Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

ধর্ষণের পর হত্যার যশোর রেললাইনে লাশ ফেলে যায় আঁখির সৎ বাবা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৭৩জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান : যশোরের বারীনগরে আফিল ফিলিং স্টেশনের পেছনের রেললাইন থেকে উদ্ধার হওয়া যুবতীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে লাশ ফেলে যায় তার সৎ বাবা। মেয়েটির নাম আঁখি। নিহত আখির বাড়ি ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার দড়িয়াপাড়া গ্রামে। ডিবি পুলিশের জালে তার সৎ পিতা মিন্টু আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করেছে। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে লাশ উদ্ধার হয়।

ডিবির এসআই মফিজুল ইসলাম জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িত সৎ বাবাকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

উল্লেখ্য, সোমবার সকালে যশোর সদর উপজেলার বারীনগর বাজারের আফিল ফিলিং স্টেশনের পেছনের রেল লাইনের পাশ থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবতীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। তারা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে কোতোয়ালি থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। লাশ শনাক্তের পর ঘাতক সৎ বাবা মিন্টুকে পুলিশ আটক করেছে।


আরও খবর



দেশের সেরা মার্চেন্ট ব্যাংক হিসেবে “স্বাধীনতা সুবর্ণ জয়ন্তী পুরস্কার ২০২৩” পেল প্রাইম ব্যাংক

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড (পিবিআইএল) বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কর্তৃক স্বাধীনতা সুবর্ণ জয়ন্তী পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে।। ২০২৩ সালে পুঁজিবাজারে উল্লেখযোগ্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ কোম্পানিটি মার্চেন্ট ব্যাংক বিভাগে প্রথম পুরস্কার অর্জন করেছে।।

গত ২২ মে ২০২৪ তারিখে, পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি এর কাছ থেকে মার্চেন্ট ব্যাংক বিভাগের প্রথম পুরস্কার

গ্রহণ করেন প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও জনাব সৈয়দ এম ওমর তৈয়ব। এই অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশেষ অতিথি মাননীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান এমপি, অনুষ্ঠানের সভাপতি বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম এবং বিএসইসির কমিশনারগণ, কর্মকর্তাবৃন্দ ও পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কোম্পানীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ।

পুরস্কার গ্রহণের পর জনাব ওমর তৈয়ব বলেন এই সম্মানজনক পুরস্কার পেয়ে আমরা গর্বিত। এটি আমাদের গ্রাহকদের সর্বোচ্চ মানের ও উদ্ভাবনী সেবা প্রদানের প্রতি আমাদের অঙ্গীকারের প্রতিফলন এবং আমাদের কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি। আমরা সর্বোত্তম কর্পোরেট গভার্ন্যান্স অনুসরণ করি এবং আমাদের কর্পোরেট সংস্কৃতি গ্রাহক কেন্দ্রীকতা, উদ্ভাবন ও টেকসই পারফরম্যান্সকে প্রাধান্য দেয়।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সম্মানিত পরিচালনা পর্ষদ, গ্রাহক, প্রাইম ব্যাংক ও প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট এর সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তা এবং অন্যান্য সকল অংশীদারদের প্রতি আমাদের আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, তাদের অবিচল সমর্থনের জন্য। এই পুরস্কারটি আমাদের সক্ষমতার প্রতি তাদের আস্থার প্রতিফলন।

প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংকের সাবসিডিয়ারী কোম্পানী যা ২০১০ সাল থেকে সুনামের সাথে ব্যবসায় পরিচালনা করে আসছে। এই কোম্পানীটি একদিকে যেমন বিভিন্ন কোম্পানীকে ব্যবসায় সম্প্রসারের জন্য শেয়ার‍্ ও বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে মূলধনের যোগান দিয়ে যাচ্ছে অপরদিকে নিত্য নতুন বিনিয়োগ সেবার মাধ্যমের দেশের সকল শ্রেণী ও পেশার ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানের জন্য বিনিয়োগের দ্বার উন্মোচন করে যাচ্ছে।


আরও খবর



মাগুরায় দূর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা ও চেক বিতরণ অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:সবাই মিলে গড়বো দেশ দূনীতিমুক্ত বাংলাদেশ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মাগুরায় দূর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা সভা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সততা স্টোরের অনুকূলে অর্থ প্রদান অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার ২৯ মে সকালে স্থানীয় আছাদুজ্জামান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন মোঃ শফি উল্লাহ  উপ পরিচালক দূর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঝিনাইদহ।  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আব্দুল কাদের, দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির মাগুরা জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ সুশান্ত কুমার বিশ্বাস, জেলা শিক্ষা অফিসার আলমগীর কবীর। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাগুরা জেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী সঞ্জয় জামান। অনুষ্ঠনে  সততা  স্টোরের জন্য জেলার ৪ উপজেলার ৭২ টি শিক্ষা  প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১০ হাজার টাকা করে মোট  ৭ লাখ ২০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ অনুদানের চেক প্রদান করেন।  দূর্নীতি দমন কমিশন,  সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঝিনাইদহ জেলা ও উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি মাগুরা এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।


আরও খবর



পুলিশ হেফাজতে যশোরে নারীর মৃত্যুর অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ৮২জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরের অভয়নগরে পুলিশ হেফাজতে আফরোজা বেগম (৪০) নামে এক নারীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। রোববার (২ জুন) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহত আফরোজা বেগম অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া গ্রামের জলিল মোল্লার স্ত্রী। তার স্বজনদের দাবি, মিথ্যা অভিযোগে আটকের পর নির্যাতনে তাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে পুলিশ বলছে, মাদকসহ আটক ওই নারী হৃদরোগে অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন। পুলিশ তার চিকিৎসার ব্যবস্থাও করেছিল।

মৃত আফরোজা বেগমের ছেলে মুন্না মোল্লা জানান, স্থানীয় একটি মহলের ইন্ধনে এসআই শিলন ও শামছু শনিবার রাত ১২টার দিকে তাদের বাড়িতে আসে। পরে নিজেদের কাছে থাকা ইয়াবা দিয়ে তার মাকে গ্রেফতার দেখায়। এ সময় দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ আরও কয়েকজন পুলিশ তার মাকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে মারধর করে। পরে রাত ১টার দিকে থানায় নিয়ে যায়। সকালে থানায় গিয়ে দেখেন তার মা খুব অসুস্থ। পুলিশকে অনুরোধ করে তার মাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা কয়েকটি টেস্ট দিলেও পুলিশ সদস্যরা সেগুলো করতে না দিয়ে ফের থানায় নিয়ে যায়। আবারও অসুস্থ হয়ে পড়লে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মায়ের মৃত্যু হয়।

মুন্না অভিযোগ করে বলেন, পুলিশ ঘরে থাকা ইজিবাইক বিক্রির এক লাখ ৮০ হাজার টাকা লুট করেছে। আরও দুই লাখ টাকা ঘুষের দাবিতে তার মাকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আব্দুস সামাদ জানান,ওই নারীকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। ময়নাতদন্ত ছাড়া তার মৃত্যুর কারণ বলা যাবে না।

এদিকে হাসপাতালে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তারা এই বিষয়ে বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তবে মোবাইল ফোনে অভয়নগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম দাবি করেন, মাদকসহ আটক ওই নারী হৃদরোগে অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন।


আরও খবর



আত্রাইয়ে রাজা-বাদশাকে বের করতে ভাঙতে হবে দেয়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৮১জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর আত্রাইয়ে আসন্ন কুরবানি ঈদে এবারের বড় চমক রাজা-বাদশা। সম্পর্কে তারা মামা ভাগ্নে। রাজার নামের ষাঁড়টির ওজন ২৭ মন আর বাদশার ওজন প্রায় ২২ মন। একই ঘরে আড়াই বছরেরও বেশি সময় ধরে বড় হয়েছে ষাঁড় দুটি। এখন গোয়ালে জায়গা হচ্ছে না তাদের, তাই বিক্রি করতেই হবে। গোয়ালের দর্জা ছোট, তাই দেয়াল ভেঙ্গে রাজা-বাদশাকে বের করতে হবে। এবার কোরবানি ঈদে বিক্রির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে তাদের। এই দুই ষাঁড়ের দাম হাঁকাচ্ছেন ২০ লাখ।

নওগাঁর আত্রাই উপজেলার আহসানগঞ্জ ইউনিয়নের বেওলা গ্রামের মজিবর সরদারের ছেলে জাহিদুল সরদার। তাঁর বাড়িতেই বেড়ে ওঠা ষাঁড় রাজা ও বাদশা।

