Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার বর ও কনের বাড়ীতে শোকের মাতম রাশিয়ায় বন্দুকধারীদের ভয়াবহ হামলায় ১৫ পুলিশ সদস্য নিহত

নাসিরনগরে প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৪০জন দেখেছেন

Image

মোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া:- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরে শিউলি আক্তার নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। তাঁর নাক মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। পরিবারের দাবি, তাঁকে হত্যা করা হয়েছে। 


২৪ শে মে রোজ শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলা সদর ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়ায় নিজ ঘর থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয। তিনি দুবাই প্রবাসী আব্দুর রহমানের স্ত্রী। 


১৮ বছর আগে সদর ইউনিয়নের আব্দুর রহমানের সঙ্গে বিয়ে হয় শিউলির। স্বামী প্রবাসে থাকায় সন্তান নিয়ে ওই বাড়িতে থাকতেন শিউলী। ঘটনার আগের দিন একমাত্র মেয়ে চাঁদনী পাশের ইউনিয়ন পূর্বভাগে নানার বাড়ি যায়। সকালে স্বজনদের মাধ্যমে সে জানতে পারে মায়ের নিথর দেহ ঘরের মেঝেতে পড়ে আছে। চাঁদনীর অভিযোগ তার মাকে হত্যা করা হয়েছে।


প্রতিবেশীরা জানান,সকাল ১০ঘটিকার সময় একজন দুধ দিতে আসেন। বাড়ির প্রধান ফটক বন্ধ থাকায় তিনি আমাকে ডেকে আনেন। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় দরজা খুলে ভেতরে গিয়ে দেখি মরদেহ পড়ে রয়েছে।তাঁর মুখ ও নাক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল।’


শিউলির ভাই লোকমান মিয়া বলেন, বোনের শরীরে রক্তের দাগ। নাক মুখ দিয়েও রক্ত বের হচ্ছিল। যে বিছানায় ঘুমিয়েছিল সেই বিছানা  বালিশেও রক্তের দাগ রয়েছে।সে বলে তার বোনকে কেউ হত্যা করেছে। আমরা এ হত্যার বিচার চাই।


 ইউপি সদস্য মো. আজদু মিয়া জানান, আগের রাত ২টার দিকে স্থানীয়রা কয়েকজনকে ওই বাড়িতে আসা-যাওয়া করতে দেখেছে। তবে ঘরের মালপত্র, নগদ টাকা বা স্বর্ণালংকার নেওয়ার ঘটনা ঘটেনি। প্রকৃত ঘটনা কী তদন্ত ছাড়া বলা সম্ভব না।


নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ  (ওসি)মোঃ সোহাগ রানা জানান, লাশের নাক-মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। তাঁকে হত্যা করা হয়েছে কিনা তা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর বলা যাবে।

    -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



নিটার কম্পিউটার ক্লাবের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ৮৬জন দেখেছেন

Image

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি,নিটার:সাভারের নয়ারহাটে অবস্থিত ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড রিসার্চ  (নিটার) এ গত ৪মে, ২০২৪ ইং রোজ মঙ্গলবার দুপুর ১:৩০ ঘটিকায় নিটারের কনফারেন্স রুমে নিটার কম্পিউটার ক্লাব (এনসিসি) এর নতুন সদস্যদের জন্য ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়।

আয়োজিত এই ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক ড. মোহাম্মদ জুনাইবুর রশীদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ডিপার্টমেন্ট অব কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) এর লেকচারার মোহাম্মদ সাইদুজ্জামান, অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর জনাব আনিসুর রহমান, লেকচারার শাকিলা শফিক, অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর সাদিয়া সাজ্জাদ, লেকচারার জারিন তাসনিম তামান্না সহ আরো অনেকে। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন ডিপার্টমেন্ট অফ্ কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মাহফুজুর রহমান মেজবাহ্ ও তাহমিনা খুরশেদ রিমঝিম।

ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামের শুরুতে নিটার কম্পিউটার ক্লাব সম্পর্কে একে একে বিস্তারিত আলোচনার করেন ক্লাবটির বর্তমান সদস্যরা। পরবর্তীতে নিটার কম্পিউটার ক্লাবের (এনসিসি) এর বিভিন্ন টিম ও সেগমেন্ট সম্পর্কে নবীনদের অবগত করা হয়। এরমধ্যে রয়েছে কম্পিটিটিভ প্রোগ্রামিং টিম, হ্যাকিং টিম, গেমিং টিম, রোবটিক্স, গ্রাফিক্স ডিজাইন ইত্যাদি। নবীনদের মধ্যে বিষয়গুলো নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ ও উদ্দীপনা দেখা যায়। পরবর্তীতে  অনুষ্ঠিত হয় পুরস্কার বিতরণী পর্ব। পূর্বে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন সেগমেন্ট যেমন: লোগো ডিজাইন, ডিগ দ্যা ডাটা ২.০, প্রোগ্রামিং এ অংশগ্রহণকারীদের পুরস্কৃত করা হয়।

