Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

রমজানে পেটের সুস্থতায় যা খাবেন

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মার্চ ২০23 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৬৪০জন দেখেছেন

Image

লাইফস্টাইল ডেস্ক ;রোজায় বেশিরভাগ রোজাদারের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দেখা দেয়। এর সবচেয়ে বড় কারণ হলো খাদ্যাভ্যাস। রোজায় আমরা এমন অনেক খাবার খাই যা মুখরোচক হলেও স্বাস্থ্যকর নয়। ডুবো তেলে ভাজা খাবার, অতিরিক্ত মশলাদার খাবার পেটে গ্যাসের জন্য দায়ী। কারণ সারাদিন খালিপেটে থাকার পর এ ধরনের খাবার গ্রহণ করলে তা হজমে নানা সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। তাই রোজায় গ্যাসের সমস্যা থেকে বাঁচতে খেয়াল রাখতে হবে খাবারের দিকে। ভুল খাদ্যাভ্যাসের জন্য আপনার পেটে গ্যাস জমলে তা দূর করার জন্য খেতে হবে কিছু খাবার। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

পেট ঠাণ্ডা রাখে দই

ইফতারে স্বাস্থ্যকর খাবার হিসেবে খেতে পারেন দই। এটি পেট ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে। পাশাপাশি হজমশক্তি বাড়াতেও কাজ করে দই। প্রতিদিন দই খেলে খাবার ভালোভাবে হজম হয়। সে কারণে পেটে গ্যাস জমতে পারে না। এক্ষেত্রে মিষ্টি দইয়ের বদলে টক দই বেশি কার্যকরী।

শসা খেলে মিলবে উপকার

গরমে উপকারী খাবার হলো শসা। প্রতিদিনের ইফতারে শসা রাখুন। কারণ এটি পেট ঠাণ্ডা রাখতে বেশ কার্যকরী। শসায় আছে ফ্লেভানয়েড ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান। এই দুই উপকারী উপাদান পেটে গ্যাস জমলে তা দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়াও শসায় পানির পরিমাণ বেশি থাকার কারণে এটি শরীর আর্দ্র রাখতে সাহায্য করে। ফলে দূরে থাকে পানিশূন্যতার মতো সমস্যা।

আদা ছাড়া আর কী!

পেটে জমে থাকা গ্যাস দূর করতে যে আদা কার্যকরী একথা অনেকেই জানেন। অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ আদা চিবিয়ে রস খেলে পেটের গ্যাস দূর হয়। খেতে পারেন সামান্য লবণ মিশিয়েও। ইফতারে আদার শরবত খেতে পারলে সেটিও পেট ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করবে।

কলাও কার্যকরী

রোজায় প্রতিদিন কলা খাওয়ার অভ্যাস করুন। কারণ এটি গ্যাসের সমস্যা অনেকটাই কমিয়ে দেবে। উপকারী এই ফল পাকস্থলীর অতিরিক্ত সোডিয়াম দূর করতে কার্যকরী। তাই নিয়মিত কলা খেলে পেটে গ্যাস জমতে পারে না। কলায় আছে স্যলুবল ফাইবার যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূরে রাখতে কাজ করে। ইফতার ও সেহরিতে একটি করে কলা খান। এতে পেট পরিষ্কার থাকবে।

পেঁপে রাখুন পাতে

হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে পেঁপে। এতে আছে উপকারী এনজাইম পাপায়া যা হজমশক্তি বাড়াতে বেশ কার্যকরী। ইফতারে একবাটি পাকা পেঁপে খান। পেঁপের জুস বা স্মুদি তৈরি করেও খেতে পারেন। পাশাপাশি কাঁচা পেঁপের ভর্তা কিংবা তরকারিও খেতে পারেন।


আরও খবর

"নোবেলের ম্যাজিক শুধু প্রতারণা"

মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24




মাগুরায় বিট পুলিশিং অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৩জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:পুলিশ জনতা ঐক করি , স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলি এই প্রতিপাদ্য নিয়ে মাগুরায় বাংলাদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টারের কমিউনিটি এন্ড বিট পুলিশিং শাখার উদ্যোগে মাগুরা সদর থানার আয়োজনে  সেবা প্রদান প্রতিশ্রুতি বিষয়ে স্টেকহোল্ডারগণের সমন্বয়ে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে শনিবার ১ জুন সকালে মাগুরা সদর থানার সম্মেলন কক্ষে সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেণ মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মেহেদী রাসেল।

উক্ত মতবিনিময় সভায়  বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রেজাউল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ ওয়ালিউল ইসলাম, মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কলিমুল্লাহসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা।বক্তারা মতবিনিময় সভায় মাদক, ইভটিজিং, জঙ্গীবাদ, গুজব প্রতিরোধ , ডিজিটাল ডিভাইস, মােবাইলের প্রতি আসক্তি, সাইবার ক্রাইম, বাল্য বিবাহ, কিশাের অপরাধ, পারিবারিক সহিংসতা, নারী ও শিশু নির্যাতন, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাসহ, সমসাময়িক বিভিন্ন সমস্যা, আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা ইস্যুতে সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন।

এ সময় মাগুরা সদর থানার বিভিন্ন ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি সহ বিভিন্ন পর্যায়ের শতাধিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীর এপিএস হাফিজুর ও ডিপিএস তুষারের নিয়োগ বাতিল

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বুধবার (২৯ মে) প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস-২) গাজী হাফিজুর রহমান এবং উপ-প্রেস সচিব (ডিপিএস) হাসান জাহিদ তুষারের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বাতিল করা হয়েছে। তাদের নিয়োগ বাতিল করে আজ (২৯ মে) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পৃথক দুটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সম্পাদিত চুক্তিপত্রের অনুচ্ছেদ-৮ অনুযায়ী হাসান জাহিদ তুষারের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ ১ জুন থেকে বাতিল করা হলো। সর্বশেষ গত ২৮ জানুয়ারি তুষারকে ফের প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব (ডিপিএস) পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। এর প্রায় চার মাস পর তার নিয়োগ বাতিল হলো। এর আগেও তিনি উপ-প্রেস সচিব নিয়োগ দায়িত্ব পালন করেন।

পৃথক আরেকটি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, গাজী হাফিজুর রহমানের সাথে সরকারের সম্পাদিত চুক্তিপত্রের অনুচ্ছেদ-৮ অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব-২ পদে তার চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ ১ জুন থেকে বাতিল করা হলো।

গাজী হাফিজুর রহমান ২০০৮ সাল থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাসাইনমেন্ট অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ২০১৯ সালে তিনি প্রধানমন্ত্রীর এপিএস-২ নিয়োগ পান। হাফিজুর রহমান ছাত্রজীবনে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ভিপি ছিলেন। পরবর্তীতে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহ-সম্পাদক ছিলেন।

অপরদিকে মাগুরা জেলায় জন্মগ্রহণকারী হাসান সাংবাদিক হাসান জাহিদ তুষার গত সরকারের সময়েই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপ-প্রেস সচিব নিয়োগ পান। এর আগে তিনি একটি ইংরেজি দৈনিকে কর্মরত ছিলেন।


আরও খবর



পুঠিয়ার বেলপুকুরে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ৬৬জন দেখেছেন

Image
সাজেদুর রহমান,পুঠিয়া(রাজশাহী)প্রতিনিধি:শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ‘স্কুল ভিজিটিং প্রোগ্রাম’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর থানার উদ্যেগে ধাদাস উচ্চ বিদ্যালয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ মতবিনিময় সভায় আরএমপি’র বেলপুকুর থানার ওসি মোঃ মামুনুর রশিদ, এস আই, রিমন হোসাইন, ধাদাস উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একরামুল হক উপস্থিত থেকে মাদক, ইভটিজিং, সাইবার ইস্যু ট্রাফিক রুলস এবং সামাজিক অপরাধ যেমন বাল্যবিবাহ, যৌতুক, কিশোর গ্যাং ও মানবপাচার প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ে আলোচনা করেন। স্বতঃস্ফুর্ত এ মুক্ত আলোচনা সভায় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা কর্মকর্তাদের কাছে বিভিন্ন সমস্যার কথা উপস্থাপন করেন।

মতবিনিময় সভায় মাদকের ভয়াবহতা তুলে ধরেন। মাদক থেকে দূরে থাকতে উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের অনুরোধ করেন। এছাড়াও সতর্ক থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে পরামর্শ প্রদান করেন। কেউ সাইবার অপরাধের শিকার হলে কীভাবে প্রতিকার পাওয়া যাবে সে বিষয়ে আলোচনা করেন। তাছাড়া ছাত্র-ছাত্রীদের ট্রাফিক আইন জেনে ও মেনে নিরাপদে পথ চলা, নিয়ম মেনে রাস্তা পারাপারসহ প্রয়োজনে ট্রাফিক পুলিশের সহযোগিতা গ্রহণ করতে বলেন। রাস্তায় বিপদে পড়লে বা কেউ ইভটিজিংয়ের শিকার হলে পুলিশের সহযোগিতা নেওয়া বা জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল করতে বলাসহ বাল্যবিবাহ, যৌতুক, কিশোর গ্যাং ও মানবপাচার সংক্রান্ত সচেতনতামূলক পরামর্শ দেন।

আরও খবর



হামিদপুর ইউনিয়নে বাল্যবিবাহ

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ২১জন দেখেছেন

Image

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার ৯নং হামিদপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের শাহাগ্রামে নাবালক পুত্র আরহাম আল মুক্তাক্তীর বাল্য বিবাহ হয়। পার্বতীপুর উপজেলার ৯নং হামিদপুর ইউপির শাহাগ্রামের মোঃ গোলাম রব্বানীর পুত্র আরহাম আল মুক্তাক্তীর সাথে বগুড়া জেলার ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ী গ্রামের মোঃ রফিকুল ইসলামের কন্যা মোছাঃ রাফিয়া নূর নিলা এর সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এর মাধ্যমে পরিচয় হলে তাকে সেখান থেকে গত ১৮/০৬/২০২৪ ইং তারিখে পালিয়ে এলে আরহাম আল মুক্তাক্তীর পিতা মোঃ গোলাম রব্বানীর উপস্থিতিতে গত ২০/০৬/২০২৪ইং তারিখে কোট এফিডেভিটের মাধ্যমে পুত্রকে বিবাহ দেন। উল্লেখ্য যে, পুত্র মোঃ আরহাম আল মুক্তাক্তীর জন্ম তারিখ- ০৯/০৭/২০০৮ইং। তার বর্তমান বয়স ১৫ বছর ১১ মাস ১৪দিন। তার এখনও পরিপূর্ণ বিবাহের বয়স হয়নি। সেদিকে লক্ষ্য রেখে ঐ বিবাহ বাল্য বিবাহ হয়। মেয়ের বয়স দেখা যায় যে, জন্ম তারিখ ১৭/০৬/২০০৬ইং তারিখ থেকে বর্তমান বয়স ১৮ বছর ০০ মাস ০৬ দিন। এই বিবাহটি একেবারে বাল্য বিবাহের মধ্যে পড়ে। এই ঘটনায় নাবালকের পুত্রের বাবা বাল্য বিবাহ কিভাবে দেয় এলাকাবাসীর প্রশ্ন? ২০১৭ সালের বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনে ৭(১) ও ৮ ধারামতে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছে। এই ঘটনায় এলাকাবাসী দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের কাছে বাল্য বিবাহ রোধ কল্পে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেছেন। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী তদন্তস্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে আইন প্রয়োগ কারী সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আরও খবর



তানোর পুষ্টি বাগান তৈরির সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৬জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে, কৃষিই সমৃদ্ধি, এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে রাজশাহীর তানোরে বসতবাড়ির আঙ্গিনায় পতিত অনাবাদি জমিতে পারিবারিক পুষ্টি বাগান তৈরির সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার দুপুরের দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বরে কৃষি দপ্তরের আয়োজনে কৃষক ও কৃষাণীদের হাতে বাগান তৈরির সামগ্রী তুলে দেন উপজেলা কৃষি অফিসার সাইফুল্লাহ আহম্মেদ। 

জানা গেছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা এক ইঞ্চি জমি অনাবাদি রাখা যাবেনা এবং পারিবারিক পুষ্টি বাগান প্রকল্পের আওতায় বসতবাড়ির আঙ্গিনায় যে সব পতিত অনাবাদি জমি রয়েছে সেগুলোতে বাগান তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করে কৃষি দপ্তর। উপজেলার ১৪৯ জন কৃষক কৃষাণীর মাঝে একটি করে লেবু গাছ, একটি করে আম গাছ, একটা করে পিয়ারা গাছ ও একটি করে আমড়া গাছ এবং বীজ সংরক্ষণ পাত্র, এক বস্তা জৈব সার, নেট,  সাইনবোর্ড দেয়া হয়। 

কৃষি অফিসার সাইফুল্লাহ আহম্মেদ জানান, পারিবারিক পুষ্টি বাগান তৈরি হলে অন্তত পারিবারের সদস্যদের চাহিদা পূরুন করবে এবাগান। উপজেলার ১৪৯ জন কৃষক কৃষাণীর মাঝে দেয়া হয়েছে। আমরা সার্বক্ষণিক খোজ খবর নিয়ে বাগান গুলো যাতে সঠিক তৈরি হয় সেদিকে নজর দেয়া হবে। যাতে করে পুষ্টি বাগান থেকে সফলতা অর্জন করা যায়। এসময় কৃষি অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারী ও কৃষক কৃষাণীরা উপস্থিত ছিলেন। 

আরও খবর