Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

শহীদ আফ্রিদির টি-টেন লিগ সেপ্টেম্বরে মাঠে গড়াবে

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৪৩জন দেখেছেন
Image

আজাদ হোসেনঃ

ক্রিকেট শুধু খেলা নয় বিশ্বে অন্যতম বিনোদন। ক্রিকেটের নানা লিগ এখন বিশ্বজুড়ে হটকেক। টি-টোয়েন্টির পর টি-টেনও বাজার কাঁপাচ্ছে। এবার পাকিস্তানের সাবেক তারকা অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি নিজেই আনছেন একটি টি-টেন লিগ।


আফ্রিদি তার লিগের নাম দিয়েছেন ‘মেগা স্টারস লিগ (এমএসএল)’, যা কিনা আগামী সেপ্টেম্বরে মাঠে গড়াবে।


এ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আফ্রিদি জানান, এই টুর্নামেন্টে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটাররাও অংশ নেবেন। পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার বলেন, ‘মেগা স্টার লিগ একটি বিনোদনমূলক লিগ, যা এই বছর রাওয়ালপিন্ডিতে মাঠে গড়ানোর কথা রয়েছে।’


আফ্রিদি যোগ করেন, ‘মূলত সাবেক ক্রিকেটার, ক্রীড়াবিদ এবং ক্রীড়া সাংবাদিকদের আর্থিকভাবে সহায়তা করার কথা মাথায় রেখেই এই লিগটি আয়োজন করা হচ্ছে।’


পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম উল হক, ওয়াকার ইউনুস এবং লেগস্পিনার মুশতাক আহমেদও মেগা স্টারস লিগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



মার্কিন প্রতিনিধি দলের সাথে বৈঠক

জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ ভাবে অনুষ্ঠিত করার আশ্বাস

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

বাংলাদেশের সংসদীয় প্রতিনিধি দল যুক্তরাষ্ট্রের প্রখ্যাত থিঙ্ক ট্যাঙ্ক ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউটের (আইআরআই) সঙ্গে একটি গোলটেবিল আলোচনায় অংশ নেয়। 


আইআরআই-এর প্রেসিডেন্ট ড. ড্যানিয়েল টুইনিং আইআরআই পক্ষের নেতৃত্ব দেন। বৈঠকে আইআরআই-এর এশিয়া বিভাগের পরিচালক জোহানা কাও, ডেপুটি ডিরেক্টর রোন্ডা মেস, সহযোগী পরিচালক ম্যাট কার্টার, সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার রোহুল্লাহ নিয়াজি, বাংলাদেশ প্রোগ্রাম ডিরেক্টর ড. জিওফ্রে ম্যাকডোনাল্ড এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের কূটনীতিকরা উপস্থিত ছিলেন।


স্থায়ী কমিটির প্রতিনিধি দল উল্লেখ করে, বাংলাদেশ সরকার ২০২৪ সালের প্রথম দিকে অনুষ্ঠিতব্য সাধারণ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নিশ্চিত করার জন্য সম্ভাব্য সব ব্যবস্থা নিচ্ছে।


প্রতিনিধি দলটি উল্লেখ করে, সরকারের প্রচেষ্টাকে অন্যান্য সমস্ত রাজনৈতিক দল দ্বারা সমর্থন ও সহায়তা করা দরকার, কারণ তাদের সবারই ক্ষমতার শান্তিপূর্ণ হস্তান্তর নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রয়েছে। তারা নির্বাচন কমিশনকে শক্তিশালী করার জন্য আইআরআই-এর সহায়তাকে স্বাগত জানান।


আরও খবর



নাহিয়ান আয়ান

মডেলিং অভিনয় সব ক্ষেত্রেই সাফল্যের স্বাক্ষর রেখে চলেছে নাহিয়ান আয়ান

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৪৩জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

নাহিয়ান আয়ান একজন বিস্ময়কর অভিনেতা এবং মডেল, শুধুমাত্র তার দীপ্তিময় শিশুসুলভ সৌন্দর্য দিয়েই নয়, তার দুর্দান্ত প্রতিভা দিয়েও দর্শকদের আকর্ষণ করে। তার দিকে তাকালে মনে হয় একজন সত্যিকারের অভিনয় শিল্পীর ঠিক এইরকমই হওয়া উচিত - নীল পর্দার ওপারে বসবাসকারী একটি শিশু।সংস্কৃতির বিভিন্ন অঙ্গনে ‘সাফল্যের স্বাক্ষর’ রেখেই চলেছে নাহিয়ান আয়ান।


