Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ: কারখানার মালিকসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৩৮৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সীমা অক্সিজেন প্ল্যান্টে বিস্ফোরণের ঘটনার ৫৫ ঘণ্টা পর থানায় মামলা হয়েছে। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় মামলাটি রেকর্ড হয়।

মামলায় সীমা অক্সিজেন প্ল্যান্ট লিমিটেডের মালিক ও শীর্ষ কর্মকর্তাসহ ১৬ জনকে আসামি করা হয়েছে। সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তোফায়েল আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আসামিরা হলেন- সীমা অক্সিজেন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মামুন উদ্দিন (৫৫), পরিচালক পারভেজ উদ্দিন (৪৮), আশরাফ উদ্দিন বাপ্পী, ব্যবস্থাপক আবদুল আলীম, প্ল্যান্ট অপারেটর ইনচার্জ শামসুজ্জামান শিকদার, প্ল্যান্ট অপারেটর- খুরশিদ আলম, সেলিম জাহান, নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট কামাল উদ্দিন। কর্মকর্তা গোলাম কিবরিয়া এবং কর্মকর্তা সামিউল, সান্তনু রায়, ইদ্রিস আলী, সানা উল্লাহ, রকিবুল ও রাজিব।

সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণে আহত আরও একজনের মৃত্যু

ওসি তোফায়েল আহমেদ জানান, বিস্ফোরণে নিহত কাদের মিয়ার স্ত্রী রোকেয়া বেগম বাদী হয়ে সোমবার রাতে সীতাকুণ্ড থানায় মামলাটি করেন। এতে দায়িত্ব ও কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগ আনা হয়েছে।

পরিদর্শক (তদন্ত) আবু সাঈদ মামলাটি তদন্ত করবেন বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

নিহত কাদের মিয়া সীমা অক্সিজেন কারখানায় গ্যাস রিফিলের কাজে কর্মরত ছিলেন। তিনি নোয়াখালীর সুধারামপুরের ওলিপুর এলাকার মৃত মকবুল আহমদের ছেলে। স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে থাকতেন সীতাকুণ্ডের শীতলপুরে।

সীতাকুণ্ডের আগুন নিয়ন্ত্রণে, তদন্ত কমিটি গঠন

উল্লেখ্য, শনিবার বিকেলে কদমরসুল কেশবপুর এলাকায় সীমা স্টিলের অক্সিজেন প্ল্যান্টে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ভয়াবহ এ বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে কয়েক কিলোমিটার এলাকা। ঘটনাস্থলের আশপাশের প্রায় আধা কিলোমিটার এলাকায় ছিটকে পড়ে বিস্ফোরিত ইস্পাতের টুকরো। এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

বিস্ফোরণে নিহত অন্যরা হলেন- লক্ষীপুরের কমলনগর থানার চরলরেন্স গ্রামের মহিজল হকের ছেলে মো. সালাউদ্দিন (৩৩), নেত্রকোনার কলমাকান্দা থানার ছোট মনগড়া গ্রামের খিতিশ রংদীর ছেলে রতন লকরেট (৫০), নেত্রকোনার দুর্গাপুর থানার বিজয়পুর গ্রামের মৃত বিম রুগার ছেলে সেলিম রিছিল (৩৯), সীতাকুণ্ডের মধ্যম-সলিমপুর গ্রামের মৃত আবুল বশরের ছেলে মো. ফরিদ (৩২) ও ভাটিয়ারি ইউনিয়নের জাহানাবাদ গ্রামের মৃত ইসমাইলের ছেলে শামসুল আলম (৬৫)। সর্বশেষ রোববার রাতে প্রবেশ লাল শর্মা (৫৫) নামের একজন চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।


