Logo
আজঃ রবিবার ২৬ মার্চ ২০২৩
শিরোনাম

ওবায়দুল কাদের মঞ্চ ভেঙে পড়ে গেলেন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মার্চ ২০২৩ | ১৫৭জন দেখেছেন

https://youtu.be/FZZzW2-TBxA

নিজস্ব প্রতিবেদক; আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সময় মঞ্চ ভেঙে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আজ বিকেলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে সাবেক নেতাকর্মীদের মিলনমেলায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার এক ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, ওবায়দুল কাদের বক্তব্য দিচ্ছিলেন। তিনি ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বলে কিছু একটা বলার আগেই মঞ্চ ভেঙে যায়। এ সময় তিনিসহ মঞ্চের অনেকেই পড়ে যান।

ছাত্রলীগের সাবেক নেতাকর্মীদের মিলনমেলার মঞ্চ ভেঙে যাওয়ার পর ভিড। 

মঞ্চ ভেঙে পড়ার কিছুক্ষণ পর আবারও বক্তব্য শুরু করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘বক্তব্য দেওয়ার সময় আচমকা মঞ্চ ভেঙে পড়েছে। এটি একটি স্বাভাবিক ঘটনা। মঞ্চে অনেক নেতা ছিলেন। আমি বলব, আমাদের আরও কর্মীর দরকার। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে স্মার্ট কর্মী দরকার। এত নেতা দরকার নেই। যেকোন মঞ্চে গেলে সামনের লোকের চেয়ে মঞ্চের লোকের সংখ্যা বেশি হয়। এতো নেতা কেন?’

ছাত্রলীগের সাবেক নেতারা মনে করছেন, মঞ্চে অতিরিক্ত মানুষ ওঠার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
এর আগে বিকেল ৩টায় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে র‌্যালি পূর্ব অনুষ্ঠান শুরু হয়। গত ৪ জানুয়ারি ছিল ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। তবে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ র‌্য্যালি করা হয়।

অনুষ্ঠানে জাতীয় সঙ্গীতের সঙ্গে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এবং ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন। পরে দলীয় সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়ালি আসিফ ইনান।


আরও খবর



ঢাকা দূতাবাসের সাবেক ২ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করল সৌদি আরব

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ মার্চ ২০২৩ | ১০৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঘুষ নিয়ে বাংলাদেশি শ্রমিকদের ভিসা দেওয়ার অভিযোগে ঢাকার সৌদি দূতাবাসের দুই সাবেক কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির তদারকি ও দুর্নীতি দমন কর্তৃপক্ষ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- ঢাকার সৌদি দূতাবাসের কনস্যুলার বিভাগের সাবেক প্রধান ও উপরাষ্ট্রদূত আবদুল্লাহ ফালাহ মুদাহি আল-শামারি এবং কনস্যুলার বিভাগের উপপ্রধান খালেদ নাসের আয়েদ আল-কাহতানি। আজ রোববার সৌদি আরবের 'আরব নিউজ' সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে তাদের গ্রেপ্তারের কথা জানানো হয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, এই দুই কর্মকর্তা বাংলাদেশি শ্রমিকদের কাছ থেকে ৫ কোটি ৪০ লাখ সৌদি রিয়াল ঘুষ নিয়েছেন যা বাংলাদেশের মুদ্রায় প্রায় ১৫৪ কোটি টাকার সমান।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শ্রমিকদের ভিসা দেওয়ার বিনিময়ে ওই দুই সাবেক কর্মকর্তা ৫ কোটি ৪০ লাখ রিয়াল আদায় করেছেন। এই অর্থের একটি অংশ সৌদি আরবে পাঠানোর কথা স্বীকার করেছে এবং বাকিটা সৌদি আরবের বাইরে বিনিয়োগ করেছেন।

রিক্রুটিং এজেন্সি থেকে ঘুষ নিয়ে ওয়ার্ক পারমিট দেওয়ার অভিযোগে সৌদি দূতাবাসের তিন কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তবে বরখাস্ত হওয়া তৃতীয় কর্মকর্তার নাম জানা যায়নি।

পরিচয় প্রকাশ না করে সৌদি আরবের রিক্রুটিং এজেন্সিগুলো দূতাবাসের কর্মকর্তাদের ভিসা বাণিজ্যের ব্যাপারে দেশটির তদারকি এবং দুর্নীতি দমন কর্তৃপক্ষকে তথ্য দিয়েছে।

তারা জানিয়েছে, প্রায় এক বছর আগে ঢাকার সৌদি দূতাবাস রিক্রুটিং এজেন্সিগুলো থেকে প্রতিটি ভিসা দেওয়ার জন্য ২২০-২৫০ মার্কিন ডলার আদায় করত।

বাংলাদেশ থেকে গত বছর ৬ লাখ ১২ হাজারের বেশি শ্রমিক সৌদি আরবে গেছেন। চলতি বছরের প্রথম দুই মাসে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে গেছেন ৮৫ হাজার ৩১৯ জন।


