Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

সম্রাটের কারামুক্তিতে আর কোন বাধা-ই রইল না

প্রকাশিত:Wednesday ১১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১০৪জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাবেক সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। সম্রাটের বিরুদ্ধে আর কোনো মামলা না থাকায় মুক্তিতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।


বুধবার (১১ মে) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।




এদিন দুদকের মামলার অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য ছিল। সম্রাটের আইনজীবী অভিযোগ গঠন শুনানি পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন। এছাড়া সম্রাটের আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। অন্যদিকে দুদকের আইনজীবী জামিনের বিরোধীতা করেন। 


আদালত উভয়পক্ষের শুনানি শেষে তিন শর্তে ১০ হাজার টাকা মুচলেকায় ৯ জুন পর্যন্ত সম্রাটের জামিন মঞ্জুর করেন। শর্তসমূহ হলো-আদালতের অনুমতি ব্যতীত দেশ ত্যাগ করতে পারবে না সম্রাট,পার্সপোর্ট জমা দিতে হবে এবং স্বাস্থ্যগত পরীক্ষার প্রতিবেদন আগামী ধার্য তারিখে জমা দিতে হবে।


সম্রাটের আইনজীবী আফরোজা শাহনাজ পারভীন হিরা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সম্রাটের বিরুদ্ধে করা চার মামলার মধ্যে ইতোমধ্যে তিন মামলার জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। 


এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালতের দেওয়া ছয় মাসের সাজা অনেক আগেই শেষ হয়েছে।অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের মামলায় আজ জামিন পেয়েছেন সম্রাট। তার বিরুদ্ধে আর কোনো মামলা না থাকায় মুক্তিতে বাধা নেই।


আরও খবর



চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলা

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৭৭জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

করোনার কারণে দুই বছর হয়নি শতবছরের ঐতিহ্যবাহী আবদুল জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলা। এবার স্বল্প সময়ের প্রস্তুতিতে আয়োজিত হচ্ছে এ মেলা। যেখান থেকে বৃহত্তর চট্টগ্রামের মানুষ এক বছরের গৃহস্থালি টুকিটাকি সংগ্রহ করেন। বলা হয়ে থাকে সুঁই থেকে ফুলশয্যার খাটও মেলে জব্বারের বলীখেলায়।  



জীবন বলী চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে জব্বারের বলীখেলা। খেলাকে ঘিরে আগের দিন ও পরের দিন বৈশাখী মেলা।তিন দিনের এ মেলার শেষ দিন মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল)। দূরদূরান্ত থেকে আসা ব্যবসায়ীরা কম লাভে, কেনা দামেই ছেড়ে দিচ্ছেন পণ্যসামগ্রী। এ সুযোগে কিনে নিচ্ছেন ক্রেতারা।


সরেজমিন দেখা গেছে, মাটির তৈরি ছোট-বড় ব্যাংক, ফুলদানি, কাপ-পিরিচ, জগ-গ্লাস, ধর্মীয় নানা স্মারক বিক্রি হচ্ছে বেশি। হাতপাখা, মুড়ি-মুড়কি, বাঁশি, শিশুদের খেলনা, টমটম গাড়ি, নারীদের ইমিটেশনের গহনা, শীতলপাটি, ফুল ও ফলের চারা, বাঁশের শলার তৈরি মাছ ধরার চাই (ফাঁদ), ডালা, কুলা, দা-বঁটি, প্লাস্টিকের ফুলসহ বাহারি সব জিনিস কিনতে আসছেন মানুষ।      




আবদুল জব্বার স্মৃতি কুস্তি প্রতিযোগিতা ও মেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এম জামাল হোসাইন বলেন, মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) দিনগত রাত ১২টায় জব্বারের বলীখেলাকে ঘিরে তিন দিনের বৈশাখী মেলা শেষ হবে। ভোরের মধ্যে সড়কের আশপাশ থেকে সব দোকানপাট উঠে যাবে।   


ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলা ও মেলাকে ঘিরে বলীখেলা কমিটি, প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে।  



