Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

নরসিংদীতে ছাত্রদলের দুই পক্ষের গোলাগুলিতে সাবেক নেতা নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২৪৬জন দেখেছেন

Image

নরসিংদী প্রতিনিধি:নরসিংদীতে ছাত্রদলের দুই পক্ষের গোলাগুলিতে ছাদেকুর রহমান ছাদেক নামের এক সাবেক নেতা নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ৪টার দিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকনের বাসভবনের সামনে এ গোলাগুলি হয়। ছাদেক জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহসভাপতি ছিলেন।

ঘটনার পর খায়রুল কবির খোকনের বাসভবন ঘিরে রেখেছে পুলিশ। এ ঘটনায় কামাল হোসেন নামের স্থানীয় এক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে।

ছাদেক ছাড়াও আশরাফুল নামের আরেকজন গুলিবিদ্ধ হন। প্রথমে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় জেলা হাসপাতালে নেওয়া হয় আশরাফুলকে। এর আধা ঘণ্টা পর হাসপাতালে নেওয়া হয় ছাদেককে। তার অবস্থা গুরতর হলে তাকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়। ছাদেককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সোয়া ৭টার দিকে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।  

ছাদেকের মৃত্যুর আগে নরসিংদী জেলা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মিজানুর রহমান জানিয়েছিলেন, ছাদেক নামে একজনের অবস্থা গুরুতর। তাকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানায়, আজ বেলা সাড়ে ৩টার দিকে জেলা ছাত্রদলের বহিষ্কৃত নেতা মাইন উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি পিকআপ ভ্যান, প্রাইভেটকার ও ৮-১০টি মোটরসাইকেলে করে জেলখানা মোড় থেকে গ্যাস অফিসের রাস্তায় ঢুকে অতর্কিত গুলি করতে থাকে। এসময় ট্রাক থেকে তারা নেমে খায়রুল কবির খোকনের বাসভবনের দিকে যেতে থাকেন। তখন খোকনের বাসভবনে কেউ ছিলেন না। তার বাসভবনের ফটকে তালা ঝুলছিল।

মাইনউদ্দিন ও তার সঙ্গীদের তাণ্ডবে পুরো এলাকাজুড়ে আতংক ছড়িয়ে পরে। এসময় স্থানীয় জনতার হাতে বাবু নামের এক তরুণ আটকও হয়। আটক বাবু জানায়, তার বাড়ি শিবপুর উপজেলার নোয়াদিয়া গ্রামে। একই উপজেলার ভুরভুরিয়া বাজারের একটি মাইকের দোকানের কর্মচারী সে। তার দাবি, তিনি মাইনউদ্দিনদের মাইক ভাড়া দিয়েছেন।  

মাইনউদ্দিন বলেন, তারা ২৭ তারিখের জনসভা সফল করার জন্য ছাদেকুর রহমান ছাদেকের নেতৃত্বে মিছিল নিয়ে চিনিশপুরে বিএনপি কার্যালয়ে যাচ্ছিলেন। পথে জেলখানা মোড়ে পৌঁছালে খায়রুল কবির খোকনের লোকজন, ছাত্রদল সভাপতি নাহিদ ও জাইদুল, লাল ভাই, তানভীরের নেতৃত্বে তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলি করলে তাদের দুইজন গুলিবিদ্ধ হন।

তাকে ছাত্রদল থেকে বহিষ্কার করার পরও কেন তিনি খোকনের বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন এমন এক প্রশ্নের জবাবে মাইনউদ্দিন বলেন, তিনি কখনো হামলা চালাননি। বারবার তাদের ওপরই হামলা চালিয়ে যাচ্ছে অপরপক্ষ।

এদিকে, এ ঘটনার পর জেলা বিএনপির আহবায়ক ও কেন্দ্রীয় বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক খায়রুল কবীর খোকন বলেন, তিনি আজ দিনভর ঢাকায় দলীয় সভা-সমাবেশে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। তার এসব অনুষ্ঠানের খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশ হচ্ছে।

ঢাকায় থেকে তাদের ওপর কীভাবে তিনি বা তার লোকেরা হামলা করবেন এমন প্রশ্ন রেখে তিনি আরও বলেন, ‘মাইনউদ্দিনকে এখন ট্রামকার্ড হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে। বারবার পুলিশের সহায়তায় সে আমার বাসায় এবং গাড়িবহরে হামলা চালাচ্ছে। অথচ পুলিশ আমার অভিযোগ আমলে না নিলেও তাদের অভিযোগ আমলে নিচ্ছে।


আরও খবর



মাগুরায় মাইক্রোবাস চুরির ঘটনায় পুলিশের এস আই রিমান্ডে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১৩৭জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায় মাইক্রোবাস  চুরির ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে উৎপল কুমার দাস নামে পুলিশের এক এস আইকে রিমাণ্ডে নেয়া হয়েছে।

