Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড়ধসে ১০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৪৪জন দেখেছেন

Image

কক্সবাজার প্রতিনিধি:পাহাড়ধসে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

বুধবার (১৯ জুন) সকালে উখিয়ার ৮, ৯ ও ১০ নম্বর ক্যাম্পে পৃথক পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটে।উখিয়া থানার ওসি মো. শামীম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পাহাড়ধসে মৃত ১০ জনের মধ্যে ৯ জন রোহিঙ্গা নাগরিক ও একজন বাংলাদেশি।

তিনি আরও জানান, গত রাত থেকে ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে পৃথক স্থানে পাহাড়ধসের ঘটনাগুলো ঘটে।এছাড়া বুধবার ভোরে কক্সবাজারের উখিয়ার থাইংখালি ৪ নম্বর ওয়ার্ডের চোরাখোলায় পাহাড়ধসে ঘুমন্ত অবস্থায় আব্দুল করিম নামে ১২ বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

মৃত আব্দুল করিম উখিয়ার পালংখালি ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের থাইংখালির শাহ আলমের ছেলে। সে থাইংখালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ছিল।


আরও খবর



পোরশায় কীটনাশক পান করে ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী নারীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | ১৩৪জন দেখেছেন

Image

ডিএম রাশেদ পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর পোরশায় বিষাক্ত কীটনাশক পান করে পুশনী(৬০) নামের এক ক্ষুদ্র- নৃগোষ্ঠী আত্মহত্যা করেছেন। তিনি উপজেলার তেঁতুলিয়া ইউপির মুরুলিয়া গ্রামের মৃত চন্দ্রের স্ত্রী।

জানা গেছে, গত শনিবার রাতে সকলের অজান্তে পুশনী তার নিজ শয়ন কক্ষে বিষাক্ত কীটনাশক পান করেন। অসুস্থ অবস্থায় দেখতে পেয়ে তার ছেলেরা তাকে উদ্ধার করে তাৎক্ষনিক পোরশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার পুশনী মারা যান।

পোরশা থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) শাহ্ আলম জানান, পুশনীর পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার লাশ তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও খবর



জয়পুরহাটে ট্রাকের চাপায় নারী পথচারীর মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৮৩জন দেখেছেন

Image
এস এম শফিকুল ইসলাম,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃজয়পুরহাটে ট্রাকের  চাপায় রাবেয়া  (৬০) নামে এক পথচারী নারীর মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার (৬ জুলাই)  বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে   সদর উপজেলার হিচমী  এলাকার জয়পুরহাট -বগুড়া মহাসড়কে ট্রাকটি তাকে চাপা দেয়।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হুমায়ূন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত নারী পথচারী রাবেয়া বেগম  জয়পুরহাট সদর উপজেলার পাইকড় গ্রামের শামসুল হকের স্ত্রী।ওসি হুমায়ূন কবির জানান, রাবেয়া বেগম  পায়ে হেঁটে হিচমী  বাজারে যাচ্ছিলেন। পথে হিচমী মোড়ে  জয়পুরহাট শহরগামী   একটি দ্রুতগামী ট্রাক তাকে চাপা দেয়। এতে রাবেয়া বেগম গুরুতর আহত হন।  তাকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট  ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল  হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



বাংলাদেশকে সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকা দিল বিশ্বব্যাংক

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১১৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতের উন্নয়নে ৯০ কোটি ডলার বা প্রায় সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকার ঋণ অনুমোদন দিয়েছে। সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক বোর্ড এ অনুমোদন দিয়েছে। টেকসই জলবায়ু-সহনশীল প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করতে বাংলাদেশকে রাজস্ব ও আর্থিক খাতের নীতি শক্তিশালী করণ এবং শহরের অবকাঠামো ও ব্যবস্থাপনার উন্নতি করতে ঋণের এ অর্থ ব্যয় করা হবে।

শনিবার (২২ জুন) বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিস থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় সংস্থাটি।

বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ ও ভুটানে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদুলায়ে সেক বলেন, প্রয়োজনীয় সংস্কারগুলো বাংলাদেশকে প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে এবং জলবায়ু পরিবর্তন ও অন্যান্য সংকট মোকাবিলায় সহায়তা করবে। নতুন অর্থায়ন বাংলাদেশকে দুইটি গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে সহায়তা করবে একটি হচ্ছে আর্থিক খাত ও নগর ব্যবস্থাপনা এবং অন্যটি উচ্চ মধ্যম-আয়ের দেশের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন।

এতে আরও বলা হয়, দুই কিস্তি ঋণের শেষ কিস্তি হিসেবে ৫০০ মিলিয়ন ডলার দেওয়া হচ্ছে। এটি বাংলাদেশের আর্থিক খাতে সংষ্কারের পাশাপাশি টেকসই উন্নয়নের গতি বাড়াবে। এ ছাড়াও জলবায়ু পরিবর্তনসহ ভবিষ্যতে যেকোনো দুযোর্গ মোকাবিলায় সহায়তা করবে

বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র ইকোনমিস্ট এবং এই প্রোগ্রামের টাস্ক টিম লিডার বার্নার্ড হ্যাভেন বার্তায় বলেন, বিনিয়োগ বাড়াতে এবং আনুষ্ঠানিক ব্যাংকিং ব্যবস্থা থেকে বাদ পড়াদের জন্য অর্থের অ্যাক্সেস উন্নত করতে বাংলাদেশের জন্য একটি ভালো কার্যকরী আর্থিক খাত গুরুত্বপূর্ণ।

সরকার বাহ্যিক ভারসাম্যহীনতা মোকাবিলায় শক্তিশালী সামষ্টিক অর্থনৈতিক সংস্কার এবং আর্থিক খাতকে শক্তিশালী করার জন্য একটি নতুন আইনি কাঠামো গ্রহণ করেছে। যা ব্যাংক পুনরুদ্ধার কাঠামোকে শক্তিশালী করতে সাহায্য করবে। কম মূলধনী ব্যাংকগুলোকে সমস্যা মোকাবিলা করার জন্য একটি দ্রুত সংশোধনমূলক কর্মকাঠামো বাস্তবায়ন করতে সহায়তা করবে। এটি অর্থনৈতিক মন্দা এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণদের রক্ষা করে সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিকেও শক্তিশালী করবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর

রিজার্ভ কমল ১৩২ কোটি ডলার

বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪

বাড়ল স্বর্ণের দাম

রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪




নওগাঁয় বিলের অবৈধ দখল ও খননের বিরুদ্ধে মৎস্যজীবীদের মানববন্ধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image
নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি:নওগাঁর সদর উপজেলার  মুনসুর ও যমুনী ফতেপুর বিল সরকারি খাঁস সম্পত্তি জলমহাল অবৈধ দখল ও খননকারীদের বিরুদ্ধে মৎস্যজীবীদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১জুলাই) বেলা ১২ টায় শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে শতাধিক মৎস্যজীবীদের উপস্থিতিতে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে সেখান থেকে সকল মৎজীবীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান করতে যায়। 

মানববন্ধনে মো. আব্দুর রহমান এর সভাপতিত্বে ঘন্টা ব্যাপী সমাবেশে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এস এম আজাদ হোসেন মুরাদ, মোসলেম উদ্দিন, তোমসের, সাইদুর রহমান, ইসলাম আলী, ইব্রাহিম মোল্লাসহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এসময় বক্তারা বলেন,  জেলার সদর উপজেলাধীন দুবলহটি, হাসাইগড়ী, বলিহার, শিকারপুর এর হত দরিদ্র মৎজীবি পরিবার। দুবলহাটি শৈলগাছী ইউনিয়নের মধ্যেবর্তী গুন্ডি বিল মুনসুর ও যমুনী ফতেপুর বিল উক্ত বিল দুইটির জলাশয়ের পরিমান ৫১৭ একর সরকারি খাঁস সম্পতি,জলমহাল। উক্ত জলাশয়কে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে প্রায় ১২/১৪ হাজার মৎস্যজীবি সম্প্রদায়, যাদের জীবন জীবিকা একমাত্র সবলম্বন মৎস্য আহরণ ও বাজার জাত করণ।

