Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

শিল্পী সমিতির ইফতার মাহফিল

প্রকাশিত:Saturday ২৩ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১২৭জন দেখেছেন
Image

বিনোদন ডেস্কঃ

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নব নির্বাচিত কমিটি ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে। গতকাল শুক্রবার (২২ এপ্রিল) মগবাজার কনভেনশন হলে আয়োজিত হয় এই ইফতার। সেখানে উপস্থিত ছিলেন নানা প্রজন্মের তারকারা।


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করবেন বরেণ্য চলচ্চিত্রাভিনেতা আলমগীর। প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আহ্বানে অংশ নিতে দেখা গেছে কিংবদন্তী অভিনেত্রী শবনমকে।


ইফতার অনুষ্ঠানের আগে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন শবনম। জানান, 'জীবনে অনেক অপ্রাপ্তি থাকলেও বহুদিন পর সিনেমার মানুষের কাছে এসে যে ভালোবাসা পেয়েছি, তাতে চিরঋণী আমি।'



 ইফতার মাহফিলে চমক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা মাহমুদ কলি।


এদিন ইফতার অনুষ্ঠানে বসে তারার মেলা। চিত্রনায়ক আলমগীর, রিয়াজ, ফেরদৌস, বাপ্পারাজ, অমিত হাসান, অনন্ত জলিল, বর্ষা, নিপুণ, কেয়া, সাইমন, নিরব, ইমনসহ চলচ্চিত্রের অসংখ্য তারকাকে দেখা যায়।



আরও খবর



১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ

বিকেএসপিতে খাবার খেয়ে ১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ

প্রকাশিত:Saturday ১৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) কক্সবাজারের রামু আঞ্চলিক কেন্দ্রে খাবার খেয়ে ১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে।  তবে বর্তমানে তারা সবাই শঙ্কামুক্ত।


জানা গেছে, শুক্রবার (১৩ মে) রাতের খাবার খাওয়ার পর থেকে ওই শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হতে শুরু করে।


ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন বিকেএসপির কক্সবাজার আঞ্চলিক কেন্দ্রের উপ-পরিচালক আখিনুজ্জামান রুশু।


তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে শিশুরা এখানে আসছে। নতুন জায়গা আর আবহাওয়ায় খাপ খাইয়ে নিতে কিছুটা সময় লাগে।


হয়তো কোথাও না কোথাও সমস্যা  হয়েছে, যে কারণে ১০-১২ জন অসুস্থ হয়ে গেছে।


তিনি বলেন, অসুস্থ শিশুদের মধ্যে বেশির ভাগ সুস্থ হয়ে গেছে, চিকিৎসকেরা বলেছেন অন্যরাও শংকামুক্ত।


"আমরা ধারণা করছি, আবহাওয়াজনিত কারণে শিশুরা অসুস্থ হতে পারে। এছাড়াও ক্রিকেট ও ফুটবল খেলে এমন ৮০ জন শিক্ষার্থী অস্থায়ীভাবে আছে। " বলেন উপ-পরিচালক।


রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. নোবেল কুমার বড়ুয়া  বলেন, শুক্রবার রাত থেকে অসুস্থ শিশুরা হাসপাতালে আসা শুরু করে। শুক্রবার ও শনিবার দুইদিনে ১৩ শিশু ভর্তি হয়েছে। সেখান থেকে দুইজন সুস্থ হয়ে চলে গেছে। অন্যদের অবস্থাও শংকামুক্ত।



আরও খবর



লিবিয়ার ভূমধ্যসাগর উপকূল থেকে পাঁচ শতাধিক বাংলাদেশী আটক

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৩৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ইউরোপে পাড়ি দেওয়ার প্রস্তুতিকালে লিবিয়ার ভূমধ্যসাগর উপকূল থেকে পাঁচ শতাধিক বাংলাদেশিকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ।  গত শনিবার (২৩ এপ্রিল) তাদের আটক করা হয়।ভয়েস অব আমেরিকা এ খবর প্রকাশ করেছে।


লিবিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল এস এম শামীম উজ জামান এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে লিবিয়ার পুলিশ আমাদের ৫০০ জন বাংলাদেশিকে আটকের কথা জানিয়েছে। তবে আমরা এ পর্যন্ত ২৪০ জনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পেরেছি। এটা এখন নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।


লিবিয়ার মিসরাতা সৈকত থেকে ইউরোপ যাত্রার প্রস্তুতিকালে ৫৪২ জন অভিবাসীকে আটক করে ত্রিপোলির নিরাপত্তাকর্মীরা। লিবিয়ার রাজধানী থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মিসরাতা সমুদ্র সৈকতের অবস্থান।


আটক হওয়া অভিবাসীরা লিবিয়ার পশ্চিম উপকূল থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। রাজধানী থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে মিসরাতার সমুদ্র সৈকতের কাছে তাদের আটক করা হয়। তাদের একটি কেন্দ্রে রাখা হয়েছে।


আরও খবর



সার্ভেয়ার কে আটক করে সাদা স্টাম্প ও চেক বইয়ে স্বাক্ষর নিয়েছে সন্ত্রাসীরা

শরীয়তপুর ডিসি অফিসে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সাদা স্ট্যাম্প ও চেকের পাতায় স্বাক্ষর নেয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৯০জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

শরীয়তপুর জেলাপ্রশাসকের কার্যালয়ে এল.এ শাখার পাশের একটি রুমে জোড় করে ধরে নিয়ে গিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সার্ভেয়ার মোশারফ হোসেনের কাছ থেকে  ননজুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের ব্ল্যাঙ্ক পেজে এবং চেকের পাতায় স্বাক্ষর করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।গত ৯ মে ২০২২ সোমবার শরীয়তপুরের কিছু দালাল চক্র ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী সার্ভেয়ার মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে মামলা ও সাধারন ডায়রী করেছেন। দালল চক্রের সদস্য সন্ত্রাসী শাকিল মুন্সী,মোঃ বাহাদুর,মোঃ আতিক,মোঃ খলিল,খোকন বাঙ্গী,তাইজুল,দাদন ঢালী,মোঃ হারুন সহ ১৫/২০ জনের নাম সাধারন ডায়েরীতে উল্লেখ করা হয়েছে।

জানাগেছে সার্ভেয়ার মোশারফ হোসেন গত ১২ জুলাই ২০২১ সালে শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের এল.এ শাখায় সার্ভেয়ার হিসেবে যোগদান করেন।

তিনি জানান,"আমার যোগদানের কিছু দিনের মধ্যেই দেখতে পাই দালাল চক্রটি সহকর্মী বাদলের কাছে বিভিন্ন প্রকল্পে সরকারের অধিগ্রহনকৃত জমির অবকাঠামো বিল/ক্ষতিপুরনেরটাকা উত্তোলনের জন্য তদবীর করতে যাওয়া আসা করছে,সার্ভেয়ার বাদল ঐসব দালালদের সাথে হাত মিলিয়ে কমিশন নেয়ার বিনিময়ে চুক্তি করে নিয়ম বহিঃর্ভুতভাবে বিল দেয়া শুরুকরে।

তার এসব অপকর্মের সাথে আমি নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছিলাম না,বাদলের এহেন অপকর্মের কারনে সরকারী টাকা গচ্চা দিয়ে দালালদের মোটা অংকের টাকা পাইয়ে দিতে সাহায্য করে এবং এল.এ শাখার কতিপয় কর্মকর্তা/কর্মচারীরা কমিশন বাবদ কোটি কোটি টাকা নিজেদের পকেটস্থ করে।

আমাকে এই অনিয়মের সাথে সম্পৃক্ত করতে সার্ভেয়ার বাদল,কানুনগো এবং এডিসি মিলে বিলে স্বাক্ষর করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে।আমি তাদের অন্যায় প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় তারা আমাকে চাকরীচ্যুত করা সহ নানা ভয়ভীতি প্রদর্শন করে অনিয়ম ও দুর্নীতিগ্রস্ত ফাইলগুলোতে স্বাক্ষর করতেবাধ্য করে।আমিহলফ করেবলতে পারি চাকুরী জীবনেকোনদিন আমি কাউকে ঘুষ দেইনি এবং নিজেও কোন দিন ঘুষ নেইনি।সব সময় অনিয়ম দুর্নীতি এড়িয়ে চলেছি।

তারা আমাকে ষড়যন্ত্রমুলক ভাবে গত ২৮ এপ্রিল ২০২২ তারিখে গাজীপুর জেলায় বদলী করায়।গত ৮ মে শরীয়তপুর জেলার এ.ডি.সি রাজস্ব আসমাউল হুসনা লিজা মোবাইলে ফোন করে আমাকে একটিবিলের বিষয়ে জরুরী কথা আছে বলে তার সাথে দেখা করতে বলেন।আমি সরল বিশ্বাসে পরদিন ৯ মে সোমবার তার সাথে দেখা করতে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যাই।

তার সাথে দেখা করেরুম থেকে বেড় হওয়া মাত্র সন্ত্রাসীরা আমাকে ধরে জোড়পুর্বক এল.এ শাখার একটি রুমে আটক করে মারধোর করে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ননজুডিশিয়াল স্ট্যম্পের ব্ল্যাঙ্ক পেইজে এবং চেক বইয়ের পাতায় স্বাক্ষর করিয়ে নেয়।এসময় সন্ত্রাসীদের সাথে সার্ভেয়ার বাদল উপস্থিত ছিলেন।

পরবর্তীতে আমি সেখান থেকে বেড়িয়ে এসে আইনজীবিদের সাথে শলা-পরামর্শ করে বিষয়টি আইনেরআশ্রয় নিতে সন্ত্রাসী ওপ্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে থানায় সাধারন ডায়রী করেছি।পরবর্তীতে এ বিষয়ে আমি আদালতে মামলা করার প্রস্ততি গ্রহন করি।"


ভুক্তভোগী সার্ভেয়ার মোশারফ হোসেনকে ৮ মে তারিখে অবমুক্ত করে জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান পত্রে স্বাক্ষর করলেও বর্ণিত আসমাউল হুসনা লিজা উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে উক্ত অবমুক্তির কাগজ গায়েব করে ৯ মে তার নিজস্ব দালালদের দ্বারা সৃষ্ট চেক ও স্ট্যাম্পের বিষয়ে উল্লেখ করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসানকে ভুল বুঝিয়ে ১০ মে পত্র লিখে, যে পত্রের বর্ণনার সাথে বাস্তবতা এবং সরকারী চাকুরী বিধি-বিধানের কোন সম্পর্ক নেই। কেবলমাত্র অধিনস্থ একজন কর্মচারীর কে দিয়ে এ.ডি.সি তার অসৎ উদ্দ্যেশ্য চরিতার্থ করতেনা পেরে এমন কাজ করেছেন।ম্যাজিকের মতো ৮ মের অবমুক্তির কাগজ ১০ মে হয়ে যায়।তদন্ত সাপেক্ষে বিষয়টির সুষ্ঠ বিচার প্রার্থনা করেছেন ভুক্তভোগী সার্ভেয়ার মোশারফ হোসেন।

উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত সার্ভেয়ার বাদলের মোবাইলে একাধিকবার ফোন দিলে ও সে ফোন রিসিভ করেনি।


আরও খবর



নাসিরনগরে জোরপূর্বক প্রতিবেশীর জায়গা দখলের অভিযোগে আদালতে মামলা

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১১৪জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের ফেদিয়ারকান্দি গ্রামে জোরপূর্বক প্রতিবেশীর জায়গা দখলের অভিযোগে ৬ জনের বিরোদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের  করা হয়েছে।


 ১৯ মে ২০২২ তারিখে ফেদিয়ার কান্দি গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হকের ছেলে মোঃ মাহির ভূঞা বাদী হয়ে প্রতিবেশী আব্দুল কাদিরের ছেলে সৈয়দ মিয়া,সিরাজ মিয়া,রেহমান মিয়া, রেহমানের দুই ছেলে  বিল্লাল মিয়া,খায়ের মিয়া ও ফজলুল হকের ছেলে সফর উদ্দিন এই ৬ জনের বিরোদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পি - ৪৪৩ মামলা দায়ের করে।


মামলা সুত্রে জানা গেছে সকল বিবাদীরা জোটবদ্ধ হয়ে ১৭ মে ২০২২ তারিখ  বিকেল ৪ ঘটিকার সময় দেশীয় প্রাণঘাতি অস্ত্র নিয়ে বাদীর দখলীয় জয়নগর মৌজার ১ দাগের ৪ শতাংশ জায়গা অনধিকার প্রবেশ করে জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা চালায়।এ সময় স্বাক্ষীদের সহায়তা বাদী তাদের হাত থেকে নিভৃত পায়।পরে বিবাদীরা জায়গা দখলে ব্যর্থ হয়ে বাদী ও তার পরিবারের লোকজনকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে।


আদালত মামলাটি ফৌজদারী কার্য বিধির ১৪৫ ধারায় আমলে নিয়ে দ্বীতিয় পক্ষকে কারন দর্শানোর ও ওসি নাসিরনগরকে উভয় পক্ষের মাঝে শান্তি শৃংখলা বাজায় রেখে আগামী ১৮ জুলাই ২০২২ তারিখের  মধ্যে সরেজমিন পরিদর্শন পূর্বক দখল বিষয়ে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।


আরও খবর



নাসিরনগরে বিদ্যুতায়িত হয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ১৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৪৫জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ-নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)  সংবাদাতা

১৪ মে ২০২২ রোজ শনিবার সকাল  অনুমান ৭ ঘটিকার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলায় পুকুরের পানিতে মরা মাছ তুলতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে আব্দুল হাসিম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।স্থানীয়রা জানায়, বিদ্যুৎ সরবরাহের তার ছিঁড়ে পুকুরের পানিতে পড়ে থাকায় পানি বিদ্যুতায়িত হয় এবং বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। কুন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান এডঃ নাসিরউদ্দিন ভূইযা  মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।


শনিবার সকাল ৭ ঘটিকার সময়  নাসিরনগর উপজেলার কুন্ডা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাড়ি কুন্ডা ইউনিয়নের বেড়িবাঁধের পাশে জিহাদ নগর পাড়ায়। তিনি ওই এলাকার নুর মিয়ার ছেলে। 


নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ. হাবিবুল্লাহ সরকার জানান রুপালি এগ্রো নামের মৎস্য খামারে পুকুর থেকে একটি মরা মাছ তুলতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে আব্দুল হাসিম নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে।এখনো পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের পর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।



আরও খবর