আরও খবর



যাত্রাবাড়ীতে মৃত্যুর আগে ঘাতক প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কেটে নিল তরুণী

প্রকাশিত:Thursday ০৫ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৪৩৩জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন কোনাপাড়া আরা বাড়িতে বন্ধুর বাড়িতে বেড়াতে এনে মুসকান বেগমকে (৩০) ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে তার প্রেমিক। মৃত্যুর আগে প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেছে ওই নারী।


বৃহস্পতিবার (৫মে) দুপুর ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘাতক জাহাঙ্গীর কে দুপুরে আহত অবস্থায় আটক করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


ঘটনার বিবরণে জানা গেছে যাত্রাবাড়ী থানা ধীন কোনাপাড়া আরাবারি বাগিচা রোড এর সারওয়ার জাহান এর সপ্তম তলার ভাড়াটিয়া মামুনের বাসায় তার বন্ধু জাহাঙ্গীর মুসকান কে স্ত্রী পরিচয় বেড়াতে নিয়ে আসেন।


তারা ওই ফ্ল্যাটের একটি কক্ষে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে দিনভর এক সাথে থাকেন। তাদের মধ্যে ঝগড়ার এক পর্যায়ে নিহত মুসকান চাকু দিয়ে ওই তরুণের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে। এবং ওই চাকু দিয়েই জাহাঙ্গীর উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে মুসকান কে হত্যা করে।


পরে বন্ধু মামুন বাইরে থেকে ফ্ল্যাটে তালা মেরে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে  যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশ এসে আহত তরুণ কে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।এবং নিহত তরুনীর মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পোস্টমর্টেম এর জন্য নিয়ে যান



ঘাতক জাহাঙ্গীর নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলার বাজুর বাগ গ্রামের রফিক উদ্দিনের ছেলে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।


এ ঘটনায় আইনি পদক্ষেপ নিতে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।


আরও খবর



শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে প্রস্তুত নতুন ফেরিঘাট

প্রকাশিত:Monday ২৫ April ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ১৩৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

দক্ষিন বঙ্গের সড়ক পথে যোগাযোগ ব্যাবস্থায় শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে ফেরি চলাচল নির্বিঘ্ন রাখতে শরীয়তপুরের মাঝিকান্দিতে নতুন ফেরিঘাট স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে। সোমবার (২৫ এপ্রিল) বিকেলে ঘাটে যুক্ত করা হয়েছে পন্টুন। মঙ্গলবার সকাল থেকে নতুন ঘাটটিতে ফেরি নোঙর ও যানবাহন ওঠানামা করতে পারবে।


বিআইডব্লিটিএ শিমুলিয়া নদী বন্দরের নৌসংরক্ষণ ও পরিচালন বিভাগের সহকারী পরিচালক ওবায়দুল করিম খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি বলেন, মাঝিকান্দিতে নতুন ঘাটটির কাজ শুরু হয় ১৯ এপ্রিল। ছয়দিনের মাথায় কাজ শেষ হলো। ঘাট স্থাপনে আরও দুইদিন সময় ছিল। নতুন ঘাটটির ফলে এখন মাঝিকান্দিঘাটে একসঙ্গে তিনটি ফেরি নোঙর ও যাত্রী-যানবাহন ওঠানামা করতে পারবে। আগে ঘাটটিতে দুটি ফেরি নোঙরের সুযোগ ছিল। মাঝেমধ্যেই আবার একটি নোঙর করলে আরেকটি নোঙরের করার জন্য অপেক্ষা করতে হতো। এতে যানবাহনকে বেশি সময় ঘাটে অপেক্ষা করতে হতো।


ওবায়দুল করিম খান বলেন, আসন্ন ঈদে যানবাহনের সংখ্যা বাড়বে। তাই নতুন ঘাট স্থাপন করা হয়েছে। নতুন ঘাটটিতে মিডিয়াম, কে-টাইপ ও ডাম্প ফেরি নোঙর করতে পারবে। ফলে ফেলি চলাচলে আরও গতি আসবে। ঘাটে যানবাহন নিয়ে যাত্রীদের বেশি সময় অপেক্ষা করতে হবে না।