৭ বছর বয়সী নাহিয়ান আয়ান স্বল্প সময়ে নিজেকে বেশ প্রতিষ্ঠিত করেছে।সম্প্রতি পবিত্র ঈদুল ফিতরে নাহিয়ান আয়ান নাটক ও ওয়েব ফিকশনে অভিনয় করেছে। আসাদ জামানের পরিচালনায় রবিনহুড নামক নাটকে দেখা গেছে নাহিয়ানকে। যেখানে নাহিয়ান আয়ান ছাড়াও আরো অভিনয় শিল্পীরা হলেন তানজিম হাসান অনিক, সেরতাজ জেবিন। ঈদে সিনেমাওয়ালা চ্যানেলে অবমুক্ত হয়েছে নাটকটি। এছাড়াও ওয়েব ফিকশন মায়া ঘরে অভিনয় করেছে নাহিয়ান। রুবেল আনুশ পরিচালিত এই ওয়েব ফিকশনে অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, মনিরা মিঠু, ইভান সাইর প্রমুখ। এছাড়াও নাহিয়ান আয়ান অনন্য মামুনের পরিচালনায় আর জি লাইফস্টাইলের টিভিসিতে অভিনয় করেছে। আসছে ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে জনপ্রিয় পোষাক ব্রান্ড বিশ্বরঙ, শৈশব, দুরন্ত কিডস, ইয়েস পয়েন্টের মডেল ফটোশ্যুট ও করেছে।


শুধু পোষাকের মডেল হিসেবে নয় এভার কেয়ার হসপিটালের পেডিয়াট্রিক বিভাগের সুস্থ শিশুর চরিত্রে ও মডেল হয়েছে। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক তানিম রহমান অংশুর পরিচালনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপর নির্মিত মিউজিক্যাল ভিডিওতে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান চরিত্রেও অভিনয় করেছে এই শিশুশিল্পী।তাছাড়া ফ্যাশন মডেলিং শো “বাংলাদেশ এক্সিলেন্স এ্যাওয়ার্ড” এবং ঈদ লাইফস্টাইল ফ্যাশন শো-তে পারফর্ম করেছেন সে। এক কথায় অল্প বয়সে মেধা ও বিচক্ষণতাকে কাজে লাগিয়ে নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে নাহিয়ান আয়ান।



 

নাহিয়ান আয়ান ২০১৫ সালের হেমন্তের প্রথম দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তার পুর্ব পুলুষের জন্ম বাংলাদেশের খুলনার সবুজ শ্যামল শান্ত একটি গ্রামে।তিনি রাজধানী ঢাকা শহরে জন্মগ্রহন করেন। আমাদের আজকের সফল শিশুশিল্পী নাহিয়ান আয়ান খানের জন্ম পুলিশ পরিবারে।খুব অল্প বয়স থেকেই, নাহিয়ান আয়ান নিজের জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে ভবিষ্যতে তিনি অবশ্যই একজন বিখ্যাত অভিনয় শিল্পী এবং জনপ্রিয় মডেল হয়ে উঠবেন। এবং তাই সে আত্মবিশ্বাসের সাথে এবং পদ্ধতিগতভাবে অভিপ্রেত লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন।


প্রথমে, শিশুটি নিকেতনের Little Star Grooming Institute  থেকে গ্রুমিং শিখে হাটা চলা বসা শিখে বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে শুরু করে এবং তারপরে ফ্যাশন মডেল হিসাবে ফ্যাশন শোতেও অংশ নেয়। আমাদের আজকের নাহিয়ান আয়ানের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বিখ্যাত কৃতিত্বের মধ্যে রয়েছে  বিজ্ঞাপন প্রচারে অংশগ্রহণ, আর.জি ষ্টাইল নামক সুপরিচিত ব্র্যান্ডের মডেল হওয়া। 


