Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

অর্থপাচারের কোনো তথ্য নেই: গভর্নর

প্রকাশিত:Friday ১০ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

সরাসরি বাংলাদেশ থেকে অর্থপাচার হয় এমন তথ্য বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) কাছে নেই বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির। তিনি বলেন, তবে বিদেশে থাকা বাংলাদেশিরা এক দেশ থেকে অন্য দেশে অর্থপাচার করে, এমন তথ্য আছে।

শুক্রবার (১০ জুন) বিকেলে রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। অর্থ মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

গভর্নর বলেন, আমার কাছে অর্থপাচারের তথ্য না থাকলেও অর্থমন্ত্রীর কাছে আছে। টাকার ধর্ম আছে, যেখানে টাকা সুযোগ-সুবিধা বেশি পায় সেখানেই টাকা চলে যায়।

এসময় অর্থমন্ত্রী বলেন, টাকার একটা ধর্ম আছে, একটা বৈশিষ্ট্য আছে। টাকা যেখানে বেশি সুখ পায় সেখানে চলে যায়। টাকা কেউ শোকেসে করে পাচার করেন না। বিভিন্ন ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে পাচার হয়। সেই জায়গা থেকে আমরা দায়িত্ব নিয়েই এ কাজটা করতে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, জার্মানি, ফ্রান্সসহ অনেক দেশ তাদের পাচার হওয়া টাকা ফেরত আনার সুযোগ দিয়েছে। বিশ্বে কখনো কখনো টাকা পাচার হয়ে যায়। টাকা পাচার হয় না এটা আমি কখনো বলিনি। কিন্তু কোনো তথ্য না দিয়ে বলা ঠিক না। পাচারের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের বিষয়ে আমাদের কাছে তথ্য আছে। অনেকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং অনেকে জেলেও আছে।

এর আগে, মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে প্রথা ভেঙে ২০২০-২১ অর্থবছরের ভার্চুয়ালি বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে অর্থ মন্ত্রণালয়। এরপর ২০২১-২২ অর্থবছরে সীমিত পরিসরের পাশাপাশি ভার্চুয়ালি বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলন করা হয়। অর্থাৎ তিন বছর পর স্বাভাবিকভাবে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলন হচ্ছে আজ (শুক্রবার)।

এবারের বাজেটের আকার দাঁড়িয়েছে ছয় লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকা। অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামালের এটি চতুর্থ বাজেট। আর বাংলাদেশের জন্য এটি ৫১তম বাজেট। পাশাপাশি রাষ্ট্র পরিচালনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের ২০তম বাজেট হলেও ২০০৮ সাল থেকে বর্তমান সরকার টানা বাজেট দিয়ে যাচ্ছে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনিসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।


আরও খবর



ফখরুলের বাসভবনের সামনে নেতাকর্মীদের অবস্থান

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০১ August ২০২২ | জন দেখেছেন
Image

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের রাজধানীর উত্তরার বাসভবনের সামনে ডেমড়ার পাঁচটি ওয়ার্ডের দলের নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়েছেন। অনিয়মের কাউন্সিলে কোনো ধরনের সহায়তা না দেওয়া এবং অংশ না নেওয়ার দাবিতে মঙ্গলবার দিনগত রাতে কয়েকশো নেতাকর্মী তার বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন।

বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা জাগো নিউজকে জানান, ডেমড়ার পাঁচটি ওয়ার্ডের ত্যাগীদের বাদ দিয়ে বহিরাগত ও সুবিধাবাদীদের নেতৃত্বে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। বহিরাগতদের ডেমড়ায় কোনো অবস্থান না থাকায় পাশের থানা যাত্রাবাড়ীতে কাউন্সিল করায় উদ্যোগ নিয়েছে মহানগর দক্ষিণ কমিটি। মহাসচিবকে বিষয়টি অবহিত করার জন্যই তারা এ অবস্থান নিয়েছেন।

সারুলিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. মোফাজ্জল জানান, অনিয়মের কাউন্সিলে সহায়তা না করার আশ্বাস দিলে তবেই অবস্থান থেকে সরবেন তারা।

নেতাকর্মীরা আশা প্রকাশ করে বলছেন, দলের মহাসচিব এ কাউন্সিলে যোগ না দিয়ে দল ও দেশে যে সুষ্ঠু নির্বাচন দরকার তা প্রমাণ করবেন। দলে অনিয়মের ভোট করে জাতীয় পর্যায়ে সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি আদায় সম্ভব হবে না বলেও মনে করছেন তারা।


আরও খবর



‘আমার বউ আমার কাছে’ কলেজছাত্রীকে অপহরণের পর ছাত্রলীগ নেতা

প্রকাশিত:Tuesday ০৯ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

বগুড়ার ধুনট উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ স্বপনের বিরুদ্ধে এক কলেজছাত্রীকে (১৮) অপহরণের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) সন্ধ্যার দিকে অপহরণের শিকার কলেজছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ধুনট থানায় মামলাটি করেন।

আবু সালেহ স্বপন উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের চুনিয়াপাড়া গ্রামের আবুল কাসেমের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ওই কলেজছাত্রী ধুনট সদরপাড়ার এক ব্যবসায়ীর মেয়ে। এবছর এইচএসসি পাস করে বাড়ি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। অন্যান্য দিনের মতো সোমবার (৮ আগস্ট) বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে রাস্তা দিয়ে হাঁটাহাঁটি করছিলেন ওই তরুণী। সরকারপাড়া এলাকায় পৌঁছালে আবু সালেহ স্বপন ও তার সহযোগীরা তাকে রাস্তা থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তুলে নিয়ে যান।

jagonews24

এ ঘটনায় রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে আবু সালেহ স্বপনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। থানাপুলিশ অভিযোগটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে গ্রহণ করে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে অভিযোগটি অপহরণ মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়। মামলায় আবু সালেহ স্বপনসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে।

ঘটনার পর থেকে আবু সালেহ স্বপন গা ঢাকা দিয়েছেন। তার মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া গেছে। তাই এ বিষয়ে তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তবে মঙ্গলবার আবু সালেহ স্বপন ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে এ বিষয়ে পোস্ট দিয়েছেন। ওই পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘অপহরণ না, আমার বউ আমার কাছে। কাল সকালে দেখা হবে। একটু দূরে আছি এজন্য।’

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, আবু সালেহ স্বপনের বিরুদ্ধে ওই ছাত্রীর বাবার করা অভিযোগটি অপহরণ মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। মেয়েটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।


আরও খবর



প্রবাসী হত্যায় ভাই-ভাতিজাসহ চারজনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০১ August ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় প্রবাসীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা মামলায় তার ভাই-ভাতিজাসহ চার জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ২ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

সোমবার (২৫ জুলাই) দুপুরে তৃতীয় অতিরিক্ত চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফেরদৌস ওয়াহিদ এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, নুরুল ইসলাম, তার ছেলে ওসমান গণি, সারওয়ার কামাল ও আব্বাস উদ্দীন। মামলায় দুজনকে খালাস দেওয়া হয়। খালাসপ্রাপ্তরা হলেন, নুরুল ইসলামের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম ও তার মেয়ে নাসিমা আকতার।

রায়ের সময় চার আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় শেষে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, লোহাগাড়া থানার আধুনগর ইউনিয়নে রুস্তম পাড়ার নুরুল কবির নিজ অর্থে তার বড় ভাই নুরুল ইসলামের এক ছেলেকে বিদেশে নিয়ে গিয়েছিলেন। পরে ভাতিজাকে বিদেশ নেওয়ার সে টাকা দাবি করলে নুরুল ইসলাম ও তার ছেলেদের সঙ্গে নুরুল কবিরের কথা কাটাকাটি হয়৷ এক পর্যায়ে ১৯৯৯ সালের ৬ ডিসেম্বর হামলা চালিয়ে নুরুল কবিরকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় নুরুল কবিরের স্ত্রী খালেদা ইয়াসমিন ছয় জনকে আসামি করে লোহাগাড়া থানায় হত্যা মামলা করেন। তদন্ত শেষে ২০০২ সালের ২১ ডিসেম্বর ছয় আসামিকে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। ২০০৩ সালে ১৩ জানুয়ারি ছয় আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গঠন করা হয়।

মামলার বিচারে আদালতে ১৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়৷ আদালতে আসামিপক্ষে ৩ জন সাফাই সাক্ষ্য দেন।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী সেলিম উল্লাহ চৌধুরী বলেন, লোহাগাড়া থানার নুরুল কবির হত্যা মামলায় সোমবার রায় দিয়েছেন আদালত। রায়ে নুরুল কবিরের ভাই নুরুল ইসলাম ও তার তিন ছেলেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একই সঙ্গে মামলা থেকে নুরুল ইসলামের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম ও মেয়ে নাছিমা আকতারকে খালাস দিয়েছেন আদালত।


আরও খবর



ইসির আইন-বিধির বাইরে যেতে পারবো না: সিইসি

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
Image

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, নির্বাচন কমিশন (ইসি) আইন-বিধির আলোকে পরিচালিত হবে। আমরা এর বাইরে যেতে পারবো না।

বুধবার (২৭ জুলাই) নির্বাচন ভবনে জাকের পার্টির সঙ্গে সংলাপে এ কথা বলেছেন তিনি। সংলাপের জাকের পার্টির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব শামীম হায়দারের নেতৃত্বে ৯ সদস্যের প্রতিনিধিদল, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছাড়াও চার নির্বাচন নির্বাচন কমিশনার ও ইসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেন।

