Logo
আজঃ শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

র‌্যাব-১১,অভিযানে গাঁজা ও ফেনসিডিল’সহ ৩ জন গ্রেফতার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৮৩জন দেখেছেন

Image

প্রেস রিলিজ:১। বাংলাদেশ আমার অহংকার এই স্লোগান নিয়ে র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজ, জঙ্গি দমন, অবৈধ অস্ত্র, মাদক উদ্ধার, চাঞ্চল্যকর হত্যা এবং বিভিন্ন আলোচিত অপরাধীদের গ্রেফতারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। গোয়েন্দা নজরদারী ও আভিযানিক কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় অপরাধীদের দ্রুততম সময়ে গ্রেফতারের মাধ্যমে র‌্যাব ইতোমধ্যেই জনগণের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

২। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১১, সিপিএসসি ও সদর কোম্পানী, আদমজীনগর, নারায়ণগঞ্জ’এর যৌথ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ইং তারিখ ভোরে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন রূপসী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন গাজী অটো টায়ার ফ্যাক্টরীর বিপরীত পার্শ্বে কাচঁপুর-সিলেটগামী মহাসড়কের উপর চেকপোষ্ট স্থাপন করে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে ৫১ (একান্ন) কেজি গাঁজা ও ৩৮৮ (তিনশত আটাশি) বোতল ফেনসিডিল এবং মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত কাভার্ডভ্যান’সহ ০৩ জন

মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলো ১। মোঃ শাহ আলম @ মুন্না (২৬), পিতা- মোঃ কবির, সাং- বউবাজার, থানা- বাকুলিয়া, জেলা-

চট্টগ্রাম, ২। মোঃ সাহাবুদ্দিন (২৪), পিতা- মৃত ধনু মিয়া, সাং- বৃষ্টিপুর, কুরুন্ডী, থানা- মুরাদনগর, জেলা- কুমিল্লা, ৩। মোঃ রুবেল (২৭), পিতা- মৃত মতিন মিয়া, সাং- রসুলপুর, বন্যাগ্রাম, থানা- দেবিদ্বার, জেলা- কুমিল্লা।

৩। প্রাথমিক অনুসন্ধান ও জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত আসামী ১।মোঃ শাহ আলম @ মুন্না (২৬) ২। মোঃ সাহাবুদ্দিন (২৪) এবং ৩। মোঃ রুবেল (২৭) পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ কাভার্ডভ্যানের ড্রাইভার ও হেলপারের ছদ্মবেশ ধারন করে গাঁজা এবং ফেনসিডিল’সহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, সিলেট’সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে আসছিল বলে স্বীকার করে। উক্ত বিষয়ে গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। মাদকের মতো সামাজিক ব্যাধির বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর

সিরাজগঞ্জে মাদক বিক্রেতার হামলায় আহত এক যুবক

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

হোমনায় ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার

বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০23




গোদাগাড়ী পৌরসভায় পানি শৌধনাগার প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৮০জন দেখেছেন

Image

গোদাগাড়ী রাজশাহী:রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভায় ভূউপরিস্থ পানি শৌধনাগার প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। শনিবার বিকাল ৪টায় সুলতানগঞ্জে প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্থার করেন রাজশাহী-১ সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন,গোদাগাড়ী পৌরসভার মেয়র অয়েজউদ্দীন বিশ্বাস,উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম,রাজশাহী জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ,জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুর রশিদ,উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান সুফিয়া খাতুন মিলি,পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি রবিউল আলম,সাধারন সম্পাদক নাসিমুল ইসলাম প্রমূখ। ২ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তাবায়ন করছে জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর। পদ্মা নদী থেকে পানি উত্তোলন করে শোধনাগারের মাধ্যমে পৌরসভায় বিশুদ্ধ পানি সরবাবরহ করা হবে।প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন,পৌর বাসীর পানির চাহিদা পূরনে যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসাবে এ ওয়াটার ট্রীটমেন্ট প্লান্ট নির্মাণ করা হচ্ছে যা শোধনের মাধ্যমে পানি সরবরাহে মানুষের দোড় গোড়ায় পৌছে যাবে। আর এ জন্য বর্তমান সরকার একের পর এক শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত দৃশ্যমান কাজ করে যাচ্ছে। এদিকে ভূপুষ্ঠস্থ পানি শোধনাগারের সার সংক্ষেপ তুলে ধরেন গোদাগাড়ী পৌর মেয়র অয়েজউদ্দীন বিশ্বাস বলেন, বাংলাদেশ সরকারের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর ২২ কোটি টাকা ব্যয়ে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন হলো। কাজটি শেষ হলে বিশুদ্ধ পানি পাবে পৌরবাসী। এই প্রকল্পের আওতায় পানির পাইপ লাইন স্থাপন করা হবে। সমগ্র পৌরবাসীকে আরও বিশুদ্ধ পানি সেবাসহ নানা উন্নয়ন প্রকল্পে চলমান আছে।


আরও খবর

সেই ধর্ষক জনি ঢাকায় গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




ঘোড়াঘাট উপজেলায় লাউ গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা?

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১২৪জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:প্রতিদিন সপ্ন বুনছিলো এবার লাউ বিক্রি করে কিছুটা হলেও লাভের মুখ দেখবে। পরিশোধ করে দেবে সকলের ঋণ। কিন্তু সে সপ্ন অধরাই থেকে গেল কৃষক ইব্রাহীমের। দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে রাতের আঁধারে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ১ একরের মধ্যে ৯০ শতক জমির প্রায় ১৫০টি লাউগাছ কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষরা। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী কৃষক গতকাল বুধবার সকালে ঘোড়াঘাট থানায় প্রতিপক্ষদের নাম উল্লেখ করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘোড়াঘাট থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কৃষক ইব্রাহিম ও প্রতিপক্ষ একই গ্রামের শাহাদত এবং তার দুই ছেলে আমিনুল ও কামরুলের সাথে জমি জমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিলো। এরই ধারাবাহিকতায় পূর্বশত্রুতার জেরে বুধবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৩টায় উপজেলার ৩নং সিংড়া ইউনিয়ন হাটপাড়া দূর্গাপুর এলাকার ইব্রাহীম নামের এক কৃষকের লাউগাছ কেটে দেয় প্রতিপক্ষরা। এ সময় প্রতিপক্ষরা গাছগুলো কেটে চলে যাওয়ার সময় একই গ্রামের তাজ উদ্দিন দেখে ফেলে। পরে ইব্রাহিম সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর ঘটনার বিস্তারিত জানতে পেরে জমিতে গিয়ে দেখতে পায় বেশিরভাগ লাউ গাছের গোড়া রাতের আঁধারে কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষরা। কৃষক ইব্রাহিম জানান, বছরে প্রতি বিঘায় ১২ হাজার টাকা করে আবাদ করার জন্য ১একর জমি লিজ হিসেবে নিয়েছিলাম। এনিজও থেকে কিস্তিতে ৫০ হাজার টাকা এবং পরিচিতজনদের থেকে ধার দেনা করে ৪০ হাজার টাকা নিয়েছেন। অপরদিকে কিটনাশক ও অন্যান্য দোকানে বাকি প্রায় ৩৬ হাজার টাকা। স্বপ্ন ছিলো লাউ বিক্রি করে অল্প অল্প করে কিস্তি ও ধারদেনা পরিশোধ করবো কিন্তু বাঁধ সাধলো লাউ গাছের মৃত্যু। কেটে ফেলা হয়েছে প্রায় বেশিরভাগ গাছ গুলো। পূর্ব শত্রুতা থেকে এমনটা করেছে প্রতিপক্ষরা। দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন তিনি, পাশাপাশি সরকারি সহায়তা চেয়েছেন যেন কিস্তি পরিশোধ করে পুনরায় পরিবারের সকলের মুখে হাসি ফোটাতে পারেন। এ ঘটনায় প্রায় ৩ লক্ষ টাকা ক্ষতিসাধন হয়েছে বলেও জানান তিনি। এ বিষয়ে ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, লাউ গাছ কাটার বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর

সেই ধর্ষক জনি ঢাকায় গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




১ সেপ্টেম্বর হবে রাজনীতির ইতিহাসে বাঁক বদলের সূচনা: ছাত্রলীগ সভাপতি

প্রকাশিত:শনিবার ২৬ আগস্ট ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০23 | ১২৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন বলেছেন, ‘১ সেপ্টেম্বর হবে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ ছাত্রসমাবেশ। ১ সেপ্টেম্বর হবে বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে বাঁক বদলের সূচনা।

আজ শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ছাত্রলীগ সভাপতি। আগামী ১ সেপ্টেম্বর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিতব্য ছাত্রসমাবেশ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

তিনি বলেন, ‘ইতিমধ্যে এই ছাত্র সমাবেশকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের ৫ কোটি শিক্ষার্থীর পরিবারের মধ্যে একটি তুমুল আলোড়ন তৈরি হয়েছে। তাদের হৃদয়ের মধ্যে উন্মাদন তৈরি হয়েছে। স্বপ্নের মধ্যে একটি উচ্ছ্বাস তৈরি হয়েছে। রক্তের মধ্যে একটি শিহরণ তৈরি হয়েছে, এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে। এই ১ সেপ্টেম্বরের সমাবেশকে কেন্দ্র করে ছাত্র সমাজের মধ্যে তুমুল আশা তৈরি হয়েছে।

সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘আমাদের এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে গোটা বাংলাদেশের নেতাকর্মীরা প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন। তারা প্রস্তুতি সভা, বর্ধিত সভা করেছেন। ইতিমধ্যেই ছাত্র সমাজের মধ্যে আওয়াজ উঠেছে ‘চলো চলো সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে চলো। ১ সেপ্টেম্বরের মহাসমাবেশকে সফল করো।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব স্মরণে এই সমাবেশের আয়োজন করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। প্রথমে ৩১ আগস্ট সমাবেশ করার ঘোষণা দিলেও পরিবর্তে ১ সেপ্টেম্বর সমাবেশের তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


আরও খবর

এডিসি হারুন রংপুরে যোগ দিলেন

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




এক সেলফি দেখে বিএনপি নেতাদের মুখ শুকিয়ে গেছে: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:রবিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৩৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের তোলা সেলফি দেখে বিএনপি নেতাদের মুখ শুকিয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ রোববার সকালে রাজধানীর আইইবি মিলনায়তনে দেশব্যাপী যুবলীগের প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির লাফালাফি বন্ধ হয়ে গেছে। দেখতে দেখতে ১৫ বছর কেটে গেল। আমেরিকার দিকে তাকিয়ে ছিল তারা। এখন একটা সেলফি দেখেই চোখ-মুখ শুকিয়ে গেছে তাদের। রাতের ঘুম শেষ হয়ে গেল। এখন কে নিষেধাজ্ঞা দিবে? ওসব ভয় পায় না আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, জনগণের শক্তিতে আগামী নির্বাচন করতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। জনগণের ভালোবাসা আওয়ামী লীগের একমাত্র পুঁজি। আওয়ামী লীগ সন্ত্রাসী দল নয়। সত্যের পক্ষে জনগণের পক্ষে যে কোনো সময় সুদৃঢ় অবস্থা এই দলের।

মনোনয়ন বাণিজ্যের জন্য বিএনপি তলে তলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘টেমস নদীর তীরে বসে মনোনয়ন বাণিজ্য করছেন বিএনপির নেতা। তলেতলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। ষড়যন্ত্র করে আওয়ামী লীগ রাজনীতি করে না।