আরও খবর



ব্যালট ছিনতাই ও পুলিশের মামলায় খোকন-কাজলসহ ১৩ আইনজীবীর জামিন

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মার্চ ২০23 | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মার্চ ২০২৩ | ৫৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক ;সুপ্রিম কোর্ট বার সমিতির নির্বাচনে ব্যালট পেপার ছিনতাই এবং পুলিশের কর্তব্য-কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে শাহবাগ থানায় দায়ের করা তিন মামলায় ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন ও ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলসহ ১৩ আইনজীবীকে আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আজ বিচারপতি মো. সেলিম ও বিচারপতি মো. বজলুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ তাদের আট সপ্তাহের আগাম জামিন দেন। নির্বাচনে বিএনপি প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন এবং ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ছিলেন সম্পাদক প্রার্থী।

আদালতে বিএনপির আইনজীবীদের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী, অ্যাডভোকেকেট জয়নুল আবেদীন, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

এর আগে গত ১৫ মার্চ সুপ্রিম কোর্ট বার সমিতির নির্বাচনে ব্যালট ছিনতাই ও হট্টগোলের ঘটনায় বিএনপির শতাধিক আইনজীবীর বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় মামলা করে আওয়ামী লীগের মনোনীত নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান অ্যাডভোকেট মো. মনিরুজ্জামান।

একই অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের প্রশাসনিক কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম মিল্টন আরেকটি মামলা দায়ের করেনে। পরে পুলিশের কর্তব্য-কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের করে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) বিকেল ৫টায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি নির্বাচনের দুই দিনব্যাপী ভোটগ্রহণ শেষ হয়। প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনেও বিএনপি ও আওয়ামীপন্থী আইনজীবীদের পাল্টাপাল্টি মিছিল ও হট্টগোলের জেরে উত্তপ্ত ছিল সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণ।

নির্বাচনে আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা ভোটাধিকার প্রয়োগ করলেও বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা ভোট দান থেকে বিরত থেকেছেন। তারা নতুন নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন করে তাদের মাধ্যমে ভোট গ্রহণের দাবি জানান।


আরও খবর



ডোমারে সেবা হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের শুভ উদ্বোধন

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মার্চ ২০২৩ | ৭১জন দেখেছেন

Image

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর ডোমারে অত্যাধুনিক সেবা হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের উদ্বোধন করা হয়েছে।

সোমবার (২০মার্চ) বিকাল ৫টা হতে রাত ৮টা পর্যন্ত জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পৌর এলাকার  প্রাণকেন্দ্র বনোয়ারীর মোড়ে বেলুন উড়িয়ে ও ফিতা কেটে হাসপাতালের শুভ উদ্বোধন করেন ডোমার পৌর মেয়র আলহাজ্ব মনছুরুল ইসলাম দানু। 

পরে এক আলোচনা সভায় সেবা হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের স্বত্ত্বাধিকারী ডাঃ আইনুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপ¯ি’ত ছিলেন ডোমার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ। বিশেষ অতিথি হিসাবে বীর মুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াছ হোসেন, গোলাম মোস্তফা, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এ্যাড. মনোয়ার হোসেন, সাধারন সম্পাদক মনজুরুল হক চৌধুরী, জেলা পরিষদ সদস্য মনজুর আহমেদ ডন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক সরকার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বাবু রাম নিবাস আগরওয়ালা, ডোমার পৌরসভার প্যানেল মেয়র সেলিম রেজা, পৌর কাউন্সিলর আখতারুজ্জামান সুমন, উপজেলা স্বা¯’্য কমপ্লেক্সের গাইনি কনসালটেন্ট ডাঃ ফারজানা আফরিন প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। এছাড়াও ডক্টরস্ ক্লিনিক এর স্বত্ত্বাধিকারী ডাঃ মাহবুব উর-রশীদ মাসুম, সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদ সহ পৌর কাউন্সিলর ও সুধিজন অনুষ্ঠানে উপ¯ি’ত ছিলেন।

ডাঃ আইনুল হক জানান, উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি বসানো হয়েছে। সঠিক রোগ নির্ণয়ে পরিক্ষা ও উন্নত মানের চিকিৎসা সেবা দিতে আমার এই সেবা হাসপাতালের উদ্বোধনের মাধ্যমে পথচলা শুরু হলো।

 




আরও খবর



রমজানের শুরুতে কমবে চিনির দাম: বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মার্চ ২০২৩ | ৫৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক ;চিনিতে শুল্ক ছাড় দেওয়ার কারণে কেজিতে ৫ টাকার মতো ছাড় পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেছেন, আমরা ব্যবসায়ীদের চিনির দাম কেজিতে ৫ টাকা কমানোর অনুরোধ করেছি। তারা আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন। আশা করি, রোজার প্রথম সপ্তাহেই চিনির দাম কেজিতে ৫ টাকা কমবে।

