Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত

ওমিক্রনের সংক্রমণে ভারতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ

প্রকাশিত:Friday ১০ December ২০২১ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৪৩৬জন দেখেছেন
Image

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণ আশঙ্কায়  ভ্রমণে কড়াকড়ি আরোপ করেছে ভারত। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। 

এ ব্যাপারে গতকাল বৃহস্পতিবার একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে দেশটির বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ ডিরেক্টরেট জেনারেল অব সিভিল এভিয়েশন (ডিজিসিএ)। 

হিন্দুস্তান টাইমসসহ অন্যান্য ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, যেসব দেশের সঙ্গে এয়ার বাবল চুক্তি রয়েছে সেসব দেশে ফ্লাইট চলবে। শুধু যাত্রীবাহী বিমানের ওপরই নতুন নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। পণ্যবাহী আন্তর্জাতিক কার্গো ফ্লাইটগুলো চালু থাকবে।

ডিজিসিএসের দেয়া বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, ৩১ জানুয়ারির পর আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু হলেও সব রুটে নাও চলতে পারে ভারতীয় যাত্রীবাহী উড়োজাহাজগুলো। 

এর আগে ১৫ ডিসেম্বর থেকে চালু আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ডিজিসিএ। কিন্তু ওমিক্রন সংক্রমণের শঙ্কায় সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে ভারত।

উল্লেখ্য, ভারতের সঙ্গে এয়ার বাবল চুক্তি রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ব্রিটেন, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, কেনিয়া, ভুটান, ফ্রান্স ও বাংলাদেশসহ আরো বেশ কয়েকটি দেশের।


আরও খবর



কাজী নজরুলকে ‘জাতীয় কবি’ গেজেট প্রকাশ কেন নয়, হাইকোর্টের রুল

প্রকাশিত:Wednesday ২০ July ২০22 | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে ‘জাতীয় কবি’ হিসেবে ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি কেন নির্দেশনা দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

বুধবার (২০ জুলাই) এ সংক্রান্ত রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আসাদ উদ্দিন। আইনজীবী নিজেই রুলের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন ।

এর আগে গত ২২ জুন হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্টের ১০ আইনজীবীর পক্ষে আইনজীবী মো. আসাদ উদ্দিন এ রিট করেন। রিট করা আইনজীবী ওইদিন নিজেই জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


আরও খবর



সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ৩ ভাইয়ের মৃত্যু, সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ

প্রকাশিত:Thursday ১১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ১৬ August ২০২২ | ১৪জন দেখেছেন
Image

ফেনীতে সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে তিন ভাইয়ের মৃত্যুর ঘটনাটি সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ নিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দুপুরে ফেনী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আশিকুর রহমান এ আদেশ দেন।

নির্মাণাধীন একটি ভবনের নিচতলার সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় মামলা না হওয়ার বিষয়ে বাংলাদেশ মানবাধিকার সম্মিলনের (বামাস) চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম নান্টু বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন। আদালত দীর্ঘ শুনানি শেষে আদেশের জন্য অপেক্ষমাণ রেখেছিলেন।

বৃহস্পতিবার পুনরায় শুনানি নিয়ে এ হতাহতের বিষয়ে সিআইডিকে তদন্তের আদেশ দেন। এ ঘটনায় ভবন মালিক রুহুল আমিন ও তার ছেলে নাজমুস শাহাদাত সোহাগকে আসামি করা হয়েছে।

আবেদনকারী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম নান্টু বলেন, সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে তিন ভাই নিহতের ঘটনায় ভবন মালিক রফাদফা করে পার পেয়ে যাচ্ছেন। বিষয়টি আমার দৃষ্টিগোচর হলে বামাসের পক্ষ থেকে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিই।

তিনি বলেন, বিল্ডিং কোড ও পৌরসভার শর্ত অমান্য করায় দণ্ডবিধি অনুযায়ী এটি একটি হত্যাকাণ্ড। তাই এর বিচার চেয়ে এবং ভবন মালিক জামায়াত নেতা রুহুল আমিন ও তার ছেলে নাজমুস শাহাদাত সোহাগকে আইনের আওতায় আনতে মামলা করা হয়েছে। আশা করি, আদালতে ন্যায়বিচার পাবে নিহতের পরিবার।

ফেনী শহরের নাজির রোডের বাসিন্দা রুহুল আমিনের নির্মাণাধীন ভবনের নিচ তলায় গত ২৬ জুলাই সকালে সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরিত হয়। এতে বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের ফুলহাতা গ্রামের ছৈয়দ আলী মুন্সির ছেলে নুরুল ইসলাম মুন্সী (৫২), মো. আবদুর রহমান মুন্সী (৪৯) ও মো. মুনীরুজ্জামান মুন্সীর (৪২) মৃত্যু হয়।


আরও খবর



ইউনিলিভার ফিউচার লিডার্স প্রতিযোগিতার ট্রফি টিম বাংলাদেশের

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Thursday ১১ August ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

ব্যবসা বিষয়ক বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা ইউনিলিভার ফিউচার লিডার্স’ লিগ (ইউএফএলএল) প্রতিযোগিতার ট্রফি জিতে নিয়েছে তিন সদস্যের বাংলাদেশ দল।

ইউনিলিভারের উদ্যোগে আয়োজিত এ প্রতিযোগিতায় সারাবিশ্বের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। বাস্তব জীবনের ব্যবসায়িক বাধাসমূহ মোকাবিলায় তরুণদের দক্ষ ও ক্ষমতায়নের মাধ্যমে অধিকতর ব্যবসার সুযোগ তৈরি এবং আরও অগ্রসরমান পৃথিবী গড়ার উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে আয়োজন করা হয় আন্তর্জাতিকভাবে স্বনামধন্য এ প্রতিযোগিতা।

চলতি বছর বিশ্বের ৪৫টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৫৪ হাজারের বেশি আবেদনপত্র গ্রহণ করা হয় এই প্রতিযোগিতার জন্য।

চূড়ান্ত পর্বে ২৩টি দেশের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর আবরার মাহির আহমেদ, আফনান সাইদ ও রাফসান মাহবুব শামস চূড়ান্ত অ্যাওয়ার্ড জিতে নিয়েছেন। তাদের তিনজনই এখন ইউনিলিভারের (ইউনিলিভার ফিউচার লিডার্স’ লিগ-ইউএফএলএল) অধীনে ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি হিসেবে দায়িত্বরত।

আবরার এবং আফনান নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী (অ্যালুমনাই) ও রাফসান পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট (আইবিএ) থেকে।

বিজয়ী হওয়ার গৌরব অর্জন করায় এবার তারা লন্ডনে ইউনিলিভারের হেডকোয়ার্টার্স এ বৈশ্বিক-ব্যবসা বিষয়ক অভিজ্ঞতা পেতে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধাসহ ভ্রমণ উপভোগ করতে পারবেন। এতে বৈশ্বিক এ ব্র্যান্ডটির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে অভিজ্ঞতা বিনিময় ও কাজের সুযোগ পাবেন।

ইউনিলিভার বাংলাদেশর শীর্ষ ব্যবসা বিষয়ক প্রতিযোগিতা ‘বিজমায়েস্ত্রোজ’র বিজয়ীরা এ আন্তর্জাতিক ফোরামে অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছেন। প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক শেষ বর্ষের প্রায় ৩৪০ জন শিক্ষার্থী বেশ কিছু রাউন্ডে পর্যায়ক্রমে নানা ব্যবসায়িক সমস্যার সমাধান ও বিভিন্ন কৌশল প্রস্তাব করেছেন। এসব রাউন্ডে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা ম্যানেজারদের কাছ থেকে হাতে-কলমে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ পেয়েছেন। এছাড়া ইউনিলিভারের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকেও তাদের বাস্তব ব্যবসার প্রকৃত সমস্যা সমাধানে দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়।

এ বিজয়ের ফলে ইউনিলিভার ফিউচার লিডার্স’ লিগ-এ বাংলাদেশ দুটি চ্যাম্পিয়নশিপ এবং তিনটি রানার্স আপ ট্রফি অর্জনের গৌরব অর্জন করলো।

ইউনিলিভার বাংলাদেশের (ইউবিএল) সিইও ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাভেদ আখতার বলেন, ইউএফএলএল প্রতিযোগিতায় আমাদের মেধাবী দলের এ গৌরবোজ্জ্বল বিজয়ের সাক্ষী হওয়া ইউনিলিভার বাংলাদেশের জন্য গর্বের একটি মুহূর্ত। বাংলাদেশের দলের সদস্যরা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তাদের দক্ষতা ও মেধা প্রতিফলনে সক্ষম হয়েছে এবং বাংলাদেশের পতাকা সমুন্নত রেখেছে। দেশের তরুণদের রয়েছে অফুরন্ত সম্ভাবনা এবং তারাই আমাদের জাতির সবচেয়ে বড় সম্পদ। আমাদের অগ্রযাত্রা আরও বেগবান করতে তরুণদের ওপর বিনিয়োগ ও তাদের প্রয়োজনীয় দক্ষতায় পারদর্শী করে গড়ে তোলার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই, এতে তারা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত হওয়ার পাশাপাশি সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নের অন্যতম অংশীদার হিসেবে, আমাদের কম্পাস লক্ষ্যমাত্রার আওতায় আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে ১০ লাখ তরুণকে ভবিষ্যতের জন্য উপযুক্ত দক্ষতায় প্রশিক্ষিত করে তোলার অংশ হিসেবে সম্ভাবনাময় বিজনেস নেতৃত্বের পরিচর্যা ও সহযোগিতায় আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বিগত ১২ বছর ধরে আমাদের ফ্ল্যাগশিপ প্রোগ্রাম ‘বিজমায়েস্ত্রোজ’ প্রতিযোগিতা অব্যাহত রাখার মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য বিনিয়োগ করে আসছি। বিজয়ী দলের জন্য আমার শুভকামনা, সেই সঙ্গে এ ধরনের সুযোগ গ্রহণ ও বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য আমরা তরুণদের আরও অনুপ্রাণিত করছি।


আরও খবর



ডেল্টা লাইফের প্রশাসক নিয়ে আপিলের শুনানি পেছালো

প্রকাশিত:Sunday ২৪ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ১৮ August ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
Image

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সে প্রশাসক নিয়োগে হাইকোর্টের রায় স্থগিতের বিষয়ে করা আপিল আবেদনের ওপর শুনানি না করে এক সপ্তাহের জন্যে মূলতবি করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

রোববার (২৪ জুলাই) প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের বেঞ্চে এ শুনানি হয়। আদালতে এ দিন ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের রিট আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মো. মোস্তাফিজুর রহমান খান।

এর আগে, গত ২৭ জুন এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য আজকের দিন ঠিক করেন আদালত। তারই ধারাবাহিকতায় আজ সেটি আবারও আপিল বিভাগে শুনানি হয়। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন ব্যারিস্টার কারিশমা জাহান।

তিনি বলেন, শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সে প্রশাসক নিয়োগ ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সঙ্গে সমঝোতার বিষয়ে আলোচনা চলছে বলে জানানো হয়। তাই আদালতের কাছে এক সপ্তাহ সময় চাওয়া হয়েছিল। আদালত সেই আবেদন মঞ্জুর করেছেন।

এর আগে, গত ১৩ মার্চ আইডিআরএ’র করা আপিল আবেদন আপিল বিভাগের একই বেঞ্চে ভার্চুয়ালি শুনানি হয়। ওই দিন শুনানির পর গত ২০ জুন আবারও শুনানি শুরু হয়।

