Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা
সরকার প্রকৃত দানশীলও ধনাট্য ব্যাক্তিদের কাছ থেকে জায়গা নেয়ার সিদ্বান্ত গ্রহন করেছে

নাসিরনগরে জায়গা দানকারীদের নামে কমিউনিটি ক্লিনিক হচ্ছে

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৫৯জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ-

সরকার স্বাস্থ্যসেবার মান সাধারণ মানুষের দুরগোড়ায় পৌছে দিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নের যে সমস্ত ইউনিয়নে কমিউনিটি ক্লিনিক সংকট রয়েছে সে সমস্ত ইউনিয়নে পুনরায় কমিউনিটি ক্লিনিক চালুর সিদ্বান্ত নিয়েছে সরকার।


উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নে ৩৯ টি ক্লিনিক থাকার কথা থাকলেও ২২ টি ক্লিনিক চলমান রয়েছে।বাকী আরো নতুন ১৭ টি কমিউনিটি ক্লিনিক চালুর সিদ্বান্ত নিয়েছে সরকার।সেই হিসেবে কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মানে সরকার এবার নতুন পদ্বতি অবলম্বন করতে চলেছে।


সরকার প্রকৃত দানশীলও ধনাট্য ব্যাক্তিদের কাছ থেকে জায়গা নেয়ার সিদ্বান্ত গ্রহন করেছে।রাস্তার পাশে ও সহজে  যানবাহন  যাতায়াতের সুবিধা রয়েছে এমন জায়গা থেকে যদি কোন দয়ালু,ধনাট্য ও দানশীল ব্যাক্তি কমিউনিটি ক্লিনিকের জন্য মাত্র( ৮) আট  শতাংশ জায়গা দান করেন তাহলে ওই দানশীল ব্যাক্তির নামে কমিউনিটি ক্লিনিকটির নামকরন করা হবে এবং যাহা সারা জীবণ তার নামেই চলবে বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় সুত্রে জানানো হয়েছে।


নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার অফিস সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে।আরো বিস্তারিত তথ্য জানতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অভিজিৎ রায়ের সাথে যোগাযোগ করার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।


আরও খবর



নিউমার্কেটে সংঘর্ষ: তিন মামলার প্রতিবেদন ১৮ জুলাই

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১০৪জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনায় করা পৃথক তিন মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল পিছিয়ে আগামী ১৮ জুলাই দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (৭ জুন) তিন মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেনি। এজন্য ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বেগম শ্রভ্রা চক্রবর্তী প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন দিন ধার্য করেন।

মামলাগুলো হলো- কুরিয়ারকর্মী নাহিদ হত্যা মামলা, পুলিশের ওপর হামলা মামলা এবং বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের মামলা। তাদের মধ্যে নিহত নাহিদের বাবা মো. নাদিম হোসেন বাদী হয়ে নিউমার্কেট থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় অজ্ঞাতদের আসামি করা হয়।

এছাড়া পুলিশ বাদী হয়ে বিস্ফোরক আইনে এবং পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে পৃথক দুটি মামলা করেন। দুই মামলাতে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী, কর্মচারী ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীসহ ১২০০ জনকে আসামি করা হয়।

এ মামলায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে ২৪ জন এজাহারনামীয়সহ ব্যবসায়ী-কর্মচারী অজ্ঞাতনামা ৩০০ জন। এছাড়া একই মামলায় অজ্ঞাতনামা হিসেবে ঢাকা কলেজের ৭০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে করা আরেকটি মামলায় অজ্ঞাতনামা দেড়শ থেকে দুইশ জনকে আসামি করা হয়।

গত ১৭ এপ্রিল দিনগত রাত ১২টার দিকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীদের সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা চলে এ সংঘর্ষ। এরপর রাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও পরিদন সকাল ১০টার পর থেকে ফের দফায় দফায় সংঘর্ষ শুরু হয়, যা চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত।


আরও খবর



খেলোয়াড়দের খুব বেশি দোষ দেওয়া ঠিক হবে না: সাকিব

প্রকাশিত:Tuesday ২৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

প্রায়ই বলা হয়, বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের টেস্টের প্রতি মনোযোগ নেই। বেশিরভাগ খেলোয়াড়ই ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে বেশি জোর দেন- এমন অভিযোগ শোনা যায় হরহামেশা। এই অভিযোগ পুরোপুরি উড়িয়ে দেননি বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

তবে তিনি ব্যাট ধরেছেন খেলোয়াড়দের পক্ষে। তার মতে, টেস্টে আগ্রহ না থাকা বা কম থাকার দায় শুধুমাত্র খেলোয়াড়দের একার নয়। বরং এ প্রসঙ্গে পাল্টা প্রশ্নে তিনি জিজ্ঞেস করেছেন, বাংলাদেশে টেস্ট ক্রিকেট মূলত দেখেন কতজন মানুষ?

সেইন্ট লুসিয়া টেস্টে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারের পর সংবাদ সম্মেলনে সাকিব কথা বলেছেন দেশের টেস্ট সংস্কৃতি নিয়েও। তার মতে, দেশের ক্রিকেট সিস্টেমেই টেস্ট ফরম্যাটটা অতটা আলোচিত নয়। যে কারণে টেস্টে বেশিরভাগ সময়ই ফাঁকা থাকে পুরো গ্যালারি।

তার ভাষ্য, ‘এখানে খেলোয়াড়দের খুব বেশি দোষ দেওয়া ঠিক হবে না। শুধু খেলোয়াড়দের দোষ দিলে হবে না। আমাদের দেশের সিস্টেমটাই এমন। আপনি কবে দেখছেন বাংলাদেশে ৩০ হাজার দর্শক টেস্ট ম্যাচ দেখছে বা ২৫ হাজার দর্শক মাঠে এসেছে টেস্ট দেখতে?’

সদ্য সমাপ্ত ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজের প্রতিটি ম্যাচেই দেখা গেছে ভরা গ্যালারি। সেই উদাহরণ টেনে সাকিব আরও বলেন, ‘ইংল্যান্ডে তো প্রতি ম্যাচে (টেস্ট) এরকম দর্শক থাকে। টেস্টের সংস্কৃতিটাই আমাদের দেশে ছিল না কখনো, এখনো নেই।’

এখন নেই দেখে যে কখনও হবে না তা বলছেন না সাকিব, ‘টেস্ট সংস্কৃতি নেই বলে যে হবে না, সেটা কিন্তু নয়। এই জিনিসটা পরিবর্তন করাই আমাদের বড় দায়িত্ব। সবাই মিলে যদি পরিকল্পনা করে আগানো যায়, হয়তো কিছু সম্ভব হবে। নইলে আসলে খুব বেশি দূর আগানো সম্ভব হবে না। কারণ আমাদের টেস্টের সংস্কৃতিই নেই।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমরা যে টেস্ট ক্রিকেটকে খুব বেশি মূল্যায়ন করি, তা নয়। হ্যাঁ, হতে পারে আমরা ফলাফল ভালো করিনি, এ কারণে মূল্যায়নও হয়নি। তবে একটার সঙ্গে আরেকটার সম্পর্ক আছে। একটার সঙ্গে আরেকটাকে সম্পৃক্ত করতে হবে। তাহলেই ভালো কিছু সম্ভব।’


আরও খবর



সুনামগঞ্জে ফের বন্যা, পানিবন্দি ১০ হাজার মানুষ

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

টানা বৃষ্টিপাত ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জে দ্বিতীয় দফায় বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

বুধবার (১৫ জুন) সকালে সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড।

এরইমধ্যে প্লাবিত হয়েছে সুনামগঞ্জ সদর, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর, দোয়ারা বাজারসহ চারটি উপজেলার নিম্নাঞ্চল। পানিবন্দি হয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন ১০ হাজার মানুষ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, টানা বৃষ্টিপাতে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন সুনামগঞ্জ সদর, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর ও দোয়ারা বাজারসহ ৪ উপজেলার মানুষ। ঘরের ভেতরে পানি উঠে যাওয়ায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। অনেকে আবার টিনের বড় ড্রামগুলোকে নৌকা হিসেবে ব্যবহার করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন।

flood1

এদিকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের সাহেব বাড়ি ঘাট, উত্তর আরপিন নগর, পুরান পাড়া, বড়পাড়া এলাকার রাস্তাঘাট বানের পানিতে ডুবে যাওয়ায় যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে। বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর ও দোয়ারাবাজার উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক বানের পানিতে ডুবে গেছে।

পানিবন্দি মানুষ জানান, ঢলের পানি ঘরের ভেতরে থাকায় রান্না করার সুযোগও নেই। চুলাও পানির নিচে তলিয়ে গেছে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, সুনামগঞ্জে দ্বিতীয় দফা বন্যা সৃষ্টি হয়েছে। সেজন্য জেলার ১২টি উপজেলায় ইতোমধ্যে ২০ মেট্রিক টন করে খাদ্য সামগ্রী বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



রিজিক বাড়াতে কোরআনের আমল কী?

প্রকাশিত:Monday ১৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

আল্লাহ তাআলা কোরআনুল কারিমে ইসতেগফার করার দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। ইসতেগফারের বিনিময়ে প্রাপ্তি কী, তা-ও বিশদভাবে বর্ণনা করেছেন। তন্মধ্যে রিজিক বাড়ার বিষয়টিও সুস্পষ্টভাবে ওঠে এসেছে। রিজিক বাড়াতে আল্লাহ তাআলার এ নির্দেশ কী?

আল্লাহ তাআলা সুরা নুহ-এ তার অনুগত বান্দাদের এ মর্মে দিকনির্দেশনা দিয়েছেন যে, তোমরা ইসতেগফার কর। ইসতেগফারে কী কী নেয়ামত পাওয়া যাবে, তা-ও তুলে ধরেছেন এ সুরায়। আল্লাহ তাআলা বলেন-

فَقُلۡتُ اسۡتَغۡفِرُوۡا رَبَّکُمۡ ؕ اِنَّهٗ کَانَ غَفَّارًا -  یُّرۡسِلِ السَّمَآءَ عَلَیۡکُمۡ مِّدۡرَارًا - وَّ یُمۡدِدۡکُمۡ بِاَمۡوَالٍ وَّ بَنِیۡنَ وَ یَجۡعَلۡ لَّکُمۡ جَنّٰتٍ وَّ یَجۡعَلۡ لَّکُمۡ اَنۡهٰرًا

‘এরপর বলেছি, তোমরা তোমাদের প্রতিপালকের কাছে ইসতেগফার বা ক্ষমা প্রার্থনা করো। নিশ্চয়ই তিনি অত্যন্ত ক্ষমাশীল। তিনি তোমাদের জন্য প্রচুর বৃষ্টিপাত করবেন এবং তিনি তোমাদেরকে ধন-সম্পদ সন্তান-সন্ততি দ্বারা সমৃদ্ধ করবেন এবং  তোমাদের জন্য উদ্যান স্থাপন করবেন এবং প্রবাহিত করবেন নদীনালা’ (সুরা নুহ : আয়াত ১০-১২)

কোরআনের দিক নির্দেশনা হলো- ইসতেগফার বা ক্ষমা প্রার্থনা করা। পরের ইসতেগফারের ফজিলত ও বরকত তুলে ধরা হয়েছে। তাতে মিলবে আল্লাহর ক্ষমা, রিজিক, সন্তান-সন্তুতি ও রক্ষা পাবে পরিবেশের বাসযোগ্য ভারসাম্য। যারা নিয়মিত বেশি বেশি ইসতেগফার করবেন, আল্লাহ তাআলঅ তাদের জন্য রিজিকের দরজা উন্মুক্ত করে দেবেন।

হাদিসের বর্ণনা থেকে সুস্পষ্ট, নবিজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামও দিনে ৭০/১০০ বার ইসতেগফার করতেন। সুতরাং কোরআনে ঘোষিত নেয়ামত পেতে কয়েকটি ছোট ছোট ইসতেগফার তুলে ধরা হলো-

১. শুধু (اَسْتَغْفِرُ اللهِ) `আসতাগফিরুল্লাহ’ বেশি বেশি পড়া।

২.  رَبِّغْفِرْ وَارْحَمْ وَ اَنْتَ خَيْرُ الرَّاحِمِيْنَ- রাব্বিগফির, ওয়ারহাম ওয়া আংতা খাইরুর রাহিমিন

