Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

সায়েন্স ল্যাবে ভবনে বিস্ফোরণ নিয়ে যা বলল পুলিশ

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৭১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর সায়েন্স ল্যাবে একটি বাণিজ্যিক ভবনের তিনতলায় বিস্ফোরণের কারণ নিশ্চিত না হওয়া গেলেও পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করেছে গ্যাস সিলিন্ডার, জমে থাকা গ্যাস কিংবা বিদ্যুৎ থেকে এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ড. খ মহিদ উদ্দিন বলেন, সুনিশ্চিত করে কারণ বলা যাচ্ছে না, এটা বলতে সময় লাগবে। তবে ধারণা করা হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার, জমে থাকা গ্যাস কিংবা বিদ্যুৎ থেকে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

আজ রোববার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের মহিদ উদ্দিন বলেন, ‘ভবনের অবস্থা ভালো নয়, খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। ভবনটিতে ছোট ছোট অফিস ও একটি ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির অফিস ছিল। এই মুহূর্তে ভবনে প্রবেশ ঠিক হবে না। আমরা ঝুঁকি নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।


আরও খবর



দেশের উন্নয়নে সেবাইত-পুরোহিতদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ: ধর্মমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২০জন দেখেছেন

Image

লিয়াকত হোসাইন লায়ন,ঢাকা থেকে:ধর্মমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, দেশ ও জাতির উন্নয়নে সেবাইত-পুরোহিতদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তারাই পারে হিন্দু ধর্মের মানুষের মধ্যে সঠিক ধর্মীয় জ্ঞানের প্রসার ঘটিয়ে আদর্শ ও নিষ্ঠাবান মানুষ গড়ে তুলতে। 

বুধবার(২৯ মে) রাজধানীর বাসাবো ধর্মরাজিক বৌদ্ধবিহার কমপ্লেক্স অডিটোরিয়ামে ঢাকা বিভাগীয় পুরোহিত ও সেবাইত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

ধর্মমন্ত্রী বলেন, আমাদের সমাজে সকল ধর্মের মানুষের কাছেই তাদের ধর্মীয় নেতাদের একটি বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। সমাজের অধিকাংশ মানুষ তাদেরকে শ্রদ্ধার চোখে দেখে, সম্মান করে। বিভিন্ন পরামর্শের জন্য তাদের শরণাপন্ন হয়ে থাকে। তাদের আদেশ-নির্দেশ মেনে চলে। এই শ্রেণির মানুষগুলোকে আমরা যদি আর্থিকভাবে স্বচ্ছলতা দিতে পারি এবং পেশাগত দায়িত্ব পালনে যদি আমরা তাদেরকে শানিত বা দক্ষ করে তুলতে পারি তাহলে দেশ ও জাতির কল্যাণে তারা অনেক বেশি অবদান রাখতে পারবে। এ কারণেই অন্যান্য ধর্মের ন্যায় হিন্দু ধর্মের প্রকল্প তৈরি করে আমরা পুরোহিত-সেবাইতদেরকে প্রশিক্ষণের আওতায় এনেছি। 

ধর্মমন্ত্রী আরো বলেন, আবহমানকাল থেকেই বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির পীঠস্থান। বিভিন্ন ধর্ম-গোত্রের মানুষ এখানে মিলেমিশে বসবাস করে। উৎসব-পার্বনে সকল ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষ আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়। এই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আমাদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ। এটি আমাদের ঐক্য এবং শক্তির প্রতিক। এই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে সুসংহত করতে পুরোহিত-সেবাইতরা বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারেন।

হিন্দু সম্প্রদায়ের কল্যাণে গৃহীত প্রদক্ষেপ তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, দেশের উন্নয়নে আমাদের সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা রয়েছে- রুপকল্প ২০৪১। এছাড়া, জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্র হিসেবে আমরা এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে দায়বদ্ধতা রয়েছে। আমরা সবাইকে সমান তালে এগিয়ে নিতে চাই। সকল ধর্মের মানুষকে সমান গুরুত্ব দিয়ে তাদের নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে চাই। আগামীদিনে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কল্যাণে আরো বেশি কাজ করার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে।

ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ সাবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ড. বীরেন শিকদার, কুমিল্লা-৭ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত, ধর্ম সচিব মুঃ আঃ হামিদ জমাদ্দার, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত পাল ও এস.আর.এস.সি.পি. প্রকল্পের পরিচালক প্রফেসর শিখা চক্রবর্তী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ধর্মীয় ও আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে পুরোহিত ও সেবাইতদের দক্ষতা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।  এ প্রকল্পের অধীনে পুরোহিত ও সেবাইতদের নেতৃত্বদানের সক্ষমতা বৃদ্ধি, তাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ও আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সংহত করতে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়ে থাকে। এছাড়া, আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল ১ হাজার ৬০০ জন পুরোহিত ও সেবাইতকে ভাতা প্রদান করা হয়ে থাকে।


আরও খবর



ইসলামপুরে কাফনের কাপড়সহ অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image
লিয়াকত হোসাইন লায়ন,ইসলামপুর(জামালপুর)প্রতিনিধি:জামালপুরের ইসলামপুর কাফনের কাপড়সহ অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  পৌর শহরের ধর্মকুড়া আয়শা মেডিকেল হলের সামনে থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। 

জানা গেছে, ২৮ মে মঙ্গলবার ভোরে পথচারীরা  ইসলামপুর পৌর শহরের ধর্মকুড়া বাজারের আয়শা মেডিকেল হলের সামনে বৃদ্ধের লাশ দেখতে পায়। কে বা কাহারা মৃত ব্যক্তিকে কাফন পড়িয়ে রেখে যায়। এ সময় পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা।

অফিসার ইনচার্জ সুমন তালুকদার বলেন, খবর পেয়ে  লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

আরও খবর



মধুপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকির হোসেনের বিদায় রিফাত আনজুম পিয়া’র যোগদান

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৬১জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃমধুপুরে সহকারী কমিশনার (ভুমি) হিসেবে জাকির হোসাইন গত ১২ অক্টোবর ২০২১ সালে যোগদান করেন এবং ১২ জুন ২০২৪ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ২ বছর ৮মাস দায়িত্ব পালন শেষে সিনিয়র সহকারী কমিশনার হিসেবে সিরাজগঞ্জ জেলায় যোগদান করেছেন।

বর্তমানে মধুপুরে নতুন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট হিসেবে যোগদান করেছেন রিফাত আনজুম পিয়া। তিনি রংপুর জেলার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি ৩৮তম বিসিএস-এ ক্যাডারভূক্ত হন। ইতিপূর্বে তিনি হবিগঞ্জ ও রংপুর জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে কর্মরত ছিলেন।

রিফাত আনজুম পিয়া একজন লেখিকা। ময়মনসিংহ ক্যাডেট কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন কালিন সময়েও তিনি লেখা লেখির সাথে জড়িত ছিলেন। তাঁর প্রথম ছোট গল্পের বই “তখন গল্পের তরে” এই বইটি প্রকাশ করেছে পেন্ডুলাম পাবলিশার্স।

রিফাত আনজুম পিয়া তাঁর এই বই নিয়ে বলেছিলেন, ‘আসলে নারীদের তো আমরা বিভিন্ন পরিচয়ের লেন্সে দেখতে অভ্যস্ত সে কারও বোন, কারও স্ত্রী, কারও মা, কারো দাদী-নানী। তবে এই সব পরিচয়ের আগে সে একজন ইন্ডিভিজ্যুয়াল। তার একটা ব্যক্তি জগত আছে। একান্ত নিজস্ব চাওয়া-পাওয়া আছে। আমি সেদিকে দৃষ্টি দিয়েছি। তার হাতের ছোঁয়ায় মধুপুর উপজেলা একটি মডেল শহরে পরিনত হবে এমনটাই প্রত্যাশা সকলের। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



সোনারগাঁও প্রেস ক্লাব থেকে মাজহারুল স্থায়ী বহিষ্কার

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৯জন দেখেছেন

Image
সোনারগাঁও সংবাদদাতা: নারী কেলেঙ্কারির ঘটনায় আদালতে দণ্ডিত হওয়ায় এবং সাংবাদিকতার নাম ভাঙিয়ে অনৈতিক ও শৃংখলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে  আনন্দ টিভির সোনারগাঁও উপজেলা প্রতিনিধি মাজহারুল ইসলামকে সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জনৈক মাসুদুর রহমান নামে এক ব্যক্তি অভিযোগ করেন আনন্দ টিভির সোনারগাঁও উপজেলা‌ প্রতিনিধি মাজহারুল ইসলাম তার স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে প্রলোভন দেখিয়ে ভাগিয়ে নিয়ে যায় এবং অর্থ আত্মসাত করে। পরবর্তীতে এর বিচার চাইতে গেলেও তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে ভয়ভীতি দেখায়। ঘটনায় মাসুদ প্রেস ক্লাবে অভিযোগ করার পাশাপাশি ২০২২ সালে আদালতে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চলতি বছরের মার্চ মাসে মাজহারুলকে এক বছরের কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।পাশাপাশি ২০২৩ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি তার দ্বিতীয় স্ত্রী রওশন আরা শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন এবং প্রতারণার আরেকটি অভিযোগ করেন মাজহারুলের বিরুদ্ধে।‌ ঐ ঘটনায় প্রেস ক্লাবের তদন্ত কমিটি করা হয়। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পায় তদন্ত কমিটি। এছাড়াও বিভিন্ন সময় সাংবাদিকতার প্রভাব খাঁটিয়ে এবং সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের নাম ভাঙিয়ে বিভিন্নস্থান থেকে টাকা নেওয়াসহ শৃংখলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ডের অভিযোগে প্রেস ক্লাবের ৩০ মে কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় তার সদস্য পদ বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়।  

সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের ফেসবুক পেইজে দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রেস ক্লাবের গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ ৩, ধারা ৪ এর ঙ অনুযায়ী সদস্য পদ বাতিল করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম এম সালাহ উদ্দিন বলেন, তার বিরুদ্ধে প্রেস ক্লাবের শৃঙ্খলা বহির্ভূত অভিযোগ পাওয়ায় এবং আদালতের দণ্ড থাকায় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে‌। সোনারগাঁও প্রেসক্লাব একটি ঐতিহ্যবাহী আদর্শ সাংবাদিক সংগঠন।  গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এটি পরিচালিত হয়ে থাকে।  সাংবাদিকতা তথা সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের সুনাম ক্ষুন্ন হয় এমন কাউকেই প্রশ্রয় দেওয়া হবে না।

আরও খবর



বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার নিয়ে অভিযোগ তদন্তে হাইকোর্টের রুল

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিদ্যুতের বিল আদায় স্বচ্ছতা, অতিরিক্ত চার্জের রিফান্ডসহ এ-সংক্রান্ত অভিযোগের নিরপেক্ষ তদন্ত করতে কেন নির্দেশনা দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বিচারপতি মো. মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মাসুদ হোসেন দোলন সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। গত ৬ জুন জরুরি ভিত্তিতে বিদ্যুতের বিল ব্যবস্থা পর্যালোচনা এবং নিরীক্ষা, স্বচ্ছতা, অতিরিক্ত চার্জের রিফান্ড, গ্রাহকের সঙ্গে যোগাযোগ এবং নীতি সংস্কারের নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সাইফুল্লাহ মামুন, জামিউল হক ফয়সাল ও আব্দুল্লাহ আল হাদী।

জ্বালানি ও বিদ্যুৎ সচিব, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি বাংলাদেশের চেয়ারম্যান, এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড, পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড, ডেসকো, ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি, নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি ও ডিপিডিসির কর্তৃপক্ষকে রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

রিটে বলা হয়, বাংলাদেশে বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার চালু করা হয়েছে। ২০২৫ সালের মধ্যে সব বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীকে এর আওতায় আনা হবে বলে ঘোষণা রয়েছে। এরপরও গ্রাহকরা অতিরিক্ত চার্জ, গোপন চার্জ, স্বচ্ছতার অভাবসহ নানাভাবে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।


আরও খবর