এরও আগে, হাইকোর্টের রায় স্থগিত করে দেওয়া চেম্বারজজ আদালতের আদেশ বহালের মেয়াদ আরেক দফা বাড়িয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। এর ফলে বর্তমান প্রশাসকের পদে থাকা নিয়ে কোনো বাধার কথা বলা হয়নি।

তবে এখন নতুন একজন প্রশাসক নিয়োগ পেয়েছেন বলে হাইকোর্টকে জানানো হয়েছে। নতুন এ প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলে ডেল্টা লাইফ ইন্সুইরেন্সের আইনজীবীরা পরবর্তী শুনানির দিন জানাবেন।

গত ৬ জানুয়ারি ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কর্তৃপক্ষের করা রিটের পরিপ্রেক্ষিতে জারি করা রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ ওই প্রশাসক নিয়োগকে অবৈধ ঘোষণা করে রায় দেন। হাইকোর্টের বিচারপতি খসরুজ্জামান এবং বিচারপতি মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ ওই রায় ঘোষণা করেন।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন করা হলে সেটির শুনানি নিয়ে গত ১০ জানুয়ারি আপিল বিভাগের চেম্বারজজ আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে আদেশ দেন। এরপর ওই আবেদন শুনানি নিয়ে গত ১৬ জানুয়ারি সেটি বহাল রাখেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ।

২০২১ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি আইডিআরএ’র সাবেক সদস্য সুলতান-উল-আবেদীন মোল্লাকে প্রতিষ্ঠানটির প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। তার মাসিক সম্মানী ধরা হয় চার লাখ টাকা। এ বিষয়ে সুলতান-উল-আবেদীন মোল্লাকে পাঠানো চিঠিতে আইডিআরএ জানায়, বিমা আইন-২০১০ এর ৯৬ ধারার (১) উপধারা অনুযায়ী প্রশাসক হিসেবে চূড়ান্তভাবে দায়িত্ব গ্রহণের চার মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষের কাছে একটি প্রতিবেদন দাখিল করতে হবে।

বিমা আইন-২০১০ এর ধারা ৯৫ (৩) এর আলোকে নতুন পলিসি ইস্যু আগের মতো অব্যাহত রাখা এবং কোম্পানির ব্যবসা ও অন্যান্য কার্যক্রম যথারীতি পরিচালনা করতেও বলা হয় এ সংক্রান্ত নির্দেশনায়।

চিঠিতে আরও বলা হয়, কোম্পানির প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য মো. শাখাওয়াত নবী (অবসরপ্রাপ্ত অতিরিক্ত সচিব) এবং মো. রফিকুল ইসলামকে (অবসরপ্রাপ্ত যুগ্মসচিব) পরামর্শক হিসেবে শিগগির নিয়োগ দিয়ে কোম্পানির প্রশাসনিক কার্যক্রম সুচারুভাবে পরিচালনার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

জীবন বিমা তহবিল বাড়িয়ে দেখানো ও অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা ব্যয়সহ নানা অনিয়মের অভিযোগ তুলে গত বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদকে বরখাস্ত করে চার মাসের জন্য প্রশাসক নিয়োগ দেয় আইডিআরএ। সংস্থাটির চেয়ারম্যান এম মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে ৫০ লাখ টাকা ঘুস চাওয়ার অভিযোগ আনার কয়েক দিন পর ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের পর্ষদ বরখাস্ত করে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

আইডিআরএ’র ওই নিয়োগ চ্যালেঞ্জ করে ডেল্টা লাইফের বরখাস্ত হওয়া পর্ষদ হাইকোর্টে রিট করে। রিটে প্রশাসক নিয়োগকে অবৈধ ঘোষণার আবেদন করা হয়।

জানা গেছে, ডেল্টা লাইফের জীবন বিমা তহবিল রয়েছে চার হাজার কোটি টাকার। তবে ডেল্টা লাইফের স্থগিত পরিচালনা পর্ষদ ও ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ, দুর্নীতি, রাজস্ব ফাঁকি ও অব্যবস্থাপনার মাধ্যমে তিন হাজার ৬৮৭ কোটি টাকা ক্ষতিসাধনের অভিযোগ আনে আইডিআরএ।


আরও খবর



সংকটের সমাধান হবে রাজপথে: দুদু

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

দেশের চলমান রাজনৈতিক সংকটসহ সব সমস্যার সমাধান রাজপথে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।

তিনি বলেছেন, এই দেশ, এই ভূমি, এই দেশের মানুষ সব সময় গণতন্ত্রের পক্ষে। সুতরাং রাজপথে আন্দোলন হবে না এমনটা ভাবার কোনো সুযোগ নেই।

শুক্রবার (২২ জুলাই) দুপুরে বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদের কনফারেন্স রুমে এক স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা কলেজের সাবেক জিএস ও বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল খানের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ স্মরণসভার আয়োজন করে অপরাজেয় বাংলাদেশ নামের একটি সংগঠন।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, আব্দুল আউয়াল খান ছিলেন একজন ধর্মপ্রাণ জাতীয়তাবাদী নেতা। তিনি আসলে আমাদের ছেড়ে যাননি। তিনি আমাদের মাঝে ছিলেন, আছেন এবং থাকবেন। তবে সেটি সশরীরে না হলেও কর্মগুণে। আল্লাহ তায়ালা তাকে জান্নাত নসিব করুন এ দোয়া করি।

তিনি বলেন, দেশের যে সংকট সেটা আমরা ফয়সালা করবো রাজপথে। এটাই আমাদের লক্ষ্য। আমাদের নেতা এরইমধ্যে সে ঘোষণা দিয়েছেন। এরশাদের পতন হয়েছিলো রাস্তায়। শ্রীলঙ্কার পরিবর্তন হলো রাস্তায়। দেশের অনেক ইস্যুর সমাধান হয়েছে রাস্তায়। দেশে এখন সংসদ নেই, সঙ রয়েছে।

দুদু বলেন, আওয়ামী লীগ জানে তাদের ক্ষমতা ছাড়তে হবে। তারা এখন পতনের দ্বারপ্রান্তে। ক্ষমতা এমন জিনিস যা সহজে কেউ ছাড়তে চায় না। কারণ, এখানে থেকে অনায়াসে আরাম-আয়েশ ও লাগামহীন দুর্নীতি করা যায়।

তিনি আরও বলেন, রাজপথে আন্দোলন হবে না এমনটা ভাবার কোনো কারণ নেই। কারণ, শ্রীলঙ্কার পরিবর্তন কিন্তু রাজপথের বিপ্লবের মাধ্যমে হয়েছে। এই মাটি, এই দেশ সবসময় গণতন্ত্র ও স্বাধীনতার পক্ষে। যদি কেউ ভাবেন যে মানুষ সব সময় একইরকম থাকবে তাহলে তা ভুল সিদ্ধান্ত।

বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ বলেন, আওয়ামী লীগ দেড়যুগ ধরে জোর করে দেশ শাসন করছে। তারা দেশকে বহু পেছনে ঠেলে দিয়েছে। রাজনৈতিক সংস্কৃতি ধ্বংস করে দিয়েছে। এখন দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা নাজুক। তারা হাতিরঝিলে শতভাগ বিদ্যুতায়নের দেশ উপলক্ষে উৎসব করেছে। এখন সেই আওয়ামী লীগই কেন এলাকাভিত্তিক রুটিনমাফিক লোডশেডিং করছে? কারণ, তারা কুইক রেন্টালের নামে নিজেদের দলীয় লোকদের অবাধে লুটের সুযোগ দিয়েছে। দুই বছর পর শুরু হবে বিদেশি ঋণের কিস্তি পরিশোধ। তখন দেশের পরিস্থিতি কী হবে?

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- তাঁতীদলের কাজী মনিরুজ্জামান মনির, জিয়া নাগরিক ফোরামের মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, কৃষক দলের রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সহ-সভাপতি একেএম ওয়াজেদ আলী ও সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন সিরাজী প্রমুখ।


আরও খবর