Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সুন্দরগঞ্জে কলেজ ছাত্রকতৃক গৃহবধু ধর্ষিতা থানায় মামলা দায়ের

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৮৯জন দেখেছেন

Image

একেএম শামছুল হক সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:সুন্দরগঞ্জে কলেজ ছাত্র এইচএসসি পরীক্ষার্থি কতৃক এক সন্তানের জননী গৃহবধু ধর্ষিতা হওয়ায় বিচার চেয়েথানায় মামলা দিয়েছেন ওই গৃহবধু।ঘটনার ৩দিন অতিবাহিত হলেও এপযন্ত  এজাহার মামলা হিসেবে গণ্য হযনি,,,।থানাও এলাকাবাসি সুত্রে জানা যায় উপজেলার ছাপরহাটি ইউপির পঃছাপরহাটি গ্রামের আঃকাফির ৩য় পুত্র লিমন মিয়া (২১)চলমান এইচএসসি পরীক্ষার্থি, নিজ বাড়ির পার্শ্ববতি  একই মৌজার আঃ কুদ্দুস মিয়ার পুত্রবধু আঃ রাজ্জাকের স্ত্রীকে ধর্ষন করে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে ৬জুলাই,, প্রতিদিনের মত রাতের খাওয়া শেষকরে ঘুমিয়ে  যান ওই গৃহবধু।স্বামি আঃরাজ্জাক ঢাকায় থাকার সুবাদে রাত অনুমান১০টার দিকে কৌশুলে ঘরের দরজা খুলে ঘুমন্ত অবস্হায় গৃহবধুকে ধর্ষনকরতে থাকলে এমতাস্হায় ওইগৃহবধু জাগ্রতহয়ে ধর্ষক লিমনকে জাপটে ধরে চিৎকার দেয়,এতে পার্শ্ববতি ঘরের আঃকুদ্দুছ ও তার স্ত্রী ইছামতি সহ পাশের বাড়ির ইসমাঈল দৌড়ে এসে লিমনকে আটক করে।এসময় লিমন এলোপাতারি কিলঘুষি মেরে দৌড়ের চেষ্টাকরলে আঃকুদ্দুস পড়নের লুঙ্গি টেনে ধরলে লিমন লুঙ্গিখুলে রেখে উলঙ্গ অবস্হায় পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগি গৃহবধু জানায়, লিমন বিভিন্ন প্রকার ভয়দেখিয়ে তিন মাসপুর্বে  তাকে ধর্ষনকরে মেবাইলে ভিডিও ধারনকরে ফেসবুকে দেয়ার ভয়দেখায় এবং তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোগ করতে আসছে। কিছুদিন থকে তাকে বিয়ের চাপ দিলে তালবাহানা করতে থাকে।এরপর গত ৫জুলাই রাতে তাকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটায়।এঘটনায় গত ৭জুলাই ধর্ষিতা বাদি হয়ে থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন।সুন্দরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মাহবুব আলম এজাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন ঘটনার তদন্তপুর্বক আইনানুগ ব্যবস্হা গ্রহন করবেন বলে জানান।

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



সরকারি হাসপাতালে সবকিছু বিনামূল্যে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সরকারি হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা, পরীক্ষা-নিরীক্ষাসহ সব কিছুই বিনামূল্যে হবে, বলেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচিতে আরও সমন্বয়ের দরকার আছে। তবে সব সরকারি হাসপাতালের উদ্দেশ্য সেবা দেওয়া। তাই সরকারি হাসপাতালে সবকিছুই বিনামূল্যে হবে।

শনিবার (২৯ জুন) দুপুরে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট কর্তৃক আয়োজিত স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচি (এসএসকে) সেবা উদ্বোধনী কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা যদি একই লক্ষ্য নিয়ে বিভিন্নজন বিভিন্ন দিক থেকে কাজ করি তাহলে ফলাফল ভালো হয় না। আপনারা প্রান্তিক পর্যায়ে জনগোষ্ঠীকে সেবা দেন। এক্ষেত্রে আপনারা যদি জেলা উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালের সঙ্গে সমন্বয় করে কার কী লাগবে এটার ভিত্তিতে কাজ করেন। সেটা অধিকতর ফলপ্রসূ হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এসএসকের মূল লক্ষ্য হওয়া উচিত সরকারি হাসপাতালে যেসব সুযোগ সুবিধা নেই সেগুলো পূরণ করা। এক্ষেত্রে আগামী অর্থ বছর থেকে আলাপ আলোচনা করে আয়ুষ্মান ভারতের আদলে এ কর্মসূচিকে এগিয়ে নেওয়া হবে।

এদিন স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচি উদ্বোধনসহ সর্বমোট ৮টি উপজেলায় এসএসকে সেবা ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন। স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচির আওতায় দরিদ্র পরিবার বিনামূল্যে ১১০টি রোগের চিকিৎসাসহ সামাজিক বিমার আওতায় আর্থিক সুবিধা পাবে।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. রোকেয়া সুলতানা।

এর আগে এদিন সকালে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। তিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগ, ইনডোর বিভাগ, আউটডোর বিভাগ, এনসিডিসি কর্নারসহ বিভিন্ন বিভাগ পরিদর্শন করেন এবং হাসপাতালের ডাক্তার, রোগীদের সঙ্গে চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে বিস্তারিত কথা বলেন।

এরপর স্বাস্থ্যমন্ত্রী যাচাই করে দেখেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাসেল'স ভাইপারের এন্টিভেনম ঠিকমতো সংরক্ষণ করা হচ্ছে কি না। এছাড়া রূপগঞ্জ উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের জিন্দা কমিউনিটি ক্লিনিক পরিদর্শন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রসবপূর্ব ও প্রসবপরবর্তী পরিচর্যা এবং নবজাতকের স্বাস্থ্য সেবা সম্পর্কে খোঁজখবর নেন। পরিদর্শনকালে নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক), স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলমসহ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের স্থানীয় কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



তানোরে গ্রামীণ ব্যাংকের গাছ বানিজ্য

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে অভিনব কায়দায় গ্রামীণ ব্যাংক গাছ বানিজ্য করছেন বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেন। গ্রাহককে ঋন দিয়ে সেখান থেকে ১০০ টাকা  কর্তন করে গাছ কিনতে বাধ্য করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত চলে গাছ বানিজ্যের ঘটনাটি। গ্রামীণ ব্যাংক কর্মকর্তার এমন কান্ডে গ্রাহকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন। এতে করে অসহায় গরীব দুঃখী গ্রাহকরা চরম বিব্রত প্রকাশ করেন।তানোর পৌর সদর এলাকার এক গ্রাহক জানান, গাছ না কিনলে ঋন দিবে না, আমি ঋন নিচ্ছি প্রয়োজনের তাগিদে। আর তারা সুযোগ বুঝে গাছ বিক্রি শুরু করেছেন। গাছ কিনতেই হবে। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে গ্রামীণ ব্যাংক তানোর শাখায় গিয়ে দেখা যায়, বাহিরে গাছ নিয়ে দাড়িয়ে আছেন কয়েকজন গ্রাহক। আরেকজন গাছ নিবেনা এজন্য ভ্যানে বসে আছেন। তিনি জানান, গাছ নেয়া হশনি এজন্য আমাকে এখনো ঋণ দেয়নি। ঋণ নিলে গাছ কিনতেই হবে।যে সব গাছ গ্রামীণ ব্যাংক বিক্রি করছে সেগুলো কোন জাতের না। অল্প দামে কিনে এনে ৫০ টাকা পিচ বিক্রি করছেন। ৫০ টাকা সঞ্চয়ের বকেয়া থাকলে ঋণ দেয়না, তাহলে গাছ কেন কিনতে হবে।ব্যাংকের ভিতরে গিয়ে দেখা যায়, ম্যানেজার রেজাউল করিম ঘরের পশ্চিম দিকে বসে আছেন। সেখান থেকে যার নামে ঋন লিখছেন তাকে গাছ কিনার জন্য সাদা কাগজে লিখে দিচ্ছেন। ওই কাগজ দেখিয়ে যারা গাছ কিনছেন তাদেরকে আগে ঋন দেয়া হচ্ছে। আর যারা নিতে চাচ্ছে না তাদেরকে ঋন দিচ্ছেনা। দুজন মাঠ কর্মী ১০০ টাকা করে নিয়ে একটি আম ও একটি মেহগনি গাছ দিচ্ছেন।গ্রামীণ ব্যাংক তানোর শাখার ম্যানেজার রেজাউল করিম জানান, জলবায়ুর বিরুপ প্রভাবের কারনে দেশে ব্যাপক তাপমাত্রা শুরু হয়েছে। এজন্য বন ও পরিবেশ মন্ত্রী বৃক্ষ রোপনের শুভ উদ্ধোধন করে গাছ লাগানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। সে মোতাবেক গ্রাহকদের মাঝে গাছ বিক্রি করা হচ্ছে। গাছ না কিনলে কোনভাবেই ঋন দিচ্ছেনা জানতে চাইলে তিনি জানান, বাধ্য করা হচ্ছেনা। গাছ না কিনলে ঋনও দিচ্ছেনা কেন প্রশ্ন করা হলে উত্তরে অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি।এরিয়া ম্যানেজার শুভংকার বলেন, আমরা গাছ রোপনের জন্য গ্রাহকদের পরামর্শ দিতে বলেছি, গাছ বিক্রির কথা বলা নাই। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



