Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

নাসিরনগরে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরোদ্ধে বিস্ফোরক আইনে দুই মামলা

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৪৩৪জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃজেলার নাসিরনগর উপজেলা বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন নেতাকর্মীর বিরোদ্ধে পুলিশের করাতব্য কাজে বাধা ও বিস্ফোরক আইনে  দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।২৮ অক্টোবর ঢাকার পল্টন ময়দানে বিএনপির  মহা সমাবেশের জ্বালাও পোড়াও ভাংচুরেন ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২৯ অক্টোবর ভোর রাতে  সদর ইউনিয়নের কুলিকুন্ডা মোড়ের এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি ও অন্য জায়গা আরো একটি ঘটনার কারনে পুলিশের দুই এস আই বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা করেছে বলে পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।নাসিরনগর থানার মামলা নং ১৩/১৩৭ একটি মামলায় পুলিশের এস আই লিটন ঘোষ ও ২/১৩৯ নং মামলায় এস আই রূপন দেবনাথকে বাদী করা হয়েছে।

এক মামলায় ৩৪ জন অজ্ঞাতনামা আরো ১২০ জন আর অন্য মামলায় ৩৮ জনকে আসামী করা হয়েছে।এক মামলায় ঘটনার তারিখ ২৯ অক্টোবর ও অন্য মামলায় ২ নভেম্ভর উল্লেখ করা হয়েছে। মামলা দুটিতে  বলা হয়েছে পুলিশের সরকারী ও কর্তব্য কাজে বাধা,পুলিশকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুরুতর জখম,বিস্ফোরক দ্রব্য বহন ও বিস্ফোরনের ঘটনায় এ মামলা  দুটি রুজু করা হয়েছে।মামলায় বেশ কয়েকজন পুলিশ  অফিসার ও সদস্যদের আহত দেখানো হয়েছে। মামলায় আসামী করা হয়েছে বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও বিশিষ্ট শিল্পপতি এস এ কে একরামুজ্জামান সুখন,উপজেলা বিএনপির সভাপতি এম এ হান্নান,সাধারণ সম্পাদক বশীর উদ্দিন তুহিন,সাংগঠনিক সম্পাদক এডঃ আলী আজম চৌধুরী,সাবেক উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও বুড়িশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল চৌধুরী ও স্বেচ্চাসেবক দলের সভাপতি মোঃ এনামুল হুদা সুমন সহ যুবদল,ছাত্রদল,কৃষকদল,স্বেচ্চাসেবক দল, তাতী দলের ও অনেক নেতাকর্মীকে।ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ।বর্তমানে নেতাদের বাড়িতে চলছে পুলিশের চিরুনী অভিযান।

পুলিশের ভয়ে অনেকে নেতাকর্মীরাই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।সব মিলিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে এখন বিরাজ করছে গ্রেপ্তারাতংক।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




মধুপুরে পুকুরে বিষ দিয়ে ১০ লক্ষ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৫৪১জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলাধীন কুড়ালিয়া ইউনিয়নের টিকরী গ্রামের বাসিন্দা মোজাম্মেল হক টুলুর পুকুরের প্রায় ১০লক্ষ টাকার মাছ বিষ প্রয়োগ করে নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার (২৭) মে টিকরী খা পাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

ভুক্তভোগী টুলু মিয়া জানান, আমি গভীর রাত পর্যন্ত পুকুরের চারপাশ ঘুরে বাড়িতে চলে যাই। সকালে এলাকাবাসী এসে আমাকে জানায় পুকুরের সমস্ত মাছ মরে ভেসে উঠেছে। আমি পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখি শতশত লোকজন মরা মাছ ধরে ব্যাগ ভরে নিয়ে যাচ্ছে। তিনি আরও জানান, অনেক দিন যাবৎ আমার  প্রতিবেশীদের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে এবং তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে আমার ক্ষতি করবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে এটা তাদেরই কাজ এমনটাই ধারণা করছেন তিনি। 

মাছ ধরার জেলেরা বলছেন, পানিতে গ্যাস হয়ে মাছ মরেনি, পুকুরে মাছ মারার জন্য বিষ দেওয়া হয়েছে যে কারণে সব ধরনের দেশীয় মাছ সহ সাপ, ব্যাঙ ও কিট পতঙ্গও মারা গেছে। 

ভুক্তভোগী ও এলাকাবাসী এই দুষ্কৃতকারীদের চিন্হিত করে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে খুঁজে বের করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোড় দাবি জানিয়েছেন।

     -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




ঈদ যাত্রা নির্বিঘ্নে করতে কাজ করছেন পুলিশ

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭১জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার: মিরপুর ডিভিশনের  এডিসি (প্রশাসন) মাসুক মিয়া পিপিএম জানান  গাবতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে ঢাকা বর্হিগামী  যাত্রীরা যাতে নির্বিঘ্নে দেশের নানা প্রান্তে যেতে  কোনো ধরনের হয়রানির  শিকার না হয় সে লক্ষ্যে মিরপুর ডিভিশনের পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে । ঈদ যাত্রা নির্বিঘ্নে  করতে মিরপুরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলিতে চেকপোস্ট জোরদার করা হয়েছে।

মানুষজন যাতে বিভিন্ন গরুরহাটে নিরাপদে কোরবানির গরু কেনাবেচা করতে পারে,সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।বিভিন্ন অংশীজনদের নিয়ে নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে হোয়াটস এপ গ্রপ খোলা হয়েছে।ব্যাংক বীমা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করা হয়েছে।যে সকল সম্মানিত নাগরিকগণ গ্রামের বাড়িতে ঈদ উদযাপন করতে যাবেন তাদের করণীয় বর্জণীয় সংক্রান্ত লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে।নাগরিকদের যে কোন সমস্যায় লোকাল থানায় কিংবা ৯৯৯ জানানোর অনুরোধ জানান। আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে আলাপকালে  তিনি এ কথা জানান।

এডিসি আরো জানান, আমাদের এখানে ৩ টি গরুর হাট আছে। গরুর হাট গুলোর মধ্যে একটি স্থায়ী আর দুইটি হচ্ছে অস্থায়ী। স্থায়ী হাট হল গাবতলী গরুর হাট, অস্থায়ী ২টিহলো, একটি হল পল্লবী থানাধীন ইস্টার্ন হাউজ  আরেকটি হলো ভাষানটেক থানাধীন ক্যান্টন মেন্ট বোর্ড বাজার। প্রতিটি হাটে সার্বক্ষণিক সিসিটিভি ক্যামেরার পাশাপাশি  পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। 
যাতে ছিনতাই, চাঁদাবাজি সহ যেকোনো ধরণের অপকর্ম রোধ করতে কাজ করছে পুলিশ।

এদিকে কাফরুল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ফারুকুল আলম জানান, পবিত্র ঈদুল আযহা খুব সন্নিকটে। এই ঈদে অনেক মানুষ ঢাকা ছাড়ে। তাই আমরা কাফরুল থানা পুলিশ সবসময় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সর্তক অবস্থানে রয়েছি।আমরা বিভিন্ন স্থানে রাতের বেলা চেকপোস্ট  করি। যাতে করে কেউ ছিনতাইয়ের  কবলে না পড়ে।

আরও খবর



বিরামপুরে প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ ব্যক্তিদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে মত বিনিময়

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬৫জন দেখেছেন

Image

মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুর জেলার বিরামপুরে উপজেলা পর্যায়ে প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ ব্যক্তিদের সম্পর্কে সচেতনতা এবং সামাজিক অংশ গ্রহণ বৃদ্ধিতে এনজিও সংস্থা কারিতাস মিডিয়ার সাথে মতবিনিময় সভা করেছে। 

বুধবার (১২ জুন) সাপ্তাহিক বিরামপুর বার্তা কার্যালয়ে কারিতাসের বাংলাদেশ প্রবীণ, প্রতিবন্ধী এবং মাদকসেবী ব্যক্তিদের সমন্বিত উন্নয়ন প্রকল্প এসডিডিবি, দিনাজপুর অঞ্চলের আয়োজনে   এ মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় বিরামপুরের প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে কার্য্যক্রমের বিস্তারিত তুলে ধরেন, কারিতাস দিনাজপুর অঞ্চলের  এসডিডিবি প্রকল্পের জুনিয়র কর্মসূচি কর্মকর্তা বিনয় কুজুর। এতে সুবিধাভুগিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রকল্পের খানপুর উন্নয়ন কমিটির সভাপতি আব্দুল্যা রহমান, প্রতিবন্ধী নারী ফোরামের সভাপতি খালেদা আক্তার প্রমূখ।


আরও খবর



ঘুর্নীঝড় রেমালের তান্ডবে সৈয়দপুরে ব্যাপক ক্ষতি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফারীর সৈয়দপুরে ভয়াবহ তাণ্ডব চালিয়েছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল। এতে প্রায় পাঁচ শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এছাড়া গাছপালা উপড়ে গেছে প্রায় কয়েক হাজার। ২৯ মে দিবাগত রাত ১টা থেকে শুরু হয় রিমালের তাণ্ডব। প্রায় ২ ঘন্টা চলে ওই ঘুর্ণিঝড়ের তান্ডব। সৈয়দপুর শহরের আমিন মোড়ের বাসিন্দা দুলাল সরকার বলেন,  ২ ঘন্টা ধরে ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডব এর আগে সৈয়দপুর শহর সহ উপজেলার কোথাও হয়নি। ২০০৭ সালে সিডরের চেয়েও কিছুটা ভয়ানক ছিলো এই ঘুর্ণিঝড়। আর মাত্র ১/২ ঘন্টা তান্ডব চালালে ভয়াবহ অবস্থা হয়ে যেতো। আমর পরিবার সহ এলাকার সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিল।

উপজেলার খাতামধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জুয়েল চৌধুরী বলেন, গাছপালা উপড়ে কয়েকটি গ্রামের  যোগাযোগ ব্যবস্হা বন্ধ হয়ে গেছে। অনেক মানুষ ঘরবন্দী হয়ে গেছে।

সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.নুরী- আলম সিদ্দিকি জানান, উপজেলার শহর সহ গ্রামের অনেক ঘর বাড়ি গাছপালা ভেঙে উপড়ে গেছে। অনেক মানুষ ঘরবন্দী রয়েছেন।

নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য সিদ্দিকুল আলম সিদ্দিক  বলেন, ঘুর্নীঝড়ে ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি তদন্ত করা হয়েছে।  ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে সহায়তা করা হবে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




কোরবানির পশু কাটার জন্য সৈয়দপুরের কসাই ঢাকা যাওয়ার প্রস্তুতি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image

জহুরুল ইসলাম খোকন সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:ঈদ উল আজহায় কোরবানির পশু কাটার জন্য সৈয়দপুর থেকে শতাধিক কসাই ঢাকা যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন।ট্রেন ও বাসে করে এযাবৎ অর্ধশতাধিক কসাই ঢাকা পৌঁছেছেন। কোরবানির তিন দিনে অন্তত ২০ লাখ টাকাও বেশি আয় করবেন বলে জানিয়েছেন তারা।

কসাইরা জানান, কুরবানী ঈদ এর মাস খানিক আগেই ঢাকার অনেকেই সৈয়দপুরের কসাই বুকিং দিয়ে রেখেছেন। একারনে ঈদের ২/৩ দিন আগেই ঢাকায় সব কসাইকে পৌঁছাতে হবে।কন্ট্রাক হয়েছে হাজারে ৩০০ টাকা দিতে হবে কসাইদের। সে হিসেবে এক লাখ টাকার একটি গরুতে কসাইকে দিতে হবে ৩০ হাজার টাকা।

কাল্লু নামের এক কসাই জানান, এবারে শতাধিক কসাই ঈদে ঢাকায় গিয়ে কোরবানির পশুর মাংস কাটার কাজ করবেন। চারজন  করে একটি গ্রুপে পশু কাটার  কাজটি করবেন তারা। তিনদিনে একেকটি গ্রুপ কমপক্ষে ১৬টি গরু কাটতে পারবেন। এতে করে একেকটি গ্রুপ ৪ লাখ টাকা আয় করতে পারবেন।

মজ্নু নামের অপর এক কসাই জানান,১৫ জুন রাতে বাসে করে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিবেন। অনেকে  আবার ১৬ জুন সকালে যাবেন ঢাকায়। কেউ কেউ ঈদের আগের দিন রাতে বিমানে ঢাকায় পৌঁছাবেন।

নাদের এন্টারপ্রাইজ এর সুপারভাইজার আলমগীর বলেন, আমার কাছে ১৫-২০ জন কসাই ঢাকা যাওয়ার জন্য টিকেট চেয়েছেন। এদের মধ্যে কেউ কেউ টিকেট নিয়ে গেছেন। সৈয়দপুর থেকে অনেক কসাই ঈদের আগের দিন বিমানযোগে ঢাকায় যাবেন বলে জানান বিমানের টিকেট বিক্রেতারা ।

রাজধানীর উত্তরায় থাকেন তারেক নামের এক অবসর প্রাপ্ত বিমান কর্মকর্তা। চাকরির সুবাদে তিনি সৈয়দপুরে ছিলেন দীর্ঘদিন। একারনে এশহরের অনেকেই তাঁর পরিচিত। ঈদে কুরবানির মাংস কাটতে মোবাইলে সৈয়দপুরের একজন কসাইয়ের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে তার। ঈদের দিন সকালে উত্তরার বাসায় গিয়ে কোরবানির গরুর মাংস কাটতে হবে। বিনিময়ে ২০ হাজার টাকা নিবেন কসাইকে।

সৈয়দপুর কসাই সমিতির সভাপতি মোঃ নাদিম ওরফে ছোটুয়া বলেন, ঢাকার মানুষরা তাদের কুরবানির পশু কাটাতে হাজারে ৩০০ টাকা দেয়ার কারনে ঈদের আগে কসাই শুন্য হয়ে যাবে সৈয়দপুর। এশহরের মানুষ তাদের পশু কার দ্বারা কাটবেন বুঝতে পারছি না। সৈয়দপুরের মানুষ যদি হাজারে ১৫০ টাকা মাংস কাটা বাবদ দিতেন তাহলে অর্ধেক কসাই ঢাকায় যেতো না। তিনি আরো বলেন, কসাইদের ও উচিত ঈদের শুধু নিজের স্বার্থ না দেখে সৈয়দপুর বাসীর পাশে থাকা। নিজের স্বার্থ হাসিল করতে সৈয়দপুর বাসীকে বিপদে ফেলে ঢাকায় যাওয়া ঠিক হচ্ছে না বলে জানান তিনি। 


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