Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

স্কুলে যাওয়ার পথে নৌকাডুবিতে ভাইবোন নিহত

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১০৪জন দেখেছেন
Image

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুলে যাওয়ার পথে গুজাউড়া হাওরে নৌকা ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১৫ জুন) সকালে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারের ৯নং সুরমা ইউনিয়নের গুজাউড়া হাওরে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো- সৌরভ (১০) ও তার বোন তামান্না (১৫)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে সৌরভ ও তার বোন তামান্না ছোট নৌকায় করে স্কুলে যাচ্ছিল। সেসময় বন্যার কারণে হাওরে প্রবল স্রোতে নৌকাটি উল্টে ডুবে যায়। এতে সৌরভ ও তামান্না নিখোঁজ হয়। পরে স্থানীয়রা ও দোয়ারাবাজার থানা পুলিশ প্রথমে সৌরভের ও পরে তামান্নার মরদেহ উদ্ধার করে।

দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেব দুলাল ধর জাগো নিউজকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রবল স্রোত থাকায় নৌকা ডুবে ভাই ও বোন নিখোঁজ হয়। পরে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।


আরও খবর



চতুর্থ বিয়ে করলেন জেনিফার লোপেজ, পাত্র প্রেমিক বেন অ্যাফ্লেক

প্রকাশিত:Monday ১৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

কয়েক বছর জমিয়ে প্রেম করার পর বিয়ে করেছেন হলিউড তারকা জেনিফার লোপেজ ও বেন অ্যাফ্লেক। শনিবার (১৬ জুলাই) আমেরিকার লাস ভেগাসে বিয়ে করেছেন তারা। খবরটি নিজেই জানিয়েছেন জেনিফার লোপেজ।

রোববার বিকেলে নিজের ওয়েবসাইটে জেনিফার লোপেজ লিখেছেন, ‘আমরা বিয়ে করেছি। ভালবাসা সুন্দর। বিশ বছরের ধৈর্যের ফল পেয়েছি।’

জেনিফার লোপেজ ও বেন অ্যাফ্লেক তাদের প্রথম বাগদান ভাঙার ১৯ বছর পর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন। ২০০২ সালে গিগলি সিনেমার সেটে প্রথম দেখা হয় জেনিফার ও বেনের। ২০০৩ সালে বাগদান করেছিলেন, বিয়ের তারিখ নির্দিষ্ট হওয়ার পরও সম্পর্ক ভেঙে ফেলেন তারা দুজন।

এই ১৯ বছরে জেনিফার লোপেজ বেশ কয়েকবার বাগদান করেছেন। ২০০৪ সালে গায়ক মার্ক অ্যান্থনিকে বিয়ে করেন তিনি। ২০১৪ সালে তাদের বিচ্ছেদ ঘটে। সেখানে তাদের দুটি সন্তানও রয়েছে। বেনের সাথে জেনিফারের এটি চতুর্থ বিয়ে।

এদিকে বেন ২০০৫ সালে অভিনেত্রী জেনিফার গার্নারকে বিয়ে করেন। তাদের একসাথে ৩টি সন্তান রয়েছে। ২০১৮ সালে তাদের বিচ্ছেদ ঘটে।

সূত্র: ভ্যারাইটি


আরও খবর



দুপুরের খাবার খাওয়া হলো না রনজিতের

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মিনি কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় রনজিৎ বর্মন (৩২) নামের এক দোকানদার নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে কাভার্ডভ্যানের চালক ও তার সহকারী।

সোমবার (১ আগস্ট) দুপুর ২টার দিকে মহাসড়কের বালুয়াকান্দি এলাকায় চট্টগ্রামমুখী লেনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রনজিৎ বালিয়াকান্দি হিন্দুপাড়ার মৃত মাদব বর্মণের ছেলে।

আহতদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম জানা যায়নি।

Road-(1)

হাইওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রনজিং দুপুরের খাবার খেতে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় মহাসড়কে চট্টগ্রামমুখী লেনে দ্রুতগতিতে আসা মিনি কাভার্ডভ্যানটি একটি অজ্ঞাত গাড়িকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারায়। একপর্যায়ে রাস্তার পাশে থাকা রনজিৎকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। এ সময় গাড়ির চালক ও তার সহকারীও আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যান।

ভবেরচর হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ মনিরুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘাতক গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে। সড়কে এখন যানচলাচল স্বাভাবিক।


আরও খবর



নামাজের সময়সূচি : ১৯ জুলাই ২০২২

প্রকাশিত:Tuesday ১৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

আজ মঙ্গলবার ১৯ জুলাই ২০২২ ইংরেজি, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৯ বাংলা, ১৯ জিলহজ ১৪৪৩ হিজরি। ঢাকা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকার নামাজের সময়সূচি তুলে ধরা হলো-

> জোহর- ১২:০৮ মিনিট।

> আসর- ৪:৪৩ মিনিট।

> মাগরিব- ৬:৫১ মিনিট।

> ইশা- ৮:১৫ মিনিট।

> ফজর (২০ জুলাই)- ৩:৫৮ মিনিট।

> আজ সুর্যাস্ত- ৬:৪৭ মিনিট।

> আগামীকালের (২০ জুলাই) সূর্যোদয়- ৫:২২ মিনিট।

বিভাগীয় শহরের জন্য উল্লেখিত সময়ের সঙ্গে যেসব বিভাগে সময় যোগ-বিয়োগ করতে হবে, তাহলো-

বিয়োগ করতে হবে-

> চট্টগ্রাম : -০৫ মিনিট

> সিলেট : -০৬ মিনিট

যোগ করতে হবে-

> খুলনা : +০৩ মিনিট

> রাজশাহী : +০৭ মিনিট

> রংপুর : +০৮ মিনিট

> বরিশাল : +০১ মিনিট

তথ্যসূত্র : ইসলামিক ফাউন্ডেশন


আরও খবর



২৮ দিনে ৭৬ কোটি টাকা টোল আদায়

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

গৌরবের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের এক মাস পূর্ণ হলো আজ সোমবার। গত ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্নের এ সেতুর উদ্বোধন করেন। ২৬ জুন যাতায়াতের জন্য খুলে দেওয়া হয় সেতুটি।

চালু হওয়ার পর গত ২৬ জুন থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত ২৮ দিনে ৫ লাখ ৭০ হাজার ৪২০টি যানবাহন পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়েছে। এতে মোট টোল আদায় হয়েছে ৭৬ কোটি ১৬ লাখ ৯৯ হাজার ১০০ টাকা।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আবুল হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সেতু উদ্বোধন হওয়ার পর থেকে নিয়মিত টোল আদায় করা হচ্ছে। ২৩ জুলাই পর্যন্ত মোট ৭৬ কোটি ১৬ লাখ ৯৯ হাজার ১০০ টাকার টোল আদায় হয়েছে।

পদ্মা সেতু ব্যবহার করে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলায় বিভিন্ন পরিবহন যাতায়াত করেছে।

jagonews24

নতুন উদ্যোক্তা শরীয়তপুর সুপার সার্ভিস প্রাইভেট কোম্পানির অংশীদার সাইম মোল্লা বলেন, ‘পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় পর শরীয়তপুরের পরিবহন খাতে অপার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। আমরা সরাসরি শরীয়তপুর-ঢাকা বাস সার্ভিস চালু করেছি। এতে আমরা বাস মালিকরা যেমন লাভবান হচ্ছি, তেমনিভাবে কর্মসংস্থান হয়েছে অনেক মানুষের। শরীয়তপুর থেকে দেড় থেকে দুই ঘণ্টায় যাত্রী নিয়ে ঢাকায় যেতে পারছি।’

জাজিরা মিরাশার এলাকার কৃষক সিরাজ ফকির। এক যুগ আগ থেকে তিনি দুই ফসলি জমিতে সবজি চাষ করেন। কিন্ত ঢাকায় সরসরি সবজি বিক্রি না করতে পারায় লাভের মুখ দেখেননি।

সিরাজ ফকির জাগো নিউজকে বলেন, ‘এখন সময় পাল্টেছে। ক্ষেত থেকে সবজি তুলে ঢাকার কারওয়ান বাজার মোকামে বিক্রি করতে পারছি। এতে লাভের মুখও দেখছি।’


আরও খবর



বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটে দুঃসহ অভিজ্ঞতা যাত্রীদের

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

আসামের গৌহাটি থেকে কলকাতা হয়ে কানেক্টিং ফ্লাইটে গন্তব্য ঢাকা। পাঁচ ঘণ্টার ট্রানজিটে ক্লান্ত টিমের সবাই। কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-৩৯৬ ফ্লাইটটি ছাড়ার কথা স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) রাত ৮টা ৩৫ মিনিটে। এর ঠিক তিন দিন আগে একই সময়ের ফ্লাইটে বিমানের বোয়িং-৭৩৭ উড়োজাহাজের মধ্যে রানওয়েতে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা আটকে ছিলেন যাত্রীরা। তাই এদিন কী হয় সেটা নিয়ে চলছিল জোর জল্পনা।

