Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

পরমাণু ভবনে ধসে গাফিলতি আছে কি না, খতিয়ে দেখা হবে: প্রযুক্তিমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ১১ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৫৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: পরমাণু গবেষণা প্রতিষ্ঠানের ভবনে ধসের ঘটনায় গাফিলতি হয়েছে কি না, খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান। আজ শনিবার দুপুরে সাভারের আশুলিয়ার গনকবাড়িতে অবস্থিত পরমাণু শক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের ধসে যাওয়া ১২ তলা ভবনটির পরিদর্শন শেষে এ কথা বলেন তিনি।

ইয়াফেস ওসমান বলেন, ‘আমাদের যারা (পরমাণু গবেষণা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা) এ ভবনের কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের বিষয়েও আমরা দেখব। তাদের কতটুকু গাফিলতি হয়েছে, সেটা খতিয়ে দেখব। এটা মূলত ঠিকাদারের বিষয়, এখানে যদিও আমাদের কিছু নেই। তবুও সব আমরা খতিয়ে দেখব।

দুর্ঘটনার পর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী বলেন, ‘এটি গুরুতর নয়। সাধারণ উচ্চতা যখন বেশি হয়, তখন দুটো উচ্চতায় ট্রপিং করে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে তারা খেয়াল করেনি একটার ওপর আরেকটি ঠিকভাবে আছে কি না। না থাকলে স্লিপ করতে পারে। আসলে ঘটনাটি এটিই হয়েছে। ছাদও ঢালাই হয়নি, কাছাকাছি কিছু ভীম ঢালাই হচ্ছিল, তখনই এ ঘটনাটি ঘটে। পুরোটা দেখে বুঝেছি কিছুটা তো গাফলতি আছে।

‘তিনি বলেন, ‘এখন আমরা যে সিদ্ধান্ত বেঁধে দিয়েছি, সেটা হলো কনট্রাক্টর ধসে যাওয়া অংশ সব পরিষ্কার করে নতুন করে কাজ করবে। আর পরবর্তীতে প্রোপারলি কাজ করা সেটা নিশ্চিত রাখতে বলা হয়েছে। যাতে এ ধরনের অঘটন আর না হয়।

এ দুর্ঘটনা তদন্তে কোনো তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে কি না, জানতে চাইলে ইয়াফেস ওসমান বলেন, ‘এখানে একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। আমরা আজ এর জন্যই এখানে এসেছি। সব কিছু দেখলাম। আর আমার লোকজন হাসপাতালে গিয়ে আহতদের দেখছেন।

ভবনটির কার্যক্রম সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, ‘এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ভবন। এখানে ক্যানসারের হাসপাতালসহ গবেষণা ও প্রশিক্ষণের কাজ করা হবে। আগে আমরা ক্যানসার হলে শুধু পরিষ্কার করে দিতাম, কিন্তু এখানে সেই রোগের নির্ণয় ও চিকিৎসা করা হবে। সব চেয়ে বড় বিষয় যে, টাকা খরচ করে আমরা বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করায় সেটা অনেক অংশে কমিয়ে আনতে পারব এ হাসপাতালের মাধ্যমে। এ সিমিলার জিনিস আমরা আরও আটটি জায়গায় করার চেষ্টা করছি। যেন এ ধরণের চিকিৎসা আমরা দিতে পারি।

পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জিয়াউল ইসলাম এনডিসি, পরমাণু শক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের মহাপরিচালক দেবাশীষ পাল, পরমাণু শক্তি কমিশনের সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মুঞ্জুরুল হাসান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গতকাল শুক্রবার বিকেলে পরমাণু গবেষণা প্রতিষ্ঠানের ভবনটির ১২ তলা নির্মাণাধীন ছাদ ধসে যায়। এতে প্রায় ১৫ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন।


আরও খবর



সৈয়দপুর রেলকারখানা পরিদর্শন করলেন প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা পরিদর্শন করেছেন প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান। শনিবার বেলা সারে ৩ টায়(২৫ মে) পরিদর্শনে এসে কারখানার বিভিন্ন বিভাগ ও ন্যারোগেজ ইঞ্জিন, রেলের জাদুঘর ও রানীর ভ্রমণের ঐতিহ্যবাহী সেলুন পরিদর্শন করেন তিনি। 

পরিদর্শনের সময় নীলফামারী-৪ (সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সিদ্দিকুল আলম, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক  সরদার সাহাদাত আলী, সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) সাদেকুর রহমান, কারখানার কার্যব্যবস্থাপক শেখ হাসানুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান বিচারপতি কারখানার ঐতিহ্য ঘুরে ঘুরে দেখেন এবং সন্তোষ প্রকাশ করেন। কারখা্নায় রাখা রানীর সেলুনটি দেখেন এবং সেখানে অবস্থিত একটি আসনে বসে উপলব্ধি নেন। পরে রেলওয়ে কারখানার সম্মেলন কক্ষে কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন।

রেলের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা মাল্টিমিডিয়ায় রেলওয়ে যাবতীয় কর্মকাণ্ড  ও সরজমিনে নানা কর্মকান্ডের চিত্র তাঁর সামনে তুলে ধরেন। ১৮৭০ সালে প্রতিষ্ঠিত রেলওয়ের নানা কর্মযজ্ঞ দেখেন এবং স্বাধীনতা যুদ্ধে নিরীহ বাঙ্গালীদের ব্রয়লারের আগুনে ফেলে হত্যার ঘটনায় প্রধান বিচারপতি আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। প্রধান বিচারপতি শহীদদের স্মরণে নির্মিত অদম্য স্বাধীনতায় ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

আরও খবর



মধুপুরে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ইয়াকুব আলীর দায়িত্ব গ্রহন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৪৬জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:- টাঙ্গাইলের মধুপুরে গত ৮মে ১ম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়ে শপথ গ্রহনের পর গতকাল  মঙ্গলবার(৪জুন) দুপুরে উপজেলা পরিষদের দায়িত্ব গ্রহন করলেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এডভোকেট ইয়াকুব আলী। এছাড়াও দায়িত্ব গ্রহন করেছেন, ভাইস চেয়ারম্যান সজীব আহমেদ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিগার সুলতানা রুবি।


এসময় তাদেরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান,উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.জুবায়ের হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভুমি) জাকির হোসাইন, পৌরসভার মেয়র সিদ্দিক হোসেন খান, মির্জাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাদিকুল ইসলাম সাদিক, মহিষমারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মহির উদ্দিন সহ আরও অন্যান্য ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগন, উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী সহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।


মোহাম্মদ এডভোকেট ইয়াকুব আলী এম এ ডবল, এল এল বি পাশ করেও জনগণের সেবার লক্ষ্যে এলাকায় উন্নয়ন মুলক কাজ করে গেছেন। তিনি শোলাকুড়ি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সংগঠক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং আনন্দ মোহন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাথেও যুক্ত ছিলেন। তিনি মাত্র ২৫ বছর বয়সে বৃহত্তর অরণখোলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন, যা বর্তমানে চারটি ইউনিয়নে বিভক্ত হয়েছে। 


তার সাংগঠনিক যোগ্যতা ও মেধার কারনে পরবর্তী বছরেই মাত্র ২৬ বছর বয়সে মধুপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্যপদ লাভ করেন। এরপর তাকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি পর্যায়ক্রমে তিনি অবিভক্ত মধুপুর-ধনবাড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক পদে অধিষ্ঠিত হন।


১৯৯৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত অত্যান্ত নিষ্ঠার সাথে মধুপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এবং বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করে আসছেন।


তিনি এম এ ডবল, এল এল বি পাশ করেও সে পেশায় না গিয়ে পাহাড়ি অঞ্চলের অজপাড়াগাঁয়ের ছেলে মেয়েদের উচ্চ শিক্ষাদানের লক্ষ্যে শোলাকুড়ি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব নেন।


শিক্ষকতার পাশাপাশি শোলাকুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তিন তিনবার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।


শোলাকুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে দ্বায়িত্ব গ্রহণের পর তার বড় চ্যালেন্জ ছিলো জনবিচ্ছিন্ন শোলাকুড়ি হতে দোখলা রাস্তা পাকা করে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন করা।


সেই রাস্তা উন্নয়নে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় বন বিভাগ, কারন বনের রাস্তা পাকা হলে বনের গাছ চুরি রোধ করা যাবেনা। বনের গাছ চুরি হবেনা এমন দায়ভার নিজের উপর নিয়ে অঙ্গিকার নামা দিয়ে তিনি রাস্তা পাকা করণের কাজ শুরু করেন।


আজ অবহেলিত শোলাকুড়ির মানুষ বাসে করে শহরে যাচ্ছে। ছেলে মেয়েরা উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করছেন। তিনি ইতিমধ্যে নিজ উদ্যোগে আরও কয়েকটি স্কুল গড়ে তুলেছেন। এরমধ্যে কালিয়াকুড়ি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। শোলাকুড়ি ইউনিয়নটি মধুপুর উপজেলার শেষ প্রান্তে থাকায় ছেলে-মেয়েরা এসএসসি পাস করে কলেজে পড়ালেখা করতে চাইলে যেতে হয় ৪০-৪৫ কিলোমিটার দূরে। এছাড়া পাহাড়ি এলাকার সল্প আয়ের মানুষেরা সে ব্যায়ভার বহনও করতে পারেন না। তাদের কথা ভেবে তিনি নিজেই গড়ে তুললেন একটি কলেজ।


এক বিশাল আদিবাসী গোষ্ঠী তার এলাকায় রয়েছে, তাদের সংস্কৃতি রক্ষায়, জীবন-মান উন্নয়নে এবং জাতিগত সংঘাত রোধে তিনি এক অতন্দ্র প্রহরি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন, যার ফলশ্রুতিতে দলমত নির্বিশেষে প্রায় ৭৪ হাজার মানুষের ভালোবাসায় আজ তিনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে অধিষ্ঠিত হতে পেড়েছেন।

   -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



৩০ হাজারের বেশি বাংলাদেশি শ্রমিকের স্বপ্নভঙ্গ মালয়েশিয়ার

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বন্ধ হচ্ছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার। এতে দেশটিতে কর্মী হতে ইচ্ছুক ৩০ হাজারেরও বেশি কর্মীর স্বপ্ন ভঙ্গ হতে চলেছে। শেষ সম্বল এজেন্সীর হাতে তুলে দিয়ে নিঃস্ব হয়েছেন অনেকেই। এক দুজন নয়, শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে হাজারো মালায়েশিয়া কর্মী ইচ্ছুকদের এ অপেক্ষা বিমান টিকিটের।

কেউ এসেছেন সকালে আবার কেউ রাত থেকে করছেন অপেক্ষা। এজেন্সিগুলোর আশ্বাসে পার করছেন ঘন্টার পর ঘন্টা। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে স্বপ্নভঙ্গা এ মানুষগুলো চোখে মুখে বাড়তে থাকে হতাশার ছাপ।

অনেক এজেন্সি ইতোমধ্যেই লাপাত্তা মানুষগুলোর লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে। সব হরিয়ে নিঃস্ব হয়েছেন অনেকে।

শেষ মূহুর্তে শুধু টিকেটের জন্য ২ থেকে আড়াই লাখ টাকা নেওয়ার অভিযোগও করছেন অনেকে। জাল টিকিটের প্রতারণায় পড়েছেন কেউ কেউ।

মালয়েশিয়া সরকার শুক্রবারের পর আর কোনো কর্মী নেবে না এমন সিদ্ধান্তে বাংলাদেশের প্রায় ৩০ হাজারের বেশি কর্মীর মালায়েশিয়া যাত্রা আটকে গিয়েছে।

মালয়েশিয়ার গত মার্চের ঘোষণা অনুযায়ী, ৩১ মে এর পর আর কোনো নতুন বিদেশি শ্রমিক দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

এদিকে বাংলাদেশ জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) তথ্য বলছে, গত ২১ মে পর্যন্ত প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ৮৩৪ জন কর্মীকে মালয়েশিয়া যাওয়ার অনুমোদন দেয়। ২১ মের পর আর অনুমোদন দেওয়ার কথা না থাকলেও বিএমইটির তথ্য বলছে, মন্ত্রণালয় আরও এক হাজার ১১২ জন কর্মীকে দেশটিতে যাওয়ার অনুমোদন দিয়েছে। অর্থাৎ, বৃহস্পতিবার (৩০ মে) পর্যন্ত পাঁচ লাখ ২৪ হাজার ৯৪৬ জন কর্মীকে মালয়েশিয়া যাওয়ার অনুমোদন দেওয়া হয়। এর মধ্যে গতকাল (৩০ মে) পর্যন্ত দেশটিতে চার লাখ ৯১ হাজার ৭৪৫ জন কর্মী মালয়েশিয়ায় গেছেন।

প্রবাসী কর্মীদের মালয়েশিয়ায় পাঠাতে শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী প্রতিষ্ঠান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। বিমানের জনসংযোগ বিভাগের ব্যবস্থাপক মো. আল মাসুদ খানের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের চিঠির প্রেক্ষিতে শুক্রবার (৩১ মে) সন্ধ্যা ৭ টা ১৫ মিনিটে বিমানের ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে একটি বিশেষ অতিরিক্ত ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

ওই ফ্লাইটে মোট ২৭১ জন যাত্রী পরিবহন করা হবে। ফ্লাইটটির যাত্রীদের নামের তালিকা, পাসপোর্ট নম্বরসহ প্রয়োজনীয় অঙ্গীকারনামা প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সিজ (বায়রা) প্রতিনিধি বিমান জেলা বিক্রয় অফিস মতিঝিলে প্রদান করবে।

বায়রা প্রদত্ত তালিকা অনুসারে বায়রা প্রতিনিধি বিমান জেলা বিক্রয় অফিস মতিঝিল থেকে নগদ অর্থে উক্ত ফ্লাইটের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন।


আরও খবর



মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম কুমারখালী উপজেলার কমিটি গঠন

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image
কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃ“মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম” কুমারখালী উপজেলা শাখার সভাপতি নির্বাচিত হয় বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আব্দুল আজিজ খান এর সুযোগ্য পুত্র ফারুক আহমেদ খান  ও সাধরন সম্পাদক নির্বাচিত হয় বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহমুদ হোসেন মানুর পুত্র শিল্পী কৌশিক আহম্মেদ চয়ন । ৭ জুন ২০২৪ইং শুক্রবার রাতে কুমারখালীর কড়ইতলায় উপস্হিত সকলের আলোচনা শেষে ১ বছরের জন্য ১১ সদস্য বিশিস্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। যথাক্রমেঃ- সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম, হারুন অর রশীদ ,যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক বাবুল হোসেন পিয়ার,সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম,অর্থ সম্পাদক লাভলী সুলতানা রুপা ,দপ্তর সম্পাদক সজিব হোসেন,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলম হোসেন, সদস্য আ স ম শরাফত আলী সুলতান ও  অনিক হোসেন ।

উক্ত অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়া জেলার সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক শেখ সুভীনের সন্চালনায় সভাপতিত্ব করেন, জেলার সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান ।

আরও খবর



বেনজীর বৃহস্পতিবার হাজির হবেন না, সময় চেয়ে আবেদন

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:৬ মে (বৃহস্পতিবার) পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদকে তলব করেছিল দুদক। তবে দুদকে হাজির হওয়ার জন্য আইনজীবীর মাধ্যমে ১৫ দিনের সময় চেয়েছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার (৫ জুন) দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে কমিশনার (তদন্ত) মো. জহুরুল হক এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আমি সঠিকভাবে জানি না। তবে, শুনতে পেরেছি, তিনি (বেনজীর) সময় চেয়ে আবেদন করেছেন। যদিও এটা তদন্ত কর্মকর্তার (আইও) বিষয়। তারা ভালো জানবেন। কারণ এ বিষয়টি কমিশন পর্যন্ত আসে না।

বেনজীর কতদিনের সময় চেয়েছেন জানতে চাইলে সাংবাদিকদের দুদক কমিশনার বলেন, আইনে সুযোগ আছে সময় চাওয়ার। চাইলে দুদক ১৫ দিন সময় মঞ্জুর করতে পারে।


আরও খবর