তবে, শারীরিক গঠন ও ওজনের কারণে গোয়াল ঘরের দরজা দিয়ে তাদের বের করা সম্ভব হবে না বলে আশঙ্কা করছেন খামারি। ওদের বের করতে হলে দেয়াল ভাঙতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জাহিদুল ইসলাম জানান, তিনি মূলত ধান-চাল, ভুট্টা, সরিষার আড়তদার। বাড়িতে বেশ কয়েকটা ফ্রিজিয়ান জাতের গাভি রয়েছে তার। আড়াই বছর আগে দুই গাভি থেকে দুটি সাদা-কালো রঙের ষাঁড় বাছুর পেয়েছেন তিনি। বাছুরের শারীরিক গঠন দেখে আর বিক্রি করেননি। শখের বসে ধীরে ধীরে লালন পালন করেছেন।

তিনি আরও জানান, ষাঁড় দুটি প্রস্তুত করতে কোনো রাসায়নিক বা ক্ষতিকর মেডিসিন বা খাবার খাওয়ানো হয়নি। নিজের সন্তানের মতো যতেœ লালন-পালন করেছেন।

জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘হাট-বাজারে গিয়ে যদি সন্তানদের জন্য যদি কলা, আঙুর আপেল নিয়ে আসি, তাহলে ষাঁড় দুইটার জন্যও কলা বা বিভিন্ন ফলমূল নিয়ে আসতাম। মূলত খৈল-ভ’সি, ভুট্টা, ডাল, বুট, ধানের গুঁড়া, খুদের ভাত এবং খড়-ঘাস এসব খাবার খাইয়ে তৈরি করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আড়াই বছর আগে গোয়াল ঘরের খুঁটিতে বেঁধে রাখা হয়েছে ওদের। এখনো বের করা হয়নি। এখন ওদের যে শারীরিক গঠন আর যে পরিমাণ ওজন হয়েছে, তাতে গোয়াল ঘরের দরজা দিয়ে আর বের করা সম্ভব নয়। গোয়াল ঘরের দেয়াল ভেঙেই বের করতে হবে।’

দুটি গরু লালন-পালনে তার অনেক টাকা ব্যয় হয়েছে উল্লেখ করে জাহিদুল ইসলাম জানান, ২৭ মন ওজনের রাজার দাম চাওয়া হচ্ছে ১২ লাখ টাকা এবং ২২ মন ওজনের বাদশার দাম চাওয়া হচ্ছে ৮ লাখ টাকা। তবে কী দামে বিক্রি হবে, তা এখনো বলতে পারছেন না তিনি।

এ বিষয়ে আত্রাই উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর কর্মকর্তা আবু আনাছ বলেন, ‘জাহিদের ষাঁড় দুটি (রাজা-বাদশা) প্রস্তুতে আমরা তাঁকে সার্বিক পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এবার কোরবানি উপলক্ষে উপজেলায় ২ হাজার ৪০৫ জন খামারি প্রায় ৫২ হাজার ৪৮৭টি পশু প্রস্তুত করেছেন। এর মধ্যে ৮ হাজার ৫৬৮টি গরু, ২২টি মহিষ, ৩৭ হাজার ৯০২ ছাগল এবং ৫ হাজার ৯৯৫টি ভেড়া রয়েছে। এই উপজেলায় চাহিদা রয়েছে ২৬ হাজার ৫৪০টি। ফলে চাহিদা পূরণের পর অতিরিক্ত প্রায় ২৬ হাজার পশু বিক্রি হবে।’


আরও খবর



হোমনায় ভূমিসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image
হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:কুমিল্লার হোমনায় ভূমিসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার উপজেলা ভূমি কার্যালয়ের উদ্যোগে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করা হয়। এ উপলক্ষে কার্যালয় চত্বরে জনসচেতনতামূলক সভা এবং তাৎক্ষণিকভাবে উপস্থিত সেবা গ্ৰহিতাদের নামজারি জমা খারিজের সৃজিত খতিয়ান, দাখিলা ও খতিয়ানের ভুল সংশোধন সেবা দেওয়া হয়। 

এতে সহকারি কমিশনার (ভূমি) আহাম্মেদ মোফাচ্ছেরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ক্ষেমালিকা চাকমা। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা স্বপন চন্দ্র বর্মণ, উপজেলা ভূমি কার্যালয়ের কানুনগো আবদুল করিম ও নাজির মো. গোলাম মোস্তফা, খাদিজা মেমোরিয়াল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

আরও খবর