সিইসি বলেন— অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন আমরা চাই। সেই চাওয়াটা পূরণ করতে সবাইকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। তিনি বলেন, গণতন্ত্রকে অস্বীকার করার উপায় নেই। গণতন্ত্রের মাধ্যমেই স্বাধীন দেশের যাত্রা শুরু হয়েছে। সেই জন্য সবাই আমাদের সহাযোগিতা করবেন। সক্রিয় সহযোগিতা চাই। আগামী নির্বাচনে আপনাদের পরিপূর্ণ সহায়তা, সমর্থন ও সক্রিয় অংশগ্রহণ চাই। কারণ নির্বাচনের মাঠে নিয়ন্ত্রণ করতে হলে সবদলের অংশগ্রহণ দরকার।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, নির্বাচনে সবাই অংশগ্রহণে ভারসাম্য সৃষ্টি হয়। তখন আমাদের কাজ কমে যায়, আপনারা আপনারাই কিন্তু ভারসাম্য সৃষ্টি করেন। আমার এ আবেদন থাকবে।

যারা তরুণ তাদের একটু উদ্দীপ্ত করবেন। অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে স্বাধীনভাবে একটা অনুকূল পরিবেশে। এটা মাঝে মধ্যে বিতর্কিত হয়ে যায়। পরিবেশটা যদি আমরা অনুকূল করতে পারি, তাহলে ভোটাররা আস্থা নিয়ে ভোট দিতে পারেন।

তিনি আরও বলেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিইনি। ইভিএমের হ্যাকিংটা কোনোভাবেই সম্ভব না। কারণ এটার সঙ্গে ইন্টারনেটের সংযোগ নেই। এটা নিয়ে বহু পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে। কিন্তু বাইরে অনেক কথা চাউর আছে যে হ্যাকিং হতে পারে, এটাতে ভোট কারচুপি হতে পারে। কিন্তু আমরা এ পর্যন্ত সুস্পষ্ট কোনো প্রমাণ পাইনি। এখনো ইভিএম নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি, যাতে অপপ্রয়োগ সম্ভব না হয়। সেটা নিশ্চিত করেই আমরা ইভিএমের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবো।

এসময় জাকের পার্টির উদ্দেশ্যে সিইসি বলেন— আপনাদের বক্তব্য বিবেচনাধীন থাকবে। নির্বাচন কমিশন আইন-বিধির আলোকে পরিচালিত হবে। আমরা এর বাইরে যেতে পারবো না। সবার আন্তরিক সহযোগিতা, প্রয়াস থাকলে সংসদ নির্বাচনের কঠিনকাজ সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারবো।


আরও খবর



আয়-ব্যয়ের হিসাব দেয়নি ১৩ দল, সময় চেয়ে আবেদন

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
Image

নির্বাচন কমিশনের বেঁধে দেওয়া নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিবন্ধিত ১৩টি রাজনৈতিক দল ২০২১ সালের আয়-ব্যয়ের প্রতিবেদন জমা দিতে পারে নি। তবে এসব দল সময় চেয়ে নির্বাচন কমিশনে আবেদন করেছে।

এরই মধ্যে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ ২৬টি রাজনৈতিক দল অডিট রিপোর্ট জমা দিয়েছে। পরপর তিন বছর কমিশনে এ প্রতিবেদন দিতে ব্যর্থ হলে নিবন্ধন বাতিলের এখতিয়ার রয়েছে ইসির।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে পারে নি ১৩টি দল। তারা অডিট রিপোর্ট জমা দিতে এক থেকে দুই মাস সময় বাড়ানোর আবেদন করেছে।

হিসাব জমা না দেওয়া দলগুলো হলো-জাতীয় পার্টি (জেপি), বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (এম এল), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি, বিকল্পধারা বাংলাদেশ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি), জাকের পার্টি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, গণফোরাম, গণফ্রন্ট, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট (মুক্তিজোট)।

আর হিসাব জমা দেওয়া দলগুলো হলো-বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বি এন পি, গণতন্ত্রী পার্টি, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় পার্টি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি), বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টি (এনপিপি), জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি বাংলাদেশ ন্যাপ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ, ইসলামী ঐক্যজোট, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ বিএমএল, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট বিএনএফ, জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন এনডিএম, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস ও বাংলাদেশ কংগ্রেস।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) অনুযায়ী নিবন্ধিত দলকে প্রতি পঞ্জিকা বছরের আয়-ব্যয়ের হিসাব নিবন্ধিত নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে নিরীক্ষা করে পরের বছরের ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নির্বাচন কমিশনে জমা দিতে হয়।


আরও খবর