৩. ﺃَﺳْﺘَﻐْﻔِﺮُ ﺍﻟﻠَّﻪَ ﺍﻟْﻌَﻈﻴﻢَ ﺍﻟَّﺬِﻱ ﻻَ ﺇِﻟَﻪَ ﺇِﻻَّ ﻫُﻮَ ﺍﻟْﺤَﻲُّ ﺍﻟﻘَﻴّﻮُﻡُ ﻭَﺃَﺗُﻮﺏُ ﺇِﻟَﻴﻪِ -
উচ্চারণ : আসতাগফিরুল্লাহাল আজিম আল্লাজি লা ইলাহা ইল্লা হুয়াল হাইয়্যুল ক্বাইয়্যুম ওয়া আতুবু ইলাইহি

অর্থ : 'আমি আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। যিনি ছাড়া ইবাদতের উপযুক্ত কোনো উপাস্য নেই। যিনি চিরঞ্জীব ও চিরস্থায়ী। আমি তাঁর কাছেই তওবা করছি।

রাসুলুল্লাহ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যেই ব্যক্তি এই দোয়া পড়বে আল্লাহ তাআলা তাকে ক্ষমা করে দেবেন, যদিও সে জিহাদের ময়দান থেকে পলায়ন করার মতো অপরাধী হয়।’ (তিরমিজি, আবু দাউদ, মিশকাত)

অন্য হাদিসে এসেছে, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘আল্লাহর শপথ! নিশ্চয় আমি প্রতিদিন ৭০ বার-এর অধিক আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই এবং তাওবা করি-

৪. اَسْتَغْفِرُ الله وَ اَتُوْبُ اِلَيْهِ – ‘আসতাগফিরুল্লাহ ওয়া আতুবু ইলাইহি

বিশেষ করে ক্ষমা, রিজিকের সন্ধান ও বরকত পেতে এ দোয়াটি বেশি বেশি পড়া-

رَبِّ اغْفِرْلِىْ ذُنُوْبِىْ وَافْتَحْ لِىْ أَبْوَابَ فَضْلِكَ

উচ্চারণ : ‘রাব্বিগফিরলি জুনুবি, ওয়াফতাহলি আবওয়াবা ফাদলিকা’

অর্থ : ‘হে আমার রব! আমার গুনাহসমূহ ক্ষমা করে দাও; আর আমার জন্য তোমার অনুগ্রহের দরজা খুলে দাও।’ (তিরমিজি)

মুমিন মুসলমানের উচিত, আল্লাহর কাছে বেশি বেশি ইসতেগফার করা। রিজিকে বরকতসহ কোরআন-সুন্নায় ঘোষিত ফজিলত ও মর্যাদাগুলো পাওয়ার চেষ্টা করা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে রিজিকে বরকত পাওয়ার কোরআনি আমল বেশি বেশি করার তাওফিক দান করুন। আমিন।


আরও খবর



এআইইউবি অ্যালামনাই সোসাইটির পুনর্মিলনী

প্রকাশিত:Tuesday ১৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ১০০জন দেখেছেন
Image

আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ অ্যালামনাই সোসাইটির (এআইইউবি অ্যালায়েন্স) উদ্যোগে প্রথম এআইইউবি অ্যালামনাই হোমকামিং প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১০ জুন এআইইউবি ক্যাম্পাসে ছিল এই আয়োজন। সোমবার (১৩ জুন) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিপুল সংখ্যক প্রাক্তন শিক্ষার্থী এই মিলনমেলায় অংশগ্রহণ করেন। যেখানে তারা মতবিনিময় সভা, বিভিন্ন ইনডোর গেমস, আউটডোর গেমস, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ক্যাম্পাস ট্যুর, বিনোদন অনুষ্ঠান ও র‌্যাফেল ড্রসহ অন্যান্য অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

jagonews24

ব্যান্ড দল দলছুট ও মিনারের সংগীত পরিবেশনায় শিক্ষার্থীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ অনুষ্ঠানটিকে আনন্দময় করে তোলে। এতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী এবং র‌্যাফেল ড্রতে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন এআইইউবি’র ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. হাসানুল এ হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড. কারমেন জিটা লামাগনা এবং ট্রাস্টি বোর্ডের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মিসেস নাদিয়া আনোয়ার।


আরও খবর