তিনি আরও বলেন, ‘ড. ইউনূসের ১৬০ জনের স্টেটমেন্ট কিনতে ২ মিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে। এতো টাকা কোথায় পেলেন। যে মানুষ শহীদ মিনার, স্মৃতিসৌধ আসে না। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু, মুক্তিযুদ্ধ, জাতীয় চার নেতার বিষয়ে কথা বলে না। সে আপন কেনো হবে। দেশের কোনো দুর্যোগে তাকে পাওয়া যায় না। তাকে কেন আমরা ভালোবাসব। তার জন্য বিএনপির এতো মায়া কান্না কেনো।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি ভেবেছে ১/১১’র মতো একটা সুশীল সরকার আসবে। তা আর হবে না। জনগণ কাকে ভোট দেবে ঠিক করে ফেলেছে। জরিপে ৭০ শতাংশ লোক শেখ হাসিনাকে ভোট দেবে। নেতিবাচক রাজনীতির জন্য জনগণ বিএনপিকে না করে দিয়েছে। আগামী নির্বাচন বলে দেবে কে ক্ষমতার মঞ্চে থাকবে। বুঝতে পারলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেন। ফাইনাল খেলা হবে নির্বাচনের মাঠে।

যুবলীগের প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ এবং নবায়ন কার্যক্রম রাজনীতিতে যুবলীগের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে বেশ ভালো কাজ। এখানে যারা আসে তারা সারাজীবন যুবলীগ করবে না। খারাপ যুবক আমাদের প্রয়োজন নেই। খারাপ ২০ জনের চেয়ে ভালো দুইজন অনেক ভালো। খারাপরা নিজের অর্জনকে বিসর্জন দেয়। খারাপ আচরণের জন্য আমাদেরকে মানুষের কাছে ছোট করে। আমরা জনগণের দল, জনগণের সঙ্গে আছি, জনগণকে ভালোবাসি। আওয়ামী লীগ সাম্প্রদায়িক দল নয়।

যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলসহ কেন্দ্রীয় নেতারা। পরে দেশব্যাপী যুবলীগের প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ওবায়দুল কাদের।


আরও খবর

এডিসি হারুন রংপুরে যোগ দিলেন

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩




ফ্রান্স বাংলাদেশের অন্যতম সহযোগী হিসেবে কাজ করবে: ম্যাক্রন

প্রকাশিত:সোমবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০23 | ১১৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন বলেছেন, ‘আগামী বছরগুলোতে ফ্রান্স বাংলাদেশের অন্যতম সহযোগী হিসেবে কাজ করবে। দু’দেশের মধ্যকার সম্পর্ক নতুন দিগন্তের উন্মোচন করবে।আজ সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দ্বিপাক্ষিক এবং একান্ত বৈঠকের পর দুই নেতার যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন এসব কথা বলেন।

সকাল ১০টা ২০ মিনিটে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আসেন। কার্যালয়ের টাইগার গেটে তাকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে তারা দ্বিপক্ষীয় এবং একান্ত বৈঠক করেন। বৈঠকের পর বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের মধ্যে বঙ্গবন্ধু-২ স্যাটেলাইট এবং বাংলাদেশের নগর অবকাঠামো উন্নয়ন সংক্রান্ত দুটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

ম্যাক্রন জানান, স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সহযোগিতা করবে তার দেশ।তিনি বলেন, ‘১১ লাখের মতো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ মানবতার পরিচয় দিয়েছে। এর জন্য আমি বাংলাদেশের প্রতি ধন্যবাদ জানাই।

গতকাল রোববার দুই দিনের সফরে ঢাকায় আসেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। রাত ৮টার দিকে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি। এ সময় বিমানবন্দরে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে অভ্যর্থনা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে সশস্ত্র বাহিনীর একটি দল সেখানে ম্যাক্রনকে গার্ড অব অনার এবং লালগালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়।


আরও খবর

এডিসি হারুন রংপুরে যোগ দিলেন

বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