Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

তৃতীয় ধাপে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেল ৩৩ হাজার পরিবার

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

দেশের ৩২ হাজার ৯০৪ গৃহ ও ভূমিহীন পরিবার আসন্ন ঈদের আগে তৃতীয় ধাপে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে ঘর পেয়েছেন।গণভবন থেকে মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) ভিডিও কনফারেন্সে এসব ঘর হস্তান্তর করেন শেখ হাসিনা।


প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের হাতে ঘরের চাবি তুলে দেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তারা।


তৃতীয় ধাপের এসব ঘর হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করে শেখ হাসিনা বলেন, আমার সবচেয়ে ভালো লাগে যখন দেখি একটা মানুষ ঘর পাওয়ার পর তার মুখের হাসি। জাতির পিতা দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে চেয়েছিলেন।


সবার জন্য আবাসন নিশ্চিত করতে সরকারের কার্যক্রমের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাকি যে ঘরগুলো আছে সেগুলো আস্তে আস্তে তৈরি করে সব মানুষ যেন মানুষের মতো বাঁচতে পারে, সুন্দর জীবন পেতে পারে। সেটাই আমাদের লক্ষ্য। বাংলাদেশের একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না, ভূমিহীন থাকবে না। এটাই আমাদের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য নিয়েই কাজ করে যাচ্ছি।



শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে ঘোষণা দিয়েছেন যে, বাংলাদেশের কোনো মানুষ যাতে ভূমি ও গৃহহীন না থাকে। সেজন্য তিনি দুই শতক জমির উপর দুই রুম বিশিষ্ট একটি ঘর উপহার দিচ্ছেন। এসব ঘরের ডিজাইন প্রধানমন্ত্রী নিজেই প্রণয়ন করেছেন।


তৃতীয় ধাপে এসব ঘর দেওয়ার আগে প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ঘর পেয়েছে ১ লাখ ১৭ হাজার ৩২৯টি পরিবার। তৃতীয় ধাপের আরও ৩২ হাজার ৭৭০টি ঘর নির্মাণাধীন রয়েছে।


আশ্রয়ণের প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের চেয়ে তৃতীয় ধাপের ঘরগুলো অনেক বেশি টেকসই। তৃতীয় ধাপে একেকটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ২ লাখ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা। তৃতীয় ধাপের ঘরগুলোতে আরসিসি পিলার, গ্রেড ভিম, টানা লিংকটারসহ বেশ কিছু বিষয় সংযোজন করা হয়।  



এসব ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়নের পোড়াদিয়া বালিয়া, বরগুনা সদর উপজেলার গৌরিচন্না ইউনিয়নের খাজুরতলা, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার খোকশাবাড়ী ইউনিয়নের খোকশাবাড়ী ও চট্টগ্রামের আনোয়ারার বারখাইন ইউনিয়নের হাজিগাঁওয়ে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হয়ে উপকারভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।


আরও খবর



আমি এমবাপেকে পিএসজিতে থাকতে বলেছি: ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৭৯জন দেখেছেন
Image

চলতি মৌসুম শেষেই ফ্রেঞ্চ ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেই ছেড়ে স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেওয়ার কথা ছিল সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবল তারকা কাইলিয়ান এমবাপের। সেভাবেই রিয়ালকে মৌখিক প্রতিশ্রুতি দিয়ে রেখেছিলেন পিএসজির এ সুপারস্টার।

কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে রিয়ালে যাওয়ার সব গুঞ্জন থামিয়ে দিয়েছেন এমবাপে। নতুন করে পিএসজির সঙ্গেই তিন বছরের চুক্তি করেছেন তিনি। পিএসজিতে থাকার জন্য মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিকসহ ক্লাবের স্পোর্টিং ডিরেক্টরের মতোই ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে এমবাপেকে।

তিনি যখন চুক্তি নবায়ন করেন, তখন গুঞ্জন ছড়িয়েছিল খোদ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ কথা বলেছেন এমবাপের সঙ্গে। তিনিই এমবাপেকে রাজি করিয়েছেন পিএসজিতে থেকে যেতে- এমন সংবাদই প্রকাশ করেছিল স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো।

এবার সেসব খবরের সত্যতা স্বীকার করে নিলেন ম্যাক্রোঁ নিজেই। তবে তিনি এমবাপেকে কোনোরকম জোর করেননি বা সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করেননি হিসেবে জানিয়েছেন। মূলত বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনায় এমবাপেকে ক্লাব না ছাড়ার কথা বলেছিলেন ম্যাক্রোঁ।

সংবাদ সম্মেলনে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘হ্যাঁ এটি সত্য যে এমবাপের সঙ্গে আমার কথা হয়েছিল। ভবিষ্যত সম্পর্কে বড় সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সে আমার সঙ্গে কথা বলেছে। তবে সেখানে কোনো নির্দেশ দেওয়ার বিষয় ছিল না। বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনায় তাকে ফ্রান্সেই থেমে যেতে বলেছিলাম।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘প্রেসিডেন্ট হিসেবে বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনায় নিজ দেশের ভালো দেখা আমার দায়িত্ব। তবে আমি কখনও কোনো দলবদলে প্রভাব রাখিনি। অন্য যেকোনো নাগরিকের মতোই খেলাধুলার সুস্থ পরিবেশ চাই আমি। সবসময় ভালো খেলাই আমার কাম্য।’


আরও খবর



পানি পানের অজুহাতে প্রবাসীর বাড়িতে ঢুকে স্বর্ণালংকার লুট

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে পানি পানের অজুহাতে প্রবাসীর ঘরে ঢুকে স্বর্ণালংকার লুট করে নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার (২৫ জুন) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মাথাভাঙ্গা গ্রামে সৌদি প্রবাসী আব্দুল কাদের মোল্লার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

প্রবাসী আব্দুল কাদের মোল্লার স্ত্রী রেহেনা বেগম জাগো নিউজকে বলেন, বিকেলে বাড়িতে আমি একা ছিলাম। আমার ছেলে মুস্তাকিম (৮) ও মেয়ে নুসরাত জাহান (৫) পাশের বাড়িতে প্রাইভেট পড়তে গিয়েছিল। আমার শাশুড়ি ছেলে-মেয়েদের আনতে যান। এ সময় অচেনা এক ব্যক্তি বাড়িতে এসে আমার শাশুড়ির খোঁজ করেন। একপর্যায়ে ওই ব্যক্তি আমার কাছে পানি খেতে চায়। আমি উঠান থেকে ঘরে গ্লাস ও পানি আনতে রওনা হলে আমার পেছন থেকে চুল ধরে মাটিতে ফেলে হাত পা ও মুখ বেঁধে ঘরে নিয়ে যায় এবং খাটের সঙ্গে বেঁধে মারধর করেন। এ সময় বাড়ির বাইরে থেকে আরেক ব্যক্তি ঘরে ঢুকে আলমারি ভেঙে ১০ থেকে ১৫ ভরি স্বর্ণালংকার ও প্রায় অর্ধ লাখ নগদ টাকা নিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, প্রায় আধা ঘণ্টা পর অনেক কষ্ট করে ঘরের টিনের বেড়ায় আঘাত করতে থাকি। প্রতিবেশীরা টিনের শব্দ শুনে ছুটে এসে আমাকে উদ্ধার করেন। পরে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে চরভদ্রাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়ারুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।


আরও খবর



কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে সাংবাদিক পরিবারের সদস্যরাও অনুদান পাবেন

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ১৮জন দেখেছেন
Image

সাংবাদিকদের পাশাপাশি তাদের পরিবারের সদস্যরাও সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে অনুদান পাবেন বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি জানিয়েছেন, এরই মধ্যে এ বিষয়ে একটি নীতিমালা তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী অর্থবছর (২০২২-২৩) থেকেই এটি চালু হতে পারে।

রোববার (২৬ জুন) সচিবালয়ে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের ২৩তম সভা শুরু হওয়ার আগে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এই বছর সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টে সাধারণ খাতে ৯ কোটি ৭০ লাখ টাকা ছিল। তার মধ্যে ৯ কোটি ৩৩ লাখ টাকার বিষয়ে এরই মধ্যে সিদ্ধান্ত হয়েছে। আরও ৩৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা বাকি আছে। আজকের মিটিংয়ে সেগুলোর বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবো। পুরো টাকাই ইনশাআল্লাহ যারা আবেদন করেছেন তাদের মধ্য থেকে সিলেক্ট করে আমরা দিয়ে দেবো।

তিনি বলেন, এর বাইরে করোনাকালীন বিশেষ সহায়তা তহবিল আছে। প্রধানমন্ত্রী যেখানে ১০ কোটি টাকা দিয়েছেন। ৬-৭ মাস আগে অনেকে বলেছিলেন সব টাকা কেন এখন দিয়ে দেওয়া হচ্ছে না? তখন কল্যাণ ট্রাস্টে আলোচনা হয়েছিল, করোনা ভবিষ্যতেও বাড়তে পারে। এখন করোনা বেড়েছে। সেখান থেকে সম্ভবত ৬ কোটি টাকার মতো বিতরণ হয়েছে, আরও ৪ কোটি টাকা আছে। সেগুলোর বড় অংশ আমরা চেষ্টা করবো আগামী কোরবানির ঈদের আগে বিতরণ করার।

তিনি আরও বলেন, সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিষ্ঠা করেছেন। আজকে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট সাংবাদিকদের জন্য একটি ভরসার জায়গা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ট্রাস্টের নিয়ম অনুযায়ী যারা সাহায্য পাওয়ার যোগ্য তারা সবাই পাচ্ছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি যারা সাংবাদিক শুধু তাকে নয়, তার পরিবারের সদস্যরা চিকিৎসা এবং বিশেষ করে শিক্ষার ক্ষেত্রে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে অনুদান দেওয়ার ব্যাপারে। আমরা একটি নীতিমালা তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা আশা করি আগামী অর্থবছরেরই সেটি চালু করতে পারবো।

তিনি বলেন, আমরা বলেছিলাম সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট সব সাংবাদিকদের জন্য। যিনি প্রেস ক্লাবের সামনে দাঁড়িয়ে সরকারকে কালকেই নামিয়ে ফেলেন, এমন অনেককেই আমরা দিয়েছি এবং তাদের দেবো। কারণ কল্যাণ ট্রাস্ট সবার জন্য। যারা সমালোচনা করেন আমাদের, প্রতিদিন আমাদের বিরুদ্ধে লিখেন বা বলেন তাদেরও আমরা এই কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে সহায়তা করেছি এবং ভবিষ্যতেও করবো।


আরও খবর



পিকআপ-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে সহকারী প্রকৌশলী নিহত

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৭৫জন দেখেছেন
Image

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে পিকআপভ্যান ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোজাহার (২৮) নামে সড়ক ও জনপথ বিভাগের এক সহকারী প্রকৌশলী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পিকআপভ্যানে থাকা ১৭ যাত্রী আহত হন। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শুক্রবার (১০ জুন) সন্ধ্যা ৭টায় দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের হিলি মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোটরসাইকেল চালক মোজাহার (২৮) বিরামপুর উপজেলার রানীনগর-টেগরা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় সড়ক ও জনপদ (এলজিইডি) বিভাগে সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

জানা যায়, দিনাজপুর সদর উপজেলা থেকে ২০ জন যাত্রী পিকআপভ্যানে করে গাইবান্ধায় যাচ্ছিলেন। তারা সবাই অটো রাইস মিলে কাজ করেন। বিপরীত দিক থেকে মোটরসাইকেলযোগে কর্মস্থল পলাশবাড়ী থেকে নিজ বাড়ি বিরামপুরে যাচ্ছিল মোজাহার। পিকআপভ্যানটি উপজেলার হিলিমোড়ে পৌঁছালে মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মোহাজার মারা যান। এসময় পিকআপভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে পড়ে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান।

jagonews24

ঘোড়াঘাট ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন ইনচার্জ নিরঞ্জন সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে বলেন, আমাদের স্টেশন থেকে ৩০০ মিটার দূরে মহাসড়কে বিকট শব্দে আওয়াজ হয়। পরে আমরা সেখানে গিয়ে দেখি পিকআপ-মোটরসাইকেল সংঘর্ষ হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে আমরা প্রায় ১০-১৫ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করি।

ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. পার্থজ্বীময় সরকার জানান, আহত ১৭ জনের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। বাকি ১৪ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেই চিকিৎসাধীন।

ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির জাগো নিউজকে বলেন, আমরা সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেছি। মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ঘটনায় কেউ বাদী হয়ে মামলা না করলে, পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে।


আরও খবর



কাবুলে শিখ মন্দিরে বিস্ফোরণ, বহু হতাহতের শঙ্কা

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

আফগানিস্তানে একটি শিখ মন্দির বিস্ফোরণের ঘটনায় বহু মানুষ হতাহত হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। রাজধানী কাবুলে ওই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। খবর বিবিসির।

স্থানীয় সময় শনিবার সকালের ওই বিস্ফোরণে ঠিক কতজন হতাহত হয়েছে সে বিষয়টি এখনও নিশ্চিত নয়।

ঘটনাস্থল থেকে গোরনাম সিং নামের এক স্থানীয় কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানান, ওই মন্দিরে প্রার্থনা করছিলেন প্রায় ৩০ জন। সে সময়ই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, ঠিক কতজন মারা গেছেন বা কতজন বেঁচে আছেন আমরা তা জানি না। তিনি আরও বলেন, তালেবানের সদস্যরা কাউকে ভেতরে ঢুকতে দিচ্ছে না। তাই আমরা জানি না যে, এখন আমরা কি করব।

স্থানীয় প্রচারমাধ্যম টোলো বেশ কিছু ফুটেজ প্রকাশ করেছে। সেখানে দেখা গেছে, ঘটনাস্থল থেকে চারদিকে ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়ছে।

কাবুলে অবস্থিত শেষ শিখ মন্দির এটি। এই সম্প্রদায়ের নেতারা জানিয়েছেন, দেশটিতে বর্তমানে শিখদের সংখ্যা মাত্র ১৪০। ১৯৭০ সালে এই সংখ্যা ছিল প্রায় লাখের কাছাকাছি।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই আফগানিস্তানের বিভিন্ন স্থানে হামলার ঘটনা ঘটছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। গত ডিসেম্বরে কাবুলের একটি সামরিক হাসপাতালে হামলার ঘটনায় ২০ জনের বেশি মানুষ নিহত এবং আরও ১৬ জন আহত হয়।

এর আগে গত এপ্রিলে একটি মসজিদে গ্রেনেড হামলায় ছয়জন আহত হয়। সে সময় ইসলামিক স্টেট অব খোরাসান প্রভিন্স (আইএস-কে) ওই হামলার দায় স্বীকার করে।


আরও খবর