Logo
আজঃ Wednesday ০৫ October ২০২২
শিরোনাম

সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ০৫ October ২০২২ | ২৮০জন দেখেছেন
Image


নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ উপজেলায় পুলিশের সোর্স পরিচয়ে নিরীহ মানুষজনকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে শাহআলম নামে বিকৃত মানসিকতার এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যে বর্বর নির্যাতনের এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।


শুক্রবার বিকেলে ফেসবুকে একটি পোস্টে নির্যাতনের ভিডিওটি আপলোড দিয়ে বলা হয়েছে, সোনারগাঁ থানার এএসআই মজিবর এরসোর্স পরিচয় দিয়ে বুক ফুলিয়ে নিরীহ মানুষের উপর বর্বর নির্যাতন করে যাচ্ছে শাহ আলম। কেউ চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তার টর্চার সেলে নিয়ে মিউজিক বাজিয়ে গানের তালে তালে মধ্যযুগীয় কায়দায় অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়।ছিচল্লিশ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, অভিযুক্ত শাহআলম একটি কক্ষে উচ্চ শব্দে গান বাজিয়ে নিউজিকের তালে তালে পেটাচ্ছেন আর নাচছেন। কিছুক্ষণ পর পর নেচে উল্লাশ করছেন আর লোকটাকে পেটাচ্ছেন। 


ভিডিওযুক্ত লিখিত পোস্টে বলা হয়, কাবিলগঞ্জের শাহআলম বর্তমানে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় খন্দকার প্লাজার পাশে তার বোনের বাড়ীতে থাকে। মাঝে মধ্যে একই উপজেলার চিলারবাগ এলাকায় নানার বাড়ীতেও তিনি থাকেন।


সোনারগাঁ থানা  পুলিশের সোর্স পরিচয় দিয়ে শাহ আলম নীরিহ যুবকদের আটকে রেখে মুক্তিপণ বাবদ টাকা পয়সা হাতিয়ে নিয়ে পরবর্তীতে পুলিশের মাধ্যমে ডাকাতিসহ বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে তাদের হয়রানি করেন। শাহ আলমের বিরুদ্ধে এলাকায় ইয়াবা, ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসার সাথেও জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। 


এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাফিজুল ইসলাম বলেন, শাহ আলম পুলিশের সোর্স নয়। পুলিশকে জড়িয়ে মিথ্যা অপপ্রচার করা হচ্ছে। সে তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী এবং ডাকাতির সাথে জড়িত। 


ওসি হাফিজুল ইসলাম আরও বলেন, ভিডিওটি আমি দেখেছি। এর আগেই আজই তাকে ডাকাতি মামলায় গ্রেপ্তার করে আদালতে চালান করে দিয়েছি। সে যাকে পেটাচ্ছে সেও একজন ডাকাত। তাদের দুইজনের বিরুদ্ধে অন্তত ১০/১৫টি মামলা আছে এবং অনেকবার তারা জেলও খেটেছে।


আরও খবর

নিখোঁজ সংবাদ

Wednesday ০৫ October ২০২২