ঢাকা থেকে ফ্লাইটটি নেতাজি সুভাষে অবতরণ করলো যথাসময়ে। ফিরতি ফ্লাইটে আমাদের যাত্রা। একটি ফ্লাইট শেষে সাধারণত উড়োজাহাজটি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে তবেই আবার যাত্রী তোলে। বিমান সেটা করবে কি না সেটা নিয়ে অপেক্ষামাণ যাত্রীদের মধ্যে যথেষ্ট সন্দেহ দেখা গেলো। যাত্রীরা নামার কিছুক্ষণের মধ্যেই উড়োজাহাজে প্রবেশের ঘোষণা এলো। ভিতরে ঢুকেই টের পাওয়া গেলো ভ্যাপসা গরম। আমাদের তিনজনের আসন সবার শেষ সারিতে। উড়োজাহাজে সাধারণত শেষের দিক থেকে আসন হিসাব করে আগে ওঠানো হয় নানান সুবিধার কথা চিন্তা করে। এই তিনটি আসন অনেক সময় খালি রাখা হয়। কারণ ঠিকটাক বসা যায় না।

একে একে পুরো ফ্লাইট ভরে গেলো। বাড়তে থাকলো গরম। এসি চালু হয়নি তখনও। একজন কেবিন ক্রুর কাছে জানতে চাইলে বললেন, চলতে শুরু করলে এসি চালু হবে, একটু অপেক্ষা করুন। এসি নিয়ে হৈচৈ শুরু হলো প্রথম থেকেই। এর মধ্যে দেখা দিলো দুটি বিপত্তি। প্রথমত, শেষের দিকে দু পাশে যে দুটি লাগেজ কেবিন থাকে সেখানে যাত্রীরা লাগেজ ভরে ফেললেন। জাগয়ার অভাবে একজন লাগেজ রাখতেই পারলেন না। তাকে বলা হলো সামনে গিয়ে রেখে আসতে। ওই নারী যাত্রী সামনে গিয়ে লাগেজ উপরে তুলতে সাহায্য প্রার্থনা করলে কেবিন ক্রু কোনো রকম সহযোগিতা না করে আপনারটা আপনি তোলেন বলে এড়িয়ে যান।

সুকন্যা আমীর নামে ওই যাত্রী জাগো নিউজকে বলেন, বিমান বাংলাদেশের ক্রু হিসেবে যারা দায়িত্বে ছিলেন তারা যাত্রীদের প্রতি একেবারেই কেয়ারিং না। যখন আমি হ্যান্ড লাগেজ নিয়ে ভেতরে ঢুকলাম তখন প্রায় লাগেজ কেবিনগুলো বুকড। ক্রুদের মধ্যে একজনকে লাগেজ রাখার জন্য অনুরোধ করলাম, উত্তরে তিনি জানান, আমার লাগেজ রাখতে তিনি পারবেন না, এমনকি ব্যবস্থাও করে দিতে পারবেন না। অতঃপর আমাকেই লাগজে রাখতে হয় কোনোরকমে।

‘এছাড়াও ভোগান্তির শেষ ছিল না। প্রচন্ড গরম, এসি বন্ধ, দম বন্ধ হওয়ার উপক্রম। প্রথম দিকে বোর্ডিং পাস নিলেও শেষে সিট পাওয়া, তারপর আবার ফ্লাইট ডিলে। এমন অব্যবস্থাপনা যেন তাদের দৈনন্দিন ব্যাপার, যেটা একজন যাত্রী হিসেবে কখনো কাম্য নয়।’

এরই মধ্যে একজন ক্রু এসে শেষের দুটি লাগেজ কেবিন থেকে যাত্রীদের লাগেজ নামাতে বললেন, জানতে চাইলেন এখানে রেখেছেন কেন। সেখানে যে লাগজে রাখা যাবে না সেটা কেউ বলেনি কিংবা লেখা নেই। যাত্রীদের জানার কথাও না। তাদের বলার ধরন মোটেও ভালো ছিল না। যাত্রীরা সবাই অসন্তোষ প্রকাশ করলেন। লাগেজ কেবিনগুলোও ছিল সব অপরিচ্ছন্ন।

বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটে দুঃসহ অভিজ্ঞতা যাত্রীদের

অপরিষ্কার লাগেজ কেবিন

আসনে বসার সময় দেখা গেলো সেখানে একটি করে ওয়েট ওয়াইপস রাখা (শেষের তিনটি সিটে সেটিও ছিল না। মানে ক্রুরাও হয়তো ধরে নিয়েছিলেন এখানে যাত্রী বসবে না।)। বিষয়টি বড়ই দৃষ্টিকটূ। ইন ফ্লাইটে কিছু দিলে সেটা সাধারণত কেবিন ক্রুরা সুন্দর করে যাত্রীর কাছে পৌঁছে দেন। সেটাও দেখা গেলো না। বসার সময় পা রাখতে গিয়েও বিপত্তি। পা স্বাচ্ছন্দ্যে রাখা যাচ্ছিল না। এর মধ্যে সামনের যাত্রী আসন হেলিয়ে একটু আরাম করতে চাইলেও পিছনের যাত্রীর আপত্তিতে তা সম্ভব হলো না। মানে পা তো রাখা যাচ্ছিলই না, সিটও চলে আসছিল প্রায় মুখের কাছে।

