Logo
আজঃ শনিবার ২৫ মে ২০২৪
শিরোনাম

যাত্রাবাড়ীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৪৩৪জন দেখেছেন

Image

সোহরাওয়ার্দীঃ রাজধানী যাত্রাবাড়ী থানা এলাকার বিদ্যুৎ গলির ১৪৭/৭/৬ হোল্ডিং এর একটি বাড়িতে বিবাদীর শয়নকক্ষে নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে যাত্রাবাড়ী থানায় ১১ মার্চ শনিবার একটি মামলা রজ্জু হয়েছে। মামলার আসামি সাকিব (৩৫) কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। সাকিব যাত্রাবাড়ী এলাকার মাওলানা আব্দুল আউয়াল এর পুত্র। তার পিতা মোহাম্মদপুরের একটি জামে মসজিদের ইমাম। যাত্রাবাড়িতে সাকিব কিচেন নামে বিবাদীর একটি ফাস্টফুডের দোকান রয়েছে। বিবাদী বিবাহিত তার স্ত্রী বিক্রমপুরে পিতার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। তিনি নয় মাসের অন্তঃসত্তা।

যাত্রাবাড়ী থানার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ওই নারীর পুর্ব পরিচিত সাকিব। ঘটনার দিন দুপুর তিনটার দিকে বিয়ের প্রলোভণ দেখিয়ে এলাকার বিদ্যুৎ গলির উল্লেখিত হোল্ডিংয়ে ডেকে নিয়ে যায় ভুক্তভোগী ওই নারীকে। একপর্যায়ে শাকিব ভুক্তভোগীকে তার শয়ন কক্ষে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক শরীরের জামা কাপড় খুলে বাদিনীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণ করে। এই ঘটনায় হত বিহবল হয়ে পড়ে ওই নারী। পরে ঘটনার বিষয়টি তার পরিচিত আত্মীয়-স্বজনকে জানালে যাত্রাবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। ভুক্তভোগী ওই নারীর অভিযোগ পেয়ে ঐদিন রাতেই আসামিকে গ্রেফতার করে যাত্রাবাড়ী থানা পুলিশ। 

যাত্রাবাড়ী থানার এসআই আব্দুর রহমান ঘটনার বিষয়ে দৈনিক সকালের সময়কে জানান, ভুক্তভোগী ওই নারী যাত্রাবাড়ী থানায় অভিযোগ করলে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশে আসামিকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করি, পরে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে বিবাদীকে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

ধর্ষণের পর বিবাদী সাকিব টাকা পয়সার বিনিময়ে ধর্ষণ মামলাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে।

ভুক্তভোগী ওই নারী বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার দেশান্তর কাঠি গ্রামের মোঃ আবুল কাসেমের মেয়ে।


 


আরও খবর



ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ কর্তৃক ভ্রাম্যমান বাস কাউন্টার উচ্ছেদ

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | ১৯০জন দেখেছেন

Image
নাজমুল হাসানঃ 
ডিএমপি ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের আওতাধীন  ডেমরা জোনের শনির আখড়া থেকে সাইনবোর্ড এলাকা পর্যন্ত বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে অবৈধ এবং ভ্রাম্যমান বাস কাউন্টার উচ্ছেদ করা হয়েছে। সোমবার ৬ মে এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।ট্রাফিক  ডিসি (ট্রাফিক-ওয়ারী) বিভাগ  মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম এর সার্বিক দিক নির্দেশনায় এবং এডিসি (ট্রাফিক -ওয়ারী) সুলতানা ইশরাত জাহান এর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে এসি ট্রাফিক (ডেমরা জোন) মোঃ মোস্তাইন বিল্লাহ ফেরদৌস এর নেতৃত্বে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ট্রাফিক-ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি)মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম   জানান, জনস্বার্থে এবং জনগণের চলাচল নির্বিঘ্ন করতে এবং সড়কে ট্রাফিক শৃঙ্খলা আনয়নের লক্ষ্যে এরকম অভিযান অব্যাহত থাকবে।



ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ে ঢাকা মহানগরীর অন্যতম একটি ব্যস্ততম এবং গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। এই ব্যস্ত সড়কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং ঢাকা সিলেটের অনেক পরিবহন যাতায়াত করে থাকে। সড়কে শৃঙ্খলা আনয়নের ক্ষেত্রে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ বদ্ধপরিকর।   



আরও খবর



আত্রাইয়ে তীব্র গরম,দুর্ভোগে শ্রমজীবী মানুষ

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ১১২জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:বৈশাখের শুরুর দিন থেকেই নওগাঁয় আত্রাইয়ে বাড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রা। সকাল থেকে সূর্য যেন আগুন ছড়াচ্ছে চারদিকে।বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে সূর্যের তাপ। তাপমাত্রা বাড়ায় ভোগান্তি বেড়েছে নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষের।বিশেষ করে গাড়ি চালক ও খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষদের কষ্ট বেড়েছে অনেক বেশি।

