Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

শার্শা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইয়ানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১১৩জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :যশোরের শার্শা প্রেসক্লাবের বিগত কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় আগামী ৩ বছরের (২০২৪-২০২৬) জন্য নতুন কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২০ নভেম্বর) শার্শার অস্থায়ী কার্যালয়ে এই কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর আগে সম্প্রতি বাহাদুরপুর মেদের মাঠে বনভোজনের এক সাধারণ সভায় উপস্থিত সদস্যদের সর্বসম্মতিক্রমে ৩ বছরের জন্য ২১ সদস্যবিশিষ্ট একটি কার্যকরী কমিটি গঠিত হয়।

কমিটির সদস্যরা হলেন, সভাপতি হলেন মোঃ ইয়ানুর রহমান (দৈনিক ভোরের কাগজ, দৈনিক অবজারভার ও দৈনিক স্পন্দন), সিনিয়র সহ- সভাপতি মোঃ হেদায়েত উল্লাহ (দৈনিক নওয়াপাড়া), সহ-সভাপতি (মোঃ আজিজুল ইসলাম), সাধারণ সম্পাদক মোঃ সেলিম রেজা (বিজয় টিভি), সহ-সম্পাদক মোঃ আক্তরুজ্জামান (দৈনিক স্পন্দন), সাংগঠনিক সম্পাদক এম ওসমান গনি (দৈনিক জনতা), প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ আসাদুর রহমান আসাদ (দৈনিক গ্রামের কন্ঠ), দপ্তর সম্পাদক মোঃ আব্দুর রহমান ( গ্রামের কাগজ), গণ সংযোগ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ¦ মোঃ মোরাদ হোসেন (দৈনিক ক্রাইম ওয়াচ), ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক মোঃ হাসানুজ্জামান হাসান (দৈনিক সোনালী খবর), নির্বাহী সদস্য মাও: মোঃ আনোয়ারুল কবির (দৈনিক সোনালী খবর), শেখ কাজিম উদ্দিন (দৈনিক ভোরের কাগজ, দৈনিক স্পন্দন), আব্দুল্লাহ আল-মামুন (সাপ্তাহিক গ্রামের সংবাদ), মোঃ আসরাফুল ইসলাম ( দৈনিক যায়যায়দিন), মোঃ সাইদুর জামান রাজা (সাপ্তাহিক গ্রামের সংবাদ), মোঃ জুলফিকার আলী (দৈনিক কল্যাণ), সহযোগি সদস্য মোঃ মেহেদি হাসান তুহিন ( প্রথম সুর্যোদয়), মোঃ তরিকুল ইসলাম (দৈনিক ভোরের আওয়াজ), মোঃ হাবিবুর রহমান (আনন্দ টেলিভিশন), মোঃ আতিয়ার রহমান (দৈনিক বাংলাদেশের আলো)। এছাড়া শার্শা প্রেসক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সিরাজুল হক মঞ্জু, উপদেষ্টা সদস্য প্রভাষক মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ, মোঃ কবির উদ্দিন তোতা ও মোঃ আব্দুল মুননাাফ।


আরও খবর



ইবিতে অছাত্র দ্বারা শিক্ষকদের লাঞ্ছনার প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৩জন দেখেছেন

Image
সাব্বির খান, ইবি প্রতিনিধি:ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) অছাত্র দ্বারা উপাচার্যের কার্যালয়ে শিক্ষক লাঞ্চনার ঘটনায় প্রতিবাদ জানাতে মানববন্ধন করেছে শিক্ষককেরা। সোমবার ( ১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১ টার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব ম্যুরালের সামনে এ মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল চেতনায় বিশ্বাসী শিক্ষকদের সংগঠন শাপলা ফোরাম।

এসময় শাপলা ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মান, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মোঃ রবিউল হোসেন, সহসভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ আনিছুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সহযোগী অধ্যাপক জয়শ্রী সেন, সদস্য অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবর রহমান, অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবুল আরফিন ও অধ্যাপক ড. তপন কুমার জোদ্দার, অধ্যাপক  ড. শেলীনা নাসরিনসহ প্রায় অর্ধশত শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। 

এসময় শাপলা ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. রবিউল হোসেন বলেন, 'গত ৬ ফেব্রুয়ারী উপাচার্যের সাথে কথা বলতে গেলে অছাত্ররা হঠাৎ উপাচার্য কার্যালয়ে প্রবেশ করে গলিগালাজ শুরু করে। পরে এ বিষয়ে উপাচার্যের হস্তক্ষেপ চেয়েছিল শাপলা ফোরাম। কিন্তু প্রশাসনের নীরব ভূমিকা পালন করায় আমরা মানববন্ধন করতে বাধ্য হয়েছি।'

শাপলা ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মান বলেন, 'আমরা গত ১১ ফেব্রুয়ারি উপাচার্যের সাথে দেখা করে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি কোন পদক্ষেপ নেননি। তাই ফোরামের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মানববন্ধনে করছে শিক্ষকেরা। শিক্ষকদের লাঞ্চনার বিচার নিশ্চিত না হলে পরবর্তীতে কঠোর কার্যক্রম হাতে নেবে প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলা ফোরাম।'

আরও খবর

বিনামূল্যে বই পেল ২৬৬ কলেজ শিক্ষার্থী

শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজে মাসব্যাপী আন্তঃ বিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৯জন দেখেছেন

Image
রাকিব সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজে মাসব্যাপী আন্তঃ বিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২৪ খ্রীঃ খেলার শুভ উদ্বোধন কালে জাতীয় সংগীতের তালে তালে  জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এ টূর্ণামেন্টে  খেলায় অনার্স - মাস্টার্সের ১৭ টি, উচ্চ মাধ্যমিকের ৩ টি এবং ডিগ্রীর ১ টি দল অংশ গ্রহন করছে। উদ্বোধনী খেলায় কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগ -২ শূন্যগোলে জয়লাভ করে ইসলামের ইতিহাস বিভাগ - ০ গোলে পরাজিত হয়। 

সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের আয়োজনে এবং কলেজ ছাত্রলীগ শাখার সার্বিক  সহযোগিতায়, 
সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০ টায় কলেজ মাঠে আন্তঃজেলা বিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্টের শুভ উদ্বোধন করেন, সিরাজগঞ্জ -২ সদর-কামারখন্দ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ড. জান্নাত আরা তালুকদার হেনরী এসময়ে তিনি তার বক্তব্যে বলেন, নতুন প্রজন্মদের সকলকে সুশিক্ষা অর্জন করার  পাশাপাশি আধুনিক প্রযুক্তি গ্রহণ করে উন্নত সমৃদ্ধি শালী স্মার্ট বাংলাদেশ দেশ গড়তে হবে এজন্য সকলকে ভালো মানুষ হতে হবে। শিক্ষা, ক্রীড়া, সাহিত্য সংস্কৃতির লালন করতে হবে। খেলাধূলার বিকল্প নেই। 

স্বাগত বক্তব্যে রাখেন, সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের সুযোগ্য অধ্যক্ষ প্রফেসর টি.এম. সোহেল। 
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, পুলিশ সুপার মোঃ আরিফুর রহমান মন্ডল (বিপিএম বার, পিএমবার), জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট কে. এম. হোসেন আলী হাসান, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ আব্দুস সামাদ তালুকদার, সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ  সুলতান মাহমুদ, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মিজানুর রহমান দুদু, জিহাদ আল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপিকা হাসনাহেনা, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের  সভাপতি মোঃ জাকিরুল ইসলাম লিমন প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোছাঃ উম্মে তাসলিমা ছবি, অর্থনীতি বিভাগের সহকারি অধ্যাপক সুবর্ণা লায়লা। 

এ ফুটবল আন্তঃ ফুটবল টূর্ণামেন্ট খেলার আহবায়ক হলেন, প্রফেসর মোঃ শরীফ-উস- সাঈদ, এবং সার্বিকভাবে দায়িত্বে রয়েছেন, কলেজের শরীর চর্চা শিক্ষক মোঃ আব্দুর রশিদ। 
ধারাবর্ণনা করেন, মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জিয়াউর রহমান জিয়া মুন্সি। 

উদ্বোধনী খেলায় কলেজের সকল বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক, সহকারি অধ্যাপক, প্রভাষকগণ, কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সুলতান মাহমুদ মুন্না, যুগ্নসাধারণ সম্পাদক জীবন সেখ, সহ-সভাপতি সজীব সেখ, হৃদয় সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা -কর্মচারীবৃন্দরা, শিক্ষার্থীগণ, সুধীজন, গুনীজনরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর



বিশ্বব্যাপী পরিবহন প্রতিবন্ধকতায় জিনিসের দাম বেড়ে যাচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিশ্বব্যাপী অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি হতে যাচ্ছে, যার জন্য বিশ্বব্যাপী পণ্য পরিবহনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে জিনিসের দামও বেড়ে যাচ্ছে।বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা 

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পণ্য আনতে সময়ও লেগে যাচ্ছে। নানা কারণে বহির্বিশ্বের চাপটা আমাদের ওপর এসে পড়ছে। বাইরের দেশের ওপর আমাদের নির্ভরশীল থাকার দরকার নেই, আমরা নিজেরা সব উৎপাদন করব। এজন্য সবাইকে বলেছি এক ইঞ্চি জমিও যেন পড়ে না থাকে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কিছু কিছু প্রয়োজনীয় জিনিস আমাদের বাইরের দেশ থেকে আনতেই হচ্ছে। আমরা নিজেরা যদি উৎপাদন বাড়াতে চেষ্টা করি, সেটা কিন্তু আমরা পারব। ধীরে ধীরে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়াই আমাদের লক্ষ্য। প্রতিটি মন্ত্রণালয়ে যেসব প্রকল্পগুলো অল্প খরচ করলেই শেষ হয়ে যাবে, সেগুলো দ্রুত সম্পন্ন করে ফেলতে হবে। পুরাতন প্রকল্প সম্পন্ন করলে, নতুন প্রকল্প নিতে পারব। কিছু কিছু প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে। সেগুলোও দ্রুত শেষ করা উচিত। তা নাহলে অহেতুক খরচও বাড়ে, কালক্ষেপণ হয়। সেটি যেন না হয়।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে যেভাবে প্রবৃদ্ধি বাড়ছিল, অগ্রগতি হচ্ছিল তখন প্রথমে আসলো কোভিড ১৯ অতিমারি, তার ধাক্কায় সারা বিশ্বব্যাপী, সব কিছু স্থবির। এরপর আসলো ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ, পাল্টাপাল্টি নিষেধাজ্ঞা, এখন আবার গাজায় গণহত্যা, আক্রমণ চলছে।


আরও খবর



ফুলবাড়ীতে কৃষি বিপণন আইনে ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩৮জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী,দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা প্রশাসনের নিয়মিত বাজার মনিটরিং এর অংশ হিসাবে পৌর বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ৩ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

গত রবিবার বিকাল ৫ টা ফুলবাড়ী পৌর বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ জাফর আরিফ চৌধুরী।

এসময় উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. মঈন উদ্দীন সহ পুলিশের একটি টিম উপস্থিত ছিলেন। অভিযান চলাকালে চঞ্চলকে ৩ হাজার, শফিকুল ইসলামকে ৩ হাজার এবং সাগরকে ২ হাজার টাকা জরিমান করা হয়েছে।

ফুলবাড়ী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ জাফর আরিফ চৌধুরী জানান, বাজার মনিটরিং এর অংশ হিসাবে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। লাইসেন্স ছাড়া কৃষি সংশ্লিষ্ট পণ্য বিক্র‍য় করায় কৃষি বিপণন আইন, ২০১৮ অনুযায়ী ৩ জন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।


আরও খবর



পার্বত্য সংস্কৃতি প্রতিফলনের লক্ষ্যে ৩ দিনব্যাপী ফুড এন্ড কালচারাল ফেস্টিভ্যাল উদ্বোধন ১ফেব্রুয়ারি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image
জসীম উদ্দিন জয়নাল,পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি:পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের  বর্ণিল আয়োজনের মধ্যদিয়ে পার্বত্য তিন জেলার ১৬ সম্প্রদায়ের রসনা বিলাসসমৃদ্ধ ঐতিহ্যবাহী বাহারি খাবারসামগ্রী পরিবেশনসহ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পার্বত্য সংস্কৃতি প্রতিফলনের লক্ষ্যে ৩ দিনব্যাপী ফুড এন্ড কালচারাল ফেস্টিভ্যাল-২০২৪ এর আয়োজন করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি)রাঙ্গামাটি জেলার চিং হ্লা মং চৌধুরী মারী স্টেডিয়ামে ৩ দিনব্যাপী 
পার্বত্য তিন জেলার ১৬ সম্প্রদায়ের রসনা বিলাসসমৃদ্ধ ঐতিহ্যবাহী ফুড এন্ড কালচারাল ফেস্টিভ্যাল- এর  উদ্বোধনী অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ঐতিহ্যবাহী ফুড এন্ড কালচারাল ফেস্টিভ্যাল- উদ্বোধন করবেন  পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের  প্রতিমন্ত্রী  কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, এমপি।

আগামী  ১ফেব্রুয়ারি থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ রাঙ্গামাটি জেলার চিং হ্লা মং চৌধুরী মারী স্টেডিয়ামে প্রতিদিন বিকাল ০৩.০০ টা থেকে রাত ০৮.০০ টা পযন্ত পার্বত্য তিন জেলার ১৬ সম্প্রদায়ের রসনাবিলাসসমৃদ্ধ ঐতিহ্যবাহী বাহারি খাবারসামগ্রী পরিবেশনসহ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পার্বত্য সংস্কৃতি প্রতিফলনের লক্ষ্যে ৩ দিনব্যাপী ফুড এন্ড কালচারাল ফেস্টিভ্যাল-২০২৪ এর আয়োজন করেছেন পার্বত্য চট্রগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান  সুপ্রদীপ চাকমা,র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের  প্রতিমন্ত্রী  কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, এমপি।

অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত থাকবেন রাঙ্গামাটি  আসনের  জাতীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের  প্রতিমন্ত্রী   দীপংকর তালুকদার, এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব  মোঃ মশিউর রহমান এনডিসি।

 পার্বত্য চট্টগ্রামের চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, ম্রো, তঞ্চগ্যা, বাঙ্গালি, অহমিয়া, খেয়াং, খুমি, গুর্খা, চাক, পাংখোয়া, বম, লুসাই, রাখাইন এবং সাঁওতালসহ ১৬টি সম্প্রদায় তাদের সুস্বাদু খাবার সামগ্রীসমূহ নিয়ে ঐতিহ্যবাহী এ ফেস্টিভ্যালে অংশগ্রহণ করবে। 

রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান এই তিন জেলা নিয়ে দেশের এক দশমাংশ অঞ্চলের অন্যতম পর্যটন এলাকা পার্বত্য চট্টগ্রাম। বাংলাদেশের ফেস্টিভাল অঞ্চল হিসেবে খ্যাত পার্বত্য চট্টগ্রাম। এ অঞ্চলের ঐতিহ্য ও ফেস্টিভ্যাল আয়োজনের মাধ্যমে পার্বত্যাঞ্চলে বসবাসকারী সকল সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী বাহারি খাবারের সমাহার, কৃষ্টি ও সংস্কৃতি দেশ-বিদেশের পর্যটকদের আকর্ষণ করবে। এ অঞ্চলে বসবাসরত সকল সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী খাবারসহ কৃষ্টি ও সংস্কৃতির প্রতিফলন ঘটবে এবং বাংলাদেশের অর্থনীতি উন্নয়নে এক নতুন মাত্রা যোগ হবে। পাশাপাশি এ ফেস্টিভ্যালের মাধ্যমে দেশের পর্যটন সম্পদের সম্ভাবনা আগের চেয়ে অধিকতর প্রসারিত ও বিকশিত হবে। এছাড়া এ কার্যক্রমের মাধ্যমে পার্বত্যাঞ্চলে বসবাসকারী সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যপূর্ণ বন্ধন আরও সুদৃঢ় হবে।

আরও খবর

বিনামূল্যে বই পেল ২৬৬ কলেজ শিক্ষার্থী

শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