করোনার পর থেকে প্রতিটি ফ্লাইটে জীবাণুমুক্তকরণ এক ধরনের গ্যাস প্রায় ২০-৩০ মিনিট ছাড়া হয়। অনেকটা ধোঁয়াচ্ছন্ন হয় এসময়। গত কয়েকদিনের ভারত ভ্রমণে সবগুলো ফ্লাইটে দেখা যায় এ চিত্র। কিন্তু বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় উড়োজাহাজ সংস্থায় সেটাও অনুস্থিত দেখা গেলো। ভ্যাপসা গরমের মধ্যে ফ্লাইট ছাড়লো ২৫ মিনিট দেরিতে। তবে এসির দেখা মিললো না। মোবাইল সুইচ ফ্লাইট মোডে রাখা, সব ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস ব্যবহার থেকে বিরত থাকাসহ কিছু ঘোষণা শুরুতে দেওয়া হয়। সেটাও শোনা গেলো না।

যাইহোক আকাশে উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পর স্ন্যাক্স এলো। সেটাও যথেষ্ট মানসম্পন্ন ছিল না। ইন্টারন্যাশনাল একটি ফ্লাইটের খাবার যতটুকুই দেওয়া হোক সেটা আরও মানসম্পন্ন হওয়া উচিত। অসঙ্গতি পিছু ছাড়ছিল না পুরো ফ্লাইটে। তীব্র গরমে অনেক যাত্রী বারবার পানি চাচ্ছিলেন। তাতেও নাখোশ হন কেবিন ক্রুরা। কেউ কেউ কাগজকে পাখা বানিয়ে বাতাস খাচ্ছিলেন। এমন একজন যাত্রী নুরুল ইসলাম হাসিব জাগো নিউজকে বলেন, গরমে কাগজকে পাখা বানিয়ে বাতোস খেতে হচ্ছে। এসি চলে না। টয়লেটে গিয়ে দেখি ফ্লাশটা ভাঙা। কোনো রক্ষণাবেক্ষণ নেই বোঝাই যায়। ফ্লাইটটি ফুল। মানে এটি লাভজনক একটি রুট। একজন কেবিন ক্রুকে দেখলাম যাত্রীদের সঙ্গে তর্কে জড়ালেন। নেমে বেল্টে এসে সেই ক্রুসহ কয়েকজন ওই যাত্রীদের কাছে এলেন। ভাবলাম হয়তো স্যরি বললেন। কিন্তু দেখা গেলো সেখানেও তারা রীতিমতো মাস্তানি মুডে। এত অব্যবস্থাপনা, অপেশাদারিত্ব থাকার কথা না। বিমানের সার্ভিস হবে আন্তর্জাতিক মানের। এমন সার্ভিস অকল্পনীয়।

বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটে দুঃসহ অভিজ্ঞতা যাত্রীদের

সোজা হয়ে বসেও ঠিকঠাক রাখা যায় না পা

সামনের একটি যাত্রীর সিটের হাতলে সমস্যা ছিল। তিনি বলেন, আমি যে সিটে বসে আছি সেটার হাতলের উপরের লেয়ারটা নেই। হাত রাখতে সমস্যা হচ্ছিল। পরে কেবিন ক্রুকে জানালে তিনি একটি কম্বল এনে দেন।

সার্বিক অবস্থা থেকে যাত্রীরা বারবার ঢাকার সড়কে চলা লোকাল বাস আট নম্বর ও তুরাগের সঙ্গে বিমানের সার্ভিসের তুলনা করছিলেন। স্ন্যাক্স দেওয়ার সময় ও বর্জ্য পরিষ্কারের সময়ও ক্রুদের সার্ভিস ভালো ছিল না। খাবারের ট্রে নেওয়া সময় কয়েকজনের পায়ে লাগিয়ে ব্যথা দিয়েছেন। ময়লার পলিব্যাগ যখন টেনে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেটার সঙ্গেও যাত্রীরা তুলনা করছিলেন ময়লা কুড়ানিদের সঙ্গে। যারা নিয়মিত ট্রাভেল করেন তারা জানেন এ কাজটিরও এক ধরনের সৌন্দর্য আছে।

যাত্রীরা ঢাকা পৌঁছে বিমান কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দেন। এতে জানান তিক্ত অভিজ্ঞতা ও কেবিন ক্রুদের অসৌজন্যমূলক ব্যবহারের কথা। পরে শনিবার (২৩ জুলাই) কর্তৃপক্ষ চার কেবিন ক্রুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নিয়েছে


আরও খবর