Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

নাসিরনগরে প্রতারক লিটনের বিরোদ্ধে নুরপুরের সন্তোস বিশ্বাসের ৩ লক্ষ টাকা আত্মসাতের মামলা

প্রকাশিত:Monday ২৪ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ২১৫জন দেখেছেন
Image


পর্ব-৫

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ

ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা সদরের আব্দুল গাফ্ফারের ছেলে Rab এর হাতে গ্রেপ্তার হওয়া প্রতারক মোঃ লিটন মিয়া(৩৫) এর বিরোদ্ধে এবার ৩ লক্ষ টাকা আত্মসাতের বিষয়ে গোর্কণ ইউনিয়নের নুরপুর গ্রামের গ্রামের নলিন বিশ্বাসের ছেলে সন্তোষ বিশ্বাস বাদি হয়ে ব্রাক্ষণবাড়িয়ার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতে এন,আই  এ্যাক্টের ১৩৮ বিধান মতে আরো একটি চেক জালিয়াতির মামলা  দায়ের করেছে যাহার মামলা নং সি,আর ৪২৪/১৯ দায়রা ৫৫৪/২০। 


মামলার আর্জি সুত্রে জানা গেছে বাদী সন্তোষ বিশ্বাস ও আসামী লিটন মিয়া পরস্পর পরিচিত।আসামী লিটন মিয়া একজন ঠিকাদার।ঠিকাদারী কাজের কথা বলে আসামী লিটন মিয়া বাদী সন্তোষ বিশ্বাসের নিকট থেকে গত ২০১৯ সালের ১৪ অক্টোবর নাসিরনগর সোনালী ব্যাংকের ১২১৩০ নম্ভর সঞ্চয়ী হিসাবের ৪২০৪৭৯৪ নম্ভরের একটি চেক প্রদান করে ৩ লক্ষ টাকা গ্রহন করে।ওই তারিখে বাদী  সন্তোষ বিশ্বাস নাসিরসগর সোনালী ব্যাংকে গিয়ে চেকটি নগদায়নের চেষ্টা করে।


কিন্তু লিটনের হিসাব নাম্ভারে কোন টাকা না থাকায় চেকটি ডিজনার হয়ে আসে।পরবর্তীতে বাদী সন্তোষ বিশ্বাস আসামী প্রতারক লিটনের কাছ থেকে তার পাওনা টাকা আদায় করতে না পেরে ব্রাক্ষণবাড়িয়ার বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করে।বর্তমানে মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে বলে সন্তোষ বিশ্বাস জানান।


-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 

আরও খবর



সম্রাটের জামিনের আদেশ বাতিল

হাইকোর্টের সম্রাটের জামিনের আদেশ বাতিল

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৯৯জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

ক্যাসিনোকাণ্ডের পর ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের জামিন বাতিল করে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তাকে সাতদিনের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


বুধবার (১৮ মে) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।



আদালতে আজ সম্রাটের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মনসুরুল হক চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট এহসানুল হক সামাজী। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল আবু মোহাম্মদ (এএম) আমিন উদ্দিন। তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক। আর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।


এর আগে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় জামিন পেয়েছিলেন সম্রাট। ১১ মে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান তিন শর্তে ৯ জুন পর্যন্ত সম্রাটের জামিন মঞ্জুর করেছিলেন। যা বাতিল করলেন হাইকোর্ট।



এ সময় হাইকোর্ট বিচারিক আদালতে সম্রাটকে জামিন দেওয়া বিচারকের বিষয়ে বলেছেন, মেডিকেল রিপোর্ট চাইলেন সেটা না দেখেই জামিন দেওয়া তো ‌‘ঘোড়ার আগে গাড়ি চলার মতো বিষয় হয়ে গেল।’ এসময় ওই বিচারককে সতর্কও করেন আদালত।


আদেশের পর অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান বলেন, মেডিকেল রিপোর্ট আসার আগেই স্বাস্থ্যগত কারণ দেখিয়ে সম্রাটের জামিন দেওয়ায় তা বাতিল করেছেন আদালত।



আর বিচারকের বিষয়ে হাইকোর্টের মন্তব্য কি ছিল জানতে চাইলে দুদকের আইনজীবী বলেন, আদালত বলেছেন, মেডিকেল রিপোর্ট না দেখেই মেডিকেল গ্রাউন্ডে জামিন দিয়ে বিচারক যেন ঘোড়ার আগে গাড়ি জুড়ে দিয়েছেন। আদালত বিচারককে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ভবিষ্যতে তিনি যেন এ ধরনের কাজ না করেন।