আরও খবর



পলাশ-অংকনের নতুন গান / দেবর-ভাবি

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৭জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিবেদক:ইতিমধ্যে দেবর-ভাবি সিরিজের একাধিক গান করে আলোচনায় এসেছেন গামছা পলাশ ও অংকন ইয়াসমিন জুটি। তাদের এই দেবর-ভাবির রসায়ন, খুনসুটি শ্রোতা-দর্শকদের মাঝে  ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। দর্শকদের প্রত্যাশাকে মাথায় রেখেই এই জুটি গান করে যাচ্ছেন নিয়মিত। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের ঈদুল আজহায় ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ব্যানারে প্রকাশ পাচ্ছে তাদের দেবর-ভাবি সিরিজের নতুন গান ‘দেওরা আমার চাকরি পাইছে’ । 

রাসেল কবীরের  গীতিকবিতায় সুর দিয়েছেন গামছা পলাশ। আর সঙ্গীতায়োজনে ছিলেন তরিক। গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন ফারহান আহমেদ রাফাত। ভিডিওতে দেবরের ভুমিকায় গামছা পলাশ ও ভাবির ভুমিকায় দেখা যাবে অংকন ইয়াসমিনকে। 

গানটি নিয়ে অংকন ইয়াসমিন জানালেন, খুবই মজার একটি গান। দেবর-ভাবি সম্পর্কের মধুরতা, অধিকার ও আবদারের মিশেল গানে গানে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি আমরা। আশা করছি শ্রোতাদের ভালো লাগবে। 

পলাশ বললেন, অংকন ও আমার কন্ঠে শ্রোতা-দর্শক যে ঘরানার গান শুনতে পছন্দ করে তার পারফেক্ট কম্বিনেশন হলো এই গানটি। একদম শ্রোতাদের মনের মত একটি গান করার চেষ্টা করেছি। 

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন(ডিএমএস) জানায় ঈদ আয়োজনে ১৩ জুন, বৃহস্পতিবার তাদের ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত করা হয় ‘দেওরা আমার চাকরি পাইছে’ গানটির ভিডিও। পাশাপাশি গানটি শুনতে পাওয়া যাবে দেশি ও আর্ন্তজাতিক একাধিক অ্যাপএ।


আরও খবর



তানোরে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষনের অভিযোগে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | ৮৮জন দেখেছেন

Image

আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষনের ঘটনায় ১জনকে গ্রেপ্তার করেছে তানোর থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষকের নাম জসিমুদ্দীন প্রামানিক (৬৪)। তিনি কলমা ইউপির হিরানন্দপুর গ্রামের মৃত হানু প্রামনিকের পুত্র। এঘটনায় ওই প্রতিবন্ধীর ভাতিজা বাদি হয়ে ১ জনকে আসামী করে তানোর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। 

মামলার বিবরণ, পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার  কলমা ইউনিয়ন  ইউপির  জৈনক মৃত ব্যক্তির বুদ্ধি প্রতিবন্ধী যুবতী এতিম (পিতা মাতা মৃত) কন্যা (৩৭) বাড়িতে একা থাকার সুযোগে প্রতিবেশী জসিমুদ্দীন দীর্ঘদিন ধরে কু-নজর ও কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। 

এঅবস্থায় চলতি মাসের  গত ২২ মে তারিখে রাত সোয়া ৯ টার দিকে ওই প্রতিবন্ধীর ঘরে ঢুকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষন করে এবং ঘটনা কাউকে না জানানোর হুমকি দিয়ে চলে যায়। ভয়ে বিষয়টি কাউকে জানাননি ওই বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। গত ২৯ মে বুধবার রাত ৯টার দিকে ধর্ষক বাড়িতে ঢুকে ওই প্রতিবন্ধীকে আবারো ধর্ষনের চেষ্টা করেন। 

এসময় ওই বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর ডাক চিৎকার শুরু করলে প্রতিবেশীরা এসে ধর্ষককে ওই বাড়িতেই  আটক করে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে  থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষকসহ ওই প্রতিবন্ধীকে থানায় নিয়ে আসেন। ওই প্রতিবন্ধী পুলিশকে জানান ১ সপ্তাহ আগে তাকে ধর্ষন করে আবারো বাড়িতে এসে ধর্ষনের চেষ্টা করেন জসিমুদ্দীন প্রামানিক। 

 অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রহিম বলেন, এঘটনায় ভিক্টিমের ভাতিজা বাদি হয়ে ১জনকে আসামী করে  থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ধর্ষককে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে এবং ভিক্টিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও খবর



শৃংখলা ফিরছে সড়কে পাল্টে গেছে যাত্রাবাড়ীর চিত্র

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৪১৭জন দেখেছেন

Image

শফিক আহমেদ চৌধুরীঃরাজধানীর যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তার যানজটের চিত্র পাল্টে দিয়েছেন ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ। গত দুই মাসের ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সার্বিক প্রচেষ্টায় সড়কে ফিরে এসেছে শৃংখলা৷ ফুটপাথ উচ্ছেদ,রাস্তা দখল করে বাজার, শহীদ ফারুক সড়কের দুইপাশে হকার, মোড়ে ফলপট্টি এখন আর কোন কিছুই নাই৷ এর ফলে যাত্রাবাড়ীর চিরচেনা যানজট যেখানে ঘন্টার পর ঘন্টা জ্যামে বসে থাকতে সেখানে অনায়াসেই রাজধানীতে ঢুকছে প্রায় ৪৮ জেলার বাস।

গত মে মাসের প্রথম দিকে ডিএমপি পুলিশ কমিশনার হাবিবুর রহমান যাত্রা্বাড়ীর সড়ক ফুটপাথ পরিদর্শন করে তিনি বলেছিলেন, ফুটপাথ থাকবে উন্মূক্ত, রাস্তায় কোন বাজার হাট বসবে না৷ পুলিশ কমিশনারের এমন নির্দেশানর পর যাত্রাবাড়ী, জুরাইন,ষ্টাফ কোয়ার্টার দয়াগঞ্জ মোড় সহ ওয়ারী বিভাগের সড়কে শৃংখলা ফিরিয়ে আনতে ট্রাফিক ডিসি আশরাফ ইমাম, এসি যাত্রাবাড়ী, এসি ডেমরা সহ সকল ট্রাফিক ইন্সপেক্টর গন মাঠে কাজ শুরু করেন।

এই বিষয়ে ওয়ারী বিভাগের ট্রাফিক ডিসি বলেন, আমি গত দুই মাসে আমার ষ্টাফদের নিয়ে মাঠে কাজ করে সড়কে শৃখলা ফিরিয়ে এনেছি এবং এটা ধরে রাখতে যা যা করনীয় সকল পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।তিনি আরো বলেন, ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ সব সময় জনগনের সেবায় পাশে থাকবে।তীব্র তাপদাহে খাবার স্যালাইন ও খাবার পানি বিতরন। বিশ্ব মা দিবসে দু:স্থ মাদের মধ্যে খাবার বিতরন করা হয়৷

     -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর



'ফ্রিজ সার্ভিসে এয়ার টিকিট জেতার সুযোগ দিচ্ছে ১০০০ফিক্স'

