসচেন, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, জশ ইঙ্গলিস (উইকেটরক্ষক), মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিন্স (অধিনায়ক), অ্যাডাম জাম্পা, জশ হ্যাজেলউড।


আরও খবর



রূপগঞ্জে ভূমিসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সভা/ র‍্যালী অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭০জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ভূমিসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র ্যালী করা হয়েছে। গতকাল ৮ জুন শনিবার  রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সে থেকে র ্যালীটি বের করে উপজেলা পরিষদের আশপাশের সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা পরিষদের সভা কক্ষে  আলোচনা সভা হয় অনুষ্ঠিত হয় । 

উপজেলা ভূমি অফিস আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান মাহমুদ রাসেল। সভায় বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ-১ রূপগঞ্জ সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিমন সরকার, উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত  চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব, রূপগঞ্জ উপজেলার প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন প্রমূখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভূমি অফিসের কানোনগো মোঃ কামরুল হাসান ভুইয়া, সার্ভেয়ার মশিউর রহমান, প্রধান সহকারী মো: মামুন হোসেন, নাজির মোঃ নাসির উদ্দীন, সায়রাত সহকারী ইমরান হোসেন, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস উপ সহকারী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের  সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আতাউর রহমান, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ, তারাবো পৌর ভূমি সহকারী কর্মকর্তা  আব্দুল কাদির, কেন্দুয়া ভূমি অফিসের সহকারী ভূমি  কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ, দাউদপুর ইউনিয়ন সহকারী  ভূমি কর্মকর্তা মিজানুর রহমানসহ ভূমি অফিসের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ। 

 -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১৩৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জানিয়েছেন ২০২৪-২৫ অর্থবছরে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হবে এবং মধ্যমেয়াদে তা বেড়ে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে পৌঁছাবে বলে।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) বিকেল ৩টায় জাতীয় সংসদে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বাজেট উপস্থাপন বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এমনটি জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বাংলাদেশের গড় প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৬ দশমিক ৭১ শতাংশ, যা বিশ্বের সব দেশের মধ্যে অন্যতম সর্বোচ্চ। উচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে দেশের অর্থনীতি বর্তমানে কিছুটা চাপের সম্মুখীন হলেও প্রাজ্ঞ ও সঠিক নীতিকৌশল বাস্তবায়নের ফলে জিডিপি প্রবৃদ্ধির গতিধারা অব্যাহত রয়েছে।

মাহমুদ আলী বলেন, কোভিড-১৯ অতিমারির পূর্বের বছরে অর্থাৎ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে রেকর্ড ৭ দশমিক ৮৮ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছিল। রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট এবং অন্যান্য বৈশ্বিক অস্থিরতার ফলে সৃষ্ট সব প্রতিকূলতা সত্ত্বেও বাংলাদেশ ২০২১-২২ অর্থবছরে ৭ দশমিক ১০ শতাংশ, ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৫ দশমিক ৮ শতাংশ এবং ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ (সাময়িক) প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম হয়েছে; যা আমাদের অর্থনীতির অন্তর্নিহিত শক্তির পরিচায়ক।

তিনি বলেন, জিডিপি প্রবৃদ্ধির এ গতি আগামীতে ধরে রাখার লক্ষ্যে কৃষি ও শিল্প খাতের উৎপাদন উৎসাহিত করতে যৌক্তিক সকল সহায়তা চলমান থাকবে। পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো প্রকল্পসমূহের যথাযথ বাস্তবায়ন এবং রপ্তানি ও প্রবাস আয় বৃদ্ধির লক্ষ্যে সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ কাঙ্কিত মাত্রায় জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনে সহায়ক হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আশা করছি আমাদের এ সকল প্রাজ্ঞ নীতিকৌশলের সুফল হিসেবে আগামী অর্থবছরে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অজিত হবে এবং মধ্য মেয়াদে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে পৌছাবে।


আরও খবর



মাগুরার শ্রীপুরে ৩ ইউপি সদস্যকে পেটালেন চেয়ারম্যান ও তার লোকজন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬৮জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার ৪ নং শ্রীপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মশিয়ার রহমান ও তার লোকজন বুধবার দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদের তিনজন নির্বাচিত সদস্যকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে।ইউপি সদস্যগণ হলেন, মদনপুর ওয়ার্ডের আব্দুল আলিম, খড়িবাড়িয়া ওয়ার্ডের আব্দুল মজিদ এবং তখলপুর ওয়ার্ডের মকবুল হোসেন। 
আব্দুল আলিম ও আব্দুল মজিদ গুরুতর আহত অবস্থায় শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

আহত ইউপি সদস্য আব্দুল আলিম জানান, নির্বাচনের পর থেকে গত আড়াই বছর তাদেরকে পরিষদের ঢুকতে দেয়া হতো না। সরকারের বিভিন্ন ধরনের উন্নয়নমূলক কার্যক্রম তাদেরকে বাদ দিয়ে চেয়ারম্যানের পছন্দের লোক দিয়ে করানো হয়। কিছুদিন ধরে তারা পরিষদে যাওয়া আশা করলেও তাদের দিয়ে কোনো কাজ করানো হয় না। তাই বুধবার দুপুরে তারা তিনজন ইউনিয়ন পরিষদে যান। গিয়ে তারা মাতৃত্বকালীন ভাতাসহ বিভিন্ন ভাতার বিষয়ে তাদেরকে বাদ দিয়ে তাদের প্রতিপক্ষদের দিয়ে তালিকা করা ও ভাতা প্রদান করার বিষয়টি বাদ দিতে বলেন। তারা নির্বাচিত সদস্য হলেও মদনপুর ওয়ার্ডে ছাত্রদলের সাবেক উপজেলা সভাপতি বাবলু মিয়া, খড়িবাড়িয়া ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী আব্দুল মতিন ও তখলপুর ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী কাজী আব্দুর রউফকে দিয়ে কাজ করাতে নিষেধ করেন। এতে চেয়ারম্যান ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে আব্দুল আলীমকে তিল ঘুষি মারতে শুরু করেন। এ সময় চেয়ারম্যানের কক্ষে থাকা তার অনুসারী বুলেট ও আশরাফুল তাদেরকে কিল ঘুষি মারতে শুরু করেন। 

পরে চেয়ারম্যানের কক্ষে থাকা হকস্টিক দিয়ে তাদের তিনজনকে মারতে শুরু করে। 
এ সময় ইউপি সদস্য মকবুল হোসেন প্রাণ বাঁচাতে দৌঁড় দিলে তাকে গেট থেকে চেয়ারম্যানের লোকজন মারধর করে। এদিকে আব্দুল মজিদকেও আটকিয়ে মারধর করে।পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স  ভর্তি করেন। 
আব্দুল আলীমের মাথায় হকিস্টিকের প্রচন্ড আঘাত লেগেছে। 

এ ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়লে মদনপুর ও শ্রীপুর গ্রামের চেয়ারম্যানের প্রতিপক্ষের লোকজন মশিউর রহমানের বাড়ি ঘরে ইট ছোড়ে । অপরদিকে চেয়ারম্যানের লোকজনও তিন তলার ছাদ থেকে প্রতিপক্ষের লোকজনের ওপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে তৈয়ব খান ও আব্দুল হান্নান নামে দুই যুবলীগ নেতা আহত হয়।  

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ তাসমীম আলম বলেন, এ বিষয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ তিনি পাননি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া নেবেন। 
এ ঘটনার পর এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




অপরাধীদের বাঁচাতে তদবির হচ্ছে: আনারকন্যা ডরিন

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৮০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:অপরাধীদের বাঁচাতে তদবির হচ্ছে দাবি করেছেন,এমপি আনোয়ারুল আজীম আনারের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন ।কোনো তদবিরের চাপে বাবা হত্যার বিচার যাতে বন্ধ না হয়। হত্যার যাতে সঠিক বিচার হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামালের সঙ্গে দেখা করে এসব দাবি জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার (১২ জুন) বিকেলে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন এমপিকন্যা ডরিন। পরে সংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

ডরিন বলেন, কোনো তদবিরের চাপে বাবা হত্যার বিচার যাতে বন্ধ না হয়, সেই দাবি জানিয়েছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেছি যে, আমার বাবা হত্যাকাণ্ডের শিকার, সেটার যাতে সঠিক বিচার হয়, সঠিক বিচারটা যাতে আমাকে নিশ্চিত করা হয়, সেই দাবি জানিয়েছি।

আনারের মেয়ে আরও বলেন, এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এরইমধ্যে অনেককে আটক করা হয়েছে। অপরাধীদের বাঁচাতে অনেক জায়গা থেকে তদবির করা হচ্ছে। তাদের যেন ছেড়ে দেওয়া হয়।

কোনো তদবিরের চাপে পড়ে এ হত্যাকাণ্ডের বিচার যাতে বন্ধ করার চেষ্টা না করা হয়, চাপের মুখে যাতে সঠিক তদন্ত বন্ধ করা না হয়, সঠিক বিচার পান সেই দাবি জানিয়েছেন বলে জানান।

ডরিন বলেন, গিয়াস বাবু নামে যাকে আটক করা হয়েছে, তিনি বাবার প্রতিপক্ষ না। আমাদের সঙ্গে তার কোনো শত্রুতাও নেই। আমার মনে অনেক প্রশ্ন জাগছে। গত মাসের ১৭ তারিখে তার সঙ্গে ভাঙায় দেখা হয়েছে। সেখানে একটা টাকা দেওয়ার লেনদেনের কথা উঠেছে, যা আমি খবরে শুনেছি। আমার কথা হলো, এ টাকার যোগানদাতা কে? কেন তারা এটা করিয়েছে? আপনারা দেখেছেন, তাকে আটকের আগে থানায় তিনি জিডি করেছেন যে, তার তিনটি ফোন হারিয়ে গেছে। একই দিনে একজন মানুষের তিনটি ফোন কীভাবে হারিয়ে যায়, সেটাও আমার প্রশ্ন। এগুলো কী পরিকল্পিতভাবে করা হয়েছে, সে তো আমার বাবার শত্রু না। এই কাজগুলো কে করাচ্ছে, সেটা আমি বারবার বলেছি।

তিনি বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডিবি নিয়ে গেছে। অবশ্যই তাদের কাছে সত্যিকারের কোনো তথ্যপ্রমাণ আছে, সেটা আমি নিজেও জানি। সেই প্রমাণের সাপেক্ষেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আসলে এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আইনে যেভাবে বলা হয়েছে, সেভাবে যাতে আমার বাবার হত্যার বিচার করা হয়, আমি সেই দাবি জানিয়েছি। আমি শুনেছি, অনেক তদবির করা হচ্ছে। অনেক বড় বড় জায়গা থেকে ফোন আসছে, তাদের ছাড়িয়ে নেওয়ার জন্য।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সঠিক বিচাররের আশ্বাস দিয়েছেন জানিয়ে ডরিন বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, এক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। যেটা আইনে আসবে, যেটা সত্য ও সেটার বিচার হবে। আমি বিশ্বাস করি, অপরাধীদের তিল পরিমাণ ছাড় দেন না প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে চুয়াডাঙ্গার দর্শনার গেদে সীমান্ত দিয়ে ভারতে যান সংসদ সদস্য আনার। ওঠেন পশ্চিমবঙ্গে বরাহনগর থানার মণ্ডলপাড়া লেনে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে। পরদিন ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। এরপর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন আনোয়ারুল আজিম।

২২ মে জানা যায়, কলকাতার পাশের নিউটাউন এলাকায় সাঞ্জিভা গার্ডেনস নামে একটি আবাসিক ভবনের বিইউ ৫৬ নম্বর রুমে সংসদ সদস্য আনার খুন হয়েছেন। ঘরের ভেতর পাওয়া যায় রক্তের ছাপ। তবে ঘরে মেলেনি মরদেহ।


আরও খবর



নেপালে আটক সিয়াম কলকাতা সিআইডির হেফাজতে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | ৮২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শুক্রবার (৭ জুন) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান জানান।

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যা মামলায় নেপাল থেকে গ্রেপ্তার আরেক আসামিকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে কলকাতা সিআইডি।তিনি জানান, কলকাতা সিআইডি এই হত্যা মামলাটি তদন্ত করছে। তাদের কাছে দুইজন আসামি আছে।

একজনকে তারা নেপাল থেকে নিয়েছে। আরেকজনকে আগেই গ্রেপ্তার করেছে।ডিএমপি কমিশনার জানান, আনার হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত একজন নেপালে পালিয়ে ছিলেন। পরে তাকে নেপাল পুলিশ আটক করে। কলকাতার সিআইডি তাকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

অবশ্য এই আসামির নাম উল্লেখ করেননি ডিএমপি কমিশনার। তবে, দেশের গোয়েন্দা সূত্র বলছে, এই আসামি হলেন নেপালে পালিয়ে থাকা সিয়াম।আনার হত্যার বিচার কোন দেশে হবে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে হাবিবুর রহমান বলেন, সেখানে ঘটনা তদন্ত সংঘটিত হয়, সেখানেই তদন্ত হয়। এটি একটি সেট রুল। কিন্তু আমাদের বাংলাদেশের আইনেও বলা আছে, বিদেশে যদি কেউ অপরাধ করে থাকে, সেক্ষেত্রে সেই অপরাধীকে আমরা বাংলাদেশে এনে বিচার করতে পারি...। আমরাও তদন্ত করছি, তারাও (কলকাতা) তদন্ত করছে। একপর্যায়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়ে যেকোনো জায়গায় এই বিচারটি হতে পারে।

এমপি আনার হত্যা মামলায় সিয়াম ছাড়াও আরও পাঁচজন আসামি গ্রেপ্তার হয়েছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশে গ্রেপ্তাররা হলেন, আমানুল্লা সাঈদ ওরফে শিমুল ভুঁইয়া ওরফে শিহাব ওরফে ফজল মোহাম্মদ ভুঁইয়া, তানভীর ভুঁইয়া ও সেলেস্টি রহমান। ভারতে গ্রেপ্তার হয়েছেন জিহাদ ও আরেকজন।

এর আগে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যায় অন্যতম সন্দেহভাজন মো. সিয়াম হোসেন নেপালে আটক হওয়ার খবর পায় ডিবি। পরে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদের একটি দল নেপালে যায়। গত মঙ্গলবার দেশে ফিরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন ডিবি প্রধান হারুন। আটক সিয়ামকে নেপাল থেকে নেওয়ার জন্য ভারতও চেষ্টা করছে বলে জানান তিনি।


আরও খবর