Logo
আজঃ শনিবার ২৫ মে ২০২৪
শিরোনাম

সুন্দরগঞ্জে ইউনিয়ন ভুমিকর্মকর্তা ও ইউপি সদস্যর যোগসাজসে রাস্তার গাছকেটে বিক্রি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ১৪৩জন দেখেছেন

Image

সুন্দরগঞ্জ(গাইবান্ধা)প্রতিনিধিঃসুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ হতে ছাপরহাটী মণ্ডলের হাটপর্যন্ত পাকা রাস্তা সংলগ্ন উত্তর রাজিবপুর মৃত বকুল মেম্বারের ঘরের পার্শ্বে ২টি বড়গাছ রামজিবন ইউনিয়নের বাজারপাড়ার মৃত্যু হাতেম আলির ছেলে জামাল,মৃত্যু আপাজের ছেলে রাজা মিয়া,ওএকই এলাকার মৃত্যু মহির উদ্দিনের ছেলে আনারুলকে দিয়ে গত২৮ মার্চ রাতের আঁধারে কেটে ফেলে বকুল মেম্বারের স্ত্রী জামেনা।বিষয়টি এলাকা বাসির গাছকাটার ভিডিও ফুটেজ সহ এসিল্যাণ্ড বরাবর অভিযোগকরলে এসিল্যাণ্ডের হস্তক্ষেপে কাটাগাছ উদ্ধারততকরে ইউনিয়ন ভুমিকর্মকর্তার জিম্মায় রেখেদেন। 

এঘটনার কয়েকদিন পরে ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তা ও স্হানিয় ইউপি সদস্যের সহযোগিতায় জিম্মায় রাখা গাছ বাজারপাড়ার মৃত্যু আঃজব্বার আলীরছেলে আঃ জলিলের নিকট  বিক্রি করে ফেলে।এঘটনা জানার পরে গাছ বিক্রির বিষয়ে  জিজ্ঞাসা বাদ করাহলে কর্তনকারি/বিক্রয়কারি বলেন,,,, তিনি(জামানা)তহশিলদার জুয়েল ও ইউপি সদস্য শামিমের অনুমতি নিয়ে ব্যবসায়ির নিকট বিক্রি করেছেন।

এনিয়ে ইউপি সদস্য শামিমের সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে সে গাছবিক্রির বিষয়ে কিছুই জানেন না, তহশিলদার জুয়েলের সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে সে বলে কাটাগাছ তার জিম্মায় ছিল,বকুলমেম্বারের স্ত্রী তাকে না জানিয়েই গাছগুলো সরিয়ে নিয়ে ব্যাপারির নিকট বিক্রি করেছে।এব্যাপারে আমি কিছুই জানিনা।

একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে আপনি কি ভূমিকা রেখেছেন,,,, জানতে চাইলে গত ৯এপ্রিলে তিনি বলেন,,, আমি মামলা করব। কিন্ত  এরও ৬দিন অতিবাহিত হলেও এপর্যন্ত মামলা হয়নি।


আরও খবর



পাবলিক প্রকিউরমেন্টে সমান সুযোগের জন্য অন্যায্য ধারাগুলি সরান

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রোববার সেমিনারে বক্তারা বলেন, সরকারকে পাবলিক প্রকিউরমেন্ট প্রক্রিয়ায় দেশি-বিদেশি সব প্রতিষ্ঠানের জন্য সমান খেলার ক্ষেত্র নিশ্চিত করতে স্থানীয় কোম্পানিগুলোর জন্য বৈষম্যমূলক কর কাঠামো অপসারণ করা উচিত। রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম অব বাংলাদেশ আয়োজিত ‘পাবলিক প্রকিউরমেন্ট অ্যাক্ট-চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড অপরচুনিটিজ’ শীর্ষক সেমিনারে তারা এসব তথ্য তুলে ধরেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী মোঃ শহীদুজ্জামান সরকার বলেন, বর্তমান সরকার প্রাথমিক পর্যায়ের ক্রয়ের স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে ইলেকট্রনিক সরকারি ক্রয় চালু করেছে। ই-জিপি ক্রয় প্রক্রিয়াকে ১৮০ ডিগ্রি পরিণত করেছে তিনি যোগ করেছেন যে স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতার পরিপ্রেক্ষিতে আরও অনেক উপায় রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে উচ্চ নৈতিকতার মানুষ প্রয়োজন। তিনি স্টেকহোল্ডারদের কাছ থেকে সভায় আসা সুপারিশ, অভিযোগ এবং দাবিগুলি বিবেচনায় নেওয়ার জন্য সর্বাত্মক সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

মনোনীত আলোচক হিসেবে বক্তৃতাকালে বাংলাদেশ পাবলিক প্রকিউরমেন্ট অথরিটির (বিপিপিএ) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ শোহেলার রহমান চৌধুরী বলেন, তারা দেশে 100% ক্রয় ব্যবস্থাকে ই-জিপি পদ্ধতিতে আনতে চান। তিনি বলেন, বিপিপিএ ক্রয় সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জগুলো চিহ্নিত করে ক্রমাগত সংশোধন করছে। মিঃ রহমান আরও বলেছেন যে তারা বিদ্যমান তিন-পদক্ষেপের অভিযোগের সমাধানকে এক ধাপে নামিয়ে আনবে প্রতিকার সহজতর করার জন্য।

অনুষ্ঠানে বিশ্বব্যাংকের সাবেক লিড প্রকিউরমেন্ট স্পেশালিস্ট ড. জাফরুল ইসলাম ‘গভর্নেন্স অ্যান্ড কম্পিটিটিভনেস ইন পাবলিক প্রকিউরমেন্ট প্র্যাকটিস: বাংলাদেশ প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন,বাংলাদেশে ক্রয় প্রক্রিয়াকরণের ক্ষেত্রে স্বার্থের সংঘাত একটি প্রধান উদ্বেগের বিষয়।সিওআই সরকারী কর্মকর্তা এবং চুক্তি বা পরামর্শ শিল্পের মধ্যে সম্ভাব্য অনানুষ্ঠানিক বা অপ্রকাশিত সম্পর্কের থেকে উদ্ভূত হয়,তিনি বলেছিলেন। মিঃ ইসলাম বলেন, সরকারী কর্মকর্তা বা তাদের পরিবারের সদস্যরা সংস্থায় একই ক্রয় প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করেন এমন উদাহরণ রয়েছে। তিনি বিপিপিএকে কোনো আইন বা নিয়ম প্রণয়নের আগে স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে পরামর্শ করার আহ্বান জানান।

আইবিএফবির উপদেষ্টা ও এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মুহাম্মাদ আবদুল মজিদ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে সম্পদ ও সময়ের অপচয় কমাতে আর্থিক বছরে সংস্কার আনার সুপারিশ করেন। তিনি স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি বিদ্যমান বৈষম্যমূলক কর কাঠামোর পরিবর্তে দেশি-বিদেশি কোম্পানির ওপর সমান কর আরোপের ওপর জোর দেন।

আইবিএফবির ভাইস প্রেসিডেন্ট এম এস সিদ্দিকী সরকারকে পাবলিক আমদানিসহ সব পর্যায়ে অভিন্ন কর আরোপের আহ্বান জানান। তিনি ক্রয় প্রক্রিয়ায় দীর্ঘমেয়াদে টিকিয়ে রাখার জন্য প্রতিযোগিতামূলক হওয়ার প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ শাহাদাত হোসেন সিদ্দিকী কাজের পুরস্কার প্রদান প্রক্রিয়ায় সমতা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কনস্ট্রাকশন ইন্ডাস্ট্রির (বিএসিআই) উপদেষ্টা প্রকৌশলী এসএম খোরশেদ আলম পাবলিক প্রকিউরমেন্ট প্রক্রিয়ায় সর্বনিম্ন দরদাতাকে পুরস্কার দেওয়ার ধারা বাতিল করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বিডের পরিমাণের পরিবর্তে ক্রয়ের সম্ভাব্য পুরস্কারপ্রাপ্তের ক্ষমতা বিবেচনা করা উচিত।

ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন ফর ট্রান্সফরমার অ্যান্ড সুইচগিয়ারের (ম্যাটিএস) সাবেক সভাপতি প্রকৌশলী রবিউল আলম প্রকল্পের পুরস্কার প্রক্রিয়ায় স্থানীয় কোম্পানিগুলোর অসঙ্গতি দূর করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইবিএফবি সভাপতি হুমায়ুন রশীদ।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের বৈঠক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বৃহস্পতিবার (৯ মে) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াত্রা। সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এই সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন ‘ভারত সফর সূচি চূড়ান্ত করতে’ দুই দিনের সফরে বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকা এসেছেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াত্রা। একটি বিশেষ ফ্লাইটে কোয়াত্রা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (দক্ষিণ এশিয়া) এ টি এম রোকেবুল ইসলাম এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা তাকে স্বাগত জানান।

ভারতীয় পররাষ্ট্র সচিব পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এছাড়া পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ মোমেনের সঙ্গেও বৈঠক করবেন তিনি।

আগামী জুলাই মাসে শেখ হাসিনা ভারত সফরে যেতে পারেন বলে সূত্রে জানা গেছে। চলতি বছর জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনের পর এটাই হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রথম ভারত সফর।

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদির মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকে তিস্তার পানি বন্টন চুক্তির বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব ছাড়াও দ্বিপাক্ষিক ও আঞ্চলিক বিষয়গুলো প্রধান্য পাবে বলে সূত্রে জানা গেছে।


আরও খবর



“তরুণ প্রজন্মকে কৃষি উদ্যোক্তা হিসেবে এগিয়ে আসতে হবে”: মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:“কৃষি-উদ্যোক্তাদের সর্বাত্মক সহায়তা প্রদান করার পাশাপাশি সরকার তাদের বিকাশে সকল ধরনের প্রণোদনা প্রদান করছে। দেশের তরুণ প্রজন্মের এই সুযোগটি গ্রহণ করা উচিত; কেননা, তারাই হতে পারে কৃষিখাতের পরিবর্তনের প্রতিনিধি।” আজ (মে ৩) গাজীপুরের কাপাসিয়ায় বরুন উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী কৃষি উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী সিমিন হোসেন (রিমি) এমপি। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসি (ইউসিবি) তাদের সামাজিক দায়িত্বের অংশ হিসেবে কৃষিখাতে সহায়তামূলক প্রকল্প ‘ভরসার নতুন জানালা’র উদ্যোগে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল আলম ফেরদৌস, প্রতিষ্ঠানটির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও কোম্পানি সেক্রেটারি এটিএম তাহমিদুজ্জামান, এবং বিটিভির কৃষিভিত্তিক অনুষ্ঠান ‘মাটি ও মানুষ’-এর জনপ্রিয় উপস্থাপক ও কৃষিতথ্য বিশ্লেষক রেজাউল করিম সিদ্দিকসহ স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

গাজীপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে নির্বাচিত ২শ কৃষি-উদ্যোক্তার উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয় এই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মসূচি, যেখানে ব্যবসায়িক পরিকল্পনা, বিপণন, ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা, ব্যাংকিং ও কৃষি উদ্যোগের আর্থিক দিক সম্পর্কিত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোকপাত করার পাশাপাশি উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী সিমিন হোসেন (রিমি) এমপি বলেন, “কৃষকেরা যেমন আমাদের অনুপ্রেরণার একটি বড় উৎস, ঠিক তেমনই আমাদের তরুণরাও। অনেক তরুণ উদ্যোক্তা আজকাল কৃষিখাতে আগ্রহী হচ্ছেন এবং অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন। তা দেখে সত্যিই খুব ভালো লাগছে। তবে, তাদের সঠিক নির্দেশনা দরকার। ইউসিবির এই উদ্যোগ তরুণদের এ বিষয়ে আলোকিত করবে এবং সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে আমি মনে করি।”

ইউসিবির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল আলম ফেরদৌস বলেন, “আমাদের এই বিশেষ সিএসআর প্রকল্প দেশের কৃষি উদ্যোক্তাদের মনে আস্থার নতুন জানালা খুলে দেবে। এ উদ্যোগ কৃষি ও কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে এবং তাদের অনুপ্রাণিত করার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচনে ভূমিকা রাখবে।”

ইউসিবির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও কোম্পানি সেক্রেটারি এটিএম তাহমিদুজ্জামান বলেন, “খাদ্য নিরাপত্তা অর্জনে দেশকে সঠিক পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে আমাদের কৃষক ও কৃষি উদ্যোক্তাদের কাছে তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ রয়েছে, তা নিশ্চিত করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এরই লক্ষ্যে, দেশজুড়ে সকল উদ্যোক্তাদের জন্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার পাশাপাশি তাদের ক্ষমতায়নে সিএসআর প্রকল্প ‘ভরসার নতুন জানালা’ নিয়ে কাজ করছে ইউসিবি।”

উল্লেখ্য, দেশে এই প্রথম কোনো বাণিজ্যিক ব্যাংক কৃষিখাতে এ ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে সরাসরি কৃষকদের সহায়তা করছে। এই উদ্যোগের আওতায়, দেশব্যাপী বৃক্ষরোপণ, কৃষি উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ, বজ্রপাতপ্রবণ এলাকায় বজ্রপাত নিরোধক দণ্ড স্থাপন, এআই-নির্ভর ‘আরো মাছ (মোরফিশ)’ ডিভাইসের মতো কৃষি-সম্পর্কিত স্মার্ট ডিভাইস বিতরণসহ বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। পাশাপাশি, এই প্রকল্পের আওতায় চর ও লবণাক্ততাপ্রবণ এলাকায় খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা উন্নত করতে জলবায়ুসহিষ্ণু প্রযুক্তি বিকাশের মাধ্যমে ক্লাইমেট-স্মার্ট কৃষি বিপণন ব্যবস্থা উন্নয়নের লক্ষ্যে গবেষণা পরিচালনা করা হচ্ছে।


আরও খবর



১০ টাকা দিয়ে টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | ১৬৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাধারণ রোগীদের মতোই লাইনে দাঁড়িয়ে ১০ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন।

শুক্রবার (৩ মে) সকালে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে যান প্রধানমন্ত্রী। তারপর লাইনে দাঁড়িয়ে নিজেই টিকেট সংগ্রহ করেন এবং চোখ পরীক্ষা করান।

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এ বি এম সারওয়ার ই আলম সরকার তা নিশ্চিত করেছেন।


আরও খবর



হাজিদের জন্য ৪ কোটি বোতল জমজমের পানি প্রস্তুত

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৮৩জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :২০২৪ সালের হজযাত্রীদের জন্য সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষে জামজমাহ কোম্পানি বোর্ড প্রায় ৪ কোটি জমজমের পানির বোতল প্রস্তুত করে রেখেছে।

সৌদি নিউজ এজেন্সি এসপিএর বরাতে জানা যায়, এবার সৌদি কোম্পানি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে হজযাত্রীদের জন্য জমজমের পানি সহজলভ্য করতে ব্যবস্থাপনা সাজিয়েছে। হজযাত্রীরা প্রায় ৪ কোটিরও বেশি জমজমের পানির বোতল পাবেন, যেখানে প্রতিটি হজযাত্রীর জন্য বরাদ্ধ রয়েছে ২২টি জমজম পানির বোতল।

সৌদি আরবের আল জামজামাহ কোম্পানি হজযাত্রীদের জন্য জমজমের পানির বোতল বিতরণ করবে। এবার ব্যবস্থাপনায় কোনো ত্রুটি যেনো না থাকে তাই একটি দক্ষ পরিষেবা নিশ্চিত করতে কোম্পানি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করবে বলেও জানা যায়।

পবিত্র স্থান পরিদর্শনকারী সকল হজযাত্রীদের জন্য জমজমের পানির গুরুত্ব রয়েছে। একটি সঠিক হজযাত্রার অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করার জন্য, সৌদি কোম্পানি হজযাত্রীদের জমজমের পানির বোতল সরবরাহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আল জামজামাহ কোম্পানির বোর্ড সদস্য ইয়াসির সুসুর কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এবারের প্রতিটি হাজি ২২ বোতল জমজমের পানি পাবেন। ইয়াসিরের মতে, হজযাত্রীদের সাথে সরাসরি যোগাযোগের জন্য ডিজিটাল চ্যানেল প্রস্তুত করা হয়েছে। যাতে একটি সুন্দর পরিষেবা নিশ্চিত করা যায়। সৌদি নিউজ এজেন্সি এসপিএ আরো জানায়, বোতলগুলোতে বারকোড প্রিন্ট করা হবে যা সহজেই স্ক্যান করা যাবে। এই পদ্ধতিটি নিশ্চিত করবে যে অর্ডার পেতে এবং প্রয়োজনীয় হজযাত্রীদের কাছে জমজমের পানির বোতল সরবরাহ করতে ডিজিটাল রূপান্তরের সর্বোচ্চ মান ব্যবহার করা হয়।

হাজিদের মধ্যে এসব পানির বোতল যেন সুষ্ঠুভাবে বিতরণ করা যায়, সে জন্য কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়াসহ বিভিন্ন কার্যক্রম ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। সুসু আরও বলেন, তাদের মূল কার্যক্রম হবে মক্কা শহরের কেন্দ্রীয় অঞ্চল এবং এর প্রবেশ ও বের হওয়ার পয়েন্টগুলোতে। জমজমের পানি বিদেশি হাজিদের কাছে বেশি জনপ্রিয়। কারণ তারা এগুলো নিজ দেশে নিয়ে এসে আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবদের উপহার হিসেবে দিয়ে থাকেন। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এবার হজ হতে পারে আগামী ১৪ জুন। ধারণা করা হচ্ছে, এ বছর হজ করবেন ২০ লাখেরও বেশি মানুষ। গত বছর হজ করেছিলেন ১৮ লাখ মুসল্লি।


আরও খবর