Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
গ্রীষ্মের রুক্ষ প্রকৃতিতে শোভা ছড়াচ্ছে সোনালু ফুল ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২৬২ জন নিহত মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার

অস্ট্রেলিয়ার পুলিশ রিপোর্টে শাকিব খান একজন ধর্ষক!

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মার্চ ২০23 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৩৪৩জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিবেদক ;সিনেমা পাড়ায় এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু শাকিব খান ও অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী প্রযোজক রহমত উল্লাহ’র বিষয়টি। প্রযোজকের দাবী, তিনি শাকিব খান অভিনীত ‘অপারেশন অগ্নিপথ’ সিনেমার প্রযোজক। শাকিব খানের বিরুদ্ধে তিনি অসদাচরণ, মিথ্যা আশ্বাস ও ধর্ষণের মতো গুরুতর সব অভিযোগ এনেছেন।

গেল ১৫ মার্চ প্রযোজক রহমত উল্লাহ লিখিত আকারে সেসব অভিযোগ জমা দেন প্রযোজক-পরিবেশক, পরিচালক, শিল্পী সমিতি ও ক্যামেরাম্যান সমিতিতে। এরপর বিষয়টি সমঝোতার চেষ্টায় ১৬ মার্চ ঢাকার একটি রেস্তোরাঁয় বসেন শাকিব খান ও রহমত উল্লাহ। সেখানে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রযোজক নেতা খোরশেদ আলম খসরু, চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসও। কিন্তু সেখানে কোনো সমঝোতার হয়নি।

গত ১৮ মার্চ অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে গেছেন প্রযোজক রহমত উল্লাহ। সেদিন রাতে তার বিরুদ্ধে মামলা করতে গুলশান থানায় শাকিব। প্রায় দুই থেকে আড়াই ঘণ্টা বসে থেকে তিনি মামলা না করেই ফিরে আসেন। এরপর গতকাল তিনি ডিবি কার্যালয়ে গিয়ে মামলা করেছেন বলে জানা গেছে। সেসময় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে শাকিব দাবি করেন, ওই প্রযোজক ভুয়া, মিথ্যাবাদী। তিনি শাকিবের নামে মিথ্যাচার করে পালিয়ে গেছেন।

তার বিপক্ষেও অস্ট্রেলিয়া থেকে মন্তব্য করেছেন প্রযোজক রহমত উল্লাহ। তিনি বলেন, ‘আমি পালিয়ে আসিনি। কাজের টানেই অস্ট্রেলিয়া এসেছি। কারো ভয়ে পালিয়ে আসিনি। আমি আবার আসব। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই হয়তো সকল প্রমাণ নিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এদিকে শাকিব খানের বিরুদ্ধে অভিযোগের কোনো তথ্য প্রমাণ থাকলে সেগুলো কেন সামনে আনছেন না? এমন প্রশ্নের প্রেক্ষিতে গণমাধ্যমে শাকিবের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ান পুলিশের ধর্ষণ রিপোর্ট পাঠান তিনি। সেখানে দেখা যায়, বর্বর এক ধর্ষণের বর্ণনা। পুলিশের নথিতে উঠে এসেছে মামলার বাদী ধর্ষণের শিকার হওয়া নারী অ্যানি সাবরিন নিজেই। মামলার স্বাক্ষী প্রযোজক রহমত উল্লাহ। যাকে রিপোর্টে অ্যানির ‘আংকেল’ উল্লেখ করা হয়েছে। মামলার তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তার নাম ম্যাথিউ জন ক্রুকসন।

মামলাটি করা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের সেন্ট জর্জ পুলিশ স্টেশনে। রিপোর্টে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত শাকিব খান ওরফে রানা। ক্যারিয়ারের প্রথমবার অস্ট্রেলিয়া গিয়েই এমন ধর্ষণকান্ড ঘটিয়েছেন ঢাকাই সিনেমার এই নায়ক। শাকিব খানের বিষয়ে পুলিশ রিপোর্টে এমন তথ্যই মিলেছে।

পুলিশ রিপোর্টে আরও জানা যায়, ২০১৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর রাতে নভোটেল দ্য গ্র্যান্ড প্যারেড অ্যাপার্টমেন্ট ৭২১ ব্রাইটন লা স্যান্ডস হোটেল কক্ষে রাত ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত, দুই ঘণ্টা অ্যানিকে ধর্ষণ করেন শাকিব খান। সেসময় ওই নারীর উপর পাশবিক নির্যাতন চালান ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক।

অস্ট্রেলিয়ার পুলিশ ইনভেস্টিগেশন করে মেডিকেল রিপোর্ট অনুযায়ী তাদের রিপোর্টে জানিয়েছে, ধর্ষণকারী শাকিব খান মধ্যপ অবস্থায় মাতাল হয়ে অ্যানি সাবরিনকে যোনি ও পায়ুপথে নির্মমভাবে যৌনচার চালিয়েছেন।

পুলিশ সেই প্রতিবেদনে আরও বলেছে, শাকিব খান রানা একজন বাংলাদেশি চলচ্চিত্র অভিনেতা। ভুক্তভোগী অ্যানি সাবরিন তার আঙ্কেল রহমত উল্লাহ’র ফিল্ম প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানে প্রডিউসার হিসেবে কাজ করেন। সাবরিন ও উল্লাহ বাংলাদেশি সিনেমার কাজ শুরু করেছে। যার শুটিং অস্ট্রেলিয়া, থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে হবে। অস্ট্রেলিয়ায় শাকিব খানের সঙ্গে অ্যানি সাবরিনের প্রথম দেখা হয় ২০১৬ সালের ৩১ আগস্ট। এরপর থেকে অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়া শাকিব খানের নিয়মিত ট্রান্সপোর্ট, হোটেল, খাওয়া-দাওয়া ও যাবতীয় বিষয়াদি দেখাশোনা করেন অ্যানি।

এই পুলিশ রিপোর্টের বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে শাকিব খানের কাছ থেকে কোনো সাড়া মেলেনি।


আরও খবর



মাগুরায় শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে কোরবানীর পশুর হাট ইজারাদারদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ ক্রেতা বিক্রেতারা

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায় শেষমুহুর্তে জমে উঠেছে কেরবানীর পশুর হাট। আর মাত্র দুদিন বাকি, তার পরই মুসলিম সম্প্রদায়ের দ্বিতীয় বৃহত্তর ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত হবে।  চার উপজেলা ঘুরে দেখা গেছে, ছোট বড় সকল বয়সী মানুষ গরু ও ছাগল কিনতে হাটে গিয়ে ভিড় করছেন। উৎসবমুখর পরিবেশে হাটগুলোতে চলছে পশু কেনাবেচা। দেশি ও বিভিন্ন জাতের ছোট ও মাঝারি আকারের গরু ও ছাগলের চাহিদা বেশি দেখা গেছে। মধ্যবিত্তরা তাদের পছন্দ মত স্বল্প বাজেটে পছন্দের পশুটি ক্রয় করছেন।

এবছরেও ছোট ও মাঝারি আকারের পশুর চাহিদা বেশি। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ রয়েছে এবছর কোরবানি ঈদের হাটে পশুর দাম একটু বেশি। ছাগল কিনতে এসেও একই কথা জানাচ্ছিলেন ক্রেতারা। তবুও ঈদ যেহেতু সন্নিকটে তাই দামাদামি কথা মাথায় বেশি না রেখে একটু চড়া হলেও পছন্দের পশুটি কিনে নিচ্ছেন ক্রেতারা।

মাগুরার সাপ্তাহিক পশু হাট কাটাখালী,আলমখালী, রামনগর,আলোকদিয়া, বেথুলিয়া, গাবতলা ও খামারপাড়া,  লাঙ্গলবাঁধ, সারঙ্গদিয়া, আড়পাড়া পশুর হাটে  ক্রেতা ও বিক্রেতাদের ভিড় বাড়ে ঈদকে সামনে রেখে। ছাগল গরু নিয়ে হাটে হাটে যাচ্ছে   মালিক, খামারিরা। আবার হাটে হাটে ঘুরছে পশু ক্রেতারা তাদরে পছন্দের ছাগল গরু কিনতে। বিক্রেতারা  বলছেন পশুখাদ্যের দাম বেশি হওয়ার কারণ গরু ছাগলের দাম বেড়েছে। তবে বেচাকেনা ভালো হচ্ছে বলেও জানান তারা। এবছর পশু কেনার খরচ যেমন বেশি অন্যদিকে হাটে খাজনা একটু বেশি দিতে হচ্ছে। এজন্য তারা বাজারের উর্ধ্বমুখী অবস্থাকেই দায়ী করছেন। সকল পশুর হাটেই ইজারাদারদের অত্যাচারে ক্রেতা বিক্রেত্রারা নাজেহাল ইচ্ছা খুশীমত আদায় করছে হাসিলের টাকা। এ অবস্থা নতুন নয়, দীর্ঘদিনের হলেও কোন ব্যবস্থা নেই। কারন হাটের নিলাম কেনার সময় থেকেই শুরু হয় দুর্নীতি। নিলামে ডাক ওঠে যা তা সরকারি  খাতায় ওঠানোর সময় কমে যায়।

হাট মালিকরা বলছেন, ইজারায় টাকা বেশি দিয়ে হাট কিনতে হয়েছে তাদের। যার ফলে অন্য বছরের চেয়ে এবার পশু প্রতি সামান্য কিছু টাকা এবার বেশি নেওয়া হচ্ছে। তবে এটা অবশ্যই সকলের সাধ্যের মাঝে এবং এতে ক্রেতারা কেউ অসন্তুষ্ট নয় বলেও জানান হাট কর্তৃপক্ষের লোকজন।


আরও খবর



বরগুনায় সেতু ধসে ১০ বরযাত্রী নিহত, আহত অনেক

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৪৬জন দেখেছেন

Image

বরগুনা প্রতিনিধি:সেতু ধসে ১০ বরযাত্রী নিহত হয়েছেন বরগুনার আমতলীতে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

শনিবার (২২ জুন) দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, দুপুরে হলদিয়া ইউনিয়নের ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ দিয়ে একটি মাইক্রোবাস ও অটোরিকশা পার হওয়ার সময় ব্রিজ ভেঙে খালে পড়ে যায়। এ সময় অটোরিকশার যাত্রীরা বের হয়ে এলেও মাইক্রোবাসের যাত্রীরা বের হতে পারেনি। স্থানীয় লোকজন ও পরবর্তীতে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কর্মীরা ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার করে আমতলী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়েছেন।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাখাওয়াত হোসেন তপু জানান, হলদিয়া এলাকায় বৌভাতে যাওয়ার সময় একটি ব্রিজ ভেঙে মাইক্রোবাস খালে পড়ে যায়। এ সময় স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে। এখন পর্যন্ত ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস। এখন পর্যন্ত নিহতদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।


আরও খবর



নেপালে আটক সিয়াম কলকাতা সিআইডির হেফাজতে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শুক্রবার (৭ জুন) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান জানান।

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যা মামলায় নেপাল থেকে গ্রেপ্তার আরেক আসামিকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে কলকাতা সিআইডি।তিনি জানান, কলকাতা সিআইডি এই হত্যা মামলাটি তদন্ত করছে। তাদের কাছে দুইজন আসামি আছে।

একজনকে তারা নেপাল থেকে নিয়েছে। আরেকজনকে আগেই গ্রেপ্তার করেছে।ডিএমপি কমিশনার জানান, আনার হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত একজন নেপালে পালিয়ে ছিলেন। পরে তাকে নেপাল পুলিশ আটক করে। কলকাতার সিআইডি তাকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

অবশ্য এই আসামির নাম উল্লেখ করেননি ডিএমপি কমিশনার। তবে, দেশের গোয়েন্দা সূত্র বলছে, এই আসামি হলেন নেপালে পালিয়ে থাকা সিয়াম।আনার হত্যার বিচার কোন দেশে হবে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে হাবিবুর রহমান বলেন, সেখানে ঘটনা তদন্ত সংঘটিত হয়, সেখানেই তদন্ত হয়। এটি একটি সেট রুল। কিন্তু আমাদের বাংলাদেশের আইনেও বলা আছে, বিদেশে যদি কেউ অপরাধ করে থাকে, সেক্ষেত্রে সেই অপরাধীকে আমরা বাংলাদেশে এনে বিচার করতে পারি...। আমরাও তদন্ত করছি, তারাও (কলকাতা) তদন্ত করছে। একপর্যায়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়ে যেকোনো জায়গায় এই বিচারটি হতে পারে।

এমপি আনার হত্যা মামলায় সিয়াম ছাড়াও আরও পাঁচজন আসামি গ্রেপ্তার হয়েছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশে গ্রেপ্তাররা হলেন, আমানুল্লা সাঈদ ওরফে শিমুল ভুঁইয়া ওরফে শিহাব ওরফে ফজল মোহাম্মদ ভুঁইয়া, তানভীর ভুঁইয়া ও সেলেস্টি রহমান। ভারতে গ্রেপ্তার হয়েছেন জিহাদ ও আরেকজন।

এর আগে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যায় অন্যতম সন্দেহভাজন মো. সিয়াম হোসেন নেপালে আটক হওয়ার খবর পায় ডিবি। পরে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদের একটি দল নেপালে যায়। গত মঙ্গলবার দেশে ফিরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন ডিবি প্রধান হারুন। আটক সিয়ামকে নেপাল থেকে নেওয়ার জন্য ভারতও চেষ্টা করছে বলে জানান তিনি।


আরও খবর



মোদির শপথ গ্রহণ পেছাচ্ছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৭জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :তৃতীয়বারের মতো দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদি। দায়িত্ব নিতে শনিবার (৮ জুন) তার শপথ নেওয়ার কথা ছিল। তবে এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান পিছিয়ে যাচ্ছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শনিবারের বদলে মোদি পরেরদিন রোববার সন্ধ্যায় তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন।

বুধবার নরেন্দ্র মোদিকে বিজেপির নেতৃত্বাধীন জোট এনডিএ-এর প্রধান হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। যার মাধ্যমে মোদির প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পথ সুগম হয়। আগামী রোববার যখন মোদি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আবারও শপথ নেবেন তখন তিনি জওহরলাল নেহরুর পর দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে টানা তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হওয়ার অন্যান্য কীর্তি গড়বেন।

মোদির এ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দক্ষিণ এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশের প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্টকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমসিংহে ইতিমধ্যে নিশ্চিত করেছেন তারা মোদির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে থাকবেন।


আরও খবর



কালিয়াকৈরে যুবতীকে ধর্ষণ চেষ্টায় এক যুবককে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১১৯জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে কোচ সম্প্রদায়ের (উপজাতি) এক যুবতীকে ধর্ষণ চেষ্টায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার গ্রেপ্তারকৃত যুবককে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃত হলেন, কালিয়াকৈর উপজেলার ধুলিগড়া এলাকার ফজল মিয়ার ছেলে ফারুক মিয়া (৩৬)। 

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজাতি ওই যুবতী কণিকা রানী (২৪) দীর্ঘদিন ধরে কালিয়াকৈর চন্দ্রা এলাকায় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। প্রতিদিনের মতো গত ২২মে ডিউটি শেষে সন্ধ্যা রাতে অটোরিকশা যোগে বাড়িতে ফিরছিলেন। ফেরার পথে রাত ৮ টার দিকে উপজেলার কোটবাড়ি বকুলতলা এলাকায় নেমে কনিকা রানী। পরে তিনি বনের ভিতর রাস্তা দিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে ওই এলাকার বখাটে যুবক ফারুক মিয়া তার পিছু তাড়া করে। পাশের গন্ধেকচালা এলাকায় পৌঁছালে বখাটে ওই যুবক তার গতিরোধ করে। এসময় ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তাকে টেনে-হেচড়ে পাশের বনের ভিতর নিয়ে যায় ফারুক। সেখানে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে তার মুখম-লসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে ওই বখাটে। এ ঘটনাটি পরিবারের সদদস্যদের জানালে তারা স্থানীয় মাতাব্বদের কাছে বিচার দাবী করেন। কিন্তু বিষয়টি এলাকায় মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে রোবরার কণিকা রানী বাদী কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। থানায় মামলা দায়ের করার পর ওইদিন রাতে অভিযান চালিয়ে বখাটে ফারুককে গ্রেপ্তার পুলিশ। পরের দিন সোমবার তাকে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়।

কালিয়াকৈর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোস্তাফা জামাল আরিফ জানান, অভিযান চালিয়ে বখাটে ফারুককে গ্রেপ্তারের পর তাকে গাজীপুর জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।


আরও খবর