প্রোগ্রামের মাঝে অনুষ্ঠিত হয় "সারপ্রাইজ কুইজ" প্রতিযোগিতা। এক এক করে কুইজে অংশ নিয়ে পুরস্কৃত হয় শিক্ষার্থীরা এবং র‍্যাফেল ড্র এর মাধ্যমেও শিক্ষাথীরা পুরষ্কার লাভ করে। দারুন এক প্রতিযোগীতা মুখর পরিবেশের মাধ্য দিয়র অনুষ্ঠিত হয় ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামটি।

সবশেষে, প্রধান অতিথি প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক ড. মোহাম্মদ জুনাইবুর রশীদ সকল পুরষ্কার প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সাথে একই ফ্রেমে ক্যামেরা বন্দী করে দিনটি স্মরনীয় করে রাখেন এবং  ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে আগত সকল নবীনদের ক্লাবে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানানোর মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয় ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামটি।


আরও খবর



সড়কের শৃঙ্খলা আনয়নে সাঁড়াশি অভিযান ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৬১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃসাম্প্রতিক কালের ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের বিভিন্ন রাস্তাঘাট খোড়াখুড়ি, প্রতিকুল আবহাওয়া এবং জলাবদ্ধতার কারণে যানজটকে সহনীয় মাত্রায় রাখতে কাজ করে যাচ্ছে টিম ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ। ইংরেজি ২৯-৫-২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের ডিসি মোহাম্মদ আশরাফ ইমামের নেতৃত্বে এডিসি (ট্রাফিক- ওয়ারী) সুলতানা ইশরাত জাহানের তত্ত্বাবধানে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে প্রচারণামূলক কর্মসূচি ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের যানবাহনে বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান পরিচালিত হয়।

সড়কের শৃঙ্খলা আনয়নের ক্ষেত্রে প্রচারের নিমিত্তে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ কর্তৃক ওয়ারী জোন, যাত্রাবাড়ী জোন এবং ডেমরা জোনের মোট ৪০টি জ্বালানী পাম্পে "নো হেলমেট, নো ফুয়েল" এর স্টিকার লাগানো হয়। অতঃপর, ফারুক স্মরনীর মুখে লুকিং গ্লাস না থাকার জন্য চারটি বাহাদুরশাহ্ গাড়ি আটক করা হয়। একইভাবে যাত্রাবাড়ী মোড়ে ফিটনেসবিহীন তিনটি লেগুনাকে আটক করা হয়। যাত্রাবাড়ী মোড়ের ফলপট্টি হিসেবে পরিচিত রাস্তার উপরের কাঠের চৌকি সম্মিলিত সমস্ত দোকান উচ্ছেদ করা হয়। অভিযানের ধারাবাহিকতায় কুতুবখালী ইনকামিং ফ্লাইওভারের পকেট গেট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়। উল্লেখ্য, ফ্লাইওভারের এই অংশটুকুর দেয়াল ভাঙ্গা থাকার কারণে সকল লোকাল বাসের যাত্রী ফ্লাইওভারে ওঠার আগে এবং ফ্লাইওভার থেকে নেমে উক্ত স্থান দিয়ে পায়ে হাঁটা সড়কে প্রবেশ করেন। ফ্লাইওভারের উপরে গাড়িগুলো যখন যাত্রী উঠানামা করায়, তখন পিছনে যানজট (ব্যাক ট্রেইল) রায়েরবাগ পর্যন্ত পৌঁছে যায়। 

সমগ্র দিনে এসি (ট্রাফিক-ওয়ারী) কপিল দেব গাইন, এসি (ট্রাফিক- যাত্রাবাড়ী) তানজিল আহমেদ এবং এসি (ট্রাফিক-ডেমরা) মুস্তাইন বিল্লাহ ফেরদৌস এর টিম সমগ্র ওয়ারী এলাকায় বিভিন্ন অভিযান চালিয়ে মামলা রেকার এবং যানবাহন আটকসহ মোট ২৮৩ টি যানবাহনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। এরমধ্যে ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকার জন্য আটটি যানবাহনের বিরুদ্ধে, ফিটনেস না থাকার জন্য ১১ টি যানবাহনের বিরুদ্ধে এবং রাস্তার প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির জন্য ৩০ টি যানবাহনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। 