দুদকের করা মামলায় জামিন পাওয়ার আগে সম্রাট তার বিরুদ্ধে থাকা আরও তিনটি মামলায় জামিন পান। চার মামলার সবগুলোতেই জামিন পাওয়ায় ১১ মে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএসএমইউ) হাসপাতালের প্রিজন সেল থেকে কারামুক্ত হন সম্রাট। তিনি এখনো এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।


রমনা থানায় দায়ের করা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গত ১১ এপ্রিল জামিন পান সম্রাট। ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালত এ জামিন মঞ্জুর করেন। আগের দিন ১০ এপ্রিল অর্থপাচার ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় ঢাকার পৃথক দুটি আদালত থেকে সম্রাট জামিন পান।


২০১৯ সালের ৬ অক্টোবর সম্রাট ও তার সহযোগী তৎকালীন যুবলীগ নেতা এনামুল হক ওরফে আরমানকে কুমিল্লা থেকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।



আরও খবর



নাসিরনগরের ১৩ ইউনিয়নে অসহায় ও বৃদ্ধদের মাঝে নাজির মিয়ার ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত:Wednesday ১১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৪২জন দেখেছেন
Image


নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া,সংবাদদাতাঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার

নাসিরনগর উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের বিভিন্ন অসহায় বয়স্ক ও গরিব-দুঃখী মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া ও তার স্ত্রী রোমা আক্তার।


নাজির দম্পত্তি পবিত্র ওমরাহ পালন শেষে দেশে ফিরেই পবিত্র ঈদুল ফিতরের দ্বিতীয় দিন থেকে উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম ও বাজারে গিয়ে ঘুরে ঘুরে" ঈদের খুশীতে ঈদ উপহার বিতরণ করেন করেন এ সব মানুষের মাঝে।এ সময় শুধু নাজির মিয়া নয় তার স্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান,ও সাবেক উপজলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মরহুম লেঃ অবঃ গোলাম নূরের কন্যা রুমা আক্তার ও গোলামনুরের ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আরমান নূর ও সাথে ছিলেন।


এ সময় তারা স্থানীয় সাংবাদিকদের জানায় আগামী নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রথম নারী সভাপতি পদপ্রার্থী রোমা আক্তার। তারা আরো জানন,এ পর্যন্ত নাসিরনগর সদর সহ চাতলপাড় ভলাকুট,গোয়ালনগর, কুন্ডা,গোকর্ণ,বুড়িশ্বর,ফান্দাউক,ধরমন্ডল,চাপরতলা,পূর্বভাগ,গুনিয়াউক হরিপুর ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন স্থানে ঈদ উপহার হিসেবে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরন করা হয়েছে।


এই সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া গোয়ালনগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোঃ কিরণ মিয়া,সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ মোঃ আব্দুল আহাদ, কৃষক লীগ নাসিরনগর উপজেলা শাখার সদস্য  সচিব এস এম নূরে আলম,গোকর্ন ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি এডঃ মিজানুল হক, দৈনিক সময়ের কাগজ প্রতিনিধি নিহারেন্দু চক্রবর্তী, কৃষকলীগ নেতা বাচ্চু তালুকদার,এনায়েত হোসেন, গোলাম মোহাম্মদ তারেক, পারভেজ মোশাররফ,মনির হোসেন,আনোয়ার হোসাইন,সাদ্দাম হোসেন,এস কে সুমন,শেখ সাদী সহ আরো অনেকে।  এ সময় আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া ও রোমা আক্তার নাসিরনগরের সর্বস্তরের জনগণের সাথে গণসংযোগ ও ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।



আরও খবর



হেলমেটধারীদের গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছে ডিবি

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৫৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষকালে হেলমেট পরে সংঘর্ষে লিপ্ত হওয়া সবাই সন্ত্রাসী। তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। এসব হেলমেটধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একাধিক টিম অভিযান চালাচ্ছে।


বুধবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (দক্ষিণ) পুলিশের যুগ্ম-কমিশনার মাহবুব আলম।


সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নিউমার্কেটের সংঘর্ষের ঘটনায় দুজন তরুণ নিহত হয়। এ ঘটনায় পৃথখ দুটি মামলা গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তাধীন। একটি নাহিদ হত্যায় এবং অপর মামলাটি হয়েছে মোরসালিন হত্যার ঘটনায়।


গোয়েন্দা পুলিশের এ কর্মকর্তা আরও জানান, নাহিদ হত্যাকাণ্ডের যে ফুটেজ রয়েছে সেই ফুটেজের চুলচেরা বিশ্লেষণ করে জড়িতদের চিহ্নিত করা হচ্ছে। চিহ্নিতকরণের কাজটি অনেক দূর এগিয়েছে।


তিনি বলেন, ঢাকা কলেজের হোস্টেল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেকেই বাড়ি চলে গেছে অথবা আত্মগোপনে আছে। তবে ডিবির একাধিক টিম তাদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে। শিগগির এ বিষয়ে ভালো ফল জানানো হবে।



ডেলিভারিম্যান নাহিদের নিহতের ঘটনায় বাবা মো. নাদিম হোসেন বাদী হয়ে নিউমার্কেট থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মুরসালিনের ভাই বাদী হয়ে আরো একটি হত্যা মামলা করেছেন।


এদিকে এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করে। একটি মামলা বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে এবং অন্যটি পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে। দুই মামলাতে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী-কর্মচারী ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীসহ মোট ১২০০ জনকে আসামি করা হয়।


আরও খবর



গাড়ি চালক হুমায়ুন কবিরের গানের প্রতিভা

প্রকাশিত:Friday ২০ May ২০22 | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৫৬জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই নানা ভিডিও ভাইরাল হয়। কখনও নাচ, গান, কখনও বা পশু পাখির ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। বহু মানুষের সুপ্ত প্রতিভাও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রতিভার যোগ্য সম্মানও পেয়েছেন অনেকেই। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতেই রাতারাতি ভাইরাল হয়ে গেছেন অনেকেই।



ফের এক প্রতিভা প্রকাশ পেয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তিনি পেশায় একজন গাড়ি চালক।পেশায় একজন গাড়ি চালক হয়েও গান লিখেছেন ৫০ টির মতো।তার নাম হুমায়ুন কবির একাধারে কণ্ঠশিল্পী, গীতিকার, সুরকার। দিন নেই রাত নেই, ডাক আসলেই ছুটতে হয় তাঁকে। মানুষকে সঠিক গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়াই তাঁর কাজ। এর জন্য দিন রাত এক করে খাটতে হয় তাঁকে। তবেই জোটে পেটের ভাত। 



কিন্তু এসব খাটনি দমাতে পারেনি তাঁর গানের সত্ত্বাকে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ইউটিউবে এইচ কে মিউজিক নামক চ্যানেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে তার গাওয়া গান মুক্তি পেয়েছে।


তার শৈশব কেটেছে বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালীতে।তিনি পেশায় একজন গাড়ি চালক হলেও তার প্রতিভা অসাধারন।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে  নিয়ে গান লিখেছেন।বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান কে নিয়ে গান লিখেছেন।সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা কে নিয়েও তিনি গান লিখেছেন।সরকারের উন্নয়ন,শেখহাসিনাকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান বানিয়ে নিজেই তাতে কন্ঠ দেন।তার গাওয়া গান সোশ্যাল মিডিয়ার কল্যানে ইউটিউবে প্রচারিত হচ্ছে।অনেকেই তাকে নিয়ে প্রশংসা করেছে।



গন মানুষের কাছে তিনি আজ সমাদৃত একজন শিল্পী।গীতিকার হুমায়ুন কবির প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চান।তিনি বলেন নিজের ব্যাক্তিগত তাগিদেই তিনি গান লিখেন নিজের গানে নিজেই সুর করেন নিজেইতাতে কন্ঠ দেন।পেশা যাই হোক না কেন, তার গানে জাদু আছে যা সহজেই শ্রোতাদের মনকে আকৃষ্ট করতেপারে।



তিনিজানান,"আমাদের বাংলাদেশের মানুষের মুক্তির জন্য কাজ করতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুকে প্রান দিতে হয়েছে, তার কন্যা বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য কাজ করছেন,দেশে আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমুল উন্নয়ন সাধিত হয়েছে এসব কিছু আমাকে ভাবায়,আমি সরকারের উন্নয়ন নিয়ে গানের মাধ্যমে তা মানুষ কে জানান দেই,বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান করি"। গানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে মানুষের অন্তরে চিরদিন জাগ্রত করে রাখতে আমি গান করি।



হুমায়ুন কবির এর গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার পোনাপুরা গ্রামে।বর্তমানে স্ব-স্ত্রীক বসবাস করেন রাজধানী ঢাকার যাত্রাবাড়ি থানা মাতুয়াইল আদর্শবাগ এলাকায়।ব্যাক্তি জীবনে তিনি চার কন্যা সন্তানের জনক।



গানটির লিংক দেয়া হলো https://www.youtube.com/watch?v=t2Qy3p7I-ko&ab_channel=HKMusic শুনে কমেন্ট ও শেয়ার করুন


আরও খবর



ফেরিতে জুয়ার আসর বসানোর দায়ে চার জুয়ারী আটক

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
Image

এ আর হনিফঃ

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌপথে চলাচলরত ফেরিগুলোতে জুয়ারীদের উপদ্রব বেড়েছে।



 এসব জুয়াড়িরা ফেরিতে জুয়া খেলার আয়োজন করে নিঃস্ব করছে যাত্রী ও চালকদের। 


শুক্রবার (২০ মে) দিবাগত রাতে দৌলতদিয়ার ৫নং ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া রো রো ফেরি কেরামত আলী মাঝ নদীতে পৌঁছালে যাত্রী বেশে থাকা নৌ-পুলিশ চার জুয়াড়িকে গ্রেফতার করে।


তারা হলেন- গোয়ালন্দ উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া সিদ্দিক কাজীপাড়া এলাকার মৃত মোবারক মোল্লার ছেলে বরকত মোল্লা (৪২), উত্তর দৌলতদিয়া ঢল্লাপাড়া এলাকার মৃত নবু খাঁর ছেলে নুরু খাঁ (৫৩), বাহিরচর দৌলতদিয়া শাহাদৎ মেম্বারপাড়া এলাকার অকেল মোল্লার ছেলে উসমান মোল্লা (৫৪) ও একই গ্রামের মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে সাগর হোসেন (৩৭)।


গ্রেফতার জুয়াড়িদের দেওয়া ভাষ্যমতে একই গ্রামের মৃত মোহন সিকদারের ছেলে রেজাউল সিকদারও (৩০) ফেরিটিতে ছিলেন। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আগেই পালিয়ে যান।


 এ সময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে তাস, কুপি বাতি, জুয়া খেলার একটি বোর্ড ও নগদ টাকা জব্দ করে। তাদেরকে আজ দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজিজুল হক খান।


পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তারা দীর্ঘদিন ধরে নেশা ও জুয়ার সঙ্গে জড়িত। এর মধ্যে উসমান মোল্লা ফেরিতে জুয়া খেলার সময় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছিলেন। কারাগার থেকে গত বৃহস্পতিবার বের হয়ে আবার ফেরিতে জুয়া খেলা শুরু করেন।


ঘাট সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রায় রাতে ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া ফেরি মাঝ নদীতে পৌঁছলে ইঞ্জিন চালিত নৌকা থেকে তারা ফেরিতে উঠে পড়ে। 


ফেরির এক কোনায় কুপি বাতি জ্বালিয়ে প্রথমে নিজেরা ৪-৫ জন বসে তাস নিয়ে খেলা শুরু করে। এ সময় যাত্রী বা গাড়ি চালক খেলায় আগ্রহ দেখালে সংঘবদ্ধ সদস্যরা টাকা পয়সা, মূল্যবান জিনিসপত্র কেড়ে নেয়। কেউ এগিয়ে গেলে ধারালো ছুরি বা চাকু দিয়ে আঘাত করে দ্রুত নৌকা নিয়ে সটকে পড়ে।


দৌলতদিয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক সৈয়দ জাকির হোসেন বলেন, ‘শুক্রবার রাত পৌনে ১২টার দিকে দৌলতদিয়ার ৫নং ঘাট থেকে ছাড়া কেরামত আলী রো রো ফেরিতে জুয়াড়ি চক্রের সদস্যরা উঠছে সংবাদ পেয়ে যাত্রী বেশে কয়েকজন পুলিশ আগে থেকে অবস্থান নেয়। ফেরিটি কিছু দূর যেতেই কুপি বাতি জালিয়ে জুয়া খেলা শুরু করলে হাতেনাতে চার জনকে আটক করি।’


তিনি আরও বলেন, ‘এরা নেশার সঙ্গে জড়িত থাকায় টাকা জোগাড় করতে এ ধরনের কাজে জড়িয়ে পড়ে। এ ক্ষেত্রে প্রতিটি ফেরিতে পুলিশ দেওয়া সম্ভব হয় না। যে ফেরিতে পুলিশ থাকে না নিশ্চিত হওয়ার পর ওই ফেরিতেই জুয়ার আসর বসায়। এ ছাড়া যে ফেরিতে তারা জুয়ার আসর বসায়, সেই ফেরিতে থাকা ডিম বিক্রেতা, ঝাল মুড়ি বিক্রেতাসহ বিভিন্ন হকাররা জুয়াড়িদের গোপনে খবর আদান প্রদান করে। বিনিময়ে জুয়াড়িরা হকারদের কিছু টাকা দেয়।’



আরও খবর