দেশ স্বধীন হওয়ার পরে প্রথমে এই বিশাল মৎস্য জীবি সম্প্রদায়ের উন্নয়নের লক্ষে সকল জলাশয় কেবল মাত্র মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির মাধ্যমে মৎস্যজীবিদের মধ্য ইজারা ব্যবস্থা করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান পরবর্তীতে ইজারা প্রথা বাতিল করে জাল যার জলা তার মৎস্য জীবি অধিকার নীতিমালা বাস্তবায়ন করে ভরাট জলাশয় গুলো সরকারি ভাবে খনন করা হয়েছে। জলাশয় গুলি মৎস্যজীবি সম্প্রদায়কে বন্দবস্ত দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু প্রভাবশালী বাক্তি উক্ত নীতিমালার অপবাখ্যা দিয়ে উল্লেখিত জলাশয়ের জমিগুলো সনামে বেনামে বন্দবস্ত নিয়ে ইচ্ছা মতো পুকুর খনন করে জবর দখল করে নিয়েছেন। ফলে প্রকৃত মৎস্যজীবিদের জন্য সরকার কর্তৃক গৃহীত প্রকল্পের সুফল হতে বঞ্চিত হয়েছে। ইতিমধ্য জীবন বাঁচানোর তাগিদে অনেকেই তাদের পৈত্রিক পেশা ছেড়ে দিয়ে বিভিন্ন পেশায় জীবিকা নির্বাহ করছেন। বিধায় জরুরী ভাবে অবৈধ দখলদারকে উচ্ছেদ করে সরকার যাদের জন্য জাল যার জলা তার প্রকল্প গ্রহণ করেছিলেন। সেটাকে বাস্তবায়ন করে মৎস্যজীবি সম্পদায়ের জীবন জীবিকার জন্য  সুব্যবস্থার দাবি জানান।

আরও খবর



যশোরে বিধবা নারীর মাটি চাপা দেয়া লাশ উদ্ধার, পুলিশ ৩জনকে হেফাজতে নিয়েছে

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরে বিধবা নারীর মাটি চাপা দেয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত বিধবা সোনাবানু(৪০)র বাড়ী যশোর সদর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের সন্ন্যাসী বটতলা গ্রামে।

আজ শুক্রবার বিকেলে সন্ন্যাসী বটতলা গ্রামের একটি বাগানের ভিতর থেকে মাটি খুড়ে ওই বিধবা নারীর মরদেহটি উদ্ধার করেছে যশোর কোতোয়ালী থানার পুলিশ। এঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে ।

হত্যার শিকার নারীর স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন সোনাবানু। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে আজ শুক্রবার দুপুরে নিহতের বাড়ির কিছু দূরে একটি বাগানের ভিতর ছড়ানো ছিটানো মাটি দেখতে পান তারা। পুলিশে খবর দিলে মাটি খুড়ে একটি ছোট গর্ত থেকে সোনাবানুর মরদেহ উদ্ধার করেন। মরদেহের গলায় ওড়না পেচোনো ছিলো। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহতের স্বজনদের দাবি, সোনাবানু স্বামী মারা যাবার পর এক সন্তান নিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। সেই স্বামীর আগের ঘরের স্ত্রী সন্তান ছিলো। দ্বিতীয় স্বামীর ঘরে সোনাবানুর আরও দুটি সন্তান হয়। দ্বিতীয় স্বামী মারা যাওয়ার পর সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে নিজ ছেলে ও সতীনের ছেলের সাথে বিরোধ শুরু হয়। ওই জমির বিরোধ নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

এ বিষয়ে যশোর কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক জানান,প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায়  জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এলাকার আরিফ হোসেন ও তার স্ত্রী ইভাসহ তিনজনকে থানা পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নিয়েছেন। তদন্ত চলছে, শিগগির রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন তিনি।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর