Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৫৬

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ২৫৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ৫৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন বিভাগ। মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ সোমবার (২৯ মে) ডিএমপির জনসংযোগ শাখা থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রোববার সকাল ৬টা থেকে পরের ২৪ ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযানে ৯১ গ্রাম হেরোইন, এক হাজার ৯৪টি ইয়াবা, ১১৪ কেজি ৬৬০ গ্রাম গাঁজা ও ৪৩ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৩৩টি মামলা করা হয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।


আরও খবর



গাজীপুরে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা

তিতাস গ্যাসের অংশীজনদের মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৬৪জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃ 

গাজীপুরে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা

 ও অংশীজনদের অংশগ্রহণে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ তেল ,গ্যাস ও খনিজ সম্পদ কর্পোরেশন (পেট্রোবাংলা)'র আয়োজনে শনিবার ১ জুন গাজীপুর জোনাল অফিসে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পেট্রো বাংলার চেয়ারম্যান জনেন্দ্র নাথ সরকার। সভাপতিত্ব করেন পেট্রো বাংলার পরিচালক(অপারেশন) এ.কে.এম মিজানুর রহমান।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পেট্রো বাংলার পরিচালক (প্রশাসন) প্রকৌশলী মোঃ কামরুজ্জামান খান, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হারুনুর রশিদ মোল্লাহ। এতে অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র নানা স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী ও তিতাস গ্যাসের স্থানীয় গ্রাহকগণ।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান জনেন্দ্রনাথ সরকার বলেন,  তিতাস একটি সেবামুলক প্রতিষ্ঠান  এখানে দূর্ণীতির কোন স্থান নেই। সরকার বর্তমানে আবাসিক ও কমার্শিয়াল লাইন বন্ধ রেখেছে।

  

বিশেষ অতিথিথির বক্তব্যে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হারুনুর রশিদ মোল্লা বলেন, তিতাস গ্যাসের আঞ্চলিক অফিসে পেট্রোল বাংলা চেয়ারম্যান, পরিচালক অপারেশন, পরিচালক প্রশাসন স্যারদেরকে পেয়ে আমরা খুবই আনন্দিত, গাজীপুর এলাকায় ১৫৯৯ টি শিল্প, ক্যাপটিভ ৮১৭টি, সিএনজি ১২৫ টি এবং মিটার যুক্ত এক লক্ষ ৪১ হাজার আবাসিক গ্রাহক রয়েছেন। পেট্রোবাংলা থেকে আমরা যে পরিমাণ গ্যাস পাই তার ৩৫ শতাংশ গাজীপুরে সরবরাহ করি। যেহেতু এটা শিল্প এলাকা তাই আমরা ঢাকা শহর ,ময়মনসিংহের তুলনায় গাজীপুরকে প্রাধান্য দেই। তারপরেও ডাউন স্ট্রিমে যারা আছে তারা কিছুটা গ্যাস কম পাচ্ছে, এ ছাড়া সাইক্লোনের পর গ্যাস কিছুটা কম পাওয়া যাচ্ছে, পেট্রো বাংলার চেয়ারম্যান স্যার বিদেশ থেকে এলএনজি আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাই গ্রাহকদের বকেয়া পরিশোধ করতে হবে, কারণ টাকা ছাড়া তো গ্যাস আসবে না। বক্তব্যের শুরুতে তিতাসের এমডি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন, সেই সঙ্গে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন এবং জাতীয় চার নেতার প্রতি ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।


এ সময় তিতাস গ্যাসের গাজীপুর জেলার গ্রাহকগণের সাথে কথা বলেন পেট্রো বাংলার চেয়ারম্যান। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী রাজীব  কুমার সাহা , উপ মহা ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো: শাহজাদা ফরাজি সহ  ডিভিশনের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।





আরও খবর



ডোমারে সড়ক দূর্ঘটনা প্রতিরোধে অটো চালকদের নিয়ে সচেতনতা মূলক কার্যক্রম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি:“চালাবো গাড়ী সাবধানে, বাঁচবে সবাই প্রাণে, আইন মেনে চালাবো গাড়ী, নিরাপদে ফিরবো বাড়ী” এই প্রতিপদ্যকে সামনে রেখে  নীলফামারী ডোমারে সড়ক দূর্ঘটনা প্রতিরোধে অটো চালকদের নিয়ে সচেতনতা মূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। 

ডোমার ট্রাফিক শাখা আয়োজিত রোববার সকাল ১০ থেকে শুরু করে বিকাল পর্যন্ত ডোমার বাসষ্ট্যান্ডসহ পৌর এলাকার বিভিন্ন পয়েন্টে  ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মিজানুর রহমান মন্ডল এবং এটিএসআই পারভেজ মিয়ার নিজস্ব উদ্যোগে অটো রিক্সার ডানদিকে যাত্রী উঠোনামা করা বন্ধ করে দেয়। এ ছাড়াও গাড়ীর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, ড্রাইভিং, রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মটরসাইকেল এবং হেলমেট পরিধান বিষয়ে বিশেষ কার্যক্রম পরিচালনা করেন।  ডোমার ট্রাফিক শাখার ইন্সপেক্টর মিজানুর রহমান মন্ডল বলেন, অটো রিক্সার ডান দিকের দরজা দিয়ে যাত্রী উঠানমা করায় অনেক সময় দূর্ঘটনার কবলে পড়তে হয়। হেলমেট ছাড়া মটরসাইকেল চালালে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা সহ জীবনহানি হতে পারে। সে সাথে গুরুত্বরভাবে অঙ্গহানিও হতে পারে। তাই পুলিশের ভয়ে নয়, নিজের সুরক্ষা এবং পরিবারের নিকট সুস্থভাবে ফেরার জন্য মটরসাইকেল চালক এবং আরোহীদের হেলমেট পরিধান সহ ভারী যানবাহনের চালকদের সিটবেল ব্যবহার ট্রাফিক ও সড়ক আইনের নিয়মকানুন মেনে চলার পরামর্শ প্রদান করেন তিনি।


আরও খবর



যবিপ্রবি'র ছাত্রাবাসে শিক্ষার্থীকে রাতভর নির্যাতনের অভিযোগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭০জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) এক আবাসিক শিক্ষার্থীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (৪ জুন) গভীর রাতে যবিপ্রবির শহীদ মসিয়ূর রহমান ছাত্রাবাসের ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানার ৩০৬ নম্বর কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার শিকার শিক্ষার্থী শাহরীন রহমান প্রলয় (২৪) বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ও ছাত্রাবাসের আবাসিক ছাত্র।

গুরুতর আহত অবস্থায় ওই শিক্ষার্থী যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী যবিপ্রবি প্রশাসনের কাছে মৌখিক অভিযোগ দিয়েছেন।

ভুক্তভোগীর অভিযোগ, ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানার নেতৃত্বে তার সমর্থকরা তার ওপর রাতভর নির্যাতন করেছে। এর পর তাকে গুলি করে হত্যার হুমকিও দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন।

বিশ্ববিদ্যালয় ও ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী সূত্রে জানা গেছে, সোমবার (৩ জুন) ক্যাম্পাসে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে শাহরীনকে মারধর করেন শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান ২০২৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র ও ক্যাম্পাস ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানার অনুসারী শাহীনুর রহমান। এ ঘটনায় শাহীনুরের বিরুদ্ধে প্রক্টর বরাবর অভিযোগ দেন শাহরীন। এ ঘটনার জের ধরে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ছাত্রাবাসের নিজ কক্ষ থেকে শাহরীনকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে ছাত্রলীগের সভাপতির কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় ছাত্রলীগের সভাপতিসহ তার কয়েকজন অনুসারী উপস্থিত ছিলেন। এসময় শাহরীনকে এলোপাতাড়ি মারধর ও রড দিয়ে পেটানো হয়। দফায় দফায় নির্যাতন চলে রাত ২টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত। ঘটনাটি যাতে ভুক্তভোগীরা কাউকে জানাতে না পারেন, সেজন্য শাহরীন ও তার রুমমেট (সহপাঠী) আমিনুল ইসলামের ফোন কেড়ে নেন অভিযুক্তরা। একপর্যায়ে ঘটনা জানাজানির ভয়ে বুধবার সকালে মোটরসাইকেলযোগে কালিগঞ্জ বারোবাজার গ্রামের বাড়ি চলে যান শাহরীন। দুপুরে তার মায়ের ফোনে একটি অজ্ঞাত নম্বর থেকে ফোন আসে। বিষয়টি যাতে কাউকে না জানানো হয়, সেজন্য হুমকি দেওয়া হয়। এমনকি এ বিষয়ে কাউকে জানালে বাড়িতে বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়ার হুমকিও দেয় দুবৃর্ত্তরা।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী শাহরীন বলেন, সোমবার আমার মাথা ফাটিয়ে দেওয়ায় ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলাম। এ ঘটনায় ঘুম থেকে তুলে রাত ২টায় ক্যাম্পাস ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা ভাইয়ের নির্দেশে তার কক্ষে ডেকে নিয়ে যায় ছাত্রলীগ কর্মী আমিনুল ইসলাম ও সিয়াম। সভাপতির কক্ষে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতা আশিকুজ্জামান লিমন, ইসাদ, রায়হান রহমান রাব্বি, বেলাল হোসেন, শেখ বিপুল, রাইসুল হক রানাসহ প্রায় ১০-১৫ জন আমাকে মারধর শুরু করে। এসময় রুমের মেঝেতে লুটিয়ে পড়ি। তখন তারা আমাকে লাথি মারতে থাকে। তারা আমাকে বলতে থাকে কেন প্রক্টরের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিস? এসময় তারা আমার মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়। একপর্যায়ে মোটা রড দিয়ে আমার সারা শরীরে পেটাতে শুরু করে। ভোর ৫টা পর্যন্ত চলে দফায় দফায় নির্যাতন। আমার মনে হচ্ছিল আমিও মনে হয় বুয়েটের আবরার ফাহাদের মতো মরে যাব। প্রাণে বাঁচতে আমি ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা ভাইয়ের পা জড়িয়ে ধরে বাঁচার আকুতি জানাই।এসময় সোহেল রানা বলেন, কালকের মধ্যে অভিযোগ তুলে নিবি, নাহলে তোকে গুলি করে মারব। এসময় সোহেল আমাকে বুকে লাথি মেরে মেঝেতে ফেল দেয়। ভোর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যাগ গুছিয়ে বাড়ি চলে যাবি বলে নির্দেশ দেয়।

হাসপাতালে কান্নাজড়িত কণ্ঠে শাহরীন বলেন, আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। অভিযুক্তরা আমার পরিবারের ওপর বোমা মারার হুমকি দিচ্ছে। এ ঘটনার বিচার চাই। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে যবিপ্রবি ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা বলেন, ছাত্রলীগের বিভিন্ন গ্রুপিং-দ্বন্দ্ব থাকে। এসব গ্রুপিংয়ে বারবার আমার নামে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ক্যাম্পাসে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে যা হয়েছে, সেটা মাঠের মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল। ঘটনার দিন আমি ক্যাম্পাসে ছিলাম না। যশোরের বাইরে ছিলাম। মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে ছাত্রাবাসে প্রবেশ করেছি।রাজনীতিকভাবে আমি প্রতিহিংসার শিকার।

যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, আমি ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীকে দেখে এসেছি। সে আমার কাছে অভিযোগ জানিয়েছে। এ ঘটনা তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর



নওগাঁ জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সংবেদনশীল কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ১১৯জন দেখেছেন

Image

নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি:নওগাঁ রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সন্মেলন কক্ষে রবিবার সকাল ১০ টায় সোসাইটির পারিবারিক যোগাযোগ পুনঃস্থাপন (আরএফএল) বিভাগের কার্যক্রম মাঠ পর্যায়ে আরোও গতিশীল করা, প্রচার ও প্রসার ঘটানো এবং দুর্যোগ ও মাইগ্রোসন প্রবণ এলাকায় স্টেকহোল্ডারদের মাঝে সচেতনতা ও সংবেদনশীলতা তৈরীর জন্য নওগাঁ রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটে অর্থ-দিবস কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেইসাথে নওগাঁ কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে আরএফএল সেবা বিষয়ক সেশান পরিচালনা করেন এবং জেলা কারা কর্তৃপক্ষের সাথে মতবিনিময় ও বিদেশী বন্দিদের সাথে সাক্ষাৎ করেন নওগাঁ জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট।

কর্মশালার সঞ্চালনা করেন, ইঞ্জি: নাজমুল হক ডেটা অ্যাডমিনিস্ট্রেটর আর এফ এল বিডিআরসিএস, ঢাকা।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এ্যাড এ.কে.এম ফজলে রাব্বি চেয়ারম্যান, জেলা পরিষদ ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি নওগাঁ ইউনিট।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সারোয়ার তানজিদ সম্রাট সাধারণ সম্পাদক রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি নওগাঁ ইউনিট ও প্যানেল মেয়র নওগাঁ পৌরসভা,  মো: জাহাঙ্গীর হোসেন শেখ, ডিপুটি জেলার। 

এ ছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন,  নাজিম উদ্দিন তনু, মো: জাহাঙ্গীর আলম, মিজানুর রহমান,  সেলিম রেজা, ফায়সাল হোসেন, শফিউল আজম, জাহিদ ইসলাম জীম সহ জেলা যুব রেড ক্রিসেন্ট এর সদস্য বৃন্দ। 


আরও খবর



সুন্দরগঞ্জে সাংবাদিক মিঠু'র মৃত্যুতে প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ২৬জন দেখেছেন

Image
একেএম শামছুল হক,সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার প্রতিনিধি মশিউর রহমান মিঠুর (৫৩) মৃত্যুতে সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ বৃহস্পতিবার (২০ জুন) বিকেল ৩টার দিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।মশিউর রহমান মিঠু উপজেলার কঞ্চিবাড়ি ইউনিয়নের দুলাল গ্রামের মৃত আজিজুল হক সরকারের ছেলে। 

স্বজনরা জানান, সাংবাদিক মশিউর রহমান মিঠু কয়েক বছর ধরে শারীরিকভাবে অসুস্থ্য ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে তিনি হার্ড অ্যাটাক করেন। এসময় পরিবারের লোকজন তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করান। বিকেল ৩টার দিকে অবস্থার অবনতি হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন । মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর। তিনি স্ত্রী ও এক ছেলে ও এক মেয়ে, ভাই-বোনসহ অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে যান।

সাংবাদিক মশিউর রহমান মিঠুর মৃত্যুতে উপজেলা প্রশাসন, স্থানীয় রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিক সহকর্মীরা গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।গতকাল শনিবার সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে এক শোকবার্তায় সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মোশার্রফ হোসেন বুলু সিঃ সহ-সভাপতি একেএম শামছুল হক,সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম অবুঝ সহ প্রেসক্লাবের অন্যান্য সাংবাদিক গন সহ কর্মি মিঠুর বিদেহী আত্নার মাগফেরাত কামনাকরেন ও শোকসন্তোত্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

আরও খবর