Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

সংক্রমণে শীর্ষে জার্মানি, মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্রকে টপকালো ব্রাজিল

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১০১জন দেখেছেন
Image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাগে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ও সংক্রমণ দুটোই কমেছে। এসময়ে ১ হাজার ২৬২ জনের মৃত্যুর পাশাপাশি সংক্রমিত হয়েছেন ৫ লাখ ৬০ হাজার ৯০৪ জন। আগের দিনের তুলনায় একশোর বেশি মৃত্যু কমলেও শনাক্ত কমেছে প্রায় ৪০ হাজার। এ নিয়ে মহামারি শুরুর পর বিশ্বে এ পর্যন্ত মোট মৃত্যু বেড়ে ৬৩ লাখ ৩৭ হাজার ৮৯৭ জন আর সংক্রমণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৪ কোটি ৩০ লাখ ৩১ হাজার ১৪৩ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে ব্রাজিল। আগের দিন দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যু উভয় তালিকাতেই শীর্ষে ছিল যুক্তরাষ্ট্র।

শুক্রবার (১৭ জুন) সকালে বৈশ্বিক পর্যায়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার আপডেট দেওয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

দৈনিক সংক্রমণে শীর্ষে থাকা জার্মানিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮৯ হাজার ১৫১ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত সংক্রমিত ২ কোটি ৭০ লাখ ৯৫ হাজার ৯৮৮ জন এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৪০ হাজার ২৯২ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৯৯ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩২ হাজার ৯৩৪ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত ৩ কোটি ১৬ লাখ ৪৪ হাজার ৭০৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৮৯২ জনের।

করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত হয়েছেন ৭৬ হাজার ২৩ জন এবং মারা গেছেন ১৭০ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৮ কোটি ৭৮ লাখ ৬১ হাজার ১৩২ জন সংক্রমিত এবং মৃত্যু হয়েছে ১০ লাখ ৩৭ হাজার ৯২৮ জনের।

আগের দিন সংক্রমণের দিক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই অর্থাৎ দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা তাইওয়ানে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ৬৩ হাজার ২২১ জন। এসময়ে মারা গেছেন ১৬৮ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত ৩১ লাখ ৩৫ হাজার ৫৬৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৭১৪ জনের।

একদিনে ফ্রান্সে সংক্রমিত ৫৩ হাজার ৮১ জন এবং মারা গেছেন ৪৯ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৩ কোটি ২৮ হাজার ৮৫৩ জন সংক্রমিত এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৪৮ হাজার ৯৯৬ জন। একইসময়ে ফিনল্যান্ডে নতুন সংক্রমিত ১০ হাজার ৭৬৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫৭ জনের।

যুক্তরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ১২ হাজার ৫৩৮ জন এবং মারা গেছেন ৬১ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ২ কোটি ২৪ লাখ ৬০ হাজার ৪৪৯ জন শনাক্ত এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৭৯ হাজার ৪৭২ জন।

উত্তর কোরিয়ায় একদিনে সংক্রমিত ২৬ হাজার ২০ জন এবং মারা গেছেন ১ জন। কানাডায় এসময়ে সংক্রমিত ৪ হাজার ১১৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১১৫ জনের।

রাশিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৬৭ জনের মৃত্যু এবং সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ৩২৬ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত ১ কোটি ৮৩ লাখ ৮৮ হাজার ৪২৪ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৮০ হাজার ২৭০ জন।

একদিনে ইতালিতে নতুন সংক্রমিত ৩৬ হাজার ৫৭৩ জন এবং মারা গেছেন ৬৪ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ১ কোটি ৭৭ লাখ ৭৩ হাজার ৭৬৪ জন সংক্রমিত এবং ১ লাখ ৬৭ হাজার ৬১৭ জন মারা গেছেন।

জাপানে ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ১৬ হাজার ৫৫৫ জন এবং মারা গেছেন ২৮ জন। এসময়ে অস্ট্রেলিয়ায় সংক্রমিত ৩২ হাজার ৩৪৮ জন এবং মারা গেছেন ৭২ জন; থাইল্যান্ডে সংক্রমিত ২ হাজার ১৫৩ জন এবং মারা গেছেন ১৭ জন; চিলিতে সংক্রমিত ১২ হাজার ৯৭৫ জন এবং মারা গেছেন ৩৬ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যার তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে থাকা প্রতিবেশী দেশ ভারতে ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত হয়েছেন ৯ হাজার ৮৪৫ জন। মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট সংক্রমিত ৪ কোটি ৩২ লাখ ৬৯ হাজার ৪৫২ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৪ হাজার ৮০৩ জন।


আরও খবর



শিল্পায়ন ও নগরায়নের ফলে দ্রুত কমছে গাছপালা: ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, শিল্পায়ন ও নগরায়নের ফলে গাছপালা দ্রুত কমে যাচ্ছে। যার বিরূপ প্রভাব প্রকৃতিতে পড়ছে। ফলে প্রকৃতি বৈরী আচরণ করছে।

তিনি বলেন, জীবন ধারণের জন্য বৃক্ষ যেমন অক্সিজেন দেয় পাশাপাশি ফুল-ফল, ছায়া ও কাঠ দেয়। সর্বোপরি বৃক্ষ প্রকৃতিকে সুশোভিত করে।

শনিবার (২৩ জুলাই) বিকালে গাজীপুর শহরের ঐতিহাসিক রাজবাড়ি মাঠে সাত দিনব্যাপী বৃক্ষ রোপন অভিযান ও বৃক্ষমেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।

ঢাকা বন বিভাগের আয়োজনে ও জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান।

বক্তব্য রাখেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, ঢাকা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা নুরুল করিম, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, বন বিভাগের কর্মকর্তা ফজল তরফদার, মীর মো. বজলুর রহমান প্রমুখ।


আরও খবর



দুই হাত হারানো শিশুকে ক্ষতিপূরণ দিতে রুল

প্রকাশিত:Sunday ২৪ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার মুছাপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই হাত হারানো শিশু আবদুল্লাহ আল মামুনকে (১২) পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ কেন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব, পিডিবির চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট নয়জন বিবাদীকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

রোববার (২৪ জুলাই) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার অনীক আর হক ও আইনজীবী ইশরাত হাসান।

জানা যায়, আবদুল্লাহ আল মামুন মুছাপুর ইউনিয়নের ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী মো. আব্দুল আলিমের ছেলে। ২০২১ সালের ২৫ মে আলিমের দোকানের পাশে একটি দুতলা ভবনে মিস্ত্রিরা অ্যালুমিনিয়ামের কাজ করছিলেন। মামুন ওই ভবনের ছাদে কাজ দেখতে যায়। ভবনে ছাদের নিয়ম বহির্ভূতভাবে ক্যাপ ও কভারহীন বিদ্যুতের লাইন স্থাপন করা হয়েছিল। মামুনের হাত বিদ্যুৎ লাইনের তারে স্পর্শ লাগলে বিদ্যুতায়িত হয়। পরে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় স্বর্ণদ্বীপ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চমেক হাসপাতালে সাতদিন চিকিৎসা শেষে তাকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়। বার্ন ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকদের পরামর্শে মামুনের দুই হাত কনুই পর্যন্ত কেটে ফেলা হয়।

এ ঘটনায় মামুনের বাবা ক্ষতিপূরণ চেয়ে চট্টগ্রামের সন্দীপ বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রে আবেদন জানান। ওই আবেদনে সাড়া না পেয়ে সংশ্লিষ্টদের আইনি নোটিশ পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইশরাত হাসান। নোটিশ পাঠানোর পরও কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় গত মে মাসে হাইকোর্টে রিট করা হয়।


আরও খবর



নাটোরে ২৭ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

হত্যাকাণ্ডের ৩০ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি শাহজাহান ওরফে সোহরাব হোসেন স্বপনকে (৫৪) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শনিবার (২৩ জুলাই) সকালে সিরাজগঞ্জের হাটিকুমুরুল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার শাহজাহান নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার পশ্চিম সোনাপাতিল গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে।

র‌্যাব-৫ রাজশাহীর উপ-অধিনায়ক মেজর মাহমুদ হাসান সংবাদ সম্মেলনে জানান, ১৯৯২ সালের ১৭ মে শাহজাহান প্রকাশ্যে একই গ্রামের শাহাদাত আলীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন। এ ব্যাপারে মামলা হলে আদালত শুনানি শেষে শাহজাহান আলীর অনুপস্থিতিতে ১৯৯৫ সালের ২ মে নাটোরের জেলা ও দায়রা জজ তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড দেন। হত্যাকাণ্ডের ত্রিশ বছর পর গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব শাহজাহান আলীকে গ্রেফতার করে।

এসময় নাটোর সিপিসি-২ র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মো. ফরহাদ হোসেন ও কোম্পানির উপ-অধিনায়ক মো. রফিকুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ফোর্ডের ভারতীয় কারখানা কিনে নিচ্ছে টাটা

প্রকাশিত:Monday ০৮ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
Image

ভারতের গুজরাটে অবস্থিত ফোর্ডের একটি গাড়ি প্রস্তুতকারক কারখানা কিনে নিচ্ছে টাটা মোটরস। আর এর জন্য তাদের খরচ হবে ৭২৬ কোটি রুপি (৯ কোটি ১৫ লাখ মার্কিন ডলার বা ৮৬৬ কোটি ১৬ লাখ টাকা প্রায়)।

গাড়ি উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষ্যে মার্কিন গাড়িনির্মাতা ফোর্ডের সঙ্গে এই চুক্তি করতে রাজি হয়েছে ভারতীয় জায়ান্ট টাটা মোটরস। চুক্তি অনুসারে, গুজরাটের সানান্দ এলাকায় ফোর্ডের মালিকানাধীন জমি, যন্ত্রপাতি ও ‘যোগ্য’ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ন্ত্রণ পাবে টাটার বৈদ্যুতিক গাড়িনির্মাতা ইউনিট।

প্রায় দুই দশক ধরে ভারতে ব্যবসা করলেও লাভের মুখ দেখেনি ফোর্ড। এ কারণে গত বছর দেশটিতে গাড়ি উৎপাদন বন্ধ করে দেয় মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

এক বিবৃতিতে টাটা মোটরস কর্তৃপক্ষ বলেছে, আমাদের উৎপাদন ক্ষমতা সর্বোচ্চ সীমার কাছাকাছি যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এই অধিগ্রহণ খুবই সময়োপযোগী এবং সব অংশীদারের জন্যই লাভজনক।

Ford--2

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সানান্দ কারখানা কেনার ফলে টাটার বার্ষিক উৎপাদন সক্ষমতায় অতিরিক্ত তিন লাখ গাড়ি যোগ হবে, যা ক্রমান্বয়ে ৪ লাখ ২০ হাজারে উন্নীত করা যাবে।

ফোর্ডের ট্রান্সফরমেশন অফিসার স্টিভ আর্মস্ট্রং বলেছেন, ভারতে আমাদের ব্যবসা পুনর্গঠনের চেষ্টায় এই চুক্তি একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ফোর্ড ঘোষণা দেয়, তাদের ভারতীয় কারখানা বন্ধ করে দেওয়া হবে। এতে প্রতিষ্ঠানটির প্রায় ২০০ কোটি ডলার লোকসান হবে এবং ক্ষতিগ্রস্ত হবে অন্তত চার হাজার কর্মী। গত ১০ বছরে ভারতের ব্যবসায় এই ২০০ কোটি ডলার লোকসান করেছে ফোর্ড।

সূত্র: ব্লুমবার্গ, বিবিসি


আরও খবর



বাজার স্বাভাবিক রাখতে আরও ৯৬ মিলিয়ন ডলার সাপোর্ট

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ৭০জন দেখেছেন
Image

সাম্প্রতিক সময়ে দেশে ডলার সংকট তৈরি হয়েছে। এ সংকট প্রতিনিয়ত আরও ঘনিভূত হচ্ছে। সংকটের কারণে এ মুহূর্তে ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে দেশ। খোলা বাজারের ডলার ১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে মার্কেট স্বাভাবিক রাখতে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে ৭ বিলিয়ন ডলার সাপোর্ট দেওয়া হয়েছে ব্যাংকগুলোকে।

বুধবার (২৭ জুলাই) বিভিন্ন ব্যাংকের কাছে প্রতি ডলার ৯৪ টাকা ৭০ পয়সা দরে বিক্রি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আজ ব্যাংকগুলোর কাছে মোট ৯৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বা ৯ কোটি ৬০ লাখ ডলার বিক্রি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বুধবার বিভিন্ন ব্যাংকের কাছে প্রতি ডলার ৯৪ টাকা ৭০ পয়সা দরে বাংলাদেশ ব্যাংক। রিজার্ভ থেকে ডলার বিক্রি করায় দিন শেষে রিজার্ভ দাঁড়িয়েছে তিন হাজার ৯৪৯ কোটি (৩৯ দশমিক ৪৯ বিলিয়ন) ডলারে। বৈদেশিক মুদ্রার এ রিজার্ভ দিয়ে পাঁচ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানো সম্ভব।

এদিকে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো গ্রাহকের কাছে বিক্রি করেছে ৯৪ টাকা ৭৫ পয়সা থেকে ৯৪ টাকার মধ্যে। তবে এখনও চড়াই রয়েছে খোলা বাজারে। বুধবার ১১১ টাকা থেকে ১১২ টাকার মধ্যে বিক্রি হলেও আজ ১১০ টাকায় বিক্রি হয়েছে এক্সচেঞ্জ হাউজগুলোতে। অর্থাৎ খোলাবাজারে ডলারের দাম এক টাকা কমেছে।

ডলার সংকট নিয়ে বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, রেমিট্যান্স ও রপ্তানি আয়ের মাধ্যমেই ডলারের মূল চাহিদা পূরণ হবে। ডলারের দাম নিয়ে নানান উদ্যোগ নিলেও কাজ হচ্ছে না এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, অপেক্ষা করতে হবে, কাজ হবে। এগুলো কারা করছে, সেখানে কী উদ্যেশ্য আছে- জানি না। এখন কী অব্যবস্থাপনা ছিল সেগুলো আমরা দেখছি। আমি দায়িত্ব নিয়ে বলছি এগুলো যাতে আর না হয় সেগুলো দেখছি। মার্কেটে ডিমান্ডের ওপর ভিত্তি করে সাপ্লাই দিতে হবে, এটা কেউ ঠেকাতে পারবে না। এগুলো যদি আর্টিফিসিয়াল পর্যায়ে নিয়ে যায় আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবো। এগুলো নিয়ন্ত্রণে সরকারের বিভিন্ন মেশিনারিজ আছে সেগুলো কার্যকর হবে। আর সেগুলো কার্যকর হলেই কমে আসবে।

 


আরও খবর