Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ করার উদ্যোগ নিয়ে সফল গাজী শরীফুল

প্রকাশিত:Saturday ০২ April 2০২2 | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৫০জন দেখেছেন
Image

চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সকল প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং মাদ্রাসায় শহীদ মিনার নির্মাণ করার উদ্যোগ নিয়ে সফল হয়েছেন  নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) গাজী শরীফুল হাসান।সংশ্লিষ্টদের নিয়ে পরামর্শ করে সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী তিনি এক বছরের কিছু অধিক সময়ের মধ্যে উপজেলার ২৩৭ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শহীদ মিনার নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করেছেন।


যার ফলে ২০২২ সালে উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করতে সক্ষম হয়েছেন। দাপ্তরিক কাজের পাশাপাশি অতিরিক্ত সময় ব্যয় করে ইউএনও’র শতভাগ শহীদ মিনার নির্মাণের এমন উদ্যোগ দেশের মধ্যে উদাহরণ সৃষ্টি হয়েছে।


মতলব উত্তর উপজেলা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের তথ্য এবং খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার ১৮০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৩০টি বিদ্যালয়ে আগে থেকেই শহীদ মিনার থাকলেও ১৫০টিতে ছিল না। ইউএনও গাজী শরীফুল হাসান মতলব উত্তর উপজেলায় যোগদান করার পর থেকেই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ নেন।  


এরপর ২০২১ সালে একযোগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৪০টিতে শহীদ মিনার নির্মাণ কাজ শুরু হয়ে বাস্তবায়ন হয়। পরে বাকিগুলোতেও স্থাপন করা হয় শহীদ মিনার। এছাড়া ৫৭টি উচ্চ বিদ্যালয় ও মাদ্রাসার মধ্যে যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার ছিল না, সেগুলোতে একই সময়ের মধ্যে শহীদ মিনার নির্মাণ কাজ শেষ হয়। 


নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন হয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদ ও স্থানীদের আর্থিক সহায়তায়।এখন সবগুলো প্রতিষ্ঠান খবুই সু-শৃঙ্খলভাবে সব দিবস উদযাপন করতে পারবে।


আরও খবর



১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ

বিকেএসপিতে খাবার খেয়ে ১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ

প্রকাশিত:Saturday ১৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) কক্সবাজারের রামু আঞ্চলিক কেন্দ্রে খাবার খেয়ে ১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে।  তবে বর্তমানে তারা সবাই শঙ্কামুক্ত।


জানা গেছে, শুক্রবার (১৩ মে) রাতের খাবার খাওয়ার পর থেকে ওই শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হতে শুরু করে।


ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন বিকেএসপির কক্সবাজার আঞ্চলিক কেন্দ্রের উপ-পরিচালক আখিনুজ্জামান রুশু।


তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে শিশুরা এখানে আসছে। নতুন জায়গা আর আবহাওয়ায় খাপ খাইয়ে নিতে কিছুটা সময় লাগে।


হয়তো কোথাও না কোথাও সমস্যা  হয়েছে, যে কারণে ১০-১২ জন অসুস্থ হয়ে গেছে।


তিনি বলেন, অসুস্থ শিশুদের মধ্যে বেশির ভাগ সুস্থ হয়ে গেছে, চিকিৎসকেরা বলেছেন অন্যরাও শংকামুক্ত।


"আমরা ধারণা করছি, আবহাওয়াজনিত কারণে শিশুরা অসুস্থ হতে পারে। এছাড়াও ক্রিকেট ও ফুটবল খেলে এমন ৮০ জন শিক্ষার্থী অস্থায়ীভাবে আছে। " বলেন উপ-পরিচালক।


রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. নোবেল কুমার বড়ুয়া  বলেন, শুক্রবার রাত থেকে অসুস্থ শিশুরা হাসপাতালে আসা শুরু করে। শুক্রবার ও শনিবার দুইদিনে ১৩ শিশু ভর্তি হয়েছে। সেখান থেকে দুইজন সুস্থ হয়ে চলে গেছে। অন্যদের অবস্থাও শংকামুক্ত।



আরও খবর



গাড়ি চালক হুমায়ুন কবিরের গানের প্রতিভা

প্রকাশিত:Friday ২০ May ২০22 | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৫৫জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই নানা ভিডিও ভাইরাল হয়। কখনও নাচ, গান, কখনও বা পশু পাখির ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। বহু মানুষের সুপ্ত প্রতিভাও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রতিভার যোগ্য সম্মানও পেয়েছেন অনেকেই। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতেই রাতারাতি ভাইরাল হয়ে গেছেন অনেকেই।



ফের এক প্রতিভা প্রকাশ পেয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তিনি পেশায় একজন গাড়ি চালক।পেশায় একজন গাড়ি চালক হয়েও গান লিখেছেন ৫০ টির মতো।তার নাম হুমায়ুন কবির একাধারে কণ্ঠশিল্পী, গীতিকার, সুরকার। দিন নেই রাত নেই, ডাক আসলেই ছুটতে হয় তাঁকে। মানুষকে সঠিক গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়াই তাঁর কাজ। এর জন্য দিন রাত এক করে খাটতে হয় তাঁকে। তবেই জোটে পেটের ভাত। 



কিন্তু এসব খাটনি দমাতে পারেনি তাঁর গানের সত্ত্বাকে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ইউটিউবে এইচ কে মিউজিক নামক চ্যানেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে তার গাওয়া গান মুক্তি পেয়েছে।


তার শৈশব কেটেছে বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালীতে।তিনি পেশায় একজন গাড়ি চালক হলেও তার প্রতিভা অসাধারন।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে  নিয়ে গান লিখেছেন।বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান কে নিয়ে গান লিখেছেন।সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা কে নিয়েও তিনি গান লিখেছেন।সরকারের উন্নয়ন,শেখহাসিনাকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান বানিয়ে নিজেই তাতে কন্ঠ দেন।তার গাওয়া গান সোশ্যাল মিডিয়ার কল্যানে ইউটিউবে প্রচারিত হচ্ছে।অনেকেই তাকে নিয়ে প্রশংসা করেছে।



গন মানুষের কাছে তিনি আজ সমাদৃত একজন শিল্পী।গীতিকার হুমায়ুন কবির প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চান।তিনি বলেন নিজের ব্যাক্তিগত তাগিদেই তিনি গান লিখেন নিজের গানে নিজেই সুর করেন নিজেইতাতে কন্ঠ দেন।পেশা যাই হোক না কেন, তার গানে জাদু আছে যা সহজেই শ্রোতাদের মনকে আকৃষ্ট করতেপারে।



তিনিজানান,"আমাদের বাংলাদেশের মানুষের মুক্তির জন্য কাজ করতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুকে প্রান দিতে হয়েছে, তার কন্যা বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য কাজ করছেন,দেশে আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমুল উন্নয়ন সাধিত হয়েছে এসব কিছু আমাকে ভাবায়,আমি সরকারের উন্নয়ন নিয়ে গানের মাধ্যমে তা মানুষ কে জানান দেই,বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান করি"। গানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে মানুষের অন্তরে চিরদিন জাগ্রত করে রাখতে আমি গান করি।



হুমায়ুন কবির এর গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার পোনাপুরা গ্রামে।বর্তমানে স্ব-স্ত্রীক বসবাস করেন রাজধানী ঢাকার যাত্রাবাড়ি থানা মাতুয়াইল আদর্শবাগ এলাকায়।ব্যাক্তি জীবনে তিনি চার কন্যা সন্তানের জনক।



গানটির লিংক দেয়া হলো https://www.youtube.com/watch?v=t2Qy3p7I-ko&ab_channel=HKMusic শুনে কমেন্ট ও শেয়ার করুন


আরও খবর



ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে প্রবাসী আহত

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ১৩০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

রাজধানীর সায়েদাবাদে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে শহীদুল ইসলাম (৫০) নামে এক ব্যক্তি আহত হয়েছে। এ সময় তার থেকে ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।


মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) ভোর সাড়ে ৫টা দিকে সায়দাবাদ বাসস্ট্যান্ড মসজিদের সামনের একটি গলিতে এই ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।


শহিদুলের ভাগিনা মামুন জমাদ্দার অভিযোগ করে জানান, শহিদুল ইসলামের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলায়।তিনি সৌদি প্রবাসী । ৭-৮ মাস আগে দেশে এসেছেন। কিছুদিন পর আবার বিদেশ যাওয়ার কথা ছিল। 


এজন্য কাগজপত্র ঠিক করতে গত রাতে বরগুনা থেকে বাসে করে ঢাকায় রাজারবাগ কালিবাড়ি এলাকায় মামুনের বাসায় আসছিলেন। ভোরে সায়দাবাদে বাস থেকে নেমে মসজিদে বসে সেহরি খান তিনি। এরপর নামাজ পড়ে মসজিদ থেকে বের হয় একটি গলি দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় দুই ছিনতাইকারী তার পথরোধ করে।


 তার সঙ্গে থাকা টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। বাধা দিলে তাদের মধ্যে একজন তার বাম হাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। তার সঙ্গে থাকা ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।


তিনি আরও জানান, এসময় শহিদুলের চিৎকারে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে গেলে এক রিকশাচালক তাকে মুগদা হাসপাতালে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে সেখান থেকে মামুন তাকে উদ্ধার করে সকালে ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে যান। তার হাতে বেশ কয়েকটি সেলাই দেওয়ার পর তাকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।


আরও খবর



শহীদ আফ্রিদির টি-টেন লিগ সেপ্টেম্বরে মাঠে গড়াবে

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৪৩জন দেখেছেন
Image

আজাদ হোসেনঃ

ক্রিকেট শুধু খেলা নয় বিশ্বে অন্যতম বিনোদন। ক্রিকেটের নানা লিগ এখন বিশ্বজুড়ে হটকেক। টি-টোয়েন্টির পর টি-টেনও বাজার কাঁপাচ্ছে। এবার পাকিস্তানের সাবেক তারকা অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি নিজেই আনছেন একটি টি-টেন লিগ।