তীব্র গরমে ছন্দপতন ঘটেছে শ্রমজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায়। জীবিকার তাগিদে প্রতিকূল পরিবেশ উপেক্ষা করেও তারা ঘর থেকে বাইরে বেরোচ্ছেন। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে দীর্ঘসময় কাজ করতে না পারায় এবং রাস্তায় মানুষের আনাগোনা কম থাকায় ভাটা পড়েছে তাদের আয়ে।

শনিবার উপজেলার বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা যায়, সূর্যের প্রচন্ড তাপে নাজেহাল অবস্থায় রিকশাচালক, পথচারী, হকার, ফুটপাতের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীসহ খেটে খাওয়া মানুষেরা বাইরে আছেন। রোদ থেকে বাঁচতে মাথায় গামছা ও কেউবা আবার মাথায় মাথাল ব্যবহার করছেন। আবার গরমে হাঁপিয়ে ওঠা অনেকে ক্লান্তি দূর করতে সড়কের পাশে ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে শরবত পান করে তৃষ্ণা মেটাচ্ছেন।

উপজেলার তারাটিয়া ছোটডাঙ্গা গ্রামের সিএনজি চালক রায়হান আলী বলেন, সকাল ১১টার পর থেকে রোদের তাপমাত্রা বেড়ে যায়। এ সময় গাড়ি চালাতে খুব কষ্ট হয় আমাদের। অন্যদিকে, আগের মতো ভাড়া পাওয়া যায় না।

আবার বেশি সময় ধরে রিকশা চালানোও যায় না। অল্পতেই পানি পিপাসা পায়। এত কষ্টের মধ্যেও আমাদের জীবন বাঁচানোর তাগিদে রাস্তায় বের হতে হয়। কষ্ট পাচ্ছে প্রাণিকুল। এদিকে কৃষকদের জন্য কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে মাঠের কার্যক্রম।উপজেলার বজ্রপুর গ্রামের কৃষক নজরুল ইসলাম জানান, কাঠ ফাটা রোদ মাথায় নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে কৃষকদের। খুব বেশি সময় মাঠে থাকা যায় না। অন্যদিকে শুকিয়ে যাচ্ছে নওগাঁর নদ-নদীর পানি। ফলে চাষাবাদে ব্যবহারের জন্য পানি পেতে কষ্ট পেতে হবে চাষিদের। সব মিলিয়ে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার জনজীবন।

শাহাগোলা রেলওয়ে স্টেশন এলাকার ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী মতিউর রহমান তিনি বলেন, আগে এরকম গরম দেখিনি। পেটের দায়ে বাধ্য হয়ে ঘর থেকে বের হয়েছি। একটু হাঁটার পরপরই বিশ্রাম নিতে হচ্ছে। গরমে দৈনিক ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা আয় কমে গেছে।

শনিবার নওগাঁয় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।আবহাওয়া অফিসের তথ্য মতে, চলমান তাপপ্রবাহ আরও কিছুদিন পর্যন্ত স্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


আরও খবর



ফুলবাড়ী খাদ্য গুদামে ইরি বোরো ধান ও চাউল সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা খাদ্য গুদামে ইরি-বোরো ধান ও চাউল সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন।বুধবার দুপুর ২ ঘটিকায় ফুলবাড়ী উপজেলার খাদ্য গুদামে ইরি-বোরো ধান সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন করেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর মোঃ আল কামাহ তমাল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোঃ মঈন উদ্দিন। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফুলবাড়ী উপজেলার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আমিন অটো রাইস মিলের সত্ত্বাধিকারী আলহাজ্ব রুহুল আমিন, ফুলবাড়ী বঙ্গ মিলার্স কোম্পানী লিঃ এর মহাব্যবস্থাপক মোঃ জাকারিয়া, ফুলবাড়ী কালি রাইস মিলের সত্ত্বাধিকারী শ্রী রাজেন্দ্র প্রসাদ গুপ্ত, ফুলবাড়ী চাউল কল মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য শফিকুল ইসলাম বাবু, কৃষক প্রতিনিধি ও সদস্য উপজেলা সংগ্রহ ও মনিটরিং কমিটি ফুলবাড়ীর কৃষক প্রতিনিধি অম্বরীশ রায় চৌধুরী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রেজাউল করিম। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন উপজেলা খাদ্য গুদামের খাদ্য পরিদর্শক ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহমুদ মোঃ ইমরান। আয়োজনে ছিলেন উপজেলা সংগ্রহ ও মনিটরিং কমিটি, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর। চলতি বছর সরকারের বেঁধে দেওয়া প্রতিকেজি ধান ৩২ টাকা, চাল ৪৫ টাকা ও আতপ চাউল ৪৪ টাকা কেজি দরে ক্রয় করবেন। 

কৃষক আলিম উদ্দিন এর ১টন ধান ও চাউল ক্রয়ের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়। উদ্বোধন শেষে মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। মোনাজাত করেন হাফেজ মোঃ রোস্তম। এ সময় ধান ও চাউলের বিভিন্ন ব্যবসায়ী, অটো মিল মালিকগণ, ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতর বটগাছটি ঝুঁকিপূর্ণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৫৬জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান গেটের সামনে বটগাছটি ঝুঁকিপূর্ণ। যেকোন মুহুর্তে প্রাকৃতিক দূর্যোগে ঘটতে পারে দূর্ঘটনা। স্বাধীনতার পর ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মূল গেটের সামনে একটি বিশাল আকৃতির বটগাছ রয়েছে। বটগাছটির বড় বড় ডালের ভিতর দিয়ে ৩৩ কেভি বিদ্যুতের তার রয়েছে। এছাড়া বটগাছটি বিশাল আকৃতির হওয়ায় প্রাকৃতিক দূর্যোগে ভেঙ্গে পড়ে দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। গেটের ভিতরে দেওয়াল সংলগ্ন স্থানে কোভিড-১৯ সময়কালে প্রায় সাড়ে ৩লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি শেড নির্মাণ করা হয়েছে। সেখানে এখন কোন কার্যক্রম চলেনা। সেখানে সাধারণ জনগণ বিশ্রাম নেন। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে সেটি এখন ব্যবহার করা হচ্ছেনা। ঐ বটগাছটির নিচেই শেডটি নির্মাণ করা হয়েছে। বর্তমান প্রাকৃতিক দূর্যোগ ঘটলে বটগাছের ডালগুলি ভেঙ্গে পড়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেইন গেটটি ও শেডটি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এমনকি দূর্যোগের সময় শেডের ঘরে রোগীদের আসা লোকজন ও বিশ্রাম নেওয়া মানুষজন দূর্ঘটনায় পতিত হতে পারে। এ কারণে এই বটগাছটি যদিও ছায়া দিচ্ছে তারপরও সেটি এখন ঝুঁকিপূর্ণ। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় জনসাধারণ নেক দৃষ্টি কামনা করেছেন।


আরও খবর



রবীন্দ্রনাথের সৃষ্টিকর্ম বাঙগালীকে আলোর পথ দেখায়: পরিকল্পা প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | ৮৫জন দেখেছেন

Image
নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:পরিকল্পা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার বলেছেন,রবীন্দ্রনাথের সৃষ্টিকর্ম বাঙগালীকে আলোর পথ দেখায়। বিশ্বকবি পতিসর কাচারী বাড়ির আঙ্গিনায় বসে অসংখ্য সাহিত্যকর্ম সৃষ্টি করেছেন। রবীন্দ্রনাথ জমিদার হয়েও সাধারণ মানুষের কাছে নিজেকে নিবেদন করতেন। কবি সকল গুনের অধিকারী ছিলেন।

তৎকালীন সমাজের বৈষম্য ও কুসংষ্কার দূর করে স্বনির্ভর সমাজ গড়ে তোলার কাজ হাতে নিয়েছিলেন। নিজস্ব জমিদারী কালীগ্রাম পরগনা থেকেই সেই কাজ তিনি শুরু করেছিলেন। সাহিত্য রচনার পাশাপাশি কবি সকল বঞ্চনার মুক্তির পথ দেখিয়েছেন। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬৩ তম জন্মোৎসব অনুষ্ঠানে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার পতিসরে এসব কথা বলেছেন তিনি।

প্রতি বছরের মত এবারো সংষ্কৃতি মন্ত্রনালয়ের সহযোগিতায় নওগাঁ জেলা প্রশাসন আলোচনা সভা ও সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বুধবার বিকেলে কবির নিজস্ব জমিদারী কালীগ্রাম পরগনার কবীর কাচারি বাড়ী দেবেন্দ্র মঞ্চে এই আলোচনা সভা ও সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন রবীন্দ্র গবেষক ড. আশরাফুল ইসলাম। এছাড়া নওগাঁ সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শরীফুল ইসলাম খাঁন, কৃষি অর্থনীতি গবেষক অধ্যাপক মোজাফ্ফর হোসেন আলোচনায় অংশনেন। আলোচকরা বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কর্মময় জীবনী তুলে ধরেন।

এদিন বিকেল সোয়া চারটায় অনুষ্ঠানের শুরুতেই জাতীয় পতাকা উত্তোলন, ফেষ্টুন ও পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি পরিকল্পা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার ।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, নওগাঁ-৩ আসনের সংসদ সদস্য সৌরেনন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, নওগাঁ- ৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্রহানী সুলতান, নওগাঁ- ৬ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক সুমন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফৌজিয়া হাবিব ও আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার সঞ্চিতা বিশ্বাস,জেলা পরিষদ সদস্য চৌধুরী গোলাম মোস্তফা বাদল। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নওগাঁর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সোহেল রানা। আলোচনা সভা শেষে দেবেন্দ্র মঞ্চে সাংষ্কৃতিক, কবীতা আবৃতি, গান ও নৃত্য পরিবেশন করা হয়।

আরও খবর