ডিসি ট্রাফিক ওয়ারী মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম জানান, ইতিপূর্বে আমরা ট্রাফিক ওয়ারী ডিভিশনের সকল লেগুনা গাড়ির ৮৮৪টি লুকিং গ্লাস লাগাতে বাধ্য করেছি। বাহাদুর শাহ গাড়িকে লুকিং গ্লাস লাগানোর জন্য তিন দিন সময় দেয়া হয়েছিল। ফিটনেস এবং লুকিং গ্লাস না থাকার কারণে চারটি বাহাদুরশাহ্ গাড়ি আটক করা হয়েছে। এখন বাহাদুর শাহ এবং সমস্ত লেগুনাকারীকে বৈধ লাইসেন্স নিয়ে গাড়ি চালানোর জন্য নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দেয়া হয়েছে। এভাবে আস্তে আস্তে প্রতিটি ফিটনেসবিহীন এবং চলাচলের অনুপযোগী গাড়ির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বিভাগ।


আরও খবর



বাংলাদেশিদের চাকরি নিশ্চিত হয়ে ভিসা দেবে আমিরাত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গণভবনে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) রাষ্ট্রদূত আবদুল্লাহ আলি আবদুল্লাহ খাসাইফ আল হামুদি।

সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব নাঈমুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে তারা যেসব মানুষ (বাংলাদেশি) নেবে, তারা নিশ্চিত করে নেবে যে তাদের জন্য চাকরি অপেক্ষা করছে। মানে এমনভাবে নেবে না যে লোক নিয়েছে কিন্তু কাজ নেই বা চাকরি নেই।

প্রেস সচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং আমিরাতের রাষ্ট্রদূত উভয়ই জোর দিয়েছেন যে অবৈধ ইমিগ্রেশন যাতে না হয়। উভয় পক্ষই এ ব্যাপারে আরও সতর্ক হওয়ার বিষয়ে একমত।

প্রতিমাসে বাংলাদেশ থেকে প্রায় ২০ হাজার মানুষ সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাচ্ছে জানিয়ে দেশটির রাষ্ট্রদূত জানান, প্রতিদিন সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রায় এক হাজার ভিসা ইস্যু করছে। যার মধ্যে সরাসরি ৫০০ এবং এজেন্টের মাধ্যমে ৫০০ ভিসা ইস্যু করা হচ্ছে।

শিগগির সংযুক্ত আরব আমিরাতের কয়েকজন মন্ত্রী বাংলাদেশ সফর করবেন জানিয়ে দেশটির রাষ্ট্রদূত বলেন, তারা (মন্ত্রীরা) বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক আরও গভীর ও বিস্তৃত করতে নতুন নতুন ক্ষেত্র অনুসন্ধান করবেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, এরই মধ্যে দুই দেশের মধ্যে খুবই বিস্তৃত এবং গভীর সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু আমরা এই সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিতে চাই, নতুন উচ্চতায় নিতে চাই।

এসময় সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তার দেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। তিনি জানান, সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান এবং প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। এসময় সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত জানান, তার দেশের যেসব মন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে আসবেন তারা এ বিষয়ে আলোচনা করবেন।

কনটেইনার টার্মিনালসহ বাংলাদেশে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিনিয়োগ ত্বরান্বিত করতে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান আবদুল্লাহ আলি আবদুল্লাহ খাসাইফ আল হামুদি। এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, সরকার সব সেক্টরে সবকিছু বাস্তবায়নের গতি ত্বরান্বিত করছে। গতি ত্বরান্বিত করতে আমরা সবকিছু করছি।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত জানান, তার দেশের একটি কোম্পানি বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশনকে ‘অ্যাডভান্স প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেম (এপিআইএস)’ সরবরাহের জন্য অপেক্ষা করছে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব বলেন, এ বিষয়টি এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কার্যালয়ের সচিব মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিনকে দায়িত্ব দেন।


আরও খবর



এনআইডি নিয়ে হয়রানি বন্ধের নির্দেশ সিইসির

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সেবা নিতে গিয়ে নাগরিকরা যেন কোনো হয়রানির শিকার না হন এবং তাদের সঙ্গে যেন দুর্ব্যবহার করা না হয় কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।সোমবার (১০ জুন) নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে (ইটিআই) আয়োজিত এনআইডি সংশোধনসংক্রান্ত এক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ নির্দেশনা দেন তিনি।

ইসি সচিবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটিতে ইটিআই মহাপরিচালকসহ অন্য কর্মকর্তা ও প্রশিক্ষণার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিইসি বলেন, জাতীয় পর্যায়ে এনআইডির গুরুত্ব এখন অপরিসীম। আমাদের ভোটার তালিকাও এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ডিজিটালাইজড হয়ে গেছে। এনআইডি এখনও শতভাগ সেটেলড ডাউন হয়েছে, এটা আমার কাছে মনে হয় না। অনেকে অভিযোগ করেন যে, পরিবর্তন বা সংশোধন করতে হবে। সংশোধনের কিছু কিছু ক্ষেত্রে যারা আবেদনকারী তাদের কারণে ভুল হয়ে থাকে। আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে তথ্যগুলো আমি যখন লিখছি, তখন সঠিকভাবে লিখছি না। কিছু সংকট আমাদের রয়েছে।