নীলফামারীতে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উন্নয়নমূলক কাজ নিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সাথে মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪১জন দেখেছেন

Image
শাহজাহান কবির লেলিন, নিলফামারী,(জলঢাকা),প্রতিনিধি:নীলফামারীতে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন উন্নয়নমুলক কাজ নিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

(৩০ জুন)শনিবার দুপুরে নীলফামারী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের  সম্মেলন কক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সরকারের নানা উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মামুনুল আলম বলেন, “যে, যাই বলুক, আমরা সরকারের কর্মচারী মাত্র। আপনারা শিক্ষক,আপনারাই সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ। কারন,শিক্ষকরা মানুয তৈরীর প্রধান হাতিয়ার। আপনারা শিক্ষার্থীকে সঠিক শিক্ষা দিতে পারলে, দেশে সঠিক মানুষ তৈরী হবে, এতে করে দেশ এগিয়ে যাবে।” তিনি আরো  বলেন,“সরকার আপনাদের প্রতি অনেক আন্তরিক। এ জন্যই  বাজেটের মোট বরাদ্দের ৮(আট) ভাগের ১(এক) ভাগ শিক্ষাখাত বরাদ্দ দিয়েছে।’তাই বলব আপনারা কোয়ালিটি শিক্ষাদান দিন আমাদের সন্তানদের ।সন্তানরা  কোয়ালিটি না হলে, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে টিকে থাকা তাঁদের পক্ষে  কঠিন হবে।আমাদের দেশ অনেক এগিয়ে গেছে, এশিয়ার চারটি দেশ জাপান,কোরিয়া, সিংগাপুর,হংকং এর পরে বাংলাদেশের অবস্থান। ভারত, চীন উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় রয়েছে, আমরাও একই তালিকায় রয়েছি।তিনি এ সরকারের  শিক্ষা ব্যবস্থায় চিন্তা,ভাবনা, উন্নয়ন-প্রক্রিয়া নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানে  সভাপতিত্ব করেন, নীলফামারী শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর এর নির্বাহী প্রকৌশলী হাজেরুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন, রংপুর সার্কেল শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী তারেক আনোয়ার জাহেদী, নীলফামারী সরকারী কলেজ অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া, নীলফামারী সরকারি মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ ওবায়দুল আনোয়ার ও জেলা শিক্ষা অফিসার হাফিজুর রহমান প্রমুখ। অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় জেলার বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার  প্রধানগন উপস্থিত ছিলেন।প্রতিষ্ঠানের  প্রধানদের মধ্যে অনেকেই শিক্ষা- ব্যবস্থা,প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন দিক নিয়ে সভায় বক্তব্য রাখেন। 

আরও খবর



ফকিরহাটে পৃথক ঘটনায় শিশুসহ নিহত দুই আহত সাত জন

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

ফটিক ব্যানার্জী,ফকিরহাট (বাগেরহাট) সংবাদদাতা:বাগেরহাটের ফকিরহাটে যাত্রীবাহী বাসের সাথে মটরসাইকেলের মুখোমুখি সংর্ঘষের ঘটনায় শিশু সহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এসময় মরটসাইকেলে থাকা এক নারী গুরুত্বর আহত হয়েছেন। শনিবার সাকাল ৯টায় খুলনা-বাগেরহাট মহাসড়কের ধরের ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, পটুয়াখালী থেকে  মটরসাইকেল যোগে তিন আরোহী যশোর গদখালী এলাকায় যাচ্ছিলেন। ফকিরহাট উপজেলার মাহদেবেরে দোকান নামক স্থালে এসে পৌছালে বিপরীত দিক থেকে বাগেরহাটগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে।

এতে বাসের চাকায় পৃষ্ঠ হয়ে মটরসাইকেল চালক খলিলুর রহমান (৪৫) এবং তার এক বছরের শিশুপুত্র ঘটনাস্থলে নিহত হন। এসময় নিহত খলিলুর রহমানের স্ত্রী মিনু বেগম (৩৫) গুরুত্বর আহত হন। তিনি আশংকাজনক বলে চিকিৎসকরা জানান।

খবর পেয়ে হাইওয়ে থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে মরদেহ উদ্ধার করেন।  

কাটাখালী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, বাসের সাথে মটরসাইকেলে সংঘর্ষে বাবা ও ছেলে ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছেন। তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আইনী প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।

অপরদিকে, একইদিন সকাল ১০টার দিকে খুলনা-ঢাকা মহাসড়কের ফকিরহাট উপজেলার কানার পুকুর নামক এলাকায় বাসের ধাক্কায় মটরসাইকেল আরোহী ও ভ্যান যাত্রীসহ ছয়জন আহত হয়েছেন। তারা হলেন সজিব শেখ (১৯), মোঃ সাদেক (১৮), মোঃ আল-আমিন (১৮), আসমা বেগম (৫৫) মোঃ ছালাম (৪০) এবং শিশু জারিন খাতুন (১১)। আহতরা উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা। বিময়টি নিশ্চিত করেন ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মোঃ আশরাফুল আলম।


আরও খবর



সৈয়দপুরে পৌরসভার বাজেট ঘোষণা

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৮জন দেখেছেন

Image
জহুরুল ইসলাম খোকন সৈয়দপুর (নীলফামারীর) প্রতিনিধি:নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার ২০২৪-২০২৫ অর্থ-বছরের ১শত ৬৮ কোটি ৭৯ লক্ষ ৮৭ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। সৈয়দপুর পৌরসভা কমিউনিটি সেন্টারে রোববার (৩০ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ওই বাজেট ঘোষণা করেন বাজেট ঘোষণা করা হয়।  অনুষ্ঠানে সভাপতি করেন পৌর মেয়র রাফিকা আকতার জাহান বেরি।  ওই সময় অনেক কাউন্সিলর অনুপস্থিত ছিলেন।বাজেটে আয়ের খাত কর, রেইট, ফি’, স্থাপর সম্পত্তি হতে আয়, রিলিফ, বেতন-ভাতাসহ অন্যান্য খাতে সরকারি আয়, পৌর সম্পত্তি হতে ভাড়া, ব্যাংক লভ্যাংশ, অন্যান্য, পানি শাখা থেকে মোট আয় দেখানো হয়েছে ৩৯ কোটি ৬ লক্ষ ৪৯ হাজার ১শ’ ১৬ টাকা।

সরকার প্রদত্ত উন্নয়ন সহায়তা মঞ্জুরি, রাজস্ব তহবিল হতে বিভিন্ন রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ, আরইউটিডিপি কর্তৃক প্রকল্প কাজের মজুরি, আরইউটিডিপি অপারেশন অ্যান্ড মেইনটেনেন্স, ব্র্যাক আরবান প্রকল্পের সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে রাস্তা-ঘাট নির্মাণ, জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারণে সোলার লাইট ও ডাস্টবিন স্থাপনসহ প্রয়োজনীয় অব-কাঠামো নির্মাণ, আরইউটিডিপি প্রকল্পের আওতায় পৌরসভার নব-নির্মিত সুপার মার্কেটের দ্বিতল ও তৃতীয়তলা ভবন নির্মাণ, আরইউটিডিপি প্রকল্পের আওতায় কেন্দ্রীয় বাস-টার্মিনাল নির্মাণ, গৃহীত ঋণ, প্রদত্ত ঋণ ফেরৎ, বিধিধ বিনিয়োগের লভ্যাংশসহ সর্বমোট আয় দেখানো হয়েছে ১শত ৬৮ কোটি ৮১ লক্ষ ৭৯ হাজার ৮৭ টাকা।

বাজেটে ব্যয়ের খাত দেখানো হয়েছে সম্মানী ভাতা, বেতন-ভাতা, অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের পাওনা, কনজারভেন্সি মজুরি, সংস্থাপন খরচ, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক ব্যয়, স্বাস্থ্য ও পয়ঃ প্রণালী পরিস্কার, ইপিআই, কর আদায় ও নির্ধারণ, বৃক্ষরোপন, নিজস্ব তহবিল উন্নয়ন, জরুরী ত্রাণ ও পরিবহন, খেলাধূলা, সংস্কৃতি, পৌরবৃত্তি, গুণীজন সম্মামনা, গরীব/দুঃখীদের সাহায্য ও অনুদান, শিক্ষাখাতে অনুদান, অসহায়/প্রতিবন্ধীদের চিকাৎসায় অনুদান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে অনুদান, যানবাহন ক্রয়, পানি শাখায় ব্যয় দেখানো হয়েছে ৩৯ কোটি ৬ লক্ষ ৪৯ হাজার ১শত ১৯ টাকা।

অন্যান্য খাত অব-কাঠামো উন্নয়ন, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল বিউটিফিকেশন, আরইউটিডিপি প্রকল্পের আওতায় কেন্দ্রীয় বাস-টার্মিনাল নির্মাণ, আরইউটিডিপি প্রকল্পের আওতায় পৌরসভার নব-নির্মিত সুপার মার্কেটের দ্বিতল ও তৃতীয়তলা ভবন নির্মাণ, রাজস্ব তহবিল থেকে বিভিন্ন রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ এবং ইলেকট্রফিকেশন, পৌর এলাকার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের (ইউএনডিপি) জন্য অব-কাঠামো, পুস্টি ও আর্থ-সামাজিক, আটকেপড়া অ-বাঙ্গালি (ক্যাম্পবাসী) জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের জন্য অব-কাঠামো নির্মাণ, আরইউটিডিপি অপারেশন এন্ড মেইনটেনেন্স খাতে ব্যয়, গৃহীত ঋণ পরিশোধ, ঋণ প্রদান,বিধি বিনিয়োগসহ বিভিন্ন খাতে সর্বমোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১শত ৬৮ কোটি ৮১ লক্ষ ৭৯ হাজার ৮৭ টাকা।

বাজেট ঘোষণাকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুজ্জামান, নির্বাহী প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম, একাউন্টটেন্ট আবু তাহের, প্যানেল মেয়র-০১ শাহিন হোসেন, প্যানেল মেয়র-০২ আবুল কাশেম দুলু সরকার, প্যানেল মেয়র-০৩ সাবিহা সুলতানা, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর কাজী জাহানারা বেগম, ইয়াসমিন পারভিন ও আফরোজা ইয়াসমিন, পৌরসভার কাউন্সিলর আনোয়ারুল ইসলাম মানিক, জোবায়দুল ইসলাম মিন্টু, মোহাম্মদ আলী, শাহিন আকতার, বেলাল হোসেন, কাজী মনোয়ার হোসেন হায়দার, এরশাদ হোসেন পাপ্পু, মঞ্জুর হোসেন, জোবায়দুর রহমান শাহীন প্রমুখ। বাজেট অনুষ্ঠানে শুধু সৈয়দপুর প্রেসক্লাবে অনুদানের কথা উল্লেখ করা হয়েছে কিন্তু সৈয়দপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে অনুদানের কথা উল্লেখ না করায় ক্ষোভে ফেটে পড়েন ওই ক্লাবের সাংবাদিকরা।

আরও খবর