Logo
আজঃ শনিবার ১৮ মে ২০২৪
শিরোনাম

স্পেশাল অলিম্পিকস ওয়ার্ল্ড সামার গেমস, বার্লিন ২০২৩ এর সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুন ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ মে ২০২৪ | ৩৫৮জন দেখেছেন

Image

আজাদ হোসেনঃআগামী ১২-২৫ জুন ২০২৩জার্মানির বার্লিনে অনুষ্ঠিতব্য স্পেশাল অলিম্পিকস সামার ওয়ার্ল্ড গেমস প্রতিযোগিতার আসরে অংশ নেওয়ার জন্য ১২ জুন বার্লিনের উদ্দেশে রওনা দেবে বাংলাদেশ দল।বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনে (বিওএ) মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশের চেয়ারম্যান শামীম মতিন চৌধুরী জানান গতবারের চেয়ে বেশি পদক নিয়ে ফেরার লক্ষ্য তাদের।

এবারের আসরের ৮টি ইভেন্টে অংশ নিবে বাংলাদেশের অ্যাথলেটরা। আটটি ইভেন্টে নারী ও পুরুষ দলের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন অ্যাথলেট অংশ নিবে। জার্মানির বার্লিনে অনুষ্ঠিতব্য স্পেশাল অলিম্পিকস ওয়ার্ল্ড গেমস ২০২৩ এ অংশগ্রহণের জন্য গতবছর দেশব্যাপী ট্যালেন্ট হান্ট এর মাধ্যমে খেলোয়াড় নির্বাচন করা হয়েছে। তিনটি ধাপে প্রশিক্ষণ শেষে ১১৩ জনের দল চূড়ান্ত করা হয়েছে। দলনেতা নির্বাচিত হয়েছেন স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশের ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল আলম। তার সাথে রয়েছেন দুইজন সহকর্মী দল নেতা দুইজন ডাক্তার এবং ২৯ জন কোচ ও এডিশনাল স্টাফ।স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত মিট দ্যা প্রেস অনুষ্ঠানে স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ডাঃ শামীম মতিন চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান দলনেতা নুরুল আলম, দলের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ এবং জাতীয় পরিচালক ফারুকুল  আলম সহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচিত স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশ দলের অ্যাথলেট ও কোচ বৃন্দের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



বৃষ্টির আশায় জয়পুরহাটে ইস্তিসকার নামাজ আদায়

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ এপ্রিল 20২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | ৮৮জন দেখেছেন

Image
এস এম শফিকুল ইসলাম জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃচলমান তীব্র তাপদাহের কারনে প্রচন্ড গরম আবওহাওয়া প্রবাহিত হচ্ছে। এর ফলে মানব ও প্রাণিকুলের চলাচলে জীবন অতিষ্ট হয়ে পরেছে। তাপদাহ থেকে রক্ষা পেতে জয়পুরহাটের কালাইয়ে এবং বৃষ্টির প্রত্যাশায় ইস্তিসকার নামাজ আদায় করা হয়েছে। নামাজ শেষে প্রায় ঘন্টাব্যাপী বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

বুধবার সকাল আড়ে ৮টার দিকে জেলার কালাই আহলে হাদিস কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে খোলা আকাশের নিচে ইস্তিসকার নামাজ আদায় করেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা। এতে প্রায় দেড় শতাধিক মানুষ পুরাতন কাপড় পরিধান করে সাথে গামছা নিয়ে ইস্তিসকার নামাজে অংশ নেন।

নামাজ ও মোনাজাত পরিচালনা করেন কালাই আহলে হাদিস কমপ্লেক্স জামে মসজিদের খতিব ও হাতিয়র কামিল মাদ্রাসার আরবী বিভাগের প্রভাষক মাওলানা সেলিম রেজা। আগের দিন মঙ্গলবার উল্লেখিত সময়ে বৃষ্টির আশায় ইস্তিসকার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে বলে মাইকিং করে জানান আয়োজকরা।

মাওলানা সেলিম রেজা জানান, কোরআন-হাদিসের আলোকে যতটুকু জানা গেছে, মানুষের সৃষ্ট কোনো পাপের কারণে মহান আল্লাহ এমন অনাবৃষ্টি ও খরা দেন। বৃষ্টি না হলে আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (স.) সাহাবীদের নিয়ে খোলা ময়দানে ইস্তিসকা নামাজ আদায় করতেন। এজন্য তারা মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে তওবা করে ও ক্ষমা চেয়ে ২ রাকাত নামাজ আদায় করে বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা করেছেন।

নামাজে অংশগ্রহন করতে আসা স্থানীয় মুসল্লী আব্দুল কুদুস জানান, দীর্ঘদিন ধরে অনাবৃষ্টির কারণে মানুষ, পশুপাখি গাছপালাসহ সবাই খুব কষ্টে আছেন। এজন্য তারা বৃষ্টির আশায় নামাজ পড়েছেন। সৃষ্টিকর্তা চাইলে সবকিছুই সম্ভব। আমরা মানবজাতি যতই কঠিন হইনা কেন ? তিঁনি মহান, তাঁর মহানুভবতায় আমরা এ সংকট থেকে পরিত্রাণ পাবো ইনশাল্লাহপাক। 

বদলগাছি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ওয়ারলেস অপারেটর প্রদিব কান্তি রায় জানান, কয়েকদিন ধরে সকালে ২৭-২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা থাকছে। বিকেল ৩টার দিকে তা ৩৮-৩৯ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যায়। গত মঙ্গলবার বিকেলে তাপমাত্রা ছিল ৩৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। প্রায় দেড়/দুই মাস ধরে জয়পুরহাটের পুরো জেলায় বৃষ্টিপাত হয়নি। এ ছাড়া আপাতত বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা নেই বলেও জানান তিনি। 

আরও খবর



যাত্রাবাড়ী মাতুয়াইলে বাস-পিকআপের সংঘর্ষে ২ জন নিহত

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০২৪ | ৪৭জন দেখেছেন

Image

বিশেষ প্রতিনিধি:- রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর মাতুয়াইলে যাত্রীবাহী বাস ও পিকআপের সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। রোববার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে যাত্রাবাড়ী ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মাতুয়াইল মা ও শিশু হাসপাতালের সামনের সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।


নিহতেরা হলেন পিকআপ চালক বাবুল চিশতি ও কবির হোসেন। 

ট্রাফিক ইন্সেপেক্টর বদরুল আলম জানান, মাতুয়াইলের মা ও শিশু হাসপাতালের সামনের সড়কে পিকআপ ভ্যানটি ইউটার্ন নিচ্ছিল। তখন তুহিন নামের একটি যাত্রীবাহী বাস পিকআপ ভ্যানটিকে ধাক্কা দিলে তা দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে বাসটিও পাশের খাদে পড়ে যায়। পরে পিকআপ ভ্যানের ভেতর থেকে স্থানীয় লোকজন ও পথচারীরা মুমূর্ষু অবস্থায় ওই দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন।


ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ দুটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানা-পুলিশকে জানানো হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ইন্টারনেট ঠিক হতে সময় লাগবে আরও ২-৩ দিন

প্রকাশিত:শনিবার ২০ এপ্রিল ২০24 | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | ১৫৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ইন্টারনেট সেবা ব্যাহত হচ্ছে,দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবলের (সিমিউই-৫) সংযোগ সরবরাহ বন্ধ থাকায়। এটি পুরোপুরি ঠিক হতে আরও দুই-তিন দিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির এমডি মির্জা কামাল আহমেদ।

তিনি জানান, সিঙ্গাপুরে ফাইবার কেবল কাঁটা পড়ায় দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল সিমিউই-৫ দিয়ে ১৬০০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে দেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি রয়েছে। ক্যাবল মেরামত করে ব্যান্ডউইথ সরবরাহ স্বাভাবিক হতে দুই-তিন দিন লাগবে।

মির্জা কামাল আহমেদ জানান, পরিস্থিতি সামাল দিতে সিমিউই-৪ সাবমেরিন কেবল দিয়ে বিকল্পভাবে ব্যান্ডউইথ সরবরাহের চেষ্টা করা হচ্ছে। বাংলাদেশের পাশাপাশি আরও কয়েকটি দেশে একই অবস্থা তৈরি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টার পর এ সমস্যা শুরু হয়েছে।


আরও খবর



রাণীশংকৈলে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | ২৬জন দেখেছেন

Image
রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি:ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় গতকাল শনিবার (১১ মে) রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে সোখিনা বেগম (২৬)নামে এক গৃহবধূ মৃত্যু বরণ করেছেন। মৃত সোখিনা উপজেলা নন্দুয়ার ইউনিয়নের ক্ষুদ্র বাঁশবাড়ী হটাৎ পাড়া গ্রামের ভ্যান চালক সাইফুল ইসলামের স্ত্রী। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন রাণীশংকৈল থানার ওসি সোহেল রানা। 

পুলিশ ও পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, সাইফুল একজন ভ্যান চালক সে প্রতিদিনের ন্যায় খেয়ে দেয়ে সকালে ভ্যান নিয়ে চলে যায়। তাদের পরিবারে ২ ছেলে এক জন স্থানীয় মার্দাসায় পড়া লেখা করে সে মাদ্রাসায় থাকে। অপর জন নানির বাড়ি মেহমান খেতে যায়।বাসা ফাঁকা পেয়ে স্ত্রী সোখিনা সকলের অগোচরে  নিজ ঘরের শয়ন কক্ষে গলায় ফাঁস দেয়। সন্ধ্যায় তাঁর স্বামী সাইফুল বাসায় এসে ডাকাডাকি করে কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে। আশেপাশের লোকজন এসে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে ঝুলন্ত অবস্থান লাশ দেখতে পায়।পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। 

এ দিকে সোখিনার বাবা সেকেন্দার মিয়া জানান, পারিবারিকভাবে তার মেয়ের সঙ্গে সাইফুলের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে ২ সন্তান আছে। কিছু দিন আগে একটি বিষয় নিয়ে তার স্বামী তাকে গালমন্দ করেন। আমরা গিয়ে সেটা মিটমাট করে দেয়।  তবে হটাৎ কী কারণে সোখিনা এমনটি করেছেন, এ বিষয়ে কেউ কিছু জানাতে পারেনি।

রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল রানা আরো বলেন,গৃহবধূর মৃত্যুর পারিবারিক ভাবে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসার পর আসল রহস্য জানা যাবে।পরবর্তী অভিযোগ পেলে আইন আইনু ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

আরও খবর



ডেমরায় ট্রাফিক ব্যবস্থা বাস্তবায়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন টিআই মৃদুল পাল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | ১১৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

ডিএমপি'র ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ ডেমরা জোনের অন্তর্ভুক্ত ডেমরা, ষ্টাফ কোয়াটার, সুলতানা কামাল সেতু সহ আশেপাশের গুরুত্বপূর্ণ সড়কের নিরাপত্তায় নিয়োজিত ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) মৃদুল পাল ট্রাফিক ব্যবস্থা বাস্তবায়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে টিআই মৃদুল পাল এলাকায় যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। অবৈধ ব্যাটারী চালিত অটো রিকশা, নসিমন করিমন, ভটভটি,রুট পারমিট বিহীন মেয়াদোত্তীর্ণ গাড়ি চলাচল কঠোর হস্তে দমন এবং নিয়মিত অবৈধ পার্কিং বন্ধে কাজ করে যাচ্ছেন। টিআই মৃদুল পাল একজন মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত।গত কয়েক দিন পূর্বে তীব্র দাবদাহের সময় ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশনায় এবং ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম এর তত্ত্বাবধানে ডেমরা ষ্টাফ কোয়াটার এলাকার পথচারী,যাত্রী,গাড়ির চালক-হেলপার সহ সর্বসাধারণের মাঝে বোতল পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করেন । অল্প সময়ে ডেমরা ষ্টাফ কোয়াটার এলাকার সড়কগুলো যানজট মুক্ত করায় জনসাধারণের দূর্ভোগ লাঘব হয়েছে অনেকটাই।

