Logo
আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

রাশিফল ২০ মার্চ: মিলিয়ে নিন কী আছে ভাগ্যে আজ

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মার্চ ২০23 | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৭৩জন দেখেছেন

Image

অনলাইন ডেস্ক ;সাধারণত রাশিফল গণনা করা হয় চন্দ্রের অবস্থানের উপরে ভিত্তি করে। কিন্তু ইংরেজি মতে এ ক্ষেত্রে প্রাধান্য দেওয়া হয় সূর্যকে। তাই ইংরেজিতে রাশিকে বলা হয় সান সাইন। এক্ষেত্রে জন্মদিন অনুসারে বোঝা যায় একজন ব্যক্তি কোন রাশির জাতক বা জাতিকা।

এ রাশি নিয়ে নানা ভাবনা, নানা মত রয়েছে। কেউ এটাকে বিশ্বাস করেন, আবার কেউ এসব মানতে চান না। কেউ আবার না মানলেও লুুকিয়ে দেখে নেন কি আছে ভাগ্যে। যা হোক; সেই তর্ক-বিতর্ক দূরে থাক, বিশ্বাস-অবিশ্বাসের প্রশ্ন না করে- দিনের শুরুতে চলুন মিলিয়ে নেয়া যাক- কেমন যাবে আজকের দিনটি?

জন্মদিন মিলিয়ে দেখে নিন আজকের দিনে কোন রাশি কী নির্দিষ্ট করে রেখেছে তার জাতক-জাতিকার জন্য।

আজ ২০ মার্চ ২০২৩ খ্রিষ্টাব্দ, সোমবার। আজকের দিনটি ​মীন রাশির। মীন রাশিরা শৃঙ্খলা বজায় রাখবে।

মেষ রাশি (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল):
অনেক রকম কাজে ব্যস্ততা বাড়তে পারে। চেষ্টা করেও সময়মতো প্রতিশ্রুতিপূরণ করা সম্ভব নাও হতে পারে।

বৃষ রাশি (২১ এপ্রিল-২০ মে):
নিজের চিন্তায় ও কাজে অহংবোধের প্রভাব পড়তে পারে। ক্ষমতাবান মানুষের দিকে তাকিয়ে কথা বলতেও অসুবিধা হতে পারে এজন্য।

​মিথুন রাশি (২১ মে-২০ জুন):
সামাজিক যোগাযোগ আরও বাড়ানো প্রয়োজন। যাঁরা সম্মান নষ্টের চেষ্টা করছে তাঁদের সঙ্গে লড়তে হবে। নিজের যত্নও নিতে হবে।

কর্কট রাশি (২১ জুন-২০ জুলাই):
যে কোনও কঠিন বা জটিল কাজের সমাধান সহজে হবে। নিজের ইচ্ছাশক্তির দ্বারা যে কোনও বাধা জয় করা যাবে।

সিংহ রাশি (২১ জুলাই-২১ আগস্ট):
জুলাই ২৩ থেকে অগাস্ট ২২। সততার সঙ্গে সব কাজ করা দরকার। কাজের যেকোনও খুঁটিনাটির দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

​কন্যা রাশি (২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর):
অগাস্ট ২৩ থেকে সেপ্টেম্বর ২২। কোনও বিতর্ক না জড়িয়ে খোলাখুলি নিজের মত প্রকাশ করা যেতে পারে।

​তুলা রাশি (২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর):
সেপ্টেম্বর ২৩ থেকে অক্টোবর ২২। সব কাজ ঠিকঠাক হবে। যে কোনও দিকেই সাফল্য মিলবে। ঝুঁকির প্রবণতা সামলে চলতে হবে।

​বৃশ্চিক রাশি (২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর):
অক্টোবর ২৩ থেকে নভেম্বর ২১ ৷ কোনও প্রিয়বন্ধু বা ঘনিষ্ঠজনের কাছে মন খুলে কথা বলা যেতে পারে। রাগ হতাশা থেকে মুক্তি পেতে আলোচনা করা যেতে পারে।

ধনু রাশি (২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর):
একটু সাহস দেখানো যেতেই পারে যে কোনও কাজে। বিনিয়োগ করার ভাল সময়, কারণ ভাগ্য সুপ্রসন্ন থাকবে। স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে।

মকর রাশি (২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি):
নিজের নীতি আদর্শের বিষয়গুলি আরও একবার মূল্যয়ন করে দেখতে হবে। অতীতের সিদ্ধান্তের জন্য প্রশ্নের সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

কুম্ভ রাশি (২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি):
প্রতিদ্বন্দ্বীদের থেকে সতর্ক থাকতে হবে। স্বাস্থ্যের যত্ন প্রয়োজন।

​মীন রাশি (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ):
কাছের কোনও মানুষকে খুশি করা সম্ভব হবে। এতে সৌভাগ্যের পথ খুলে যেতে পারে। এসময় কাউকে টাকা ধার দেওয়া যাবে না।


আরও খবর

"নোবেলের ম্যাজিক শুধু প্রতারণা"

মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24

ভালোবাসার দিন আজ

বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সৈয়দপুরের উৎপাদিত শুটকি রপ্তানি হচ্ছে বিদেশে ও

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১২৭জন দেখেছেন

Image

সৈয়দপুর( নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফামারীর সৈয়দপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল সংলগ্ন শুটকি ব্যবসায়ি পল্লীতে শুরু হয়েছে শুঁটকি মাছ কেনাবেচার ধুম। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কাঁচা শুটকি মাছ সংগ্রহ করার পর সেগুলো ভালো ভাবে শুকিয়ে উত্তরাঞ্চল সহ দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে ও রপ্তানি করছেন ব্যবসায়িরা। 

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, দেশ স্বাধীনের ৫/৭ বছর পর পাবনা, সিরাজগঞ্জ, খুলনা, চট্টগ্রাম সহ দেশের প্রায় শতাধিক শুটকি মাছ ব্যবসায়ি পরিবার সৈয়দপুরের বাস টার্মিনাল সংলগ্ন সববাস শুরু করেন। এরপর ১৯৮০ সালের পর এখানেই শুরু করেন শুটকি মাছের ব্যবসা। তারা দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কাঁচা শুটকি মাছ সংগ্রহ করা শুরু করেন। এরপর প্রতিবছর আশ্বিন মাস থেকে চৈত্র মাস পর্যন্ত আমদানিকৃত কাঁচা শুটকি মাছ শুকানোর কাজ করেন। শোল বোয়াল,গজার,ট্যাংরা, পুটি, বাইলা,বাইম,ছুরি, লইট্টা,টাকি সহ শতাধিক প্রকৃতির মাছ শুকিয়ে শুটকি করা হয় এখানে।একেকজন ব্যবসায়ি মৌসুমের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ৫ থেকে ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত পুঁজি লাগিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করেন। যাদের পুঁজি নাই তারাও সুদ ব্যবসায়িদের কাছে চড়া সুদে পুজি সংগ্রহ করেন ব্যবসা করার জন্য।  

মাসুদ নামের এক শুটকি মাছ ব্যবসায়ি জানান,প্রতিবছর তাদের শুটকি পল্লীতে দুই থেকে তিন লাখ মন এর কাঁচা শুটকি মাছ আমদানি করা হয়। শুঁটকি করার পর সেগুলো সংরক্ষণের অভাব সহ পুঁজি স্বল্পতায় মাঝে মধ্যে কম মুনাফায় শুঁটকি মাছ বিক্রি করা হচ্ছে ফরেয়া বা ভ্রাম্যমান ব্যবসায়িদের কাছে। এতে তাঁরা প্রতি মৌসুমে লাখ লাখ টাকার মালিক হলেও আমদানিকারকরা দেনা গ্রস্ত হয়ে ব্যবসা ছেড়ে দেয়ার কথা বলছেন।

শুঁটকি মাছ ব্যবসায়ি চুন্নু মুনু, চাঁন ও বারেক সহ অনেক ব্যবসায়ি জানান,আগের মতো আর মাছ পাওয়া যায় না। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে মাছ করতে এখন অনেক বেশি পুজির প্রয়োজন হয়।কারন মাছের দাম আগের চেয়ে অনেক বেশি। তাছাড়া ব্যবসায়িদের পুজি সংকট দেখা দিলে অনেক ব্যাংক শুঁটকি মাছ ব্যবসায়িদের লোন দিতে চান না। যার কারনে সুদ ব্যবসায়িদের কাছেই চড়া সুদে পুজি সংগ্রহ করতে হচ্ছে। তারা বলেন, সরকার যদি শুঁটকি মাছ ব্যবসায়িদের কম লাভে ব্যাংক থেকে লোন দিতো তাহলে দেশের আনাচে-কানাচে থেকে মাছ সংগ্রহ করে এবং শুঁটকি বানিয়ে ব্যবসার প্রসার ঘটাতে পারতো। বর্তমানে তাঁরা  তাদের উৎপাদিত শুটকি মাছ দেশের চাহিদা মিটিয়ে ভারত সহ ৪ দেশে নিয়মিত রপ্তানি করছেন বলে জানান। শুধু মাত্র শুঁটকি সংরক্ষণের স্হান ও কম লাভে ব্যাংক লোন পেলেই শুটকি ব্যবসায়িরা তাদের শুটকি উৎপাদন বাড়াতে পারবে।এতে একদিকে লাভবান হবেন ব্যবসায়ি অন্য দিকে সরকার পাবেন বিপুল পরিমাণ রাজস্ব। শুধু মাত্র পুঁজি সংকটের অনেক ব্যবসায়ি তাদের ব্যবসায় লস খেয়ে ব্যবসা ছাড়ার চিন্তা ভাবনা করছেন।

শুঁটকি মাছ ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি আবুল বাসার বলেন, সৈয়দপুরে শুটকি মাছের আড়ত গড়ে উঠায় হাজারো পরিবারের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। এতে কমে গেছে বেকারত্ব। পুঁজি সংকটে ব্যবসায়িরা পথে বসলে শুটকি আড়তে কর্মরত অনেকেই পুনরায় বেকার হয়ে যাবেন। শুঁটকি মাছ ব্যবসায়ি সহ কর্মরতদের কথা চিন্তা করে কম লাভে ব্যাংক লোনের সুবিধা দিতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। 

আরও খবর



মন্দিরের শতবর্ষী নিমগাছ কর্তন! ক্ষোভ

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩৮জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:হয়তো তিনশত, না তার অধিক, কিংবা আড়াশত বছরের কম হবেনা নিম গাছটির বয়স, গাছের সাথেই গড়ে উঠেছিল মন্দির, পুজাসহ যাবতীয় ধর্মীয় কার্যক্রম পরিচালিত হত। প্রথমে মন্দির ভেঙে ফেলা হয়, পরে স্মৃতি বহ নিম গাছটিও কর্তন করা হয়েছে। স্মৃতি বহ গাছটি কর্তন করার কারনে সকল শ্রেণী পেশার মানুষের হ্নদয়ে যেন রক্ত ক্ষরন হয়েছে, বিশেষ করে চরম ভাবে মর্মাহত হয়েছেন হিন্দু সম্প্রদায়ের জনসাধারণ। রাজশাহীর তানোর পৌর এলাকার তালন্দ সুমাসপুর মোড়ে শতবর্ষী নিম গাছ কাটার ঘটনা ঘটেছে। হঠাৎ করে শতবর্ষী গাছ কাটা নিয়ে নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে, সেই সাথে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে মনে করছেন পরিবেশ বীদ রা।

সরেজমিনে দেখা যায়, তানোর পৌর এলাকার তালন্দ বাজার পার হয়ে সুমাসপুর মোড় ও মুল রাস্তা। রাস্তার পূর্ব দিকে মন্দির ও নিমগাছ ছিল। বিভিন্ন সময়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন পুজাসহ তাদের ধর্মীয় কার্যক্রম করত। কিন্তু হঠাৎ করে মন্দির ভেঙে ফেলা হয়। আগের মন্দির ভেঙে তার উত্তর পূর্ব দিকে নতুন ভাবে মন্দির নির্মান করা হচ্ছে। সকাল থেকেই আড়াশ বা তিনশত বছরের পুরাতন নিম গাছের ডালপালা কেটে সাবাড় করে ফেলা হয়েছে। গাছ কাটা মিস্তিরা তেমন কিছু না বললেও সেখানে ছিলেন জায়গায় মালিক মিলন মৃধা। তার কাছে গাছ কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান মন্দির কমিটির লোকজন গাছ বিক্রি করেছে। অনেকে বলছে গাছ আপনারা কেটেছেন জানতে চাইলে তিনি জানান তারা ভূল কথা বলেছে।স্থানীয়রা জানান, মন্দিরের জায়গা নিয়ে মৃত ইসমালের সাথে মামলা চলে আসছিল। স্থানীয় ভাবে বসে মিমাংসা করে পূর্বের মন্দির ভেঙে পার্শ্বেই নতুন মন্দির করে দিচ্ছে তারা এবং শতবর্ষী নিমগাছও নিয়েছেন মৃত ইসমাঈলের পরিবারেরা।

তবে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে মন্দিরে পূজাসহ ধর্মীয় কার্যক্রম করা হত এবং মন্দিরের সাথেই নিমগাছ ছিল। গাছটির বয়স কত কেউ প্রকৃত ভাবে বলতে পারবেনা। গাছটিকেও আমরা পূজা করতাম। দীর্ঘ দিন ধরে মন্দিরে জায়গা নিয়ে মামলা চলে আসছিল। কিছু দিন আগে স্থানীয় ভাবে বসে মিমাংসা করে নিয়েছে, এজন্য স্মৃতি বহ গাছটিও কাটা পড়ল। গাছ কাটা দেখে অনেকের চোখে পানি চলে এসেছে।

পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তাসির উদ্দিন জানান, আপোষ মিমাংসা করার পর গাছ কেটেছে মৃত ইসমাঈল মৃধার ছেলে মিলন মৃধা। জায়গার মামলা ছিল ও শতবর্ষী গাছ কিভাবে কাটলেন জানতে চাইলে তিনি জানান, মামলা মোকদ্দমা সলেনামা করে মিমাংসা করার পর গাছ তাদের হয়েছে,  ব্যক্তিগত গাছ কাটতে কোন অনুমতির প্রয়োজন হয়না।

সুত্র মতে, বাগান বা শতবর্ষী গাছ সহ যে কোন গাছ কাটতে হলে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অনুমতি নিতে হবে মর্মে আইন রয়েছে। 

উপজেলা বন কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান বলেন, যে কোন গাছ কাটতে হলে অনুমতি নিতে হবে। কিন্তু এবিষয়ে জনমনে সচেতনতা নেই। আর শতবর্ষী গাছ কাটতে হলে তো অনুমতির প্রয়োজন হয়। তবে ব্যক্তিগত গাছের ক্ষেত্রে কেউ অনুমতি নেয়না। তারপরও কেউ অভিযোগ করলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



মোরেলগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দোয়া অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৩জন দেখেছেন

Image
শেফালী আক্তার রাখি মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধিঃবাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সোমবার সকাল ১১টায় ২০২৪ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে দোয়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোরেলগঞ্জ উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মো.বাকি বিল্লাহ। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এইচ.এম.শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনা রাখেন সিনিয়র শিক্ষক মো.জাকির হোসেন, সহকারি প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত), সিনিয়র শিক্ষক  মো.হাবিবুর রহমান।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারি শিক্ষক মো. আশরাফুল ইসলাম, সহকারি শিক্ষক আবু বকর মো. তাজুল ইসলাম, সহকারি শিক্ষক মো. রাকিবুল ইসলাম, সহকারি শিক্ষক জগন্নাথ কুমার হালদার ও সহকারি শিক্ষক শেখ মো. মামুন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে পরীক্ষা অংশগ্রহণ করার বিষয়ে সার্বিক পরামর্শ দেন এবং শিক্ষার্থীদের সার্বিক সাফল্য কামনা করেন। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক আলী মোহাম্মদ ফারুক।

আরও খবর



নির্বাচন দেখতে রাশিয়া যাচ্ছেন সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল, রাষ্ট্রপতি নির্বাচন দেখতে রাশিয়া যাবেন। সিইসির সঙ্গে এ সফরে থাকবেন তার একান্ত সচিব মো. রিয়াজ উদ্দিন। আগামী ১২ মার্চের দিকে সুবিধাজনক দিনে রাশিয়ার উদ্দেশ্যে তারা যাত্রা শুরু করবেন।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) ইসির উপসচিব মো. শাহ আলম এ সংক্রান্ত একটি চিঠি প্রধান হিসাব ও অর্থ কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়েছেন।

চিঠিতে জানানো হয়, প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল ও তার একান্ত সচিব মো. রিয়াজ উদ্দিনের নেতৃত্বে রাশিয়ান ফেডারেশনের প্রেসিডেন্টের নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে এবং নির্বাচনি সার্বভৌমত্ব অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাশিয়ান ফেডারেশন সফর করবেন। আগামী ১৪ থেকে ১৮ মার্চ সিইসিসহ তার একান্ত সচিব কিছু শর্তসাপেক্ষে রাশিয়া সফর করবেন।

এতে আরও জানানো হয়, আগামী ১২ মার্চের দিকে সুবিধাজনক দিনে রাশিয়ার উদ্দেশ্যে তারা যাত্রা শুরু করবেন এবং ১৯ মার্চ ঢাকায় ফিরবেন। এই সফরের সময়কাল, ভ্রমণ এবং ট্রানজিটের জন্য ব্যয় করা সময়কে দায়িত্ব হিসেবে গণ্য করা হবে। তারা তাদের বেতন-ভাতা স্থানীয় মুদ্রায় নেবেন এবং এর কোনো অংশ বৈদেশিক মুদ্রায় নেওয়া যাবে না। সফরের সময় তারা ২ জন অংশগ্রহণকারী ৫ রাতের হোটেলে থাকার ব্যবস্থা এবং স্থানীয় আতিথেয়তা গ্রহণ করবেন। তবে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন বিমান ভাড়া এবং অন্যান্য আনুষঙ্গিক খরচ বহন করবে। এটি একটি সরকারি সফর।


আরও খবর



বিকেলে খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে নেওয়া হবে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১০৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জরুরি স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টায় গুলশানের বাসা ফিরোজা থেকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল নেওয়া হবে তাকে।বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকালে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ম্যাডামের ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন এবং চেয়ারপার্সনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার জানিয়েছেন, জরুরি স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ম্যাডামকে বিকেলে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ৭৯ বছর বয়সী খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন আর্থ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনি, লিভার সিরোসিসসহ নানা রোগে ভুগছেন। এর মধ্যে বিদেশ থেকে তিনজন চিকিৎসক তার চিকিৎসা করে গেছেন। তখন থেকে কিছুটা ভালো আছেন খালেদা জিয়া। তার আগে ২০২২ সালের জুনে খালেদা জিয়ার হৃদযন্ত্রে তিনটি ব্লক ধরা পড়লে একটিতে রিং পরানো হয়। এরপর থেকে কয়েক দফায় এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর