Logo
আজঃ রবিবার ২৬ মে ২০২৪
শিরোনাম

প্রাইভেটকার ধাক্কা দিয়ে ১ কিমি টেনে নিয়ে যায় , নারীর মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | ৪৪৭জন দেখেছেন

Image

ঢামেক প্রতিবেদক; রাজধানীর শাহবাগে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী রুবিনা আক্তার (৪৫) নামের এক নারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় চালক দেবর নুরুল আমিন সামান্য আহত হন। এ ঘটনায় প্রাইভেটকারের চালক ঢাবির সাবেক শিক্ষক আজহার জাফর শাহ গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন।

শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জাফর আহত ঐ নারীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এসআই জাফর জানান, আজ দুপুরে ঢাবির এলাকা দিয়ে দেবর নুরুল আমিনের সঙ্গে মোটরসাইকেল যোগে রুবিনা তার ভাইয়ের বাসায় যাচ্ছিলেন। পথে নজরুল সমাধির সামনে প্রাইভেটকারটির সঙ্গে লেগে মোটরসাইকেল নিয়ে দুজনেই পড়ে যান। এ সময় প্রাইভেটকারের পেছনের বাম্পারের সঙ্গে রুবিনার জামার কাপড় আটকে যায়।  সে অবস্থায় ঐ চালক তাকে টেনে ছেচড়ে সেখান থেকে নীলক্ষেতের গেইট পর্যন্ত নিয়ে যান। এ সময় পেছন থেকে মানুষ চিৎকার করে গাড়িটিকে থামতে বললেও কোন লাভ হয়নি। শেষ পর্যন্ত ঐ গেইট এলাকায় যাওয়ার পর কাপড় ছিড়ে ছুটে যায় রুবিনা। পরে আশপাশের লোকজন ঐ চালককে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন। তাকেও চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

গণধোলাইয়ের শিকার চালক আজাহার জাফর শাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্ন্তজাতিক সর্ম্পক বিভাগের সাবেক সহযোগী অধ্যাপক ছিলেন। নিহত রুবিনা আক্তার রাজধানীর তেজকুনিপাড়া এলাকার মৃত মাহবুবর রহমান খান ডলারের স্ত্রী। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।


আরও খবর



নতুন সচিব ইসি ও জননিরাপত্তা বিভাগে

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | ৫৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মঙ্গলবার (২১ মে) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পৃথক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের সচিব মো. জাহাংগীর আলমকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব পদে বদলি করা হয়েছে। একইসঙ্গে ইসি সচিবালয়ের সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) শফিউল আজিম।

শফিউল আজিম অতিরিক্ত সচিব থেকে সচিব পদে পদোন্নতি পেয়ে ইসি সচিবালয়ের সচিব পদে নিয়োগ পেয়েছেন। তিনি ১৫তম বিসিএসের কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রথম সচিব হলেন।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব জাহাংগীর আলম জননিরাপত্তা বিভাগে সচিব পদে যাচ্ছেন এই বিভাগের বিদায়ী জ্যেষ্ঠ সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমানের স্থলাভিষিক্ত হয়ে। কয়েকদিনের মধ্যে চুক্তিতে থাকা মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়াদ শেষ হবে।


আরও খবর



সৈয়দপুরে অপরিপক্ব লিচু ও আম বিক্রি, স্বাস্থ্যঝুকির শঙ্কা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:সৈয়দপুর শহরে অপরিপক্ব লিচু ও মিসরি ভোগ আম উঠতে শুরু করেছে। দেখতে আধপাকা মনে হলেও  জম্মের টক। একশ লিচু বিক্রি হচ্ছে ২৫০ টাকা আর এক কেজি মিসরি ভোগ আম বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা কেজি দরে। স্বাস্হ্য  ঝুকি জানার পরেও অপরিপক্ক ওইসব লিচু আর আম কিনছেন  অসচেতন ক্রেতারা। যা খেয়ে পেটের পিরায় আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকেই।প্রচন্ড গরমে অপরিপক্ক এসব ফল কেন বিক্রি করছেন জানতে চাইলে ব্যাবসায়িরা বলছেন, মৌসুমের নতুন ফল খাওয়ার সবারই আগ্রহ থাকে,এরফলে দামও পাওয়া যায় ভালো। একারনে,গ্রামের যেসব বাগানে লিচু হলকা লাল হয়েছে,সেগুলো বাগান মালিকদের বেশি দাম দিয়ে সংগ্রহ করে বিক্রি করছেন। 

সৈয়দপুর উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর বলছে দিনাজপুর ও রাজশাহীর লিচু হলো উত্তরবঙ্গের সুস্বাদু লিচু। এই লিচু পরিপক্ব হতে এখনো ২০/২৫ দিন বাকি। আর মিসরি ভোগ আম সুস্বাদু হয় বদরগন্জের খাগরাবন ও রাজশাহীর। তেমনি হাড়ি ভাংগা আমের জন্য বিখ্যাত রংপুর। এসব আম পরিপক্ব হয়ে পাকতে এখনো ২০/২৫ দিন সময় লাগবে।বাজারে যেসব লিচু ও আম বিক্রি করা হচ্ছে সেগুলির কোনটাই পরিপক্ব নয়। আইন প্রয়োগ কারি সংস্হার উচিত অভিযান চালায়ে মোটা অংকের জরিমানা করা। 
সৈয়দপুর ১০০ বিশিষ্ট হাসপাতালের শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ওয়াসিম বারি জয় বলেন, অপরিপক্ক যে কোন ফল খেলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি সহ মারাত্মক ভাবে শারীরিক সমস্যা হতে পারে। তিনি অপরিপক্ক কোন ফলই বিক্রি না করার জন্য ব্যবসায়িদের অনুরোধ জানান। 

দুলাল নামের এক আড়তদার বলেন, সৈয়দপুর শহরের সব আড়তদারদের বদনাম করে ছেড়েছেন গিয়াস নামের এক ফল আড়তদার। তিনি বলেন, যেখানে কৃষি অধিদপ্তর, ও ডাক্তার বলছেন অপরিপক্ক ফল খেলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়ে, সেখানে তিনি তাদের কথার তোয়াক্কা না করে, অতিরিক্ত লাভের আশায় অপরিপক্ক লিচু ও মিসরি ভোগ আম বিক্রি করে চলেছেন। এসব ব্যবসায়ির মোটা অংকের জরিমানা সহ জেল দেয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি। সাদেক পাগলা নামের এক ক্রেতা বলেন,বছরের প্রথম ফল তো তাই কিনলাম। বিক্রেতা বললেন ফল গুলো মিষ্টি হবে, এখন দেখছি জম্মের টক।

ফল বিক্রেতা গিয়াস জানান, লাভের আশায় আম ও লিচু সংগ্রহ করে বিক্রি করছি। তিনি বলেন সব মাছই ময়লা খায় শুধু নাম হয় নাড়িয়া মাছের। অনেকের আড়তেই অপরিপক্ক ফল আছে এবং তারা দাপটের সাথেই তা বিক্রি করছেন। কিন্তু তাদের প্রশাসন সহ কেউই কিছু বলেন না। অভিযান যদি চালাতেই হয়, তাহলে সকল অবৈধ ব্যবসায়ির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্হা নেয়ার দাবী করেন তিনি। 

আরও খবর



এডিপির বার্ষিক উন্নয়ন ২০২৩-২৪ অর্থবছর, রৌমারীতে ৫৩ টি উন্নয়ন প্রকল্পে অনিয়ম

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৫৩জন দেখেছেন

Image

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) সংবাদদাতা:কুড়িগ্রামের রৌমারীতে ২০২৩/২৪ অর্থবছরে এডিপি’র আওতায় উপজেলায় উন্নয়ন সহায়তা তহবিলের ৪ কিস্তিতে সম্ভাব্য ৯৭ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা বরাদ্দ পায় । উক্ত টাকা হতে ৩০% প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে এবং টেন্ডারের মাধ্যমে ৬৬ লক্ষ ৬৩ হাজার ৬৮০ টাকার মোট ৫৩ টি প্রকল্প গ্রহন করা হয়। সেই টাকার মধ্যে প্রকল্প কমিটির মাধ্যমে ১৭ টি প্রকল্প ও টেন্ডারের মাধ্যমে ৩৪ টি প্রকল্প এবং এডিপির মাধ্যমে ২টি প্রকল্প বাস্তবায়নের লক্ষে প্রকল্প তালিকা চুরান্ত করা হয়। 

জানা গেছে,উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্র মানুষের মাঝে রিংস্লাভ বিতরণ ১ লাখ টাকা। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বুক সেল বিতরণ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। বিক্রিবিল তিন রাস্তার মোড় হতে উত্তর দিক পর্যন্ত রাস্তা এইচ বি করণ ১ রাখ টাকা । বন্দবেড় ইউনিয়ন এবং টাপুরচর বটতলার বেদীতে গোল চত্তর তৈরী ও টাইলস করণ ১ রাখ টাকা। উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইজলামারী গ্রামের স্কুলের সামনে মসজিদের পূর্বদিকে গাইড ওয়াল নির্মাণ ১ লাখ টাকা। চরশৌলমারী ইউনিয়নের ফুলকারচর গ্রামের দায়রাপাক দরবার শরীফে টয়লেট ও টিউবওয়েল নির্মাণ ১ লাখ টাকা। শৌলমারী ইউনিয়নের বেহুলারচর গ্রামে উত্তর দিকে মসজিদে অজু খানা নির্মাণ ১ লাখ টাকা। দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের গাছবাড়ি মসজিদের অজু কানা নির্মাণ ১ লাখ টাকা। উপজেলার নারীদের কল্যাণের জন্য সেলাই মেশিন বিতরণ ২ লাখ ৯২ হাজার টাকা। ডিসি রাস্তা হতে শৌলমারী এম আর স্কুল গেট পর্যন্ত রাস্তা সিসি করণ ২ লাখ টাকা। চৎলাকান্দা আলমের বাড়ির নিকট পাকা হতে পূর্বদিকে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাইয়ুম বাড়িগামী রাস্তা ও রৌমারী কাষ্টমস অফিসের অসমাপ্ত রাস্তা সিসি করণ ৩ লাখ টাকা। ২নং শৌলমারী ইউনিয়নের দুস্থ কৃষকের মাঝে ¯্রেেমশিন বিতরণ ২ লাখ টাকা। উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে কৃষকের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ ২ লাখ টাকা। বন্দবেড় ইউনিয়নের বাগুয়ারচর গ্রামের সবুর এর বাড়ির সামনে হেরিং এর মাথা হতে বাগুয়ারচর দাখিল মাদ্রাসা পর্যন্ত এইচবি করণ ২ লাখ টাকা। বন্দবেড় ইউনিয়নে কৃষক পরিবারের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ  ২ লক্ষ টাকা। চরশৌলমারী ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সের অবশিষ্ট প্রাচীর নির্মাণ ৫ লক্ষ টাকা। চরশৌলমারী ইউনিয়নে সুখের বাতি জামে মসজিদের টয়লেট নির্মাণ ২ লাখ টাকা। কোমড় ভাঙ্গি সরকার পাড়া পাকা রাস্তা হতে উত্তর দিকে সিসি করণ ৫ লক্ষ টাকা। যাদুরচর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে কৃষকের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ ২ লক্ষ টাকা। দাঁতভাঙ্গা বাজারের পশ্চিম পাশ্বে সিসি রাস্তার মাথা হতে গুটলি গ্রাম গামী রাস্তায় সিসি করণ ৫ লক্ষ টাকা। দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে কৃষকের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ ২ লক্ষ টাকা। ৫ নং ওয়ার্ড দক্ষিণ ইজলামারী কবিরাজের বাড়ি হইতে পুর্বদিকে আনোয়ার আর্মির বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা সিসি করণ ৭ লাখ টাকা। ৪নং রৌমারী ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ডে স্প্রেমেশিন বিতরণ ২ লাখ টাকা। রৌমারী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্র কৃষকের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ ২ লক্ষ টাকা। রৌমারী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্র কৃষকের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ (অংশ ২ ) ২ লাখ টাকা। রৌমারী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্র কৃষকের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ (অংশ ৩) ১ লাখ টাকা। যাদুরচর দিগলাপাড়া গ্রামের কওমি মাদ্রাসায় ঘর প্লাস্টার করণ ১ লাখ টাকা। জামি আ মাহমুদিয়া জান্নাতুল মাওয়া মহিলা মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্রীদের রান্নাঘর নির্মাণ ২ লাখ টাকা। ২নং শৌলমারী ইউনিয়নের বড়াইকান্দি বাজারের পশ্চিম পার্শে দাখিল মাদ্রসার ঘর মেরামত ১ লাখ টাকা। ৩নং বন্দবেড় ইউনিয়নের খঞ্জনমারা প্রতিবন্ধি স্কুলের ঘর পাকাকরণ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। ৪নং রৌমারী ইউনিয়নের চরবামনেরচর ও রতনপুর হাফিজিয়া মাদ্রসার ঘরের মেঝে পাকা করণ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। ৬নং চরশৌমারী ইউনিয়নের মিয়াচর চরের পশ্চিম পার্শ্বে হলহলিয়া নদীতে কাঠের ব্রিজ নির্মাণ ৩ লাখ টাকা। ৬নং চরশৌলমারী ইউনিয়ের মশালেরচর হলহলিয়া নদীর ওপর কাঠের ব্রিজ নির্মাণ ৩ লাখ টাকা। ৬নং চরশৌমারী ইউনিয়নের শান্তিরচর গ্রামের ঈদগাহ মাঠে টাইলসহ মিনার নির্মাণ করণ ২ লাখ টাকা। রৌমারী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ক্রিয়া সংগঠনে খেলা সামগ্রী বিতরণ (পিআইসি) ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। রৌমারী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্র কৃষকের মাঝে স্প্রেমেশিন বিতরণ (পিআইসি) ১ লাখ টাকা। দাতভাঙ্গা ইউনিয়নের তেকানী গ্রামের হাফিজিয়া মাদ্রাসার ঘর মেরামত করণ ১ লাখ টাকা। ২নং শৌমারী ইউনিয়নে বাউশমারী সাইদুর মাস্টারের বাড়ি সংলগ্ন মসজিদে টাইলস করণ ১ লাখ টাকা। ৩নং বন্দবেড় ইউনিয়নের জন্দিরকান্দা গ্রামে ঈদগাহ মাঠে গাইড ওয়াল নির্মাণ ১ লাখ টাকা। রৌমারী ইউনিয়নের বাওয়াইয়ারগ্রাম ইরাফিল মেম্বারের বাড়ি সংলগ্ন মসজিদে টয়লেট নির্মাণ ১ লাখ টাকা। রৌমারী ইউনিয়নের গোয়ালগ্রাম ঈদগাহ মাঠে মিনার নির্মাণ ১ লাখ টাকা। রৌমারী উপজেলার ৩টি প্রেসক্লাবে চেয়ার সরবরাহ করণ ১ লাখ টাকা। রৌমারী মৎস্য বিভাগের অধিন বিল নার্সারী স্থারী স্থাপন ৫০ হাজার টাকা। রৌমারী প্রাণি সম্পদ বিভাগের অধিন কৃমিনাশক ও ভিটামিন ক্রয় ৫০ হাজার টাকা। রৌমারী উপজেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের জন্য খেলাধুলা সামগ্রি বিতরণ (পিআইসি) ২ লাখ টাকা। রৌমারী উপজেলা ভুমি অফিসের সামনে পুরাতন পোষ্ট অফিস মেরামত ও সংরক্ষণ ৪ লাখ টাকা। ভাষাসৈনিক মরহুম রুস্তম আলী দেওয়ানের কবরস্থান ও বাড়ি গমনের রাস্তা সিসি করণ ৩ লাখ টাকা। রৌমারী কৃষি বিভাগের অধিনে স্প্রেমেশিন ক্রয় ৫০ হাজার টাকা। শালুর মোড় থেকে কাজাইকাটা রাস্তা ১৫০ মিটার চেইনেজে কাঠের সাকো নির্মাণ ২ লাখ টাকা। খেতারচর গ্রামে আফুরুদ্দিনের বাড়ির সামনে খালের ওপর কাঠের সাকো নির্মাণ ২ লাখ টাকা। রৌমারী উপজেলা সকল উন্নয়ন কাজ তদারকি ব্যয় ৯৭ হাজার ২৮০ টাকা। রৌমারী উপজেলার সকল উন্নয়ন কাজের আনুসাঙ্গিক ব্যয় ৪৮ হাজার ৬৪০ টাকা। ৫৩ টি প্রকল্পে টেন্ডারের সাশ্রয়কৃত অর্থসহ মোট ১ কোটি ৮৭ হাজার ৯২০ টাকা খরচ দেখানো হয়েছে।


