Logo
আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

নবীনগরে পৃথক অভিযানে ১টি ড্রেজার মেশিন জব্দ সহ ৮টি মামলায় ও অর্থদন্ড

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২১৪জন দেখেছেন

Image

নবীনগর উপজেলা ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধিঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে দিনভর পৃথক তিনটি স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে একটি ড্রেজার মেশিন জব্দ সহ  ১৭৫০০ টাকা অর্থদন্ড করে।

২ মার্চ বৃহস্পতিবার তিতাস নদীতে লাইফ জ্যাকেটবিহীন  স্পীডবোট চলায় ও অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করে নৌযান চলাচল করায় অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল অধ্যাদেশ, ১৯৭৬ অনুযায়ী ০৮ টি মামলায় এ অর্থদন্ড করেন নবীনগর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহমুদা জাহান। এছাড়াও নবীনগর পশ্চিম মধ্যপাড়ায় অবৈধ ভাবে ড্রেজার চালানোর দায়ে ঘটনাস্থলে কাউকে না পেয়ে ঐ ড্রেজার মেশিনটি জব্দ করে।

এবিষয়ে নবীনগর সহকারী কমিশনার(ভূমি) মাহমুদা জাহান জানান,জনস্বার্থে এধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর



সরকার আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা ও শিক্ষাখাত নিয়ে সুদূর প্রসারি পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে: ধর্মমন্ত্রী ফরিদুল হক খান

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image
লিয়াকত হোসাইন লায়ন:ধর্মমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, সরকার ইউনানি-আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা ও শিক্ষাখাতকে নিয়ে সুদূরপ্রসারি পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এই খাতে উচ্চ শিক্ষা বিস্তারে চূড়ান্ত হয়েছে ইউনানি-আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা শিক্ষা আইনের খসড়া। এচিকিৎসা পদ্ধতির উন্নয়নে গবেষণা কার্যক্রমের জন্য পর্যাপ্ত বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে এবং ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের অধীনে একটি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। এই ল্যাবের মাধ্যমে চিরায়ত ওষুধের গুণগত মান বজায় রেখে ওষুধ প্রস্তুত করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বহির্বিশ্বে রপ্তানি করা সম্ভব হবে। 

মন্ত্রী রবিবার(১১ফেব্রুয়ারী) ঢাকার বাংলামটরে রুপায়ন ট্রেড সেন্টারে হামদর্দ কনফারেন্স রুমে বিশ্ব ইউনানি দিবস উপলক্ষ্যে হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্‌ফ) বাংলাদেশ এবং হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন- আমাদের দেশের ইতিহাস ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অংশ হয়ে আছে চিরায়ত মেডিসিন। জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় চিরায়ত মেডিসিনের গুরুত্ব উপলব্ধি করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালের ৫ জুলাই এক গেজেট প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বোর্ড অব ইউনানি অ্যান্ড আয়ুর্বেদিক সিস্টেম অব মেডিসিন স্থাপন করার জন্য ১২ সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি ঘোষণা করেন। তিনি আরো বলেন, এদেশে চিরায়ত চিকিৎসা পদ্ধতির ক্ষেত্রে একটি মাইলফলক রচিত হয় ১৯৯৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। সে বছর সর্বপ্রথম ৩৩ জন ইউনানি, আয়ুর্বেদিক ও হোমিও চিকিৎসাকে জেলা সদর হাসপাতাল গুলোতে নিয়োগ দিয়ে এই চিকিৎসা পদ্ধতিকে মূলধারার সাথে সম্পৃক্ত করা হয়।
ধর্মমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে সারাদেশে ২শত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ৫৮টি জেলা হাসপাতাল ও ১২টি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিরায়ত চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে এবং প্রয়োজনীয় ওষুধ বিনামূল্যে সরবরাহ করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে ভেষজ ম্যানুয়াল, ফার্মাকোপিয়া এবং ট্রিটমেন্ট গাইডলাইন তৈরি ও সরবরাহ করা হয়েছে।

চিরায়ত মেডিসিনে ভারতের সাফল্যের কথা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, মানসম্পন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিস্তৃত নেটওয়ার্ক, ব্যাপক স্বাস্থ্যসেবা সুবিধা, অত্যাধুনিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং মানসম্পন্ন ওষুধ উৎপাদন শিল্প এবং বিপুল সংখ্যক লোক তাদের স্বাস্থ্যসেবার প্রয়োজনে এটি ব্যবহারের কারণে ইউনানি মেডিসিন সিস্টেমে ভারত বিশ্বব্যাপী নেতৃত্বের ভূমিকায় আবির্ভূত হয়েছে। তিনি বাংলাদেশের চিরায়ত চিকিৎসা পদ্ধতির উন্নয়নে ২০১৪ সালে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক বাস্তবায়নে ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মার সহযোগিতা কামনা করেন। এছাড়া, WHO Global Medicine Centre এর সাথে যৌথভাবে গবেষণার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে প্রস্তাব দিয়েছেন সেটি ত্বরান্বিত করার ক্ষেত্রে ভারত সরকারকে অনুরোধ জানান।
 
চিরায়ত চিকিৎসা পদ্ধতির উন্নয়নে হামদর্দ বাংলাদেশের ভূমিকা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, সময়ের পরিক্রমায় হামদর্দ ইউনানি-আয়ুর্বেদিক চিকিৎসাখাতে বিপ্লব ঘটিয়েছে; গড়ে তুলেছে ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান, মেডিকেল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়। একক প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশে চিরায়ত চিকিৎসা ব্যবস্থায় হামদর্দের অবদান অত্যন্ত প্রশংসনীয়। তিনি হামদর্দের অব্যাহত অগযাত্রা কামনা করেন।
 
হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্‌ফ) বাংলাদেশের ‍চিফ মোতাওয়াল্লী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূইয়ার সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন ভারতের হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা। মূল প্রবন্ধ  হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউনানি চেয়ার অধ্যাপক ডা. এম এ কাজমি উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে জাতীয় সংসদ সদস্য ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত, জাতীয় অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খান, ওয়াকফ প্রশাসক আবু সালেহ মোঃ মহিউদ্দিন খাঁ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হেপাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী প্রমূখ বক্তব্য করেন।

আরও খবর



ডিএমপির ৪৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মিরপুরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পুলিশের উদ্যোগে চকলেট বিতরণ

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪৯জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার : ডিএমপির ৪৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকার ১৬৭৪ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ১১ লাখ ৫০ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে চকলেট এবং শুভেচ্ছা কার্ড (রেসপন্স কার্ড) বিতরণ করছে ডিএমপি।    ডিএমপির মিরপুর জোনের অতিরিক্ত উপ- পুলিশ কমিশনার মাসুক মিয়া পিপিএম পুরো ডিএমপির ন্যায় মিরপুর ইসলামি আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ে বিতরণ করেন। 
এই সময়ে বিদ্যায়লটির প্রধান শিক্ষক মো: হাবিবুর রহমানসহ সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এবং পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

এই সময়ে এডিসি মাসুক মিয়া বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ জনগনের বন্ধু। এই জন্য প্রতিটি শিশু যাতে করে নিরাপদে স্কুলে যেতে পারে। রাস্তা-ঘাটে কোন ধরনের ইভটিজিং বা যৌন হয়রানির শিকার হলে যাতে করে পুলিশে তথ্য দিয়ে সহায়তা করে এই জন্য মিরপুর জোনের পুলিশ সবসময়ই সচেষ্ট আছে।
শিক্ষার্থীদের সাথে পুলিশের দুরত্ব  কমাতে এবং সহায়তা বৃদ্ধি করাই এই কার্যক্রমের মূল উদ্দেশ্য। 

প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান মিরপুর বিভাগের  পুলিশকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, পুলিশের এই কার্যক্রমে তিনি সন্তুষ্ট। এর মধ্যে দিয়ে শিক্ষার্থী এবং পুলিশের দুরত্ব কমে যাবে। পুলিশ কে উনার প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষার্থীরা সবসময়ই সহায়তা করবেন বলে জানান।

আরও খবর

বিনামূল্যে বই পেল ২৬৬ কলেজ শিক্ষার্থী

শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মাদকনির্ভরশীলতা এবং মানসিক রোগীদের চিকিৎসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি, ঢাকা:তারিখ : ১৭ই ফেব্রæয়ারী ২০২৪: মাদকনির্ভরশীলতা এবং মানসিক সমস্যাগ্রস্থ রোগীদের চিকিৎসায় মনোরোগ বিশেষজ্ঞ এবং এর পাশাপাশি কাউন্সিলিংয়ের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। চিকিৎসা কেন্দ্রে সঠিকভাবে ও নিয়মিত কাউন্সেলিংয়ে একজন রোগীর সুস্থতার সম্ভাবনা অনেকাংশে বৃদ্ধি করে। শনিবার (১৭ ফেব্রæয়ারী) সকাল ১১ টায় রাজধানীর শ্যামলীতে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য সেক্টরের সভাকক্ষে আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে চিকিৎসারত রোগীদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে “মাদকনির্ভরশীলতা ও মানসিক সমস্যাগ্রস্থ রোগীদের চিকিৎসা প্রক্রিয়া” বিষয়ক পারিবারিক সভায় এসব কথা বলেন অতিথিরা।

আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের কাউন্সেলর মেঘবতী সালমার সঞ্চালনায় সভায় বিশেষজ্ঞ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের আবাসিক মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ রাহানুল ইসলাম। তিনি সভার মূল আলোচ্য বিষয় উপস্থাপনা করেন। উপস্থাপনায় মাদকনির্ভরশীলতা কি, মাদকনির্ভরশীলতার সাথে মানসিক রোগের সর্ম্পক কি, মানসিক সমস্যার রোগীদের চিকিৎসায় কাউন্সেলিংয়ের বিভিন্ন দিক ও কেন্দ্রের কাউন্সেলিং সার্ভিস নিয়ে আলোচনা করেন। এসময় তিনি বলেন, গবেষণা ভিত্তিক চিকিৎসা ব্যবস্থায় মাদকনির্ভরশীল এবং মানসিক রোগীদের জন্য দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা ও পরিবারের সহযোগিতা অপরিসীম। চিকিৎসা পরবর্তীতে সুস্থ থাকতে কেন্দ্রের সাথে রোগীকে বিভিন্নভাবে সম্পৃক্ত থাকা প্রয়োজন এবং একই সাথে রোগীর সমস্যার পর্যায়নুযায়ী দীর্ঘমেয়াদে চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা নিলে সুস্থ থাকার হার অনেক বৃদ্ধি পায়।

সভায় আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের কেন্দ্র ব্যবস্থাপক ফারজানা ফেরদৌসসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

তিন পদে লোক নিচ্ছে হুয়াওয়ে বাংলাদেশ

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বাগেরহাটে দিনব্যাপী তারুণ্যের মেলা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১০৩জন দেখেছেন

Image

শামীম হাসান, বাগেরহাট প্রতিনিধি:“আমিও জিততে চাই ইয়ুথ ফেয়ার” নামে বাগেরহাটে দিনব্যাপী তারুণ্যের মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) শহরের সাংস্কৃতিক ফাউন্ডেশন চত্বরে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় মাল্টিপার্টি অ্যাডভোকেসি ফোরাম আয়োজনে অনুষ্ঠিত মেলায় বিভিন্ন পন্য ও সেবা নিয়ে  ৮টি ষ্টল অংশগ্রহন করেন।

দিনব্যাপি আয়োজনের মধ্যে বিভিন্ন নাগরিক সমস্যা নিয়ে ৭টি কলেজের অংশগ্রহনে বিতর্ক প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মঞ্চ নাটিক, কুইজ প্রতিযোগিতা, ভিডিওগ্রাফি প্রতিযোগিতাসহ নানা আয়োজন ছিল। এসব আয়োজনে শতাধিক যুবক-যুবতীসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিগন উপস্থিত ছিলেন।

পরে বিকেলে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনকারীদের মাঝে পুরুস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাঃ খালিদ হোসেন। এছাড়াও দিনব্যাপি এই আয়োজনে, বাগেরহাট জেলা মহিলা লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট শরিফা খানম, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক হাজরা শহিদুল ইসলাম, জেলা মহিলা দলের সভাপতি শাহিদা আক্তার, বাগেরহাটের মাল্টি পার্টি অ্যাডভোকেসি ফোরামের আহ্বায়ক রিজিয়া পারভিনন, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ মুখার্জী, ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালে রেজিওনাল ম্যানেজার রুবাইয়াত হাসান, রেজিওনাল কো-অরডিনেটর মোঃ ইয়াসিন আরাফাত ও ইলেকটোরাল প্রোগ্রাম এসিসট্যানট সিলমী সাদিয়া প্রমুখ।

“আমিও জিততে চাই ইয়ুথ ফেয়ার” এ অংশগ্রহণকারী বাগেরহাটের একাধিক তরুণ বলেন,বর্তমানে দেশে চাকুরীর সুযোগ খুবই কম। উদ্যোক্তা হতে গেলে জটিল প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। তরুণদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও সহজ ঋণসুবিধা করলে কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও বেকারত্ব কমবে। এছাড়া সরকারের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সেবার মানের উন্নতি, নাগরিকদের নিরাপত্তাকে প্রাধান্য দেয়া, নিরাপদ পানি সরবরাহ, অবহেলিত ও সুবিধা-বঞ্চিতদের জন্য উন্নত সেবা, নারীবান্ধব পাবলিক টয়লেট, যৌন হয়রানি বন্ধ, কর্তৃপক্ষের স্বচছ্বতা ও জবাবদিহিতা, পয়ঃবর্জ্য ব্যবস্থাপনা, মশা নিধনের কার্যক্রম আরও জোরদার করার দাবি জানান তরুণরা।


আরও খবর



ঢাকার বাতাস ঝুঁকিপূর্ণ

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১০৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিশ্বে দিন দিন বেড়েই চলছে বায়ুদূষণের মাত্রা। অন্যান্য দেশের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মেগাসিটি ঢাকার বায়ুদূষণও।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) শহরটির বাতাস গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরির পর্যায়ে রয়েছে।

আজ সকাল ৯টার দিকে আন্তর্জাতিক বায়ুমান প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইকিউএয়ারের মানদণ্ড অনুযায়ী, ৪১২ স্কোর নিয়ে দূষিত শহরের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাজধানী ঢাকা, যা জনস্বাস্থ্যের জন্য ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে বিবেচিত। তালিকায় ৪১৮ স্কোর নিয়ে বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ঘানার শহর আক্রা।

এছাড়া ১৮৫ স্কোর নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পাকিস্তানের করাচি শহর। আর চতুর্থ স্থানে থাকা চীনের শেনিয়াং শহরের স্কোর ১৮৩ এবং পঞ্চম স্থানে থাকা ভারতের মুম্বাই শহরের স্কোর ১৮২।

একিউআই স্কোর শূন্য থেকে ৫০ ভালো হিসেবে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ মাঝারি হিসেবে গণ্য করা হয়; আর সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। স্কোর ১৫১ থেকে ২০০ হলে তাকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বায়ু বলে মনে করা হয়। ২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে থাকা একিউআই স্কোরকে ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ বলা হয়। এ অবস্থায় শিশু, প্রবীণ এবং অসুস্থ রোগীদের বাড়ির ভেতরে এবং অন্যদের বাড়ির বাইরের কার্যক্রম সীমাবদ্ধ রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে।

এছাড়া ৩০১ থেকে ৪০০-এর মধ্যে থাকা একিউআই ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ বলে বিবেচিত হয়, যা নগরের বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।


আরও খবর