আরও খবর



ডেমরা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে একরাম হোসেন একজন কর্মবীর মানুষ

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১২৬জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

ডেমরা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের ভারপ্রাপ্ত অফিস সহকারী একরাম হোসেন একজন কর্মবীর মানুষ।অনন্য কর্মদক্ষতায় তিনি ডেমরা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে কাজের গতিশীলতা ফিরিয়ে এনেছেন।তিনি নিজে সৎ ও ভালো মানুষ হিসেবে প্রচণ্ড চাপের মুখেও সহজে মেজাজ খারাপ করেন না।


সেবাগ্রহীতারা জানান, সবার সাথে সদা হাসি মুখে সীমিত সামর্থ্যের মধ্যে সর্বোচ্চ সেবা প্রদানে সদা তৎপর থাকেন ডেমরা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের ভারপ্রাপ্ত অফিস সহকারী একরাম হোসেন। দলিল সম্পাদনের গুরুত্বপুর্ন ধাপগুলো তিনি দ্রুত প্রক্রিয়া করে সাব-রেজিষ্টারের টেবিলে উত্থাপন করেন।


ডেমরা সাবরেজিস্ট্রি অফিসের নতুন যোগদানকারী সাব-রেজিষ্ট্রার কাওসার খান অফিসের পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে শুদ্ধি অভিযান ঘোষনা করেন।তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে যে কজন কর্মচারী সঠিকভাবে কর্ম সম্পাদনা করেন তাদের মধ্যে অন্যতম অফিস সহকারী একরাম হোসেন।


ডেমরা সাবরেজিস্ট্রি অফিসের ভারপ্রাপ্ত সহকারী একরাম হোসেন জানান,"সব সময় চিন্তা করি আমার উপড় ন্যাস্ত কর্তব্য সুচারুভাবে সম্পন্ন করতে,আবার নতুন সাব-রেজিষ্ট্রার হিসেবে কাওসার খান স্যারের যোগদানের পর অফিসের পরিবেশ অনেকটা পাল্টে যেতে শুরু করেছে,কোথাও বিন্দু পরিমান অসংগতি তিনি মেনে নিতে চান না,তার কারনে  জনবান্ধব অফিসে পরিণত হয়েছে ডেমরা সাবরেজিস্ট্রি অফিস।


আরও খবর



পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ

সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত পদ্মা সেতু

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

সকল জল্পনা কল্পনা শেষে সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত হয়ে উঠেছে পদ্মা সেতু।পদ্মা সেতুর মূল অংশের পিচ ঢালাই শেষে বাকি ছিল দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই। কর্মযজ্ঞের ধারাবাহিকতায় শেষ হয়েছে দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।


সোমবার (২৩ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সর্বশেষ জাজিরা অংশের সংযোগ সড়কের (সাউথ ভায়াডাক্ট) পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ করেন সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও নির্মাণশ্রমিকরা।


পুরো সেতুর পিচ ঢালাই শেষ হওয়ায় এখন যানচলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সড়কপথ।পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, যান চলাচল উপযোগী করে তুলতে সেতুতে পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়েছিল গত বছরের ১০ নভেম্বর। পাঁচ মাস ১৯ দিনের মাথায় গত ২৯ এপ্রিল মূল সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার অংশে সে কাজ শেষ হয়। এরপরই সমানতালে শুরু হয় দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।



বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়। সর্বশেষ জাজিরা প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই শেষ হলো আজ।


এদিকে সেতুর অবশিষ্ট কাজের মধ্যে রোড মার্কিং ও সেতুকে আলোকিত করতে বসানো ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে পুরোদমে। শুরু হয়েছে রেলিং বসানোর কাজ।



সূত্র জানায়, চলতি মাসের মধ্যেই শেষ হবে রোড মার্কিংয়ের কাজ। বিদ্যুৎ সংযোগের কাজও চলছে। পরিকল্পনা মতো কাজ এগুলোই নির্ধারিত সময় ১ জুনে জ্বলে উঠবে বাতিগুলো।



আরও খবর