তিনি মাদারীপুর হাইওয়ে পুলিশে কর্মরত আছেন।

বুধবার দুপুরে মাগুরার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাকে হাজির করে পুলিশের পক্ষ থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে বিজ্ঞ আদালত একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, মামলার বাদী মাগুরার শালিখা থানার আড়পাড়া এলাকার আমির হোসেনের ছেলে রিয়াজ হোসেন তার প্রাইভেট মাইক্রোটি গত বছরের ৭ অক্টোবর মাগুরা-যশোর সড়কের কেচুয়াডুবি সালেহা এলপিজি পাম্পে রেখে বাড়িতে যান। কিন্তু পরদিন সকালে তিনি সেখানে মাইকোটি না পেয়ে সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি  করেন।

এদিকে গত ১ জুন বাদী ঢাকায় অবস্থানকালে জানতে পারেন তার গাড়িটি যশোরের কোতোয়ালি থানাধীন লেবুতলার একটি গ্যারেজে আছে। তখন বাদী ঢাকা থেকে সেখানে তার লোকজনকে পাঠালে আসামি উৎপল কুমার দাস টেরপেয়ে গাড়িটি নিয়ে মাগুরার উদ্দেশে রওনা দেন। কিন্তু উৎপল কুমার দাস তাদের দেখে দ্রুত গাড়ি চালিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন।

এরই এক পর্যায়ে বাদীর লোকজন সন্ধ্যা ৬টার দিকে শালিখার সীমাখালী বাজারে এসে গাড়িটি আটক করতে সক্ষম হয়। পাশাপাশি গাড়িসহ উৎপল কুমার দাসকে শালিখা থানায় হস্তান্তর করেন। এ ঘটনার পর উৎপল কুমার দাস ও অজ্ঞাতদের নামে মামলা দায়ের করা হয়।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৮৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুস্তাফিজুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব নাঈমুল ইসলাম খান এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলে রোববার রাতে মন্ত্রী হাছান সাংবাদিকদের বলেন, পরপর তৃতীয়বারের মতো ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সাথে একান্ত সাক্ষাতে মিলিত হন। এ সময় তিনি নরেন্দ্র মোদি এবং এনডিএ জোটকে নির্বাচনে বিজয়ের জন্য আবারও অভিনন্দন দেন এবং প্রধানমন্ত্রী মোদিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।

রাষ্ট্রপতি ভবনে এ সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দু‘দেশের বন্ধনকে আরও দৃঢ় করতে নরেন্দ্র মোদির নতুন সরকারের সঙ্গে কাজ করার আন্তরিক আগ্রহ ব্যক্ত করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় উন্নীত হয়েছে এবং নিকটতম প্রতিবেশী হিসেবে বাংলাদেশ ও ভারতের অনেক কাজের সুযোগ রয়েছে। মানুষে মানুষে সংযোগ বৃদ্ধিতে যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়নসহ উভয় দেশের আরও উন্নতিকল্পে আমাদের একযোগে কাজ করে যেতে হবে, বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এর আগে ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভার ১৮তম নির্বাচনে ৫৪৩ আসনের ২৯৩টিতে বিজয়ী এনডিএ জোটের নেতা নরেন্দ্র মোদির পরপর তৃতীয়বারের মতো ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অন্যতম শীর্ষ বিশ্বনেতা হিসেবে আমন্ত্রিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার বিকেলে দিল্লি পৌঁছান।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (ওভারসিজ ইন্ডিয়ান এফেয়ার্স) রাষ্ট্রদূত মুক্তেশ পরদেশী বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান।

রোববার (৯ জুন) সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতি ভবনে সারাবিশ্ব থেকে আগত প্রায় ৮ হাজার অতিথির সঙ্গে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। তার কন্যা ও বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক সায়মা ওয়াজেদ, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান এ সময় তার সাথে ছিলেন।

সোমবার (১০ জনু) অপরাহ্নে প্রধানমন্ত্রীর দিল্লি থেকে ঢাকা রওনা হওয়ার কথা রয়েছে।



আরও খবর



হোমনায় ভূমিসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৫৯জন দেখেছেন

Image
হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:কুমিল্লার হোমনায় ভূমিসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার উপজেলা ভূমি কার্যালয়ের উদ্যোগে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করা হয়। এ উপলক্ষে কার্যালয় চত্বরে জনসচেতনতামূলক সভা এবং তাৎক্ষণিকভাবে উপস্থিত সেবা গ্ৰহিতাদের নামজারি জমা খারিজের সৃজিত খতিয়ান, দাখিলা ও খতিয়ানের ভুল সংশোধন সেবা দেওয়া হয়। 

এতে সহকারি কমিশনার (ভূমি) আহাম্মেদ মোফাচ্ছেরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ক্ষেমালিকা চাকমা। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা স্বপন চন্দ্র বর্মণ, উপজেলা ভূমি কার্যালয়ের কানুনগো আবদুল করিম ও নাজির মো. গোলাম মোস্তফা, খাদিজা মেমোরিয়াল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




বিশ্ব শান্তি নিশ্চিত করা এখন অতীতের চেয়ে কঠিন: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১২৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,বিশ্বশান্তি নিশ্চিত করা এখন অতীতের চেয়ে কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে  প্রযুক্তির সাম্প্রতিক প্রসার ও অগ্রযাত্রার সঙ্গে বাড়ছে নতুন নতুন হুমকি। ফলে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনগুলোর শান্তিরক্ষীদের বহুমাত্রিক জটিল পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হচ্ছে।

বুধবার (২৯ মে) সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে ‘আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ দিবস-২০২৪’ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীরা বিশ্বের সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং ও বিপজ্জনক অঞ্চলে সৃষ্ট পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পারে, সেজন্য তাদের সময়োপযোগী প্রশিক্ষণ দিয়ে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

সরকারপ্রধান বলেন, নারীর অধিকার ও জেন্ডার সমতা নিশ্চিত করতে আমাদের পদক্ষেপ ‘উইমেন স্পিচ অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাজেন্ডা’ তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রেখে যাচ্ছে। বাংলাদেশ অন্যতম বৃহৎ নারী শান্তিরক্ষী দেশ হিসেবেও পরিচিতি লাভ করছে। এ পর্যন্ত বাংলাদেশের ৩ হাজার ৩৮ জন নারী শান্তিরক্ষী অত্যন্ত সফলতার সঙ্গে জাতিসংঘের শান্তি মিশন সম্পন্ন করেছেন। এখন দাবি আসছে, আরও নারী শান্তিরক্ষী প্রেরণ করার।

তিনি বলেন, জাতিসংঘের সেক্রেটারি জেনারেল নিজেই আমাকে বলেছেন- আমরা যেন আরও বেশি করে নারী শান্তিরক্ষী প্রেরণ করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে দ্বন্দ্ব সংঘাত যুদ্ধ আজ বিশ্বশান্তি বিঘ্নিত করছে। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, গাজায় ইসরাইলের হামলায় হাজার হাজার নিরীহ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। মিয়ানমারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত করা ইত্যাদি মানবজাতির জন্য এক ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে।

তিনি আরও বলেন, জাতির পিতার আদর্শ অনুসরণ করে আমরা বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছি। শান্তিরক্ষা মিশন ছাড়াও আমরা অন্য আন্তর্জাতিক ফোরামগুলোতে অবদান রেখে যাচ্ছি।


আরও খবর



মিরসরাইয়ে ১ হাজার কেজির কালা পাহাড়ের দাম ৭ লাখ টাকা

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭৩জন দেখেছেন

Image

এম আনোয়ার হোসেন, মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:৪ বছরে ষাড় বাচ্চা কালা পাহাড় এখন এক হাজার কেজি ওজনের একটি সুবিশাল গরু। হলেস্টিয়ান ফ্রিজিয়ান জাতের গরুটির দাম হাঁকানো হয়েছে ৭ লাখ টাকা। এরই মধ্যে আসন্ন কোরবানি মৌসুমে মিরসরাইয়ে চমক হয়ে উঠেছে কালা পাহাড়। গরুটির মালিক মিরসরাই উপজেলার ১১ নং মঘাদিয়া ইউনিয়নের মজুমদারহাট এলাকার হাশিমনগরের বাসিন্দা সোহেল। ক্ষুদ্র খামারী সোহেল শখের বশেই গরু লালনপালন করেন। দেখতে কালো এবং সুবিশাল হওয়ার কারণেই গরুটির নামকরণ করা হয় কালা পাহাড়। কালা পাহাড় লম্বায় প্রায় আট থেকে নয় ফিট। দৈনিক দানাদার, খড় ও কাঁচা ঘাস মিলে অন্তত ২৫-৩০ কেজি খাবার খায় গরুটি। প্রতিদিন ৪-৫ বার গোসল করাতে হয় তাকে।

খামারি সোহেল জানান, কালা পাহাড়কে কখনও ইনজেকশন বা ফিড খাওয়ানো হয়নি। কিন্তু বর্তমান বাজারে পশু খাদ্যের দাম খুব বেশি। কালা পাহাড়কে গড়ে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ৫০০ টাকার খাবার খাওয়াতে হয়। সে হিসাবে ৪ বছরে অনেক টাকা তার পিছনে ব্যয় হয়। এসব হিসাব করে কালা পাহাড়ের সুলভ মূল্য ধরা হয়েছে ৭ লাখ টাকা। লাইভ ওয়েটে গরুটি সাড়ে ৫ শত টাকা করে বিক্রি করা হবে। 

সোহেল বলেন, ‘কোনো হাটে কালা পাহাড়কে ওঠানোর ইচ্ছা নেই। বাড়ি থেকে বিক্রি করার ইচ্ছে। তবে মিরসরাইয়ের মধ্যে গরুটি বিক্রি হলে প্রয়োজনে ঈদ পর্যন্ত গরুকে আমার বাড়িতে রাখার সুযোগ দিবো।’

প্রতিবেশী জিল্লুর রহমান বলেন, ‘সোহেলের গরু পালনের কথা এলাকার সবাই জানে। কিন্তু তার লালনপালন করা কালা পাহাড় এর মতো এত বড় গরু এ এলাকায় আগে কখনও দেখা যায়নি।’


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