তিনি বলেন, এনআইডি ব্যবস্থাপনা অনেক জটিল। আমি সেটা বুঝি না। তবে জনগণ এলে তাকে সেবা দিতে যেন দেরি না হয়। আমি সরকারি কর্মচারী। যেন হয়রানি না করি, দুর্ব্যবহার না করি, সেটা নিশ্চিত রাখতে হবে। বিয়ের পরে অনেকের স্বামীর নাম পরিবর্তন করতে হয়। কোনো কোনো দেশে এটা অপরিহার্য হিসেবে প্রয়োজন হয়। তাই স্বামীর নামটা অরিজিনালি থাকা উচিত। তাহলে বিড়ম্বনা হবে না।

সিইসি আরও বলেন, আমি জানি স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন হয় না। তবে অস্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন হয়। আমার হয়তো অস্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন হয় না, কিন্তু ঘন ঘন অস্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন করতে হয়, তাহলে কী এনআইডি সংশোধন করতে পারব, সে দিকটাও দেখতে হবে। প্রায়ই শুনি এ ওর নাম নিয়ে ভিন্ন পরিচয় ধারণ করে এনআইডি নিয়েছে৷ বিভিন্ন অপরাধে সম্পৃক্ত হচ্ছে। অনেকে বাবার নাম পরিবর্তন করে চাচার নাম নিয়ে সহায় সম্পত্তি দখল করে ফেলছে। গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করে কোনো একটি উপায় বের করতে হবে, যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে। কেউ যদি ১০টা দেশের নাগরিক হন এবং বাংলাদেশেরও নাগরিক হন তাহলে তিনি এনআইডি পাবেন৷ দ্বৈত নাগরিকত্বের অজুহাতে কাউকে এনআইডি দেওয়া থেকে বাদ রাখা যাবে না। যদি কোনো ব্যক্তি কোনোভাবে বাংলাদেশের নাগরিক হন, সনদের প্রয়োজন নেই; তাকে এনআইডি দিতে হবে।



আরও খবর



শৃংখলা ফিরছে সড়কে পাল্টে গেছে যাত্রাবাড়ীর চিত্র

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৪১১জন দেখেছেন

Image

শফিক আহমেদ চৌধুরীঃরাজধানীর যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তার যানজটের চিত্র পাল্টে দিয়েছেন ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ। গত দুই মাসের ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সার্বিক প্রচেষ্টায় সড়কে ফিরে এসেছে শৃংখলা৷ ফুটপাথ উচ্ছেদ,রাস্তা দখল করে বাজার, শহীদ ফারুক সড়কের দুইপাশে হকার, মোড়ে ফলপট্টি এখন আর কোন কিছুই নাই৷ এর ফলে যাত্রাবাড়ীর চিরচেনা যানজট যেখানে ঘন্টার পর ঘন্টা জ্যামে বসে থাকতে সেখানে অনায়াসেই রাজধানীতে ঢুকছে প্রায় ৪৮ জেলার বাস।

গত মে মাসের প্রথম দিকে ডিএমপি পুলিশ কমিশনার হাবিবুর রহমান যাত্রা্বাড়ীর সড়ক ফুটপাথ পরিদর্শন করে তিনি বলেছিলেন, ফুটপাথ থাকবে উন্মূক্ত, রাস্তায় কোন বাজার হাট বসবে না৷ পুলিশ কমিশনারের এমন নির্দেশানর পর যাত্রাবাড়ী, জুরাইন,ষ্টাফ কোয়ার্টার দয়াগঞ্জ মোড় সহ ওয়ারী বিভাগের সড়কে শৃংখলা ফিরিয়ে আনতে ট্রাফিক ডিসি আশরাফ ইমাম, এসি যাত্রাবাড়ী, এসি ডেমরা সহ সকল ট্রাফিক ইন্সপেক্টর গন মাঠে কাজ শুরু করেন।

এই বিষয়ে ওয়ারী বিভাগের ট্রাফিক ডিসি বলেন, আমি গত দুই মাসে আমার ষ্টাফদের নিয়ে মাঠে কাজ করে সড়কে শৃখলা ফিরিয়ে এনেছি এবং এটা ধরে রাখতে যা যা করনীয় সকল পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।তিনি আরো বলেন, ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ সব সময় জনগনের সেবায় পাশে থাকবে।তীব্র তাপদাহে খাবার স্যালাইন ও খাবার পানি বিতরন। বিশ্ব মা দিবসে দু:স্থ মাদের মধ্যে খাবার বিতরন করা হয়৷

     -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর