Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

নাসিরনগরে বিদ্যুতায়িত হয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ১৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২২৮জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ-নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)  সংবাদাতা

১৪ মে ২০২২ রোজ শনিবার সকাল  অনুমান ৭ ঘটিকার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলায় পুকুরের পানিতে মরা মাছ তুলতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে আব্দুল হাসিম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।স্থানীয়রা জানায়, বিদ্যুৎ সরবরাহের তার ছিঁড়ে পুকুরের পানিতে পড়ে থাকায় পানি বিদ্যুতায়িত হয় এবং বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। কুন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান এডঃ নাসিরউদ্দিন ভূইযা  মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।


শনিবার সকাল ৭ ঘটিকার সময়  নাসিরনগর উপজেলার কুন্ডা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাড়ি কুন্ডা ইউনিয়নের বেড়িবাঁধের পাশে জিহাদ নগর পাড়ায়। তিনি ওই এলাকার নুর মিয়ার ছেলে। 


নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ. হাবিবুল্লাহ সরকার জানান রুপালি এগ্রো নামের মৎস্য খামারে পুকুর থেকে একটি মরা মাছ তুলতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে আব্দুল হাসিম নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে।এখনো পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের পর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।



আরও খবর



জাবি অধ্যাপকের ছেলের সন্ধান মিলেছে

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

ছয়দিন নিখোঁজ থাকার পর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এইচ এম সা’দতের ছেলে শামসুল আরেফিন সাদের সন্ধান পাওয়া গেছে।

বুধবার (১৫ জুন) সন্ধ্যায় ছেলের সন্ধান পাওয়ার বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন অধ্যাপক এ এইচ এম সা’দৎ।

তবে ছেলে কীভাবে নিখোঁজ হলো, এতদিন কোথায় ছিল সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি এ অধ্যাপক।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর থেকে নিখোঁজ ছিল সাদ।

jagonews24

অধ্যাপক সা’দৎ বলেন, ‘দীর্ঘ কয়েকদিন ধরে নানা মহলের চেষ্টার পর আজ আমার ছেলের সন্ধান পেয়েছি। ছেলের সঙ্গে লাইভে কথা হয়েছে। সে সুস্থ ও স্বাভাবিক আছে। আল্লাহর দরবারে অশেষ শুকরিয়া আদায় করছি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হেফাজতে সে এখন অবস্থান করছে। আমরা তাকে ফিরিয়ে আনতে কাজ শুরু করেছি।’

ছেলেকে ফিরে পাওয়ার অভিব্যক্তি ব্যক্ত করে এ অধ্যাপক বলেন, ‘এ কয়েকদিনে চেনা-অচেনা অনেকেই আমাকে কল করে ছেলের ব্যাপারে খোঁজখবর নিয়েছেন। এ কঠিন সময়ে তারা আমাদের পাশে ছিলেন। আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। বিশেষ করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি আমি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমার ছেলেকে খুঁজে পাওয়ার ঘটনা প্রমাণ করে যে মানবতা এখন বেঁচে আছে।’

সাভার সেনা পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্র শামসুল আরেফিন সাদ। তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে দক্ষ সাদের সন্ধান পেতে আশুলিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন অধ্যাপক এ এইচ এম সা’দৎ।


আরও খবর



কফি খেতে গুনতে হবে বেশি টাকা

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
Image

২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে কফির উপাদানে দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। এতে করে কফি খেতে গুনতে হতে পারে বেশি টাকা।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বিকেলে জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, র রোস্টেড কফির মোট করভার ৮৯ দশমিক ৩২ শতাংশ হলেও প্রক্রিয়াজাত ও খাওয়ার উপযুক্ত কফির মোট করভার ৫৮ দশমিক ৬০ শতাংশ। রাজস্ব সুরক্ষার স্বার্থে আমদানি পর্যায়ে এই কফিতে ২০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ করার প্রস্তাব করছি।

২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটের আকার ধরা হয়েছে ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকা। এবারের বাজেটের শিরোনাম ‘কোভিড অভিঘাত পেরিয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় প্রত্যাবর্তন’।

নতুন অর্থবছরের বাজেটের আকার যেমন বড়, তেমনি এর ঘাটতিও ধরা হয়েছে বড়। অনুদান বাদে এই বাজেটের ঘাটতি দুই লাখ ৪৫ হাজার ৬৪ কোটি টাকা, যা জিডিপির সাড়ে ৫ শতাংশের সমান। অনুদানসহ বাজেট ঘাটতির পরিমাণ দুই লাখ ৪১ হাজার ৭৯৩ কোটি টাকা, যা জিডিপির ৫ দশমিক ৪০ শতাংশের সমান।

এটি বর্তমান সরকারের ২৩তম এবং বাংলাদেশের ৫১তম ও বর্তমান অর্থমন্ত্রীর চতুর্থ বাজেট। এবার বাজেটে সঙ্গত কারণেই মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, কৃষিখাত, স্বাস্থ্য, মানবসম্পদ, কর্মসংস্থান ও শিক্ষাসহ বেশকিছু খাতকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



২ উপায়ে ব্রণ দূর করার পরামর্শ দিলেন কারিনার পুষ্টিবিদ

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

ব্রণের সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। গরমে এই সমস্যা আরও বেড়ে যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, দূষণ, পর্যাপ্ত পানি না পান করা, তৈলাক্ত ত্বক, অতিরিক্ত ভাজাপোড়া খাবার খাওয়া ও হরমোনের তারতম্যের কারণে ব্রণ বের হতেই পারে।

ব্রণ সারাতে কতজনই না কতকিছু করেন। কেউ ঘরোয়া টোটকা অনুসরণ করেন আবার কেউ কেউ বাজারচলতি ক্রিম দিয়ে ব্রণ সারানোর চেষ্টা করে। তবে ফল মেলে না বেশিরেভাগ সময়ই।

অনেকের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকলেও ব্রণের সমস্যা হতে পারে। এ বিষয়ে করিনার পুষ্টিবিদ রুজুতা দিওয়েকার তার ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন।

তার পরামর্শ মেনে চললে ২ উপায়েই ব্রণ দূর করতে পারবেন ম্যাজিকের মতো। জেনে নিন করণীয়-

প্রতিদিন এক গ্লাস মৌরি ভেজানো পানি পান করুন। এতে পেট পরিষ্কার হবে সহজেই। মৌরি বীজ হজমক্ষমতা বাড়ায়। এই পানীয় মুখের দুর্গন্ধ কমাতে ও অন্ত্রের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে সাহায্য করে বলে তিনি জানিয়েছেন।

মৌরি ভেজানো পানি পান করার পাশাপাশি শরীর ঠান্ডা রাখতে গোসলের সময় চন্দনের পেস্ট ব্যবহারের পরামর্ম দেন রুজুতা। তার মতে, চন্দনের পেস্ট নিয়ে তা অর্ধেক বালতি পানিতে মিশিয়ে নিন।

গোসল শেষে ওই পানি শরীরে ঢেলে নিন। এই পদ্ধতি অনুমরণ করলে দীর্ঘমেয়াদী ব্রণের দাগও হালকা হয়ে যাবে। আবার চন্দন মনের জন্য থেরাপিউটিক হতে পারে।


আরও খবর



জামালপুরে যমুনার পানি বাড়ছে, নতুন এলাকা প্লাবিত

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

উজানের পাহাড়ি ঢল ও অব্যাহত বৃষ্টিতে বাড়ছে যমুনা নদীর পানি। শুক্রবার (১৭ জুন) বিকেল পর্যন্ত যমুনার পানি বিপৎসীমার ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

শুক্রবার (১৭ জুন) সন্ধ্যায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক আব্দুল মান্নান জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

jagonews24

তিনি বলেন, অব্যাহত বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৮ সেন্টিমিটার পানি বেড়ে বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্ট এলাকায় যমুনা নদীর পানি বিপৎসীমার ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, যমুনার পানি বাড়ায় ইসলামপুর উপজেলার চিনাডুলি ইউনিয়নের দক্ষিণ চিনাডুলি, দেওয়ান পাড়া, ডেবরাইপ্যাচ, বলিয়াদহ, পশ্চিম বামনা, বেলগাছা ইউনিয়নের কছিমার চর, দেলীপাড়, গুঠাইল, সাপধরী ইউনিয়নের আকন্দপাড়া, পূর্ব চেঙ্গানিয়ারসহ নদীপাড়ের আরও বেশকটি গ্রামে পানি প্রবেশ করেছে। এছাড়া পাথর্শী, নোয়ারপাড়া ও পলবান্দা ইউনিয়নের লোকালয়েও হুহু করে পানি প্রবেশ করতে শুরু করেছে। পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গ যমুনাপাড়ের বেশকয়েকটি এলাকায় দেখা দিয়েছে নদী ভাঙন।

jagonews24

এছাড়া দেওয়ানগঞ্জের চিকাজানী ইউনিয়নের খোলাবাড়ি, চর আমখাওয়া ইউনিয়নের সানন্দবাড়ী লম্বাপাড়ায় পানি ঢুকতে শুরু করেছে। এতে আতঙ্কে দিন কাটছে নদীর তীরবর্তী এলাকার লোকজনের।

জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) পানি পরিমাপক আব্দুল মান্নান জাগো নিউজকে আরও বলেন, উজানের পাহাড়ি ঢলে প্রতিদিনই এভাবে কিছু না কিছু এলাকা প্লাবিত হতে থাকবে।


আরও খবর



মালদ্বীপে এক সপ্তাহে করোনা শনাক্ত ১২০২ জনের

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
Image

মালদ্বীপে দিন দিন করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত সপ্তাহে ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২০২ জনে।

মালদ্বীপের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থা (এইচপিএ) প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুসারে, ১৯ জুন থেকে ২৫ জুনের মধ্যে বৃহত্তর রাজধানী অঞ্চলে ৫২৮ জনের আক্রান্ত রেকর্ড করা হয়।

এদিকে, একই সময়ে অন্যান্য জনবসতিপূর্ণ দ্বীপ থেকে ৪৫২ জন, রিসোর্ট ও অন্যান্য আবাসন থেকে ২২২ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এ সময়ে ৩৫ শতাংশ নমুনা পরীক্ষা করেছে। এটি একটি উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি, কারণ এর আগের সপ্তাহে এই সংখ্যাটি ছিল মাত্র ২১ শতাংশ।

এইচপিএ’র পরিসংখ্যান জানিয়েছে, গত সপ্তাহে ৫১ জন করোনারোগী চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হন। এর মধ্যে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। অন্যান্য কারণে মারা যাওয়া ১৩ জনেরও করোনা পরীক্ষার করা হলে আক্রান্ত বলে জানা গেছে।

এর সঙ্গে, মালদ্বীপে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মোট ১৮ হাজার ১৫৮৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় মারা যাওয়ার সংখ্যা ৩০৫ জন। পরিসংখ্যান বলছে, মালদ্বীপে আবারও দ্রুত হারে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।


আরও খবর