আরও খবর



ইনফিনিক্স হট ৩০ নিয়ে এলো তাসকিন স্পিড মাস্টার এডিশন

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ১৭৫জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:ট্রেন্ডি প্রযুক্তি ব্র্যান্ড ইনফিনিক্সের জনপ্রিয় বাজেট গেমিং ফোন হট ৩০ নতুন এডিশন বাজারে  এসেছে। স্পিড মাস্টার নামের এডিশনটি আনা হয়েছে নতুন প্যাকেজিংয়ে। সেই সঙ্গে এক্সক্লুসিভ বক্স ডিজাইনের এডিশনটি পাওয়া যাচ্ছে হ্রাসকৃত মূল্যে।

স্লিক ও স্টাইলিশ ইনফিনিক্স হট ৩০ স্পিড মাস্টার এডিশন ব্যবহারকারীদের নজর কাড়বে। দুর্দান্ত গতি ও পারফরম্যান্সের প্রতীক হিসেবে ফোনটিতে পেসার তাসকিন আহমেদকে ফিচার করা হয়েছে। যা ইনফিনিক্সের উন্নত মান ও উদ্ভাবনী দৃষ্টিভঙ্গিকে নির্দেশ করে।

এখন মূল্যছাড়ে পাওয়া যাচ্ছে লিমিটেড এডিশন হট ৩০ হ্যান্ডসেটটি। আগে ডিভাইসটির ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ধারণক্ষমতার সংস্করণটির বাজারমূল্য ছিল ১৫,৯৯৯ টাকা, যা এখন পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ১৪,৯৯৯ টাকায়।

স্পেশাল এডিশনের স্মার্টফোনটিতে দ্রুতগতির গেমিং অভিজ্ঞতা দিতে রয়েছে হেলিও জি৮৮ প্রসেসর। গেমপ্লে আরও স্বচ্ছন্দ্য ও দ্রুতগতির করতে এতে দেয়া হয়েছে ২.০ গিগা হার্টজ গতির দুটি শক্তিশালী এআরএম কর্টেক্স-এ৭৫ কোর। ফলে নির্বিঘ্ন মাল্টিটাস্কিং, স্বচ্ছন্দ গেমিংসহ দৈনন্দিন জীবনের প্রতিটি কাজ দ্রুতগতিতে করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

লিংক-বুমিং নেটওয়ার্ক অপটিমাইজেশন প্রযুক্তির সাহায্যে নিরবচ্ছিন্ন সংযোগ নিশ্চিত করে হট ৩০। এর মাধ্যমে ওয়াই-ফাই ও ডেটা একটানা একসঙ্গে কাজ করে। ফলে গেমিংয়ের গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তেও অব্যাহত থাকে সংযোগ। ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি একবার ফুল চার্জে সারাদিন নির্বিঘ্নে কাজ করে। এর ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিংয়ের মাধ্যমে মাত্র ৩০ মিনিটেই ফোনটি ৫৫% পর্যন্ত চার্জ হয়।

হট ৩০ সিরিজের আরেকটি মডেল হট ৩০আই-ও এখন মূল্যছাড়ে পাওয়া যাচ্ছে। ৪ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি সংস্করণটির বর্তমান বাজারমূল্য ১০,৯৯৯ টাকা, যা আগে ছিল ১১,৯৯৯ টাকা।সিরিজটির হট ৩০ ও হট ৩০আই স্মার্টফোন দুটি সারা দেশে অফিশিয়াল ইনফিনিক্স রিটেইলারদের কাছে পাওয়া যাচ্ছে।


আরও খবর



তানোরে মাসিক সাধারণ সভা ও চেক বিতরণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৬০জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে উপজেলা পরিষদের আয়োজনে ও পরিষদ চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় সাধারণ সভা। এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউএনও মোস্তাফিজুর রহমান, অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম, টিএইচও বার্নাবাস হাসদাক, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সিদ্দিকুর রহমান, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মনিরা বেগম,প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা: ওয়াজেদ আলী, কৃষি অফিসার সাইফুল্লাহ আহম্মেদ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা এম ফজলুর রহমান, মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল, সমাজ সেবা অফিসার মোহাম্মাদ হোসেন, কলমা ইউপি চেয়ারম্যান খাদেমুন নবী বাবু চৌধুরী, পাঁচন্দর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন, সরনজাই ইউপি চেয়ারম্যান নাজিমুদ্দিন বাবু, সরনজাই ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁন, কামারাগাঁ ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন প্রামানিক, তানোর পৌরসভার প্যানেল মেয়র আরব আলী প্রমুখ। এসময় উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। 
এদিকে সমাজ সেবা দপ্তর থেকে চারজন ক্যান্সার রোগীর মাঝে ৫০ হাজার টাকা করে দুই লাখ টাকার চেক বিতরন করেন চেয়ারম্যান ও ইউএনও।

আরও খবর