Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার বর ও কনের বাড়ীতে শোকের মাতম রাশিয়ায় বন্দুকধারীদের ভয়াবহ হামলায় ১৫ পুলিশ সদস্য নিহত

শেখ হাসিনা কিশোরগঞ্জের মিঠামইন সফরে যাচ্ছেন আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৮২জন দেখেছেন

Image

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রায় দুই যুগ পর আজ মঙ্গলবার কিশোরগঞ্জের মিঠামইন সফরে আসছেন। তিনি আজ দুপুরে মিঠামইন সদরের কামালপুরে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পৈতৃক বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজে যোগ দেবেন।

রাষ্ট্রপতির বড় ছেলে ও কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এসব তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, ইতোমধ্যে রাষ্ট্রপতি মিঠামইনে চলে এসেছেন। প্রধানমন্ত্রী কিশোরগঞ্জ পৌঁছেই প্রথমে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুল হামিদ সেনানিবাস উদ্বোধন করবেন।

পরে তিনি রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা মিঠামইন সদরের কামালপুরে রাষ্ট্রপতির পৈতৃক বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজে যোগ দেবেন। মধ্যাহ্নভোজ শেষে প্রধানমন্ত্রী যোগ দেবেন আওয়ামী লীগের জনসভায়।

এমপি তৌফিক জানান, প্রধানমন্ত্রী অষ্টগ্রামের পনির অনেক পছন্দ করেন। এ কারণে অষ্টগ্রামের পনির গণভবনে মাঝে মধ্যেই পাঠানো হয়।

প্রধানমন্ত্রীর মিঠামইন সফরকে কেন্দ্র করে জেলার ১৩ উপজেলায় দফায় দফায় প্রস্তুতি সভা করা হয়েছে। সেখানে জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে ব্যাপক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো।

১৯৯৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথম মিঠামইন সফরে আসেন। তখন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসনের সংসদ সদস্য ও ডেপুটি স্পিকার ছিলেন।


আরও খবর



রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৫৩জন দেখেছেন

Image

মোঃআবু কাওছার মিঠু রুপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ- নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঞ্চন পৌরসভার নির্বাচনে মোবাইল ফোন মার্কা প্রতীকের প্রচার প্রচারণা জমে উঠেছে ব্যাপকভাবে। এদিকে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন মেয়র প্রার্থী রফিক জগ মার্কা ও মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা মোবাইল ফোন মার্কায়। তারই ধারাবাহিকতায় আওয়ামী লীগের মনোনীত মোবাইল ফোন মার্কার মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাশার বাদশার পক্ষে গতকাল বিকাল ৩ টার দিকে রুপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী এইচ এম ইমরান হোসেন উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের কুশাব, নলিরটেক, নলপাথর এলাকায় কয়েকশ নেতা কর্মী নিয়ে কাঞ্চন পৌরসভার সাধারণ ভোটারদের দ্বারে দ্বারে মোবাইল ফোন প্রতীক মার্কায় তাদের মূল্যবান ভোট চেয়ে গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণাসহ লিফলেট বিতরণ করেন। 


পরে কাঞ্চন পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের ভোটারদের উদ্দেশ্যে রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী এইচ এম ইমরান হোসেন বলেন, রূপগঞ্জ আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাসার বাদশাকে যদি আপনারা মোবাইল মার্কা প্রতীকে আপাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন তা হলে আপনাদের কাঞ্চন পৌরসভার যে কাজগুলো স্থগিত রয়েছে সে কাজগুলো দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা সম্পূর্ণ করবে এবং আপনারা কাঞ্চনবাসীরা সুখে-দুখে যেকোনো সময় কাছে পাবেন দেওয়ান আবুল বাশার বাদশাকে।


তাই আপনারা কাঞ্চন পৌরসভা বাসি সবাই দেওয়ান আবুল বাসার বাদসাকে মোবাইল ফোন মার্কা প্রতীকে আপনাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে আপনাদের কাঞ্চনবাসীর কাজ করার সুযোগ করে দিবেন ইনশাআল্লাহ।

      -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



বাকেরগঞ্জে ছাগল বাঁধাকে কেন্দ্র করে শিশুসহ ৩ জনকে পিটিয়ে জখম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৮৫জন দেখেছেন

Image
রবিউল ইসলাম,বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি:বরিশালের বাকেরগঞ্জে ছাগল বাঁধাকে কেন্দ্র করে ঝগড়ার একপর্যায়ে শিশুসহ তিনজনকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। আহত শিশুপুত্র মোঃ হোসেইন মাহামুদ (৮), আল আমিন হাওলাদার (১৭) ও রোজিনা বেগম (৩২) কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। 

বুধবার (১২জুন) বিকেল ৪.৫০ টায় উপজেলার ভরপাশা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ভরপাশা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ভরপাশা গ্রামের মোঃ হারুন মোল্লার পালিত ছাগল একই গ্রামের নজরুল ইসলামের রোপনকৃত সবজি ক্ষেত নষ্ট করে। এ ঘটনায় তার দুই পুত্র মোঃ হুসেইন মাহামুদ ও আল আমিন হাওলাদার ওই ছাগলটি বাড়ির কাছে বেঁধে রাখেন। ছাগল বেঁধে রাখা নিয়ে হারুন মোল্লার সাথে তাদের ঝগড়া হয়।ঝগড়ার একপর্যায়ে হারুন লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তাদেরকে রক্তাক্ত যখন করে। এ সময় তাদের ডাকচিৎকার শুনে বাঁচাতে গেলে মা রোজিনা বেগমকেও পিটিয়ে জখম করে। 

গৃহবধূ রোজিনা বেগম জানান, তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে একই গ্রামের হারুন মোল্লা ও তার স্ত্রী নুরজাহান বেগম তাকেসহ তার দুই পুত্রকে পিটিয়ে রক্তাক্ত যখন করেছে। তিনি আরও জানান, হারুন মোল্লার মেয়ে জামাতা পুলিশে চাকরি করে। সেই প্রভাব খাটিয়ে তিনি এলাকার বিভিন্ন মানুষের উপর হামলা ও তাদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। এমনকি তাদের এ ঘটনা নিয়ে থানায় কোন মামলা-মোকদ্দমা দায়ের করলে তার দুই পুত্রকে খুন জখমের হুমকি দেয় হারুন মোল্লা। এতে তিনি ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছেন। থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।

আরও খবর



বেনাপোলে কাস্টমস কর্মকর্তার উপর হামলা, রক্তাক্ত জখম

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৬৫জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:বেনাপোলে কাস্টমস ইন্সপেক্টরের উপর সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা রাফিউল ইসলাম নামে একজন কাস্টমস কর্মতাকর্তাকে কুপিয়ে জখম করেছে। শুক্রবার রাত সোয়া ৮টার দিকে স্থানীয় পেচোর বাওড়ে এই ঘটনাটি ঘটেছে। তিনি যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

রাফিউল ইসলামের বন্ধু সোহরাব হোসেন জানান, প্রচন্ড গরমে তারা দুজন পেচোর বাওড়ে ঘুরতে যান। হঠাৎ করেই একদল সন্ত্রাসী এসে পেছেন থেকে তাদের উপর হামলা চালায়। এসময় তারা জানতে চান কেনো তাদের উপর হামলা করা হচ্ছে। জবাবে সন্ত্রাসীরা বলেন, 'এই ব্যাটার জন্যে অনেক ক্ষতি হয়েছে।' এই বলে সন্ত্রাসীরা একের পর এক ছুরি দিয়ে তার আঘাত করতে থাকে। এ সময় তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

পরে সন্ত্রাসীরা দ্রুত এলাকা ত্যাগ করলে বন্ধু সোহরাব স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত কাস্টমস কর্মকর্তাকে শোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান।গুরুতর আহত রাফিউল ইসলাম জানিয়েছেন, তার কারও সাথে ওই এলাকায় কোনো শত্রুতা নেই। তবে, পেশাগত কারণে কেউ তার উপর ক্ষুব্ধ থাকতে পারে। হামলাকারীদের কাউকে তিনি চিনতে পারেননি।

খবর পেয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালে যান বেনাপোল কাস্টমসের যুগ্ম কমিশনার শাফায়েত হোসেন। তিনি জানান, আহত রাফিউল ইসলাম অত্যন্ত সৎ মানুষ হিসেবে পরিচিত। পেশাগত কারণে হয়তো তিনি কোনো অসৎ ব্যবসায়ীর রোষানলে পড়তে পারেন।তাছাড়া, তার কোনো শত্রু ছিলো বলে তাদের জানা নেই।তিনি আরো বলেন, ঘটনাটি থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। কাস্টমসের পক্ষ থেকেও ঘটনার অভ্যন্তরীণ তদন্ত করা হতে পারে বলেও তিনি জানান।


আরও খবর



জয়পুরহাটে টাকা লেনদেনও পারিবারিক কলোহের জেরে পৃথক ঘটনায় ২ নারী সহ নিহত ৩

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ১০০জন দেখেছেন

Image

এস এম শফিকুল ইসলাম,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃজয়পুরহাট সদর উপজেলায় টাকা পয়সা লেনদেনও আক্কেলপুর উপজেলায় পারিবারিক কলোহের জেরে  ২ জন নারীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন।সোমবার দুপুরে আক্কেলপুর উপজেলার হলহলিয়া গ্রামে  স্ত্রী ও খালা শাশুড়িকে হত্যা করে পালিয়েছে  রুবেল হোসেন নামে এক পাষন্ড ঘর জামাই। নিহতরা হলেন - রুবেলের স্ত্রী মৌ আক্তার মিতু (২৫) ও তাঁর খালা আলেয়া বেগম (৬৫)। 

সৌদি প্রবাসী শ্বাশুরীর বিদেশ থেকে পাঠানো টাকা চেয়ে না পেয়ে স্ত্রী ও খালা শাশুড়িকে ছুরিকাঘাত করে  পালিয়েযান রুবেল। পরে এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করিয়ে দেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আলেয়া বেগম সেখানেই মারা যান। আর মিতুকে বগুড়া নেওয়ার পথে পথিমধ্যেই মারা যান। 

এ ঘটনায় রুবেলের  শ্যালক নীরব বোন ও খালাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তারাও আহত হন।

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নয়ন হোসেন  বলেন,  স্ত্রী ও খালা শাশুড়ীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার পর ঘাতক জামাতা রুবেল হোসেন পালিয়েছে। পুলিশ তাঁকে ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করেছে।

অন্যদিকে :

চাকুরীর জন্য তদবিরের  টাকা ফেরত না দেওয়ায় বেধড়ক মারপিটে আহত তদবিরকারী  মারা গেছেন। নিহত আব্দুল মজিদ বুলু ( ৪৫)  জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বৃদ্দীগ্রামের   আব্দুর রহমানের ছেলে । আজ সোমবার দুপুরে জেলা  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।  

অভিযোগের সুত্র ধরে জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  (ওসি) হুমায়ুন  কবির জানান, আব্দুল মজিদ বুলু  চাকুরি দেওয়ার নাম করে বেশ কিছুদিন আগে তার ভাতিজী জামাই  সদর উপজেলার চক বরকত গ্রামের খাইরুল ইসলামের কাছ থেকে দেড় লাখ  টাকা নেন।  পরে চাকুরি  দিতে না পারায়  চাচা শশুর বুলুর কাছ থেকে টাকা ফেরত চান খাইরুল । 

এ নিয়ে  রোববার  বিকেলে বুলুকে  জয়পুরহাট শহরের কাশিয়াবাড়ী স্কুল এলাকায় ধরে নিয়ে  গিয়ে মারপিট করে খাইরুল সহ তার সহযোগীরা।  পরে আহত বুলুকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে দেন স্থানীয়রা।   সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সোমবার দুপুরে তিনি মারা যান। 

এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি সহ আসামিদের গ্রেফতারে  পুলিশী অভিযান চলছে বলেও জানান ওসি।


আরও খবর



ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে চেয়ারম্যান সহ ১২ সদস্যের অনাস্থা

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৩১৯জন দেখেছেন

Image

মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া:- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার  নাসিরনগর উপজেলার কুন্ডা ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য  হীরন মোল্লার  বিরুদ্ধে অনাস্থা কার্যকরের দাবি জানিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান সহ  পরিষদের ১২  সদস্য,নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।


লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, হিরন মোল্লা একজন সন্ত্রাসী ও সক্রিয় চোর, ডাকাত দলের সদস্য। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক চুরি -ডাকাতির মামলা রয়েছে।

ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে সে বিভিন্ন সময় নির্বাচিত  চেয়ারম্যান ও সদস্যদের সাথে অসদাচরন করে আসছেন।


ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ দুপুরে পরিষদের সভা শুরুর পর উপস্থিত চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যদের সম্মুখে কুন্ডা ইউনিয়নের ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত ইউপি সদস্য জাকিয়া খাতুনের সাথে বাক বিতন্ডা শুরু করে। এ সময় অন্যরা তাকে থামাতে  চাইলে, সে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে সবার সম্মুখে সংরক্ষিত  ইউপি সদস্য জাকিয়া খাতুন কে হত্যার উদ্দ্যশ্যে মারধর করে গুরুতর জখম করে।


প্রাথমিক চিকিৎসা জন্য তাকে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরবর্তীতে এই ঘটনার রেশ ধরে মো. হিরন মোল্লা কুন্ডা ইউপির চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন ভূঁইয়া কে হত্যার হুমকি প্রদান করে পরিষদ ত্যাগ করেন।


এ ঘটনার প্রতিবাদস্বরূপ ইউপি সদস্য হিরন মোল্লা'র  বিরুদ্ধে অনাস্থা আনাসহ তার অপসারণ দাবি করে কুন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান এডঃ মোঃ নাছির উদ্দিন ভূঁইয়া সহ সংরক্ষিত আসনের  ইউপি সদস্য মোছা. তাহেরা বেগম, মোছা. তাছলিমা বেগম,জাকিয়া খাতুন, জজ মিয়া,শাহাজাহান মিয়া,সুশান্ত দাশ,কাইযূম মিয়া,মো. জিল্লুর রহমান,নবী হোসেন,আজিজুর রহমান ভূঁইয়া ও মোঃজামাল মিয়া।


অভিযুক্ত ইউপি সদস্য হিরন মোল্লার সাথে বেশ কয়েকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও  তিনি ফোন ধরেনি।

এ বিষয়ে মোবাইল  ইউপি সদস্য এডঃ মোঃ নাসির উদ্দিন ভূঁইয়া'র সাথে কথা বলে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

  -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর