Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

অ্যামাজন ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৩৬৭জন দেখেছেন

Image

অনলাইন ডেস্ক; টুইটার, ফেসবুকের পর এবার গণছাঁটাইয়ের পথে বিশ্বের বৃহত্তম ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান অ্যামাজন। নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কর্পোরেট এবং প্রযুক্তিখাতে গত কয়েক মাস ধরে বড় ধরনের ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে সংস্থাটি। ফলে অ্যামাজন কর্তৃপক্ষ গণহারে কর্মী ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বিশ্বজুড়ে অ্যামাজনে প্রায় ১৬ লাখ মানুষ চাকরি করে। চলতি সপ্তাহের মধ্যেই ১০ হাজারের বেশি কর্মীকে অ্যামাজন থেকে বিদায় নিতে হতে পারে। কর্মী ছাঁটাইয়ের পাশাপাশি কিছু ক্ষেত্রে অ্যামাজন খরচেও কাটছাঁট করতে চলেছে। অ্যামাজন থেকে ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই করা হলে সংস্থাটির ইতিহাসে এটাই হবে সবচেয়ে বড় গণছাঁটাই।

এই গণছাঁটাই প্রক্রিয়ায় শুরুতেই ‘অ্যালেক্সা ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট’-এর মতো যন্ত্রভিত্তিক বিভাগগুলোতে কাটছাঁট হতে পারে। জানা গেছে, গত কয়েক মাসে অ্যামাজনের কিছু অলাভজনক বিভাগের কর্মীদের সংস্থার পক্ষ থেকে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। সংস্থার মধ্যেই অন্য বিভাগে সুযোগ খোঁজার ‘পরামর্শ’ দেওয়া হয়েছে কিছু কর্মীকে।

করোনাভাইরাস মহামারির সময় অ্যামাজনের মতো অনলাইনে কেনাবেচার সংস্থাগুলোর দিকে ঝুঁকেছিলেন সাধারণ মানুষ। ফলে তাদের ব্যবসা লাভজনক হয়েছিল। তবে ধীরে ধীরে আবারও মহামারি-পূর্ববর্তী পর্যায়ে ফিরে গেছে বিশ্ব। অ্যামাজনে কেনাকাটার হার সে কারণে তুলনামূলক কমে গেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত সপ্তাহেই গণছাঁটাইয়ের পথে হেঁটেছে টুইটার। ইলন মাস্কের মালিকানায় সংস্থাটির প্রায় ৫০ শতাংশ কর্মী চাকরি হারিয়েছে মুহূর্তেই। এরপর বড় সংখ্যক কর্মী ছাঁটাই করা হয়েছে ফেসবুকের মূল সংস্থা মেটা থেকে। এবার একই পথে হাঁটতে চলেছে অ্যামাজনও।


আরও খবর



বাংলাদেশের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা তুলে নি‌ল ওমান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬৬জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক:২০২৩ সালের অক্টোবর মাসে বাংলাদেশি নাগরিকদের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল ওমান। দীর্ঘ আট মাস পর কয়েক ক্যাটাগরিতে সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নি‌য়েছে দেশটি। বুধবার (১২ জুন) ঢাকার ওমান দূতাবাস এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ‌্য জানি‌য়ে‌ছে।

এতে বলা হয়েছে, গত বছরের অক্টোবরে বাংলাদেশি নাগরিকদের ওপর আরোপিত ভিসা নিষেধাজ্ঞা থেকে নির্দিষ্ট কিছু ক্যাটাগরিতে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। যাদের মধ্যে রয়েছে- ফ্যামিলি ভিসা, জিসিসি বা উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোতে বসবাসরত বাংলাদেশি নাগরিকদের ভিজিট ভিসা, ডাক্তার, প্রকৌশলী, নার্স, শিক্ষক, হিসাবরক্ষক, বিনিয়োগকারী, সব ধরনের অফিসিয়াল ভিসা এবং উচ্চ-আয়ের আর্থিক ক্ষমতা সম্পন্ন পর্যটকদের ভিসা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এসব শ্রেণিভুক্ত আবেদনকারীদের কাছ থেকে ভিসা আবেদন গ্রহণ করবে ও ভিসা ইস্যুর ব্যাপারে রয়্যাল ওমান পুলিশের সঙ্গে সমন্বয় করবে। আবেদনকৃত ভিসার পক্ষে আবেদনকারী তার যাবতীয় কাগজপত্র যথাযথ সত্যায়নপূর্বক যাচাই-বাছাইয়ের জন্য দূতাবাসে জমা দেবেন। ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে প্রত্যেক আবেদনকারীর সরবরাহকৃত তথ্য যাচাই-বাছাইয়ের উপর নির্ভর করে এক থেকে চার সপ্তাহ সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

এ ছাড়া, ভিসা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার সংক্রান্ত বিষয়ে দূতাবাস বলেছে, বাংলাদেশ সরকার ও ওমানি কর্তৃপক্ষ আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে এবং নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার প্রক্রিয়ার বিষয়টি ত্বরান্বিত করতে উভয় দেশের কর্তৃপক্ষ অনেক দূর এগিয়ে গেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ভিসা নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিছক একটি অরাজনৈতিক সিদ্ধান্ত যা কৌশলগত কারণে ওমানে বিদেশি শ্রম বাজার সমীক্ষা ও পর্যালোচনার চলমান প্রক্রিয়ার অংশ। বাংলাদেশ ও ওমান উভয় দেশের বিদ্যমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার। আর এ দুই দেশের বিচক্ষণ ও সুযোগ্য নেতৃত্বের হাত ধরে এ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্র দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ও বহুমাত্রিক ধারায় সম্প্রসারিত হচ্ছে।


আরও খবর



হানিফ ফ্লাইওভারে বাসযাত্রী ওঠানামা বিরুদ্ধে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের বিরুদ্ধে অভিযান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১৬১জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃ 

ঢাকা মহানগরের নাগরিকগণ যাতে  রাস্তায় নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারে এবং স্বাচ্ছন্দে ঘরে ফিরতে পারে সে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে টিম ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ। এই বিভাগের মধ্য দিয়ে দক্ষিণবঙ্গের ২১টি জেলাসহ মোট ৪০টি জেলার গাড়ি যাতায়াত করে। মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারের মূল অংশটি এই বিভাগের মধ্যে অবস্থিত। প্রায়শই এই ফ্লাইওভারের উপরে উপরে বিভিন্ন পরিবহন যাত্রী উঠানামা করায়। এতে যানজট বৃদ্ধি পেয়ে ব্যাকট্রেইল যেমন বেড়ে যায়, তেমনিভাবে দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পায়। 


ইংরেজি ৪/৬/২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ডিসি (ট্রাফিক-ওয়ারী) বিভাগ মোহাম্মদ আশরাফ ইমামের দিকনির্দেশনায় এসি (ট্রাফিক-যাত্রাবাড়ী) তানজিল আহমেদের নেতৃত্বে গঠিত টিম হানিফ ফ্লাইওভার এর উপরে যে সকল গাড়ি যাত্রী উঠানামা করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। অভিযানে সর্বমোট ১৯টি বাসের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। বাসের বিরুদ্ধে মামলা মামলার পাশাপাশি ১টি মৌমিতা বাস এবং একটি উৎসব বাসকে ডাম্পিং করা হয়েছে। এই অভিযান চলমান থাকবে মর্মে ডিসি (ট্রাফিক-ওয়ারী) জানান। অভিযানে আরো উপস্থিত ছিল টিআই সায়েদাবাদ টার্মিনাল মঞ্জুর রাসেল এবং টিআই জিয়াউদ্দিন।


আরও খবর



নওগাঁ জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সংবেদনশীল কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image

নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি:নওগাঁ রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সন্মেলন কক্ষে রবিবার সকাল ১০ টায় সোসাইটির পারিবারিক যোগাযোগ পুনঃস্থাপন (আরএফএল) বিভাগের কার্যক্রম মাঠ পর্যায়ে আরোও গতিশীল করা, প্রচার ও প্রসার ঘটানো এবং দুর্যোগ ও মাইগ্রোসন প্রবণ এলাকায় স্টেকহোল্ডারদের মাঝে সচেতনতা ও সংবেদনশীলতা তৈরীর জন্য নওগাঁ রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটে অর্থ-দিবস কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেইসাথে নওগাঁ কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে আরএফএল সেবা বিষয়ক সেশান পরিচালনা করেন এবং জেলা কারা কর্তৃপক্ষের সাথে মতবিনিময় ও বিদেশী বন্দিদের সাথে সাক্ষাৎ করেন নওগাঁ জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট।

কর্মশালার সঞ্চালনা করেন, ইঞ্জি: নাজমুল হক ডেটা অ্যাডমিনিস্ট্রেটর আর এফ এল বিডিআরসিএস, ঢাকা।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এ্যাড এ.কে.এম ফজলে রাব্বি চেয়ারম্যান, জেলা পরিষদ ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি নওগাঁ ইউনিট।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সারোয়ার তানজিদ সম্রাট সাধারণ সম্পাদক রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি নওগাঁ ইউনিট ও প্যানেল মেয়র নওগাঁ পৌরসভা,  মো: জাহাঙ্গীর হোসেন শেখ, ডিপুটি জেলার। 

এ ছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন,  নাজিম উদ্দিন তনু, মো: জাহাঙ্গীর আলম, মিজানুর রহমান,  সেলিম রেজা, ফায়সাল হোসেন, শফিউল আজম, জাহিদ ইসলাম জীম সহ জেলা যুব রেড ক্রিসেন্ট এর সদস্য বৃন্দ। 


আরও খবর



রূপগঞ্জে তিন সহস্রাধিক দরিদ্র মানুষের মধ্যে ঈদসামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬৪জন দেখেছেন

Image

মোঃআবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ- নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ইউনিয়নের ইউসুফগঞ্জ, ভোলানাথপুর, বুরুলিয়া, কাদিরারটেক, কুমারটেক, পশি, হারারবাড়ি, আলমপুর, বৌরারটেক, গুতিয়াবো, জাঙ্গীর, কুদুর মার্কেট, পিতলগঞ্জ, মধুখালী, ভক্তবাড়ি, ব্রাক্ষণখালী, হারিন্দা, শুরিয়াবোসহ আশপাশের এলাকার তিন সহস্রাধিক দরিদ্র মানুষের মধ্যে ঈদসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল ১৫জুন শনিবার বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীকের নির্দেশনায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ও রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি গাজী গোলাম মূর্তজা পাপ্পার পক্ষে রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ছালাউদ্দিন ভুঁইয়ার অর্থায়নে এ সকল ঈদসামগ্রী বিতরণ করা হয়। রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে আয়োজিত বিতরণী সভায় সভাপতিত্ব করেন রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ মশিউর রহমান তারেক। ঈদ সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে চাল, চিনি, সেমাই, লাচ্চা সেমাই, তেল, পোলাওয়ের চাল।    


এ সময় উপস্থিত ছিলেন রূপগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম এ মোমেন, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাছুম চৌধুরী অপু, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হামিদ, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল আজিজ, সাধারণ সম্পাদক আরিফ খাঁন জয়, রূপগঞ্জ ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন দোলন, জাকিয়া সুলতানা, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোন্তাজ উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা মোমেন মিয়া, মোমেন মোল্লা, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক লাকি আক্তার, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন যুব মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক আন্নি আক্তার, ছাত্রলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা রাব্বি হাসান রাসেল প্রমুখ। 

পরে তিন সহস্রাধিক দরিদ্র মানুষের মধ্যে ঈদসামগ্রী বিতরণ করা হয়। 

   -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




বঙ্গবাজার মার্কেটসহ ৪ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১৪৪জন দেখেছেন

Image

শনিবার (২৫ মে) পুড়ে যাওয়া রাজধানীর বঙ্গবাজারের স্থানে ১০তলা বঙ্গবাজার পাইকারী নগর বিপণী বিতান, শেখ ফজলুল হক মণি স্মরণিসহ চারটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷

সকাল ১০টার দিকে প্রকল্পগুলোর উদ্বোধন করেন তিনি। বঙ্গবাজারে নতুন মার্কেটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে সেখানে একটি নিমগাছের চারা রোপণ করেন প্রধানমন্ত্রী৷

১০ তলা বিশিষ্ট বঙ্গবাজার নগর পাইকারি বিপণিবিতানে পাঁচটি সাধারণ সিঁড়ি ও ছয়টি অগ্নিপ্রস্থান সিঁড়িসহ পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। বিপণি বিতানের প্রতিটি ব্লকের জন্য আলাদা বাহির ও প্রবেশ দ্বার থাকবে। ভবনে বৈদ্যুতিক যান্ত্রিক কক্ষ এবং প্রতিটি ব্লকের প্রতি তলায় চারটি করে শৌচাগার থাকবে। এছাড়া ভবনের ভূমিতলে ১৬৯টি গাড়ি ও ১০৯টি মোটরসাইকেল পার্কিংয়ের সুবিধা থাকবে।

পোস্তগোলা ব্রিজ থেকে রায়েরবাজার স্লুইসগেট গেট পর্যন্ত ৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের আট লেনের বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক মণি সরণির নির্মাণকাজেরও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। ৯৭৪ কোটি ৫৮ লাখ টাকা ব্যয়ের এ প্রকল্পের আওতায় ১০ কিলোমিটার নর্দমা (ড্রেন), ১০ কিলোমিটার পথচারী হাঁটার পথ (ফুটপাত), ৩টি উড়াল সেতু (ভেহিকেল ওভারপাস), ৩টি পথচারী পারাপার সেতু (ওভারব্রিজ), দুই কিলোমিটার সংরক্ষণকারী দেয়াল (রিটেইনিং ওয়াল), তিনটি মসজিদ, ছয়টি যানবাহন বিরতির স্থান (বাস-বে) ও ছয়টি যাত্রীছাউনি নির্মাণ করা হবে। এতে ঢাকা শহরের ভেতরে বাস, ট্রাক ও পণ্যবাহী যানবাহনের চাপ কমার পাশাপাশি বহুলাংশে যানজট নিরসন হবে।

নিজস্ব তহবিল থেকে প্রায় ৫১ কোটি টাকা ব্যয়ে ধানমন্ডি হ্রদে নজরুল সরোবর নির্মাণ করছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। এছাড়াও শাহবাগে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী শিশু উদ্যানের আধুনিকীকরণ কাজেরও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রায় ৬০৪ কোটি টাকা ব্যয়ে এ শিশু উদ্যানের আধুনিকায়ন করা হবে।

এ ছাড়া শাহবাগে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী শিশু উদ্যানের আধুনিকায়ন কাজেরও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (শাহবাগে জিয়া শিশু পার্কের নতুন নাম হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী শিশু উদ্যান করা হয়েছে)। প্রায় ৬০৪ কোটি টাকা ব্যয়ে এই শিশু উদ্যানের আধুনিকায়নের কাজ করা হবে। ১৯৭৯ সালে স্থাপিত এই পার্কে আগে ১১টি রাইড ছিল। আধুনিকায়নের মাধ্যমে সেখানে মেগা ডিস্ক, সুপার এয়ার রেস, ফ্লাইং ক্যারোস্যাল, গ্যালিয়ন, ১২ডি থিয়েটার, মাইন কোস্টার, ক্লাইম্বিং কার, সুপার হ্যাপী সুইং, ওয়াটার ম্যানিয়াসহ অত্যাধুনিক নতুন ১৫ ধরনের রাইডস বসানো হবে। এ ছাড়াও আগত দর্শনার্থীদের জন্য শৌচাগার, চত্বর, রেস্তোরাঁ, বিশ্রামস্থল, প্রশস্ত হাঁটার পথ, বসার আসন ইত্যাদি প্রয়োজনীয় সুবিধাদি সংযোজন করা হয়েছে।


আরও খবর