আফ্রিদি তার লিগের নাম দিয়েছেন ‘মেগা স্টারস লিগ (এমএসএল)’, যা কিনা আগামী সেপ্টেম্বরে মাঠে গড়াবে।


এ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আফ্রিদি জানান, এই টুর্নামেন্টে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটাররাও অংশ নেবেন। পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার বলেন, ‘মেগা স্টার লিগ একটি বিনোদনমূলক লিগ, যা এই বছর রাওয়ালপিন্ডিতে মাঠে গড়ানোর কথা রয়েছে।’


আফ্রিদি যোগ করেন, ‘মূলত সাবেক ক্রিকেটার, ক্রীড়াবিদ এবং ক্রীড়া সাংবাদিকদের আর্থিকভাবে সহায়তা করার কথা মাথায় রেখেই এই লিগটি আয়োজন করা হচ্ছে।’


পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম উল হক, ওয়াকার ইউনুস এবং লেগস্পিনার মুশতাক আহমেদও মেগা স্টারস লিগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিন

শ্রমিক সংকটে কৃষকের ভরসা কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিন

প্রকাশিত:Thursday ১২ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১১৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার কৃষকদের মধ্যে আশার আলো হয়ে এসেছে অত্যাধুনিক ধান কাটা ও মাড়াইয়ের মেশিন কম্বাইন্ড হারভেস্টার।


চলতি বোরো মৌসুমে পুরোদমে ধান কাটা শুরু হলেও অতিবৃষ্টি আর শ্রমিক সংকটে বিপাকে পড়েন এ অঞ্চলের কৃষকরা।


অতিরিক্ত মূল্য দিয়েও মিলছে না শ্রমিক। তার ওপর পাকা ধানের জমিতে জমে আছে পানি।


অবশেষে হারভেস্টার মেশিনের সাহায্যে এ অঞ্চলের কৃষকরা রাত-দিনে ধান কেটে ঘরে তুলছেন। এতে শ্রমিক সংকট মেটানোর পাশাপাশি ধান উৎপাদন খরচও কমে এসেছে।


জানা গেছে, প্রতিবছর ইরি ও বোরো ধান কাটার মৌসুমে রায়গঞ্জের তাড়াশ অঞ্চলে শ্রমিকের চাহিদা বেড়ে যায়। চাহিদার পাশাপাশি বেড়ে যায় পারিশ্রমিকও।


এতে বোরো ধান উৎপাদন খরচ বেড়ে যায়। এজন্য কৃষকের দুশ্চিন্তা লাঘবে রায়গঞ্জে আনা হয়েছে কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিন।


মেশিনটি অত্যাধুনিক পদ্ধতিতে ধান কাটা ও মাড়াই করতে পারে। শুধু রোদে শুকিয়ে ধান ঘরে তুলতে হয়।


এ মেশিন দিয়ে খুব সহজেই এখন ধান ঘরে তুলতে পারছেন কৃষকরা। প্রতি ঘণ্টায় দুই থেকে তিন বিঘা জমির ধান কাটা যাচ্ছে। এতে ঘণ্টায় ৮ থেকে ১০ লিটার তেল খরচ হচ্ছে।


দুই বিঘা জমির ধান কাটতে সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা খরচ হয়। অথচ শ্রমিক দিয়ে ধান কাটালে পাঁচ থেকে সাতজন শ্রমিক সারা দিনে এক বিঘা জমির ধান কাটতে পারেন। তাতে বিঘা প্রতি খরচ হয় তিন থেকে চার হাজার টাকা।


রায়গঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বলেন, উপজেলায় ১২টি কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিন দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি মেশিনের দাম ৩০-৩২ লাখ টাকা। সরকার প্রতিটি মেশিনের ওপর ১৪ লাখ টাকা ভর্তুকি দিয়েছে।


মেশিনের সাহায্যে ধান কেটে ও মাড়াই করে শুধুমাত্র রোদে শুকিয়ে ঘরে তুলতে হয়। চালক অভিজ্ঞ হলে ঘণ্টায় এক একর জমির ধানও কাটা সম্ভব। কিন্তু রায়গঞ্জে এখনও অভিজ্ঞ চালক না থাকায় ঘণ্টায় দেড় থেকে দুই বিঘা জমির ধান কাটতে পারছেন কৃষকরা। এছাড়া জমিগুলো সমতল হলে আরও বেশি ধান কাটা যেত।


প্রতিবছরই বোরো ধান কাটার সময় শ্রমিক সংকট তীব্র আকার ধারণ করে। এ কারণে সময় মতো ধান ঘরে তুলতে না পেরে বৃষ্টি ও অকাল বন্যাতে কৃষকের ধান নষ্ট হয়ে যায়। এখন কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিন দিয়ে স্বল্প খরচে ধান ঘরে তোলা যাচ্ছে। এছাড়া আরও পাঁচটি রিপার মেশিন আনার চেষ্টা চলছে। তবে ওই মেশিন দিয়ে ধান কাটা যাবে কিন্তু মাড়াই করতে শ্রমিক লাগবে।


আরও খবর