Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

নাসিরনগরে বন্যায় ভেসে গেছে চাষ করা পুকুরের প্রায় ১২ কোটি টাকার মাছ

প্রকাশিত:Thursday ২৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১১৩জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ


ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরে বন্যায় তলিয়ে গেছে নিন্মাঞ্চলের অনেক জায়গা। তার মধ্যে জেলার নাসিরনগর অন্যতম। উপজেলার গোর্কণ  ইউনিয়নের বাসিন্দা ও নাসিরনগর সরকারী ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক মাঈন উদ্দিন ভূইয়া শান্ত জানায়,তার পাচটি পুকুরের মাঝে  সব কয়টির মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে।


সম্প্রতি ভারি বৃষ্টি আর উজান থেকে নেমে আসা পানির কারণে সৃষ্ট বন্যায় নাসিরনগরের মেঘনা, তিতাস ধলেশ্বরী ও লঙ্গন সহ বেশ কিছু নদীর পানি ফুঁসে উঠেছে।মাঈন উদ্দিন ভূইয়ার মতো উপজেলার আরও প্রায় ৭০০ পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। মাছচাষিদের দাবি এবার বন্যায় তাদের ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১২ কোটি টাকা হবে।


মাছচাষিরা বলেন, কিছু বুঝে ওঠার আগেই বন্যার পানি সব পুকুরের মাছ ভাসিয়ে নিয়ে গেছে। তবে এখনও পুকুরের চারপাশে জালের বেড়া দিচ্ছেন অনেক চাষি, যদি কিছু মাছ রক্ষা করা যায় সেজন্য।


উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ভারি বৃষ্টিপাত আর উজানের ঢলে পানি বৃদ্ধি পেয়ে অধিকাংশ ইউনিয়নের নিন্মাঞ্চল তলিয়ে গেছে। এতে ওই এলাকার পুকুরে পানি ঢুকে পুকুরের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।


মৎস্য অফিসের তথ্য মতে- উপজেলায় মোট পুকুরের সংখ্যা প্রায় তিন হাজার। এর মধ্যে সোমবার দুপুর পর্যন্ত উপজেলার প্রায় পাঁচ শতাধিক পুুকুরের মাছ ভেসে গেছে। তবে পানি বৃদ্ধি-বৃষ্টি অব্যাহত থাকলে এ ক্ষতির পরিমাণ কয়েকগুণ বাড়তে পারে। এসব পুকুরে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ও পোনা ছিল। টাকার অঙ্কে এ ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ছয় কোটি টাকা।


আরও জানা যায়, উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নে ৫০টি, চাপরতলা ৯০টি, ধরমন্ডলে ১২০টি, গোকর্ণ ইউনিয়নের ২০টি, কুন্ডা ইউনিয়নে ৪০টি, ভলাকুট ইউনিয়নের ৯০টি, ফান্দাউকে ৩০টি, নাসিরনগরে ১২০টি, চাতলপাড়ে ৩০টি ও বুড়িশ্বরে ১২০টি পুকুরের মাছ ও পোনা ভেসে গেছে।


বুড়িশ্বর ইউনিয়নের সিংহ গ্রামের বাসিন্দা রতন সাহাজী বলেন, ‘খুব কষ্ট করে চারটা পুকুরে মাছ চাষ করছিলাম। কিন্তু সব পানির নীচে চলে গেছে। একটা মাছও ধরতে পারছি না। আমার প্রায় ছয় লাখ টাকার মাছ ভাইস্যা গেছে।’


মৎসজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পরিমল  দাস বলেন, ‘বন্যার কারণে মৎস্যজীবী মানুষজন মারাত্মক ক্ষতির সম্মুক্ষীন হয়েছে। এরই মধ্যে উপজেলার নিন্মাঞ্চলের সবকটি পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। সরকারিভাবে কোনো প্রণোদনা না পেলে জেলেদের বেঁচে থাকাটা কষ্টকর হবে।’


উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শুভ্র সরকার বলেন,পানি বৃদ্ধির যে হার সেটা যদি অব্যাহত থাকে তাহলে উপজেলার সবকটি পুকুর পানির নিচে তলিয়ে যাবে।


এই পর্যন্ত ১৩টি ইউনিয়নের মাছ চাষীদের দেওয়া তথ্য মতে প্রায় ৭০০ পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। যার ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১২ কোটি টাকা। তবে এর পরিমাণ বাড়তে পারে বলে তিনি যোগ করেন।কিন্তু বেসরকারী হিসেবে উপজেলার মৎস্যখাতে এর পরিমান আরো অনেক বেশী বলে দাবী করেন মৎস্য চাষীরা।


আরও খবর



আ’লীগ নেতার ওপর হামলা, ডিএসসিসি কাউন্সিলর আবু সাঈদের বিচার দাবি

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৮২জন দেখেছেন
Image

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসির) ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু সাঈদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেছেন স্থানীয়রা। ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস আই ফারিয়াদের ওপর হামলার বিচারের দাবিতে এ মানববন্ধন করা হয়।

রোববার (৫ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা হয়। সমাবেশে স্থানীয় বাসিন্দাদের পাশাপাশি বংশালের মিল্লাত উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, ব্যবস্থাপনা কমিটি ও অবিভাবকরা অংশ নেন। এস আই ফারিয়াদ মিল্লাত উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, গত ২৪ মে মিল্লাত উচ্চ বিদ্যালয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু সাঈদের নেতৃত্বে অতর্কিত হামলা চালানো হয়। এসময় ফারিয়াদের মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়।

সমাবেশে ফারিয়াদের বড় ভাই হাবিবুল ইসলাম জাহিদ বলেন, এস আই ফারিয়াদ বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি হিসেবে সুনামের সঙ্গে স্কুল পরিচালনা করে আসছেন। কিন্তু কাউন্সিলর আবু সাঈদ তার আধিপত্য বিস্তার ও নিজের লোকজনকে স্কুলের পরিচালনা কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করতে উদ্দেশ্যমূলকভাবে তার ওপর হামলা করেন। ওই দিন কাউন্সিলর আবু সাঈদের সঙ্গে ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান আশিকসহ আরও ২৫ থেকে ৩০ জন হামলায় অংশ নেন। ফরিয়াদ আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

তিনি বলেন, এই ঘটনার পর থেকে আমরা আমাদের পরিবরার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমরা ফারিয়াদের ওপর হামলার বিষয়ে সঠিক তদন্ত ও দোষীদের সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানাই।

এই অভিযোগের বিষয়ে জানতে ডিএসসিসির কাউন্সিলর আবু সাঈদের মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি। ফলে তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।


আরও খবর



রাবাব ফাতিমাকে হাই রিপ্রেজেন্টিটিভ নিয়োগ জাতিসংঘের

প্রকাশিত:Friday ১০ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৮৭জন দেখেছেন
Image

জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমাকে ‘হাই রিপ্রেজেন্টিটিভ’ বা উচ্চ প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন সংস্থাটির মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ফাতিমা স্বল্পোন্নত দেশ, স্থলবেষ্টিত উন্নয়নশীল দেশ এবং ক্ষুদ্র দ্বীপ দেশগুলোতে (ইউএন-ওএইচআরএলএলএস) এ পদে দায়িত্ব পালন করবেন।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতিসংঘের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তাকে নিয়োগের বিষয়টি জানানো হয়েছে। ফাতিমা জ্যামাইকার কোর্তেনায় রাত্রের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন।

রাবাব ফাতিমা এখন নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। সেখানে দায়িত্বে যাওয়ার আগে জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছিলেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি অব ক্যানবেরা থেকে সামাজিক বিজ্ঞানে স্নাতকের পর যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটসের টাফটস ইউনিভার্সিটি থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও কূটনীতিতে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করে ১৯৮৯ সালে কূটনেতিক পেশা শুরু করেন ফাতিমা। নিউইয়র্ক-টোকিওর আগে তিনি কলকাতা, জেনেভা এবং বেইজিংয়েও দায়িত্ব পালন করেছেন।


আরও খবর



কিশোরগঞ্জে মাদক মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে মাদক মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (৫ জুন) বিকেলে কিশোরগঞ্জের তৃতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জান্নাতুল ইবনে হক এ রায় দেন। এ সময় আসামি আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামির নাম জীবন (৩৯)। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার চরচাতলপাড় গ্রামের মৃত মতি মিয়ার ছেলে।

আদালত পরিদর্শক আবুবকর সিদ্দিক জাগো নিউজকে রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২৬ আগস্ট কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলা থেকে ২০ বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী জীবনকে আটক করেন র্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্পের সদস্যরা। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে তার বিরুদ্ধে কুলিয়ার থানায় একটি মামলা করে।
মামলার পর উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে পালিয়ে যান জীবন।

পরে একই বছরের ৪ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কুলিয়ারচর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল হাশেম। দীর্ঘ সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে আদালত আজ এ রায় দেন।


আরও খবর



ডিএসইতে পিই রেশিও কমেছে দশমিক ১০ পয়েন্ট

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
Image

গত সপ্তাহে শেয়ারবাজারে লেনদেন হওয়া পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে তিনদিনই মূল্যসূচকের পতন হয়েছে। সপ্তাহজুড়ে যে কয়টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে, কমেছে তার থেকে বেশি। এতে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত (পিই রেশিও) সপ্তাহের ব্যবধানে কিছুটা কমেছে।

শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ ঝুঁকি নির্ণয় করা হয় মূল্য আয় অনুপাত দিয়ে। সাধারণত ১০-১৫ পিইকে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ঝুঁকিমুক্ত ধরা হয়। আর কোনো কোম্পানির পিই ১০-এর নিচে চলে গেলে ওই কোম্পানির শেয়ার দাম অবমূল্যায়িত বা বিনিয়োগের জন্য নিরাপদ ধরা হয়।

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত অনেক আগেই ১৫-এর নিচে নেমেছে। এক সপ্তাহ আগে পিই ছিল ১৪ দশমিক ১৫ পয়েন্ট। এখন তা কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ দশমিক শূন্য ৫ পয়েন্ট। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে পিই শূন্য দশমিক ১০ পয়েন্ট কমেছে।

এদিকে চার খাতের পিই এখনো সার্বিক বাজার পিই’র নিচে রয়েছে। এই চার খাতের মধ্যে রয়েছে- ব্যাংক, ওষুধ, বিবিধ এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানি। এর মধ্যে ব্যাংক, ওষুধ এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের পিই সপ্তাহের ব্যবধানে কমেছে। আর বিবিধ খাতের পিই কিছুটা বেড়েছে।

আগের মতো সব থেকে কম পিই রয়েছে ব্যাংক খাতের। বর্তমানে এই খাতের পিই রয়েছে ৭ দশমিক ৮০ পয়েন্টে, যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ৭ দশমিক ৯০ পয়েন্টে। ১১ দশমিক ৬০ পিই নিয়ে এর পরের স্থানে রয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত। এক সপ্তাহ আগে এ খাতের পিই ছিল ১১ দশমিক ৭০ পয়েন্ট।

ব্যাংক এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের পিই কমলেও সপ্তাহের ব্যবধানে বিবিধ খাতের পিই বেড়েছে। ১২ দশমিক ১০ পিই নিয়ে সর্বনিম্ন পিই’র তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে খাতটি। এক সপ্তাহ আগে এ খাতের পিই ছিল ১২ পয়েন্টে। সার্বিক বাজারের তুলনায় কম পিই থাকা আরেক খাত ওষুধের পিই ১৩ দশমিক ৫০ পয়েন্ট, যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ১৩ দশমিক ৬০ পয়েন্ট।

অপরদিকে সব থেকে বেশি পিই রয়েছে জীবন বিমা খাতের। বর্তমানে এ খাতের পিই দাঁড়িয়েছে ৬৭ দশমিক ৭০ পয়েন্টে। এক সপ্তাহ আগে যা ছিল ৭০ পয়েন্টে। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে এ খাতের পিই কমেছে দুই দশমিক ৩০ পয়েন্ট।

সর্বোচ্চ পিই’র তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চামড়া খাত। এ খাতের পিই দাঁড়িয়েছে ৫২ দশমিক ৫০ পয়েন্ট, যা আগের সপ্তাহে ছিল ৫৪ দশমিক ১০ পয়েন্ট। ৩৫ দশমিক ১০ পয়েন্ট নিয়ে এ তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে সিরামিক খাত। এক সপ্তাহ আগে এ খাতের পিই ছিল ৩১ দশমিক ৭০ পয়েন্ট।

এছাড়া বাকি খাতগুলোর মধ্যে সাধারণ বিমা খাতের পিই ১৭ দশমিক ৩০ পয়েন্ট থেকে ১৬ দশমিক ৪০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রকৌশল খাতের পিই ২০ পয়েন্ট থেকে ১৯ দশমিক ৯০ পয়েন্ট হয়েছে।

অপরদিকে আইটি খাতের পিই ২৭ পয়েন্টে থেকে ২৬ দশমিক ৩০ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সেবা ও আবাসন খাতের পিই ১৭ দশমিক ৩০ পয়েন্ট থেকে ১৭ দশমিক ৮০ পয়েন্ট হয়েছে। অব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান বা লিজিং খাতের পিই ২১ দশমিক ২০ পয়েন্ট থেকে ২১ পয়েন্টে নেমেছে। সিমেন্ট খাতের পিই ২৫ দশমিক ৩০ পয়েন্ট থেকে ২৪ দশমিক ৯০ পয়েন্ট হয়েছে। আর খাদ্য খাতের পিই ২৪ দশমিক ৯০ পয়েন্ট থেকে ২৪ দশমিক ৬০ পয়েন্ট হয়েছে।


আরও খবর



দুস্থ নারী ও শিশুদের চিকিৎসা-শিক্ষায় অনুদান দিলো মন্ত্রণালয়

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
Image

দুস্থ নারী ও শিশুদের শিক্ষা-চিকিৎসা সহায়তা ও সাধারণ আর্থিক সহায়তা হিসেবে এক কোটি পঁয়ত্রিশ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নির্যাতিত, দুস্থ মহিলা ও শিশু কল্যাণ তহবিল বোর্ড থেকে এক হাজার আটশত ছত্রিশ জনের মাঝে এ অনুদান দেওয়া হয়।

সোমবার (২৭ জুন) সচিবালয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরার সভাপতিত্বে নির্যাতিত, দুস্থ মহিলা ও শিশু কল্যাণ তহবিলের বোর্ড অব ট্রাস্টির সভায় এ অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ সময় সভাপতির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের নতুন দিগন্ত উন্মোচন করেছেন। এর ফলে দেশে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে যা, জাতীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখবে।

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অসহায় ও দুস্থ মানুষের উন্নয়নে বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তামূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছেন। নির্যাতিত, দুস্থ মহিলা ও শিশু কল্যাণ তহবিলের বোর্ডও প্রধানমন্ত্রীর অনুদানে তৈরি।’

সভায় উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হাসানুজ্জামান কল্লোল, অতিরিক্ত সচিব ডা. আ. এ. মো. মহিউদ্দিন ওসমানী, অতিরিক্ত সচিব মো. মুহিবুজ্জামান, অতিরিক্ত সচিব মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফরিদা পারভীন ও শিশু একাডেমির মহাপরিচালক মো. শরিফুল ইসলাম, ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য হোসনে আরা জুলি, ওয়াহিদা বানু, আব্দুল মতিন ভূঁইয়াসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়-বিভাগের প্রতিনিধিরা।


আরও খবর