Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

উপকারে অপকার দুমকিতে পরিকল্পিত ফাঁদে চেয়ারম্যান!

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬৩৯জন দেখেছেন

Image

রাসেল হোসেন নিরব (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি:পটুয়াখালীর দুমকিতে উপকার করতে গিয়ে পরিকল্পিত ফাঁদে পড়ে হেনস্তার শিকার উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম মর্তুজা শুক্কুর। 

গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের জেলেদের মাঝে সরকারি চাল বিতরণের লক্ষ্যে পাতাবুনিয়া সরকারি খাদ্য গুদাম থেকে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ দিয়ে চাল ছাড়িয়ে জেলেদের অনুরোধে চেয়ারম্যান বাড়ির একটি ঘরে সাড়ে ১৭ টন চাল মজুদ করেন এবং সাথে সাথে চৌকিদার দিয়ে সকল সুবিধাভোগী জেলেদের পরের দিন চাল দেয়া হবে বলে এই মর্মে দাওয়াত দেয়া হয়।

হঠাৎ করে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে চেয়ারম্যান বাড়িতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা অফিসার ইনচার্জসহ স্থানীয় কিছু সংবাদকর্মী উপস্থিত হন। তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি তদন্ত করেন এবং  কেন চাল পরিষদে না নিয়ে তার বাড়িতে তুলেছেন এবিষয়ে চেয়ারম্যানকে প্রশ্ন করলে চেয়ারম্যান তার প্রশ্নের জবাব দেন এবং সাথে সাথে নিজের ভুল শিকার করে গোলাম মর্তুজা শুক্কুর বলেন, এর আগেও আমি আমার ওয়ার্ডের সুবিধাভোগীদের সুবিধার্থে ভিজিডি ও ভিজিএফের চাল আমার বাড়িতে বসে দিয়েছি। তবে এগুলো পরিষদ ছাড়া অন্য কোথাও দেয়ার আইনত নিয়ম নেই। সম্পূর্ণ বিষয়টি একটি মহল অন্য খাতে নেয়ার চেষ্টা করছেন।

আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের সুবিধাভোগী জেলে, রাসেলসহ আরো অনেকে  বলেন, চেয়ারম্যানকে আমরা অনুরোধ করেছি যে চালগুলো তার বাড়িতে বসে দিলে আমাদের সুবিধা হয় কারণ আঙ্গারিয়া পরিষদ থেকে চাল বাড়ি পর্যন্ত নিতে আমাগো ১/২ শত টাকা খরচ হয়। এর আগেই তিনি তার বাড়িতে বসে চাল দিয়েছেন। আমাদের মনে হচ্ছে চেয়ারম্যানকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ফাঁসাতে একটি কুচক্রী মহল সবসময় তার পিছনে লেগে আছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাহীন মাহমুদ বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনা স্থানে গিয়েছিলাম সেখানে জেলেদের মাঝে বিতরণের লক্ষ্যে সাড়ে ১৭ টন চাল পাওয়া গেছে  এবং আসলে তার এই চাল নিয়ে অসৎ কোন উদ্দেশ্য নেই তবে আইন নিয়ম হলো চালগুলো পরিষদে নিয়ে জেলেদের মাঝে বিতরণ করা। এবিষয়ে চেয়ারম্যান তার ভুল শিকার করেছেন। চালগুলো জব্দ করা হয়েছে।


আরও খবর



রূপগঞ্জে মেয়র প্রার্থী রফিক ও তার ভাই শফিক হিন্দু ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে -বাদশা

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৪জন দেখেছেন

Image

মোঃআবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ( নারায়ণগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ- নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ব্যস্ত সময় পার করছেন মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা। কাঞ্চনে এখন তার পক্ষে গণজোয়ার  লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এলাকার সাধারণ মানুষ তার পক্ষে মাঠে নামছে। শিল্পপতি আর খেটে খাওয়া মানুষের প্রথম পছন্দ দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা। গাজী পরিবারও তাকে সমর্থন দিয়েছে। গতকাল ২২ জুন শনিবার কাঞ্চন বাজার,বিরাবো,,ইসলামপুর এলাকায় গণসংযোগ করেন বাদশা।


এসময় তিনি বলেন, মোবাইল ফোন বিপুল ভোটে বিজয়ী হবে। রফিক ও তার ভাই শফিক আমার মোবাইল ফোনের হিন্দু ভোটারদেরকে  হুমকি দিচ্ছে।  আমি প্রশাসনের নজরদারি বাড়ানোর দাবি করছি।  


বাদশা আরও বলেন, আমার কোন সন্ত্রাসী বাহিনী নেই । এবারের নির্বাচন কাঞ্চন থেকে ভূমিদস্যুদের প্রতিহত করার নির্বাচন। আপনারা আমাকে ভোট দিয়ে ভূমিদস্যুদের প্রতিহত করুন। আমি কারও জমি দখল করিনি। 


রফিকের দ্বারা যারা জমি হারিয়েছে আমি নির্বাচিত হলে তা ফিরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবো। কাঞ্চনের জনগণ আমার শক্তি। এখানে ৩হাজার হিন্দু ভোটার রয়েছে। রফিক ৪টা হত্যা মামলার আসামি। ওই খুনিরে কেউ ভোট দিবে না। আমি ১০ বছর কাঞ্চনের চেয়ারম্যান পরে ৫ বছর মেয়র ছিলাম, আমার দ্বারা কোন লোক নির্যাতিত হয়নি । উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগ নেতা বাদশাকে ভোট দেয়ার জন্য তিনি সকলের কাছে দাবি করেন।



আরও খবর



সরকার চাইলে কোটা পরিবর্তন, পরিবর্ধন করতে পারবে: হাইকোর্ট

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১১৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:হাইকোর্ট ২০১৮ সালে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে পরিপত্র অবৈধ ঘোষণার রায়ের মূল অংশ প্রকাশ করেছেন । রায়ে বলা হয়েছে, সরকার চাইলে কোটা পরিবর্তন, পরিবর্ধন করতে পারবে। কোটা পূরণ না হলে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ দিতে পারবে।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় প্রকাশ করেন।

এর আগে বুধবার (১০ জুলাই) সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি বাতিলের পরিপত্র ‘অবৈধ’ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের ওপর একমাসের স্থিতাবস্থা দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



ব্যবসা-বাণিজ্য সহজ করতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৭৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার। ব্যবসা-বাণিজ্য যাতে সহজ হয়, উদ্যোক্তারা যাতে উৎসাহ পায়, আমরা সর্বদা সেই কাজই করছি,বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । আমাদের সরকার ব্যবসায় নানা প্রণোদনা প্রদান করে আসছে।

‘জাতীয় রপ্তানি ট্রফি’ প্রদান উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন। আজ (১৪ জুলাই) এই রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রপ্তানি বাণিজ্যের মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে দেশের অর্থনীতিতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০২১-২২ অর্থবছরের জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষে সফল রপ্তানিকারকদের আমি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।

শেখ হাসিনা বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর। ২০০৯ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে সরকার পরিচালনা করে আমরা বাংলাদেশকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী রাষ্ট্র হিসেবে পরিণত করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। একটি দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও উন্নয়নে রপ্তানি বাণিজ্যের অবদান অনস্বীকার্য। বাংলাদেশের রপ্তানিকারকরা বিশ্ববাজারে দেশীয় উৎপাদিত মানসম্পন্ন পণ্য রপ্তানি করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন। বিশ্ব অর্থনীতির এ কঠিন সময়েও পণ্য ও সেবাখাতে ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৩ দশমিক ৪২ শতাংশ প্রবৃদ্ধিতে ৬৩ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি আয় অর্জিত হয়েছে।

২০২৭ সালে রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ১১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এ লক্ষ্য অর্জনে সরকার এবং রপ্তানিকারকসহ সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। পণ্য রপ্তানির পাশাপাশি সেবা খাতের সম্প্রসারণ ও রপ্তানিতে বাংলাদেশের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আমাদের সরকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি দৃঢ়ভাবে আস্থা প্রকাশ করেন, পণ্য খাতের মতো সেবা খাতেও আমরা সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হবো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান কার্যক্রম দেশের রপ্তানিকারকদের উৎসাহ প্রদানসহ রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে প্রদত্ত এ ধরনের স্বীকৃতি দেশের শিল্পায়ন ত্বরান্বিত করার মাধ্যমে রপ্তানির চলমান প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার করবে বলে তিনি দৃঢ় আস্থা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ২০২১-২২ প্রদান অনুষ্ঠানের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



ডোমারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল আলম (বিপিএএ)’র বিদায় সংবর্ধনা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৮৪জন দেখেছেন

Image

মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফামারীর জেলার ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল আলম (বিপিএএ)’র বিদায় সংবর্ধনা উপলক্ষে বাংলাদেশ স্কাউটস ডোমার উপজেলার পক্ষ থেকে ব্যাপক কর্মসূচি সফল করা হয়েছে।

সোমবার (০১ জুলাই) বিকালে মহোদয়ের বাসভবন থেকে সকল স্কাউটস ও নের্তৃবৃন্দ গার্ড অব অনার এর মাধ্যমে অবিভাদন মঞ্চে প্রবেশ করেন। পরে উপজেলা হলরুমে এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়। বাংলাদেশ স্কাউটস ডোমার উপজেলার কমিশনার নাজিরা আখতার ফেরদৌসী চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিদায়ী অতিথিকে উপজেলা স্কাউটস এর লিডারগণ এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সম্মাননা ক্রেষ্ট ও ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়। বিদায়ী অতিথির উদ্যেশ্যে মানপত্র পাঠ করেন কমিশনার নাজিরা আখতার ফেরদৌসী চৌধুরী।

শিক্ষক আফরোজা চৌধুরী মিলির সঞ্চালনায় নির্বাহী কর্মকর্তার সহধর্মীনী ডাঃ মহমুদা বিনতে আখতার, বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা, ডোমার বহুমূখি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল আলম, ডোমার ইসলামিয়া সিনিয়র ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ শামসুদ্দিন হোসাইনী, স্কাউটস দিনাজপুর অঞ্চলের যুগ্ন-সম্পাদক শফিউল ইসলাম, সাবেক সম্পাদক অধ্যাপক আলহাজ¦ করিমুল ইসলাম, গ্রুপ সভাপতি আমিনুল হক বাবু, মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শাহিনুল ইসলাম বাবু, উপজেলা শাখার সম্পাদক হারুন অর রশিদ প্রমুূখ বক্তব্য রাখেন। 

নাজমুল আলম নাটোর জেলায় থাকাকালীন এসডিজি বাস্তবায়নে সফলতার জন্য ২০১৯ সালে জাতীয় পর্যায়ে (বঙ্গবন্ধু জনপ্রশাসন পদক-বিপিএএ) লাভ করেন এবং ২০২৩ সালের ১৬ জুলাই ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে যোগদান করেন। তিনি ২০২৪ সালের ০৭-১০ মার্চ ৮ম ডোমার উপজেলা কাব ক্যাম্পুরী ও স্কাউট সমাবেশ সফল করতে ব্যপক ভুমিকা রাখেন। এ ছাড়াও প্রশাসনিক কর্মদক্ষতা ও সকলের সাথে সু-সর্ম্পক গড়ে তুলে এলাকার মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। তার পরিবার ও পরিজনের সুস্থতা কামনা এবং দেশ জাতীর মঙ্গল কল্পে বিশেষ দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন মাওঃ শামসুদ্দিন হোসাইনী। শেষে শালকী মুক্ত মহাদলের উদ্যোগে শিল্পকলা একাডেমি ভবনে বৃক্ষ রোপন কর্মসুচি পালন করা হয়। 


আরও খবর



মিরসরাইয়ে প্রবাসীদের মিলনমেলা

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১২জন দেখেছেন

Image

এম আনোয়ার হোসেন, মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:মিরসরাইয়ে দিনব্যাপী প্রবাসীদের মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৯ জুন) হান্ডি মহামায়া রেস্টুরেন্টে মিরসরাই উপজেলার সর্বপ্রথম ও সর্বাধিক প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা মিরসরাই নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম পত্রিকার উদ্যোগে এই আয়োজন করা হয়। এসময় মিরসরাই নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম পাঠক ফোরাম কুয়েতের প্রতিষ্ঠাতা নুরুল আজিমের সঞ্চালনায় এবং পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক এম আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা পর্বে বক্তব্য রাখেন জমজম সুইটস এন্ড বেকস্’র চেয়ারম্যান আবুল খায়ের সেলিম, পাঠক ফোরামের উপদেষ্টা রহিম উদ্দিন ভূঁইয়া, দুর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন রুবেল, মিরসরাই নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম পাঠক ফোরাম কুয়েতের সভাপতি মোর্শেদ আলম, সাবেক সভাপতি মনজুরুল ইসলাম মনজু, মানবাধিকারকর্মী আহসান উল্ল্যাহ ভূঁইয়া মিলন, মোহাম্মদ হানিফ, আবুল হোসেন, শামীম হোসেন, আব্দুর রহিম, মেজবা উদ্দিন ও জুয়েল রানা। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক আকতার হোসেন, রেদোয়ান হোসেন জনি, আলিম উল্ল্যাহ রিপন, সরোয়ার উদ্দিন প্রমুখ।

বক্তব্যে প্রবাসীরা বলেন, বিভিন্নভাবে প্রবাসীরা হয়রানীর শিকার হন। সেসব বন্ধে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এছাড়া মিরসরাইয়ের হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। 

আলোচনা পর্বের পূর্বে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন প্রবাসীরা। সব শেষে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম কৃত্রিম লেক মহামায়া লেকে নৌকা ভ্রমণের মধ্যদিয়ে দিনব্যাপী আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।


আরও খবর