Logo
আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ওয়াসার এমডি তাকসিম সহ ৯ জনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ

প্রকাশিত:সোমবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২১২জন দেখেছেন

Image

আদালত প্রতিবেদক: ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের ১৩২ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খানসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে করা মামলার বিষয়ে তদন্ত করে দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ সোমবার অভিযোগের বিষয়ে শুনানি শেষে ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মো. আছাদুজ্জামান প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ৪ এপ্রিল দিন ধার্য করেন। বাদী পক্ষের আইনজীবী মো. গাফ্ফর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আজকে মামলাটির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। এদিন শুনানি শেষে আদালত মামলার অভিযোগ সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদকে) নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গত বছরের ১০ নভেম্বর একই আদালতে ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাব উদ্দিন সরকার আদালতে হাজির হয়ে ওই ৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। ওইদিন ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে অভিযোগের বিষয়ে শুনানির জন্য আজ দিন ধার্য করেন।

মামলার আবেদনে তাকসিম ছাড়াও ঢাকা ওয়াসার প্রকৌশলী শারমিন হক আমীর, সাবেক রাজস্ব পরিদর্শক মিঞা মো. মিজানুর রহমান, প্রকৌশলী মো. আখতারুজ্জামান, রাজস্ব পরিদর্শক মো. জাকির হোসেন, প্রকৌশলী মো. বদরুল আলম, জনতা ব্যাংকের সাবেক ডিজিএম শ্যামল বিশ্বাস, উপসচিব শেখ এনায়েত উল্লাহ ও উপপ্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মো. সালেকুর রহমানকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী বহুমুখী সমবায় সমিতি ১৬ জুলাই ২০১৭ থেকে ৩০ জুন ২০১৮ সাল পর্যন্ত ৯৯ কোটি ৬৫ লাখ ১৯ হাজার ১৭৩ টাকা ঢাকা ওয়াসা থেকে রাজস্ব আদায় কাজ বাবদ পায়। আর ২০১৮ সাল থেকে ২০১৯ অর্থবছরে একই কাজ বাবদ সমিতি আয় করে ৩৪ কোটি ১৮ লাখ ৫৭ হাজার ৭৯০ টাকা। এর মধ্যে ২০১৭ থেকে ২০১৮ অর্থবছরে সমিতির হিসাবে জমা হয় ১ কোটি ৭৯ লাখ ৫৯ হাজার ৫০৩ টাকা।

অবশিষ্ট ১৩২ কোটি ৪ লাখ ১৭ হাজার ৪৬০ টাকা ৬টি ব্যাংক থেকে বিভিন্ন চেকের মাধ্যমে আসামি তাকসিম এ খানের প্রত্যক্ষ মদদে ও নির্দেশে অপর আসামিরা টাকাগুলো উত্তোলন করে আসামিরা আত্মসাৎ করে। আসামিদের এই আত্মসাতের বিষয়টি সমবায় অধিদপ্তরের অডিট রিপোর্টে প্রমাণিত হয়েছে।

এ ছাড়া সমিতির গাড়িসহ স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি সমিতির হেফাজত থেকে স্থানান্তর করে প্রায় ২০০ কোটি টাকার সমমূল্যের সম্পদ চুরি করে আসামিরা। তারা পরস্পর যোগসাজসে বিশ্বাসভঙ্গ করে আত্মসাৎ ও চুরির অভিযোগে দণ্ডবিধির ৩৮০/৪০৮/১০৯ তৎসহ দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন ১৯৪৭ এর ৫ (২) ধারা অভিযোগ আনায়ন করা হয় বাদীর আর্জিতে।


আরও খবর



পবিত্র শবেমেরাজ আজ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৮৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পবিত্র শবেমেরাজ আজ বৃহস্পতিবার। ইসলামে মেরাজের রাত বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। আজ রাতে মহান রাব্বুল আলামিনের রহমত কামনায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা মসজিদে বা নিজগৃহে সালাত আদায়, কোরআন তেলাওয়াত, জিকির-আসকারের মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করবেন। ইসলামে শবেমেরাজের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। কারণ এ রাতে প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ (স) মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দিদার লাভ করেন এবং আল্লাহর কাছ থেকে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের বিধান নিয়ে দুনিয়ায় ফিরে আসেন।

মুসলিম বিশ্ব অলৌকিক ও ঐতিহাসিক এ ঘটনার স্মারক দিবস হিসেবে প্রতিবছর ২৬ রজবের রাতটিকে শবেমিরাজ হিসেবে পালন করে থাকে। এদিকে মিরাজ উপলক্ষে আজ বাদ জোহর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বায়তুল মোকাররমে এক আলোচনাসভা ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



মধুপুর কুড়ালিয়া ইউনিয়নের ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৫জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ-টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলাধীন কুড়ালিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ছানোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও টাকা আত্মসাতে অভিযোগে উঠেছে।

জানা যায়, তিনি সরকারি বিভিন্ন ভাতা ও চাকরি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন জনের নিকট হতে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এছাড়াও টিসিবির পণ্যের উপকারভোগীদের কার্ড করে দেওয়ার নামে কয়েক হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।


দিনমজুরদের জন্য টিসিবির পণ্য টাকার বিনিময়ে দেওয়া হয়েছে বিত্তশালীদের। জীবিত মানুষকে মৃত দেখিয়ে বয়স্ক ভাতার টাকা অন্যজনের নামে করিয়ে দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে। 

এমন তথ্যের ভিত্তিতে সরেজমিনে এলাকায় গিয়ে  জানা যায়, কুড়ালিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ছানোয়ার হোসেন উক্ত ওয়ার্ডের বিভিন্ন লোকজনের নিকট হতে সরকারি বিভিন্ন ভাতা এমনকি টিসিবির পণ্য পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে লক্ষধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

কুড়ালিয়া ভটপাড়া এলাকার চান মিয়ার স্ত্রী কল্পনা বেগম জানান, রাস্তার গাছ পাহারার কাজের কথা বলে তার নিকট হতে ৫০০০ টাকা নিয়েছেন এই ইউপি সদস্য ছানোয়ার হোসেন।একই এলাকার শামসুল হকের স্ত্রী ময়না বেগম জানান,তাকে চাউলের কার্ড করে দেবে বলে তার নিকট হতে ২০০০ টাকা নিয়েছেন। রাজ্জাকের স্ত্রী মালেকা জানান, তাকে চাউলের কার্ড করে দেবে বলে ২০০০টাকা নিয়েছেন। এছাড়াও বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ৩ থেকে ৫ হাজার করে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। বিধবা ভাতার কার্ড করে দেওয়ার কথা বলে অসংখ্য হতদরিদ্র মানুষের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার প্রমান পাওয়া গেছে । সরকারি টিউবওয়েল দেওয়ার কথা বলে মহন এলাকার জনৈক এক লোকের কাছ থেকে ১০হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

এরকম ভাবে এলাকার আরও কয়েক জনের নিকট হতে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা এবং  টিসিবির পণ্য পাইয়ে দেওয়ার জন্য বিভিন্ন জনের নিকট হতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ করেছেন ইউপি সদস্য মোঃ ছানোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীরা এই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে বিচার দাবি করেছেন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



মেহেরপুরে সাংবাদিকের উপর হামলার অন্যতম আসামী পাপ্পু জেল হাজতে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬২জন দেখেছেন

Image

মেহেরপুর প্রতিনিধি :মেহেরপুরের আমঝুপিতে চ্যানেল ২৪ এর স্টাফ রিপোর্টার রাশেদুজ্জামান এবং দৈনিরক জবাবদিহি পত্রিকার সাংবাদিক সিরাজুদ্দোজা পাভেলের উপর বর্বরোচিত হামলার অন্যতম আসামি পাপ্পুকে (২৭) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারী) ভোরে তাকে চুয়াডাঙ্গার জীবননগর থেকে আটক করা হয়। সে আমঝুপি গ্রামের মৃত প্যাডির ছেলে। মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের বিশেষ অভিযানে সে আটক হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কনী মিয়া, এসআই আশরাফসহ পুলিশের একটি দল।

এদিন দুপুরে পাপ্পুকে নেওয়া হয় মেহেরপুর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জুয়েল রানার আদালতে। আদালত তার রিমান্ড ও জামিন শুনানীর দিন ধার্য করেন আগামী ২২ ফেব্রুয়ারী। পরে তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেয় আদালত।    

গেল ১২ ফেব্রুয়ারী আমঝুপিতে চ্যানেল ২৪ স্টাফ রিপোর্টার রাশেদুজ্জামান ও দৈনিক জবাবদিহি পত্রিকার সাংবাদিক সিরাজুদ্দোজা পাভেলের উপর হামলার ঘটনার মামলার এজাহার নামীয় ৪নং আসামি এই পাপ্পু। তিন দফা হামলার সময় এক দফা হামলা হয় পাপ্পুর নেতৃত্বে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই হামলার রহস্য এবং হামলাকারী অন্যান্যদের সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যাবে বলে মনে করেন ঘটনার কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী।


আরও খবর



সরাইল থানা পুলিশকে ভালো কাজের পুরষ্কার প্রদান করলো "পুবের আলো মাল্টিমিডিয়া"

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২২৩জন দেখেছেন

Image

মো.রুবেল মিয়াঃ- সরাইল থানার পুলিশের ৬৬ জন সদস্য কে ভালো কাজের পুরষ্কার প্রদান করেছেন পুবের আলো মাল্টিমিডিয়া। অনলাইন গণমাধ্যম পুবের আলো মাল্টিমিডিয়া প্রতিষ্ঠানটি সরাইল উপজেলা থেকে সুনামের সাথে পরিচালিত হয়ে আসছে। 

এ উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (৮ ই ফেব্রুয়ারি) রাত ৯ টায় সরাইল থানা কমপ্লেক্সে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে, থানা পুলিশ সদস্যদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন পুবের আলো মাল্টিমিডিয়া পরিবারের সদস্যরা। 


এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন  সহকারী পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মো  রকিবুল হাসান, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মো এমরানুল ইসলাম, সরাইল থানার ওসি তদন্ত আসম আতিকুর রহমান, এডভোকেট আশরাফ উদ্দিন মন্তু, মানবিক সরাইলের  চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আবু শামীম মোহাম্মদ পিয়ার পলাশ। 


 উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে করেন  "পুবের আলো  মাল্টিমিডিয়া" এর চেয়ারম্যান ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল আমীন শাহীন। 


এছাড়াও সরাইল থানার সকল পুলিশ সদস্য, পুবের আলো মাল্টিমিডিয়া পরিবার সহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

সরাইল থানা পুলিশের সদস্যরা দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার ও দাঙ্গা প্রতিরোধে প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখায় এ পুরষ্কার প্রদান করা হয়েছে জানা গেছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



হিলিতে জিরার দাম কমেছে কেজিতে ৪০০ টাকা

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৮৬জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে নতুন জিরার আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে।আমদানি বৃদ্ধি পাওয়ায় খুচরা বাজারে কেজিপ্রতি দাম কমছে ৪০০ টাকা। দুই মাস আগে ১১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। সেই জিরা এখন ৭২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। হিলি বাজারের মসলা ব্যবসায়ীরা বলছেন,ভারতে নতুন জিরা উঠায় বন্দর দিয়ে আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে। একারণে দাম কমে যাচ্ছে। পণ্যটির দাম কমায় খুশি নিম্মআয়ের মানুষেরা।

আজ সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে হিলি মসলা বাজার ঘুরে দেখা গেছে,গত বছরে প্রতিকেজি জিরা বিক্রি হয়েছে ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা দরে। ডলার সংকট ও ভারতে জিরার ফলন কম এবং আমদানি কমে যাওয়ার অজুহাতে দাম বাড়তে থাকে। সর্বশেষ দুই মাস আগে ১১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। চলতি বছরে ভারতে নতুন জিরার ফলন ভালো হয়েছে। সেই সাথে বিভিন্ন বন্দর দিয়ে আমদামি বৃদ্ধি পাওয়া গত দুই মাস পর্যায়ক্রমে জিরার দাম কমেছে কেজিপ্রতি ৪০০ টাকা।

এর মধ্যে ভারত থেকে আমদানিকৃত ভালো মানের কাকা জিরা ৭২০,বাবা জিরা ৭২০,মধু জিরা ৭২০,অমরিত জিরা ৭২০ টাকা,সোনা জিরা ৭৩০ টাকা ও ডিবিগোল্ড জিরা ৭৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

হিলি বাজারে জিরা কিনতে আসা ফরহাদ হোসেন বলেন,দুই মাস আগেও জিরার আকাশছোঁয়া দাম ছিল।এর আগেও ১০০ গ্রাম জিরা ৪০ টাকায় কিনেছি। সেই জিরা কিনতে হয়েছে ১০০ টাকায়। আজকে মসলা কিনতে এসে শুনলাম কেজিপ্রতি ৪০০ টাকা কমেছে। তাই এক কেজি জিরা নিলাম ৭২০ টাকায়। বর্তমানে দাম অনেক কমে এসেছে।

বগুড়া থেকে আসা জিরা ক্রেতা আনিছুর রহমান বলেন,আমি স্বপ্নপূরীতে ঘুরতে এসেছিলাম। সেখানে ঘুরে হিলি স্থলবন্দর ঘুরেও দেখলাম। হিলিতে কম দামে মসলা পাওয়া যায়। তাই মসলা কিনতে আসলাম। আমি বগুড়াতে প্রায় তিন মাস আগে ১২ শত টাকা কেজি দরে জিরা কিনেছি। হিলিতে এসে এক কেজি জিরা নিলাম ৭২০ টাকা দিয়ে।দাম কমায় আমাদের মত মানুষের অনেক ভালো হলো।

হিলি বাজারে বিসমিল্লাহ্ধসঢ়; মসলা ঘর এর ব্যবসায়ী আওলাদ হোসেন বলেন,গত বছরে ভারতে জিরার ফলন কম হওয়ায় বন্দর দিয়ে আমদানিও কমে যায়। সেকারণে জিরার দাম বাড়তে

বাড়তে ১১৫০ টাকা কেজি দরে উঠে। বর্তমান ভারতে নতুন জিরা উঠায় আমদানি বেড়েছে। তাই দামও কেজিপ্রতি কমেছে ৪০০ টাকা। আমরা ৭১০ টাকা কেজি দরে কিনে ৭২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি। আশা করছি আগামীতে দাম আরও কমে আসবে। আগে তো দাম বেশির কারণে বেচাকেনা কম হচ্ছিলো। আগে ক্রেতারা ১০০ গ্রাম জিরা কিনতো এখন এক কেজি করে ক্রয় করেছে। আগের চেয়ে বেচাকেনা অনেক ভালো হচ্ছে। তিনি আরও বলেন,সাদা এলাচ ও কালো ফলের দাম একটু বেশি। তবে অন্যান্য মসলার দাম স্বাভাবিক আছে।


আরও খবর