Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

রণবীর-আলিয়ার রোমান্টিক ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশিত:Wednesday ১৩ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৫০জন দেখেছেন
Image

বিনোদন ডেস্কঃ

চার হাত এক হতে চলেছে বলিউডের তারকা জুটি রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাটের। বিয়ের অনুষ্ঠান শুরুর আগে এবার ভাইরাল হলো তাদের মিষ্টি প্রেমের রোমান্টিক মুহূর্তের ভিডিও।


এটি পোস্ট করে তাদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুক্তির অপেক্ষায় থাকা এই তারকা জুটির প্রথম সিনেমা ‘ব্রহ্মাস্ত্র’র নির্মাতা অয়ন মুখোপাধ্যায়।


এই নির্মাতা যে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন তা কোনো একান্ত মুহূর্তের নয়। এটি ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ সিনেমার প্রথম গান ‘কেসরিয়া’র এক ঝলক। যেখানে রণবীর-আলিয়া জুটির ভালোবাসার মুহূর্ত উঠে এসেছে।  


ভিডিওর ক্যাপশনে অয়ন লেখেন, রণবীরের জন্য ও আলিয়ার জন্য! এবং যে নতুন সফর তারা শুরু করতে চলেছে তার জন্য। রণবীর ও আলিয়া আমার সবচেয়ে কাছের ও প্রিয় মানুষ। আমার আনন্দের জায়গা এবং আমার সুরক্ষিত জায়গা, যারা আমার জীবনে সবকিছু এনে দিয়েছে এবং আমাদের সিনেমায় নিঃস্বার্থভাবে তাদের সবটা ঢেলে দিয়েছে! 


তিনি আরও লেখেন, আমাদের সিনেমার গান কেসরিয়া থেকে তাদের পুনর্মিলনের একাংশ তুলে ধরতেই হতো, উদযাপন করার জন্য ওদের ও সকলের প্রতি উপহার হিসেবে! তাদের জন্য অনেক শুভেচ্ছা ও আশীর্বাদ। সব আনন্দ ও পবিত্রতা যেন তাদের জীবনের নতুন অধ্যায়ে ঘিরে থাকে, সবসময়ে একসঙ্গে।


২০১৭ সালে অয়ন রিচালিত ‘ব্রহ্মাস্ত্র’র কাজ শুরু করেছিলেন আলিয়া ও রণবীর। সেখান থেকেই তাদের প্রেমের শুরু। আর এবার প্রেম পরিণয়ের আগে হবু দম্পতির জন্য সিনেমাটির বিশেষ ভিডিও প্রকাশ্যে এলো।


জানা গেছে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরেই মুক্তি পাবে রণবীর ও আলিয়া জুটির প্রথম সিনেমা। এতে বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করছেন অমিতাভ বচ্চন ও শাহরুখ খান। ‘ব্রহ্মাস্ত্র’তে আরও রয়েছেন নাগার্জুন, মৌনী রায় ও ডিম্পল কাপাড়িয়াসহ অনেকে।


আরও খবর



ঈদে যদি চান ত্বকের জেল্লা ফেরাতে

প্রকাশিত:Monday ২৫ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৫৫জন দেখেছেন
Image

খবর প্রতিদিন ডেস্কঃ

ঈদ আসতে এখনো বেশ দেরি, চেষ্টা করুন আজ থেকেই খুব সাধারণভাবে হলেও ত্বকের জন্য একটু যত্ন নিতে। আর এজন্য অনেক সময় বা অর্থ ব্যয় করতে হবে না আপনাকে।


দেখুন, রান্নাঘরেই পেয়ে যাবেন, রূপচর্চার সব উপকরণ।  

ইফতার তৈরির সামগ্রী দিয়েই করে নিন ত্বকের যত্ন, আর পান পার্লারের দামি ফেসিয়ালের চেয়ে সুন্দর ত্বক- 


বেসন-হলুদ

দুই টেবিল চামচ বেসনের সঙ্গে এক চিমটি হলুদ গুঁড়া মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি দুধ অথবা গোলাপ জল দিয়ে পেস্ট করে নিন।

রোদে পোড়া ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।  


মসুর ডাল-টমেটো 

মসুর ডাল বাটা ও সমপরিমাণ টমেটো পেস্ট মিলিয়ে নিন।  ত্বকে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রাখুন। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।  


মধু ও পাকা পেঁপে

পাকা পেঁপে চটকে নিন। সঙ্গে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিন। ত্বকে মেখে নিজের কাজগুলো করুন, শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।  


এছাড়া সারা বছর ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে- 

•    সপ্তাহে অন্তত একবার ভালো করে স্ক্রাবার দিয়ে মুখ স্ক্রাব করতে হবে। ঘরোয়া উপায়ে স্ক্রাবার তৈরি করে লাগাতে পারলে ভালো হয়, এতে কোনো পার্শপ্রতিক্রিয়া থাকে না।  

•    চালের গুঁড়া, টকদই, শসার রস এবং দুই-তিন ফোঁটা অলিভ অয়েল মিশিয়ে স্ক্রাবার তৈরি করতে পারেন। সপ্তাহে নিয়মিত একবার ৫ মিনিট স্ক্রাবিং করলে ত্বকের মরা কোষগুলো চলে যাবে  

•    ডিমের সাদা অংশ ফেটে ব্ল্যাকহেডসের ওপরে  দিয়ে তার ওপর টিস্যু  পেপার  চেপে দিন। শুকিয়ে গেলে টেনে তুলে ফেলে মুখ ধুয়ে নিন 

•    লেবুর সঙ্গে মধু মিশিয়ে আস্তে আস্তে ত্বকে ঘষে লগাতে হবে। আধাঘণ্টা পর মুখ ধুয়ে নিতে হবে। লেবু ব্ল্যাকহেডস দূর করতে সাহায্য করবে আর মধু ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করবে।  


নিয়মিত এভাবে যত্ন করলে ত্বকে খুব সহজে বয়সের ছাপ পড়বে না।  


আরও খবর

বুফে ইফতার

Sunday ১৭ April ২০২২




ডেমরায় দশ লক্ষ টাকা চাঁদার দাবীতে ব্যাবসায়ীকে গুম করার হুমকি

প্রকাশিত:Sunday ০১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৩৪৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রাজধানীর ডেমরা থানা পুর্ব হাজী নগর এলাকার ব্যাবসায়ী নুর আলমের কাছ থেকে সাড়ে চার লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করে দশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী সহ ভুক্তভোগীকে মেরে গুম করার হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে।এ ঘটনায় ব্যাবসায়ী নুরআলম-৪২ বাদী হয়ে বিঞ্জ সিএমএম আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।মামলাটি তদন্তের জন্য বিঞ্জ সিএমএম আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ফারাহ দিবা ছন্দা পিবিআই কে নির্দেশ প্রদান করেছেন।আদালতে দায়েরকৃত সিআর মামলা নং-১০২/২০২২(ডেমরা আমলী)।


মামলার আসামীরা হলেন,১।ফরিদ দেওয়ান-৪২ পিতাঃকাশেম মাষ্টার সাং- বকুল তলা সারুলিয়া ডেমরা ঢাকা,২।মোঃ জামাল-৪০ পিতাঃ আঃ খালেক মিয়া সাং-পুঙ্খু মিয়া মসজিদের সামনে সারুলিয়া ডেমরা ঢাকা ।


বাদীর আদালতে দাখিল করা পিটিশনের বর্ননা মতে জানাগেছে,মামলার ১ এবং ২ নং আসামীরা নুর আলমের ব্যাবসা প্রতিষ্টান এম আর রহমান ট্রেডার্স এ কর্মচারী ছিলেন।বিভিন্ন সময়ে বাদী তাদেরকে দিয়ে ব্যাবসা প্রতিষ্টানের লেনদেনের টাকা লোকজনের নিকট পাঠাত।তারা যোগসাযোশ করে ব্যাবসা প্রতিষ্টানের সাত লক্ষ টাকা সুচতুর ভাবে আত্মসাৎ করেন।ব্যাবসায়ী নুর আলম আসামীদের কাছে সাড়েচার লক্ষ টাকার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা কোন সদুত্তর দিতে পারেনি।উল্টো বাদীকে হুমকি ধামকি ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এবং ব্যাবসা প্রতিষ্টান থেকে বিতাড়িত করতে সন্ত্রাসী দ্বারা হুমকি প্রদান করে।


আসামীরা বাদীকে সুকৌশলে অন্য জায়গায় নিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে নেশা জাতীয় দ্রব্য দ্রব্য খাইয়ে আপত্তিকর ছবিতুলে তার মান সম্মান নষ্ট করতে আত্মীয় স্বজনের কাছে সেই ছবি পাঠান।


আসামীরা নুর আলমের ব্যাবসা প্রতিষ্টান এম আর রহমান ট্রেডার্সে এসে গত ২৪ মার্চ ২০২২ তারিখে তার নিকট দশ লক্ষ টাকা চাঁদাদাবী করে।তাদের দাবীকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাকে কিল ঘুষি,চর-থাপ্পর মারেনএবং জোড় করে ব্যাবসা প্রতিষ্টানের মেমো বই ভাউচার ছিনিয়ে নিয়ে যান।ঐদিন বিকেলে পুনরায় আসামীরা ব্যাবসা প্রতিষ্টানে এসে নুরআলম কে না পেয়ে তার বাসায় গিয়ে স্ত্রী ওপরিবারের অন্য সদস্যদের গালিগালাজ করেন।তারা  তার স্ত্রীকে বলেন দশ লক্ষ টাকা না দিলে তারা নুরআলমকে জীবনে মেরে ফেলে গুম করবেন।



স্থানীয়ভাবে খোঁজ নিয়ে জানাগেছে,এলাকার অনেক লোক বিষয়টি দেখেছেন সন্ত্রাসী চাঁদাবাজদের ভয়ে তারা মুখ খুলতে চায় না।বিষয়টি নিয়ে ব্যাবসায়ী নুরআলম ডেমরা থানায় মামলা করতে গেলে আসামীদের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে পুলিশ তার মামলা নেয়নি।বাদী নিরুপায় হয়ে আদালতে আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।



    


আরও খবর



চট্টগ্রাম টেস্ট

চতুর্থ দিন পুরোটা সময় ব্যাট করে যেতে চায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
Image

স্পোর্টস রিপোর্টারঃ

চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিন শেষেও বোঝার উপায় নেই আদৌ ফল আসবে কি না এই ম্যাচে। কেননা ম্যাচের তিন দিনেও শেষ হয়নি দুই দলের প্রথম ইনিংস। উইকেট পড়েছে মাত্র ১৩টি। ব্যাটিংবান্ধব এ উইকেটে ফল না আসার সম্ভাবনাই বেশি। তবে বাংলাদেশ দলের রয়েছে ভিন্ন চিন্তা।

তামিম ইকবালের সেঞ্চুরি, মাহমুদুল হাসান জয়, মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের ফিফটিতে তৃতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৩১৮ রান। শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংসে অলআউট হওয়ার আগে করেছিল ৩৯৭ রান। অর্থাৎ প্রথম ইনিংসে এখনও ৭৯ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ।

এই ম্যাচে ফল আনার জন্য চতুর্থ দিন পুরোটা সময় ব্যাট করে যেতে চায় বাংলাদেশ। এরপর বড় লিড নিয়ে ম্যাচের শেষ দিন শ্রীলঙ্কাকে অলআউট করার পরিকল্পনা স্বাগতিকদের। লিটন দাস, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসানদের মতো দ্রুত রান তোলা ব্যাটার থাকায়


আরও খবর



বিষাক্ত সাপের কামড়ে কৃষকের মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় খড়ের গাদা থেকে গরুর জন্য খড় আনতে গিয়ে সাপের কামড়ে আজিজুর রহমান (৪৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।


শুক্রবার (২০ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।



আজিজুর রহমান উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের রনবাগ গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।


বড়বাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আকরাম হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যার আগে বাড়ির পাশে আজিজুর রহমান গরুর জন্য খড়ের গাদা খড় টেনে বের করার সময় একটি সাপ তাকে কামড় দেয়। পরে চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. রাকিবুল আলম চয়ন বলেন, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা থেকে সাপে কামড়ানো আজিজুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আনা হয়েছিল। কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই তার মৃত্যু হয়।


আরও খবর



ইউক্রেন যুদ্ধের ধাক্কা পড়েছে পণ্যের বাজারে

প্রকাশিত:Thursday ২৮ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১২৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে ইতোমধ্যেই বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন পণ্যের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। সামনের দিনগুলোতে পণ্যের দাম আরও বাড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে বিশ্ব ব্যাংক সতর্ক করে বলেছে, ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে গত ৫০ বছরের মধ্যে বিশ্বের পণ্য বাজারে সবচেয়ে বড় ধাক্কা আসতে যাচ্ছে। অর্থাৎ ১৯৭০ সালের পর প্রথম বারের মতো এমন সংকট তৈরি হতে পারে।


নতুন এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সংঘাতের কারণে প্রাকৃতিক গ্যাস থেকে শুরু করে গম ও তুলা পর্যন্ত বিভিন্ন পণ্যের দাম ইতোমধ্যেই বেড়ে গেছে। সামনের দিনগুলোতে এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।


বিশ্ব ব্যাংকের নতুন এই প্রতিবেদনের সহ-লেখক পিটার ন্যাগল বলেন, পণ্যের দামের এই ঊর্ধ্বগতি এরইমধ্যে বড় ধরনের অর্থনৈতিক ও মানবিক প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে। তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে জীবনযাত্রার খরচ মেটাতে গিয়ে চরম দুর্ভোগে পড়ছে মানুষ।


বিশ্ব ব্যাংকের এই শীর্ষ অর্থনীতিবিদ বলেন, গরীব পরিবারগুলোর ক্ষেত্রে এই সংকট আরও ভয়াবহ। কারণ তাদের আয়ের সিংহভাগ খাবার ও জ্বালানির পেছনে ব্যয় হয়ে যায়। পণ্যের দাম বাড়ার প্রভাব তাদের ওপরই সবচেয়ে বেশি পড়বে।


বিশ্ব ব্যাংক বলছে, জ্বালানির দাম ৫০ শতাংশের বেশি বাড়তে পারে। ফলে সংসারের ব্যয় এবং ব্যবসায়ের খরচ অনেক বেড়ে যাবে।



বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউরোপে সবচেয়ে বেশি বাড়বে প্রাকৃতিক গ্যাসের দাম, যা দ্বিগুণের বেশি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী বছর পণ্যের দাম কিছুটা কমতে পারে এবং ২০২৪ সালের পূর্বাভাসে দেখা যাচ্ছে, গত বছরের তুলনায় ২০২৪ সালে গ্যাসের দাম ১৫ শতাংশ বেশি থাকবে।


বিশ্ব ব্যাংক বলছে, ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত বিশ্ব টানা ২৩ মাস জ্বালানির দামে ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে। মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিরতার কারণে ১৯৭৩ সালে জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির পর এটাই দীর্ঘতম সময় ধরে জ্বালানির দাম যাওয়ার ঘটনা।


একইভাবে জ্বালানি তেলের দামও ২০২৪ সাল পর্যন্ত বাড়তি থাকবে এবং চলতি বছরজুড়ে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম গড়ে ১০০ ডলারে বিক্রি হবে, যা বিশ্বজুড়ে মূল্যস্ফীতির হার বাড়ার অন্যতম কারণ হিসেবে ভূমিকা রাখবে।



বিশ্বের ১১ শতাংশ তেল উৎপাদন করে রাশিয়া, যা তৃতীয় সর্বোচ্চ। বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনে যুদ্ধের কারণে সরবরাহে বিঘ্ন ঘটা এবং পশ্চিমা অবরোধের ফলে একটি দীর্ঘমেয়াদী নেতিবাচক প্রভাব দেখা দেবে। অবরোধের কারণে পশ্চিমা কোম্পানিগুলো রাশিয়া ছেড়ে যাবে এবং দেশটির নতুন প্রযুক্তি পাওয়ার সুযোগ কমে আসবে।


রাশিয়া বর্তমানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের চাহিদার ৪০ শতাংশ গ্যাস ও ২৭ শতাংশ তেল সরবরাহ করে। কিন্তু ইইউ রাশিয়ার ওপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে বিকল্প উৎস থেকে জ্বালানি চাহিদা পূরণের চেষ্টা করছে, যা বিশ্বজুড়ে তেল এবং গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। মূলত চাহিদা ও সরবরাহ ভারসাম্য নষ্ট হওয়ায় সমস্যা বেড়ে যাচ্ছে।


অনেক খাদ্য পণ্যের দাম হঠাৎ করেই লাফিয়ে বেড়ে গেছে এবং আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। গমের দাম ৪২ দশমিক ৭ শতাংশ বাড়তে পারে। খাদ্য পণ্যের মধ্যে বার্লি ৩৩ দশমিক ৩ শতাংশ, সয়াবিন ২০ শতাংশ, ভোজ্য তেল ২৯ দশমিক ৮ শতাংশ ও মুরগির দাম ৪১ দশমিক ৮ শতাংশ বাড়তে পারে। রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে এসব পণ্যের রপ্তানি কমে যাওয়ার কারণেই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।


যুদ্ধ শুরুর আগে বিশ্বের মোট সয়াবিনের ৬০ শতাংশ এবং গম রপ্তানির ২৮ দশমিক ৯ শতাংশ এ দুই দেশ থেকেই আসতো। সার, বিভিন্ন ধাতু ও খনিজ দ্রব্যের মতো কাঁচামালের দামও বাড়তে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে। তবে কাঠ, চা ও চালের মত কয়েকটি পণ্যের দাম কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।


আরও খবর