তাকে নিয়ে সরব হয়ে উঠেছে দেশের মিডিয়া পাড়া ।বিভিন্ন সংবাদ পত্র বিনোদন ম্যাগাজিনগুলো নাহিয়ান আয়ান কে নিয়ে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকার ফটোশুট করেছেন দেনিক দেশের পত্র পত্রিকা নাহিয়ান আয়ান কে নিয়ে প্রতিবেবদ প্রকাশ করেছে,টাইমট্রেন্ড ম্যাাজিনে তাকে নিয়ে লেখালেখি হয়েছে।


ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ফ্যাশন হাউজের সাথে নাহিয়ান কাজ করেছে। নাটকেও অভিনয় করেছে গুনী অভিনেতাদের সাথে। নাহিয়ানের স্বল্পদিনের ক্যারিয়ারে ভাল ভাল কাজ করেছে। এভাবে এগিয়ে যেতে পারলে খুব অল্প সময়ে নাহিয়ান সকলের ভালবাসায় জনপ্রিয় হয়ে উঠবে এটাই আশা করি।


আরও খবর



নাসিরনগরে শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বই বিক্রেতা জেলহাজতে

প্রকাশিত:Tuesday ১০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৩৫৬জন দেখেছেন
Image


নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতাঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর নগর উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরীর ভেতরে এক তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে লাইব্রেরীর মালিক মোঃতাহের মিয়া (৪৪) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।সোমবার গ্রেপ্তারকৃত আসামি তাহের মিয়াকে আদালতের  মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।


জানা গেছে রোববার বিকেলে উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরীর ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই দিন রাতেই শিশুটির বাবা বাদী হয়ে নাসিরনগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন।


পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত তাহের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরির মালিক।সে উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক গ্রামের মোঃ জয়নাল আবেদিনের ছেলে। রোববার রাত ৯টার দিকে তাহের কে ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। 


মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে অভিযুক্ত তাহের দীর্ঘদিন ধরে ফান্দাউক বাজারে লাইব্রেরির ব্যবসা করে আসছেন। ভুক্তভোগী শিশুটিকে প্রায় সময়ই তাহের তাঁর লাইব্রেরির পেছনে নিয়ে যৌন হয়রানি করতেন। ঘটনার দিন বিকেলে ওই শিশুটি একটি কলম কেনার জন্য তাহেরের দোকানে যায়। সে সময় তাহের  শিশুটিকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ও ফুসলিয়ে তার দোকানের পেছনে নিয়ে শিশুটিকে যৌন হয়রানি করে। পরে শিশুটি কান্না করে বাড়িতে চলে গিয়ে তার মাকে বিষয়টি জানায়। 


বিষয়টি জানাজানির পর তার বাবা স্থানীয়দের সঙ্গে আলোচনা করে নাসিরনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখীল করেন।শিশুর বাবার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই দিনই রাত ৯ঘটিকার সময় অভিযান পরিচালনা করে তাহেরকে লাইব্রেরী থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ 


জানতে চাইলে নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাবিবুল্লাহ সরকার বলেন, ‘শিশুটিকে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত আসামী তাহের কে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 



আরও খবর



জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ

হাজী সেলিম কে জেলেই যেতেহলো

প্রকাশিত:Sunday ২২ May 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় সাজা ভোগের জন্য আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। এরপর বিকেল ৫টা ৫ মিনিটে আদালত থেকে পিকআপ ভ্যানে করে তাকে নিয়ে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয় পুলিশ।


এর আগে রোববার (২২ মে) বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর বিচারক শহিদুল ইসলামের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন হাজী সেলিম। শুনানি শেষে বিচারক তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।


বিচারক আদেশে উল্লেখ করেন, সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাজী মোহাম্মদ সেলিম হাইকোর্টের নির্দেশে আজ আত্মসমর্পণ করিয়া জামিনের দরখাস্ত দাখিলপূর্বক আপিল দায়েরের শর্তে জামিনের প্রার্থনা করেছেন। পৃথক দরখাস্ত দাখিল করিয়া কারাগারে ১ম শ্রেণির মর্যাদা প্রদানের ও কারাগারের তত্ত্বাবধানে দেশের উন্নতমানের হাসপাতালে বেটার ট্রিটমেন্টের আদেশের প্রার্থনা করেছেন।


যেহেতু আসামি দশ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত, সেহেতু আসামিকে জামিন প্রদান সঙ্গত মনে করি না। ফলে আসামির জামিনের প্রার্থনা নামঞ্জুর করা হইল। সাজা ভোগের নিমিত্তে সাজা পরোয়ানা মূলে আসামিকে কারাগারে প্রেরণ করা হোক।


আসামিকে কারাগারে ১ম শ্রেণির মর্যাদা প্রদান ও কারাগারের তত্ত্বাবধানে দেশের উন্নতমানের হাসপাতালে বেটার ট্রিটমেন্ট প্রদানের দরখাস্ত বিষয়ের পক্ষে বিজ্ঞ কৌঁসুলি ও বিপক্ষে বিজ্ঞ পাবলিক প্রসিকিউটরের বক্তব্য শ্রবণ করিলাম। দাবি মতে দরখাস্তকারী আসামি একজন সংসদ সদস্য এবং ভালো চরিত্রের অধিকারী। তাহার সামাজিক মর্যাদা, আসামি যে অপরাধে সাজাপ্রাপ্ত হইয়াছেন তাহার ধরন ইত্যাদি বিবেচনায় তাহাকে জেলকোড অনুযায়ী ডিভিশন প্রদান কিংবা উন্নতমানের চিকিৎসা প্রদানের প্রয়োজনীয়তা থাকিলে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ প্রদান করা হইল।


এদিন বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর বিচারক শহিদুল ইসলামের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন হাজী সেলিম। এরপর তার সঙ্গে আসা সমর্থকরা আদালতে প্রবেশ করেন। হাজী সেলিম তাদের কোর্ট থেকে বের হতে হাত ও মুখ দিয়ে ইশারা করেন। এরপর তারা কোর্ট থেকে বের হয়ে যায়। বিকেল ৩টা ১৯ মিনিটে বিচারক এজলাসে ওঠেন। এরপর আসামিকে কাঠগড়ায় উঠতে বলেন। ৩টা ২৩ মিনিটে কাঠগড়ায় ওঠেন হাজী সেলিম। এরপর তার আইনজীবী সাইদ আহম্মেদ রাজা জামিন চেয়ে শুনানি করেন।


এছাড়া কারাগারে উন্নত চিকিৎসা ও প্রথম শ্রেণির ডিভিশন চেয়েও শুনানি করেন আইনজীবী। অন্যদিকে দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল তার জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে কারাবিধি অনুসারে কারাগারে উন্নত চিকিৎসা ও প্রথম শ্রেণির ডিভিশন দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। বিকেল ৩টা ৩৬ মিনিটে কাঠগড়া থেকে নেমে এজলাসে বসেন হাজী সেলিম।


এর আগে আদালতে আত্মসমর্পণ করে যে কোনো শর্তে জামিনের আবেদন করেন হাজী মোহাম্মদ সেলিম।



আরও খবর



যাত্রাবাড়ীতে ১১ হাজার পিস ইয়াবাসহ চার মাদক কারবারি গ্রেফতার

প্রকাশিত:Monday ০৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ১১৪জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকা থেকে ১১ হাজার পিস ইয়াবাসহ চারজন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দাপুলিশ।


তারা হলেন, মো. ফয়সাল, মো. মিরাজুল ইসলাম মিঠু, হযরত আলী ও শামছুল আলম।


এ সময় তাদের হেফাজত থেকে ১১ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার পরে জব্দ করা হয়।


সোমবার (৯ মে) এই তথ্য নিশ্চিত করেন গোয়েন্দা পুলিশ।


গোয়েন্দা গুলশান বিভাগের গুলশান জোনাল টিমের প্রধান অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মাহবুবুল হক সজীব  জানান, রোববার উত্তর যাত্রাবাড়ী বিবির বাগিচা  এলাকা থেকে উদ্ধারকৃত ইয়াবাসহ ফয়সাল, মিরাজুল, হযরত আলী ও শামছুল আলমকে গ্রেফতার করা হয়। 


তারা ইয়াবা দেশের সীমান্তবর্তী জেলা কক্সবাজার হতে সাব-মার্সিবল পাম্পের ভেতরে অভিনব কায়দায় সেটিং করে  একটি পরিবহনের মাধ্যমে ঢাকায় নিয়ে আসতেন।


আরও খবর