আজ রোববার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে ‘দ্রব্যমূল্য ও বাজার পরিস্থিতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত টাস্কফোর্স এর ৬ষ্ঠ সভা’ শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘শুল্ক কমানোর ফলে চিনিতে সাড়ে চার টাকার মতো কমানো যাবে। তবে আমরা ব্যবসায়ীদের কেজিতে পাঁচ টাকা কমানোর অনুরোধ করেছি। তারা আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন। আশা করি, রোজার প্রথম সপ্তাহেই চিনির দাম কেজিতে পাঁচ টাকা কমবে।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘চিনির যে শুল্ক ছাড় দেওয়া হয়েছে, সেই সুবিধা এখনো পাওয়া যায়নি। কয়েকদিনের মধ্যে শুল্ক ছাড়ের চিনি বাজারে আসবে। আমরা আশা করি, রোজার প্রথম সপ্তাহেই চিনির যে দাম, তা থেকে কেজিতে পাঁচ টাকা কমবে। আমরা মনিটরিং করব। শুল্ক কমানোর পর বাজারে কী প্রভাব পড়ছে, তা নজর রাখা হচ্ছে। ব্যবসায়ীদের কাছে তেল ও চিনি যথেষ্ট পরিমাণে আছে।’


আরও খবর



সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন করব: ইসি আলমগীর

প্রকাশিত:বুধবার ০১ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মার্চ ২০২৩ | ১৪২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আলমগীর বলেছেন, ‘আমরা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে আইন প্রয়োগ করে নির্বাচন করব। এই প্রতিশ্রুতি ভোটার ও রাজনৈতিক দলগুলোকে দিতে চাই।

আজ বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

সাংবাদিকরা ভোটদানের হার কমে যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে ইসি আলমগীর বলেন, ‘যে নির্বাচনগুলো হয়েছে, সেগুলোর নানান রকম পরিস্থিতি ছিল। একটি বড় রাজনৈতিক দল কোনো নির্বাচনেই অংশগ্রহণ করছে না। স্বাভাবিকভাবেই তাদের যারা সাপোর্টার তারা তো ভোট দিতে আসেন না। এজন্য ভোটের কাস্টিং কমে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে করোনার মধ্যে আমাদের কিছু নির্বাচন করতে হয়েছে। স্বাভাবিক কারণে তখন অনেকে ভয়ে ভোট দিতে আসেননি। উপনির্বাচনগুলো যখন হয়, উপনির্বাচনের মেয়াদ থাকে অল্প এবং এতে সরকারের কোনো পরিবর্তন হয় না। তাই ভোটদানে আগ্রহ কম থাকে।

জাতীয় নির্বাচনে ভোটদানের হার বাড়বে আশা করে এ নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘সামনের যে জাতীয় নির্বাচন হবে সে নির্বাচনে কিন্তু সরকার পরিবর্তন হতে পারে। সেই সুযোগ যেহেতু এখানে রয়েছে নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণ যে দলকে ভোট দেবে, সেই দল সরকার গঠন করবে। সে ক্ষেত্রে ভোটার ভোটার উপস্থিতি বাড়বে।

ইসি আলমগীর বলেন, ‘আমরা আশা করব, সকল রাজনৈতিক দলের আমাদেরকে আস্থায় নেওয়া উচিত। কারণ দায়িত্ব নেওয়ার পর যতগুলো নির্বাচন করেছি কেউ বলতে পারবে না, আমরা কোনো পক্ষপাতিত্ব দেখিয়েছি। প্রত্যেকটা নির্বাচনই আমরা সুষ্ঠুভাবে করার চেষ্টা করেছি। আমরা আশা করি সংসদ নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে। আমাদের পক্ষ থেকে যত রকম ব্যবস্থা নেওয়া দরকার নির্বাচন কমিশন থেকে আমরা নেব। পার্টিসিপেটরি (অংশগ্রহণমূলক) নির্বাচন হবে বলে আমরা মনে করি।

সব দলকেনির্বাচনে আনার জন্য শেষ পর্যন্ত আপনাদের কোনো ভূমিকা থাকবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এখনো আছে, শেষ পর্যন্ত থাকবে। বুঝতে হবে আমাদের ভূমিকা কি। আমরা আশাও করি, সব দল নির্বাচনে আসবে। আমাদের কাজ হলো নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন করা। আমরা যদি নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন করি, তাহলে সব রাজনৈতিক দল নির্বাচনে আসবে। যারা আসছে না তারা বলছে, নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে এটা তারা মনে করেন না। এই মনে করার পেছনে অন্তত আমাদের কোনো ভূমিকা নেই।

ইসি আলমগীর বলেন, ‘স্বাধীন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে আমাদের সংবিধান দায়িত্ব ও ক্ষমতা দিয়েছে তার পুরোটা প্রয়োগ করে সুষ্ঠু নির্বাচন করব। সেই প্রতিশ্রুতি আমরা ভোটার ও রাজনৈতিক দলগুলোকে দিতে চাই।’


আরও খবর