সড়কের পাশে বসা বিভিন্ন ভ্রাম্যমাণ  দোকান উচ্ছেদ করেছেন। ফুটপাত থেকে অবৈধ দোকান উচ্ছেদ করে পথচারীদের নির্বিঘ্নে চলাচল স্বাভাবিক রেখছেন। কোথাও এখন আর যানবাহনের জটলা নেই আগের মতো।তিনচাকার ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা হাইওয়ে রোডে প্রবেশ করে যেন যানজট স্বৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। মৃদুল পাল এর নিষ্ঠা এবং কর্তব্য পরায়ণতার কারণে এলাকার সড়কে চলাচল কারী অফিসগামী মানুষ নিয়মিত কর্মস্থলে পৌঁছতে পারছেন, স্কুল কলেজ গামী শিক্ষার্থীরা সময়মতো ক্লাস করতে পারছেন।

তার অধীনস্থ ট্রাফিক সার্জেন্ট এবং কনষ্টেবলদের সার্বক্ষণিক সড়কে শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করতে নির্দেশনা দেয়ার পাশাপাশি নিজেও কাজ করছেন।

ডেমরা ষ্টাফ কোয়াটার এলাকার ট্রাফিক ইন্সপেক্টর টিআই মৃদুল পাল বলেন, "সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ও ট্রাফিক ব্যবস্থা বাস্তবায়নে আমার যা যা করতে হয় আমি করবো"। 

ডেমরা এলাকায় যানজট নিরসনে প্রতিদিন দুই শিফটে ৩৫/৩৬ জন ট্রাফিক পুলিশ ও অফিসার কাজ করেন। নিয়মিত চারটি পোস্টে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হয়। কখনো কখনো পাঁচটি পোস্ট পরিচালনা করা হয়। প্রতিটি পোস্টে একজন টিএসআই/এটিএসআই/ এএসআই, কনস্টেবল থাকে।


ট্রাফিক সার্জেন্ট আল মামুন জানান,টিআই স্যারের নেতৃত্বে ডেমরা সড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে এবং সাধারন মানুষের সুবিধার জন্য কাজ করে যাচ্ছি, দিনরাত রাস্তায় থেকে সাধারণ মানুষদেরকে সেবা দেওয়ার জন্য কাজ করছি।বেপরোয়া গতিতে কেউ যেন গাড়ী না চালায় বাস,ট্রাক,কভার্ড ভ্যান গতি সীমা অতিক্রম না করে, ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা, সিএনজি, মহাসড়কে না ওঠে তা খেয়াল রাখছি।যে সব মোটরসাইকেলের নাম্বার নেই, গাড়ীর কাগজ পত্র ঠিক নেই, যারা হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল চালান তাদের প্রতি কঠোর হচ্ছে ট্রাফিক পুলিশ।এর পরও যদি কেউ এ আইন অমান্য করে তাহলে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হয়। 


টিআই মৃদুল পাল ডিএমপির অন্যতম একজন চৌকস পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে দীর্ঘ বছর যাবত কর্মরত রয়েছেন। গাজীপুর এলাকার কৃতি সন্তান অত্যন্ত সদালাপি মিষ্টভাষী সাদা মনের মানুষ তিনি। গাজীপুর, কালিয়াকৈর থেকে এসএসসি,এইচএসসি ও মির্জাপুর ডিগ্রী কলেজ থেকে বিএসসি পাশ করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে গণিতে মাস্টার্স করেছেন। তিনি পুলিশ বাহিনীর চাকরির সুবাদে  থাইল্যান্ড থেকে ট্যুরিজম সিকিউরিটি এর উপর প্রশিক্ষণ নিয়েছেন।



 


আরও খবর