Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত

স্বপ্নের মেট্রোরেল রওনা হলো আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে

প্রকাশিত:Sunday ১২ December ২০২১ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৩৬৪জন দেখেছেন
Image

পরীক্ষামূলকভাবে উত্তরা থেকে আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে স্বপ্নের মেট্রোরেল। তবে এতে কোনো যাত্রী ছিল না। আজ রোববার সকাল ৯টা ৩৯ মিনিটে এ রুটে পরীক্ষামূলকভাবে মেট্রোরেল চলাচল শুরু হয়।

এর আগে রেললাইন, বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইন ও স্টেশনের যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করা হয়। দিয়াবাড়ি ডিপো এলাকা থেকে সকাল ৯টা ৩৯ মিনিটে মেট্রোরেল ছেড়ে যায় আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে এ উপলক্ষে মেট্রোরেলের মূল অনুষ্ঠান হবে আগারগাঁও স্টেশনে।

পারফরম্যান্স টেস্টের অংশ হিসেবে এর আগেও ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৫ কিলোমিটার গতিতে উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশে চলাচল করেছে স্বপ্নের মেট্রোরেল। উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশের দূরত্ব ১১ দশমিক ৫৮ কিলোমিটার। আগামী ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এ অংশে বাণিজ্যিক চলাচলের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে বাস্তবায়নকারী সংস্থা ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট কর্তৃপক্ষ (ডিএমটিসিএল)।

মেট্রোরেলের প্রতি কোচে ৪৮ জন করে যাত্রী বসতে পারবেন। মাঝখানের চারটি কোচ হবে মোটরকার। এতে বসার ব্যবস্থা আছে ৫৪ জনের। সব মিলিয়ে একটি ট্রেনে বসে যেতে পারবেন ৩০৬ জন। প্রতিটি কোচ সাড়ে ৯ ফুট চওড়া। মাঝখানের প্রশস্ত জায়গায় যাত্রীরা দাঁড়িয়ে ভ্রমণ করবে। দাঁড়ানো যাত্রীদের ধরার জন্য ওপরে হাতল এবং স্থানে স্থানে খুঁটি আছে। সব মিলিয়ে একটি ট্রেনে বসে এবং দাঁড়িয়ে মিলিয়ে একসঙ্গে সর্বোচ্চ দুই হাজার ৩০৮ জন যাত্রী চড়তে পারবেন।

দিয়াবাড়ির ডিপো থেকে ধাপে ধাপে ট্র্যাকে উঠেছে মেট্রোরেলের একেকটি ট্রেন সেট। শুরুটা হয়েছিল ডিপো থেকে স্টেশন এক পর্যন্ত। এরপর স্টেশন দুই, তিন হয়ে পল্লবী। এরই মধ্যে মিরপুর-১০ পর্যন্ত মেট্রোরেলের ট্রায়াল হয়ে গেছে। ট্রায়াল রানের জন্য তৈরি হয়ে গেছে কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া ও আগারগাঁও স্টেশনের অবকাঠামোও। এ পথেই আজ মেট্রোরেল যাত্রা শুরু করেছে। মেট্রোরেল পুরোপুরি বিদ্যুৎ-চালিত। সংকেত, যোগাযোগসহ ১৭ থেকে ১৮টি ব্যবস্থা ট্রেন চলার ক্ষেত্রে কাজ করে।

জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থার (জাইকা) সহযোগিতায় এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ২২ হাজার কোটি টাকা। প্রকল্প সূত্রে জানা যায়, উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত রুটে ট্রেন চলাচল করবে ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে। এ লক্ষ্য সামনে রেখে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ রুটে ২৪ সেট ট্রেন চলাচল করবে।

পাঁচ থেকে ১০ মিনিট অন্তর ট্রেন ছেড়ে যাবে। রেলস্টেশন থাকবে সবমিলে ১৬টি। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে রাজধানীর যানজট অনেকাংশেই কমে যাবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।


আরও খবর



ফরিদগঞ্জ পৌরসভায় ৭ জনের চাকরি

প্রকাশিত:Sunday ০৭ August ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ১৪ August ২০২২ | ১৮জন দেখেছেন
Image

ফরিদগঞ্জ পৌরসভা কার্যালয়ে ০৫টি পদে ০৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২১ আগস্ট পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: ফরিদগঞ্জ পৌরসভা কার্যালয়, ফরিদগঞ্জ, চাঁদপুর

পদের বিবরণ
jagonews24

চাকরির ধরন: অস্থায়ী
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
কর্মস্থল: ফরিদগঞ্জ, চাঁদপুর

বয়স: ২১ আগস্ট ২০২২ তারিখ ১৮-৩০ বছর। বিশেষ ক্ষেত্রে বয়স শিথিলযোগ্য।

আবেদনের ঠিকানা: মেয়র, ফরিদগঞ্জ পৌরসভা, চাঁদপুর।

আবেদন ফি: ব্যাংক ড্রাফট/পে-অর্ডারের মাধ্যমে ১-২ নং পদের জন্য ১০০০ টাকা, ২-৪ নং পদের জন্য ৭০০ টাকা, ৫ নং পদের জন্য ৫০০ টাকা পাঠাতে হবে।

আবেদনের শেষ সময়: ২১ আগস্ট ২০২২ তারিখ বিকেল ০৫টা পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

সূত্র: যুগান্তর, ০৬ আগস্ট ২০২২


আরও খবর



ঐতিহ্যবাহী প্যাডেল স্টিমার ‘রকেটে’ একদিন

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Sunday ১৪ August ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

রুবেল মিয়া নাহিদ

উপকূলীয় জেলা পিরোজপুরের মঠবাড়িয়াতে বাড়ি হওয়ায় জলপথে স্টিমার ‘রকেট’ ভ্রমণের আছে মজার মজার অভিজ্ঞতা। কালের সাক্ষী প্যাডেল স্টিমার যা দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের কাছে রকেট হিসেবে পরিচিত। শত বছর আগে ব্রিটিশ আমলে চালু হওয়া নৌপথের বিলাসবহুল নৌযান এখন অনেকটাই ব্যবহার অনুপযোগী।

প্যাডেল স্টিমারের নাম অনেকেই শুনেছেন। যারা শোনেননি, তাদের জন্যে বলি এই জলযানের বয়স প্রায় ১০০ বছর, কোনোটা হয়তো সেঞ্চুরি পূরণ করে ফেলেছে আরও অনেক আগেই। দুপাশে দুটো প্যাডেল দিয়ে পানি কেটে সামনে এগিয়ে যায় বলেই এগুলোর নাম প্যাডেল স্টিমার। বিশ্বজুড়ে এই প্যাডেল স্টিমার আছে হাতেগোনা অল্প

jagonews24

একদিন যাত্রী হয়েছিলাম প্যাডেল স্টিমার ‘রকেটের’। ঢাকা থেকে যাত্রা করে আসা স্টিমারগুলোর সর্বশেষ গন্তব্য পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার মাছুয়া ঘাট হয়ে খুলনা বিভাগের মোড়ল গঞ্জের সন্ন্যাসী ঘাটে।
আমার যাত্রা শুরু হয়েছিল মাছুয়া ঘাট থেকে।

মাছুয়া ঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া স্টিমারগুলো ঘাটে এসে পৌঁছায় বেলা ১১টায়। এর আগে স্টিমারগুলোর প্রথম যাত্রা শুরু হয় মোড়লগঞ্জের সন্ন্যাসী ঘাট থেকে। ঘাটে এসে স্টিমার ভিড়তেই মানুষের হুড়োহুড়ি পড়ে যায় স্টিমারে ওঠার। যদিও আমার তাড়াহুড়া ছিলো না।

jagonews24

আমার কেবিন পূর্বেই বুকিং দেওয়া ছিলো। যাত্রীরা ডেকে বিছানা পাতায় ব্যস্ত ছিলেন। যে যার প্রয়োজন ও পছন্দ অনুযায়ী জায়গায় বিছানা পেতে নিয়ে বসে গেছে। আমিও আমার ব্যাগপত্র নিয়ে কেবিনে প্রবেশ করে ফ্রেশ হয়ে সকালের নাস্তা সেরে একটু বিশ্রাম নিলাম।

পরক্ষণেই আমার মনটা আনচান করতে লাগলো পুরো স্টিমারটি ঘুরে দেখার। ছোটবেলায় নানা-দাদুদের মুখে স্টিমার ভ্রমণের আনন্দের কথা অনেক শুনেছি। জেনেছি স্টিমারের পূর্ব ও বর্তমান ইতিহাস।

বিলম্ব না করে একটি পানির বোতল হাতের মোবাইল ফোনটি ও কিছু টাকা নিয়ে বের হলাম পুরো স্টিমার ঘুরে দেখতে। বেলা সাড়ে ১১টায় মাছুয়া ঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করলো বয়সের ভারে প্রবীণ হওয়া লেপচা স্টিমারটি।

jagonews24

আমি ঘুরে ঘুরে খুঁটিনাটি দেখতে শুরু করলাম। কেবিন থেকে বের হয়ে প্রথমেই প্রবেশ করলাম ডেকে। প্রতিটি বিছানায় ৪-৫ জন করে যাত্রী। কেউ যাচ্ছেন পরিবার নিয়ে কেউ কেউ যাচ্ছেন বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে। নদীর শীতল হাওয়ায় গা ভাসিয়ে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়েছে অনেক শিশু ও বৃদ্ধরা। ভ্রমণকে আরো একটু আনন্দময় করতে লুডু বা তাস খেলতে বসে গেছেন অনেকেই।

ডেক রুম কাটিয়ে আমি চলে গেলাম ইঞ্জিন রুমের পাশে। বিশাল আকৃতির দুটি ও ছোটো ছোটো কয়েকটি ইঞ্জিনে ভরা রুমটি। যে কোনো প্রকার সমস্যার সমাধান কিংবা ইঞ্জিন বন্ধ করার জন্য সার্বক্ষণিক ইঞ্জিন রুমের পাশে অবস্থান করে দুজন কর্মচারী।

শুরুর দিকে এই স্টিমারগুলো কয়লায় চলত। কয়লা থেকে উৎপন্ন হওয়া স্টিমে এই নৌযান গুলো চলার কারণে এর নাম হয় স্টিমার। তবে কালের বিবর্তনে আধুনিকায়নের ফলে এই স্টিমারগুলো এখন চলে ডিজেলে। শুরুর দিকে এই নৌযান গুলো দ্রুততম হওয়ার কারণে স্টিমারের পাশাপাশি এগুলো ‘রকেট’ নামেও বেশ পরিচিতি লাভ করেছে।

jagonews24

ইঞ্জিন রুম দেখা শেষ হতেই যে জিনিসটা আমার নজর কেড়েছে সেটি হলো স্টিমারের দু’পাশে অবস্থিত বিশাল আকৃতির দুটি প্যাডেল। ইঞ্জিন থেকে উৎপন্ন হওয়া শক্তিতে চলে এই প্যাডেল দুটি। আর এই প্যাডেলের গতিতে নদীর বুক চিড়ে গন্তব্যের দিকে ছুটে চলে রকেট।

স্টিমারের আশপাশ দিয়ে কিছুক্ষণ পরপরই লঞ্চ আসা-যাওয়া করছে। তার চেয়েও মনমুগ্ধকর দৃশ্য হলো, নদীতে ইলিশ ধরার দৃশ্য। প্রচণ্ড ঢেউয়ে জেলেদের নৌকা যেন ডুবুডুবু করছে। দেখে ভয়ে আমার শরীর শিউরে উঠলো।
ছোট ছোট নৌকাগুলোতে নিভু নিভু করে বাতি জ্বলছে। এ সময়ের মধ্যে অনেক যাত্রীর সঙ্গেই আমার পরিচয় হয়ে গেল। খুবই ভালো লাগছিল তাদের সঙ্গে কথা বলে।

তখন বিষখালী ও কীর্তনখোলা নদী হয়ে স্টিমার ছুটে চলছে পরের ঘাট চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে। খুব ভোরে আমরা পৌঁছে গেলাম সদরঘাটে। নদীর ঢেউ, জ্যোৎস্নার আলোর খেলা দেখতে দেখতেই শেষ হলো আমার স্টিমার ভ্রমণ।


আরও খবর



নওগাঁয় পাঁচ ব্যবসায়ীকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

নওগাঁর বদলগাছীতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার উৎপাদন ও বিপণনের অপরাধে পাঁচ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিককে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রোববার (৩১ জুলাই) দুপুরে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ আদেশ দেন ভোক্তা অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শামীম হোসেন।

তিনি বলেন, বাজার মনিটরিং কালে দুই হাজার ছত্রাক ধরা মিষ্টি, আট হাজার পিস অস্বাস্থ্যকর খুরমা, ১০০ লিটার নষ্ট পামওয়েল, ২০০ কেজি নষ্ট জিলাপি, ২০০ কেজি ভেজাল দই, ১০০ কেজি ভেজাল গুড়, ২০০ কেচি নষ্ট মিষ্টির সিরা জব্দ করা হয়।

নওগাঁয় পাঁচ ব্যবসায়ীকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা

এসময় অনুমোদনহীন, অস্বাস্থ্যকর, অবৈধ উৎপাদন ও বিপণনের অপরাধে সোহেল রানা (৪০), নুরুল ইসলাম (৪৮), জবির উদ্দিন সরদার (৫৫), সুশীল মোহন্ত (৪৫) ও ফজলুকে (৬৫) ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এসময় র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি অধিনায়ক আমিনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



জ্বালানি সংকট বাড়বে কি না এখনই বলা যাচ্ছে না: কাদের

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ১৬ August ২০২২ | ৩১জন দেখেছেন
Image

জ্বালানি সংকট বাড়বে কি না তা এখনই বলা যাচ্ছে না বলে দাবি করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (২৫ জুলাই) দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, জ্বালানি সংকট আরও বাড়বে কি না তা এখনই বলা যাচ্ছে না। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকার উদ্যোগ নিয়েছে। আশা করি মোকাবিলা করা যাবে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির সঙ্গে আওয়ামী লীগের সংলাপ হবে কি না এ বিষয়ে কোনো আলোচনা বা সিদ্ধান্ত হয়নি। আন্দোলন করতে গেলে চা খাওয়ানো যেতেই পারে। এটা এমন কিছু নয়। আওয়ামী লীগ মনেপ্রাণে চায় বিএনপি নির্বাচনে আসুক।


আরও খবর



ভোক্তা অধিদপ্তরে অভিযোগ দিলেন ডিপোর সামনে অবস্থান নেওয়া ইসতিয়াক

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
Image

তেল কম দেওয়ার অভিযোগে রাজধানীর কল্যাণপুরে প্ল্যাকার্ড হাতে অবস্থান নিয়েছিলেন ইসতিয়াক হোসেন নামে এক যুবক। আজ মঙ্গলবার (২ আগস্ট) বেলা ১১টায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে তিনি তার অভিযোগ জমা দেন।

শুরুতে তার কাছ থেকে অভিযোগ শোনেন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (অভিযোগ) মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান। পরে দুপুর ১২টার দিকে তাকে ডেকে নেওয়া হয় ভোক্তা অধিকারের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামানের কক্ষে।

এ বিষয়ে ইসতিয়াক হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার আমার অভিযোগ শুনেছে এবং আমলে নিয়েছে। তারা বলেছে আমার অভিযোগ যৌক্তিক। আমি আমার মোটরসাইকেল একই ভাবে রেখে দিয়েছি। আমি চাই এর বিচার হোক।

jagonews24

এ বিষয়ে আগামী বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) শুনানি হবে। সময়ে ভোক্তা অধিকার থেকে জানানো হবে বলে জানান তিনি।

ভোক্তা অধিকারে অভিযোগ জমা দেওয়ার পর তিনি তার কর্মস্থলে ফিরে যান।

এর আগে মাপে তেল কম দেওয়ার অভিযোগে রাজধানীর কল্যাণপুরে সোহরাব পেট্রলপাম্পের সামনে সোমবার সকাল ১০টার পর থেকে অবস্থান নেন ইসতিয়াক হোসেন। তার দাবি ৫০০ টাকার তেল কিনে রশিদ পেলেও করা হয়েছে কারসাজি। তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা।


আরও খবর