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image

মারুফ সরকার,স্টাফ রিপোর্টার:ঈদের খুশি বাড়িয়ে তুলতে দেশের শীর্ষ আইটি, ডিজিটাল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ১০০০ফিক্স এবার সেবার বিনিময়ে ঘুরতে যাওয়ার সুযোগ দিচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমে সর্বনিম্ন ৭৫০ টাকর রেফ্রিজারেটরের ক্লিনিং ও সার্ভিসিং নিলেই ঢাকা-কক্সবাজার রিটার্ন এয়ার টিকিটসহ দুই দিন একরাত সেখানে থাকার কাপল ট্যুর প্যাকেজ মিলতে পারে। দ্বিতীয় পুরষ্কার থাকছে রিচার্জেবল ফ্যান এবং তৃতীয় পুরষ্কার স্মার্ট ওয়াচ। লটারির মাধ্যমে ভাগ্যবানরা বিজয়ী হবেন। এই সুযোগটি ৩১ জুলাই পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠানটি এসব তথ্য জানিয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গ্রাহকরা ১০০০ফিক্সের আউটলেট বা https://1000fix.com এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমেও সেবাটি গ্রহণ করতে পারবেন। ১০০০ফিক্স শুধু রেফ্রিজারেটরই নয়; স্বল্প খরচে উন্নতমানের সার্ভিসের মাধ্যমে ডিজিটাল ডিভাইসের দীর্ঘমেয়াদী সঠিক পারফর্মেন্স নিশ্চিত করে আসছে। আইটি ডিভাইস, মোবাইল ডিভাইস এবং হাউজহোল্ড ইলেক্ট্রনিক্স পণ্যের সেবা নিশ্চিত করতে দেশের বৃহত্তম সার্ভিস সেন্টার হিসাবে নিজেদের জায়গা করে নিয়েছে। এ ব্যাপারে ১০০০ফিক্সের চিফ সার্ভিস অফিসার (সিএসও) মোহাম্মদ ইফতেখার রাসেল বলেন, দীর্ঘ ৭ বছরের বেশি সময় ধরে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের অফিসিয়াল সার্ভিস দিয়ে আসছি। এছাড়া আইটি, মোবাইল এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স সার্ভিসে ১০০০ফিক্স একটি বিশ্বস্ত ব্র্যান্ড হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। আমাদের এই সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রাহকদের জন্য ঈদ উপহার হিসাবে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। গ্রাহকদের স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য হোম অ্যাপ্লায়েন্স সার্ভিসে পিক অ্যান্ড ড্রপ এবং অনলাইন বুকিংয়ের ব্যবস্থা রেখেছে ১০০০ফিক্স।


আরও খবর



ডেমরায় ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মৃদুল পালের সেবা-যত্নে রক্ষা পেলো বৃদ্ধ লোকের প্রাণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৬৫জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃরাজধানীর ডেমরা এলাকায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক-ওয়ারী বিভাগের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) মৃদুল কুমার পাল এর ত্বড়িৎ পদক্ষেপে রক্ষা পেলো একজন বৃদ্ধ লোকের প্রাণ।

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন সকাল সাড়ে দশটার দিকে ডেমরা স্টাফ-কোয়াটারের সামনে একজন বৃদ্ধ লোক মাথা ঘুরে রাস্তার উপরে পড়ে  যান। সেখানেই দায়িত্বরত ছিলেন ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মৃদুল কুমার পাল। তিনি তাৎক্ষণিক বৃদ্ধের মাথায়, চোখে ও মুখে পানি ছিটিয়ে দেন। তার সেবা ও যত্নে বৃদ্ধ লোকটি সুস্থ হয়ে ওঠেন। পরে রিক্সাযোগে বৃদ্ধ লোকটিকে বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্থা করে দেন টিআই মৃদুল।

সুস্থ হওয়ার পর বৃদ্ধ জানান, "হঠাৎ মাথা ঘুরে দাঁড়ানো অবস্থা থেকে রাস্তায় পড়ে যাই। পুলিশের সহযোগিতা নাহলে হয়তো হিটস্ট্রোকে মৃত্যুও হতে পারতো। এজন্য  ট্রাফিক পুলিশের টিআই মৃদুল কুমার পাল এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।"

ডেমরা স্টাফ-কোয়াটার এলাকায় অসুস্থ হয়ে পড়ে থাকা বৃদ্ধকে সুস্থ করে মানবিক পুলিশ হিসেবে সকলের প্রশংসা পেয়েছেন টিআই মৃদুল কুমার পাল।


আরও খবর