Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

মোরেলগঞ্জ যুবলীগ কর্মীর রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১৪১জন দেখেছেন

Image

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি:বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে তৌহিদুল ইসলাম (৪২) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে পিটিয়ে কুপিয়ে হাত, পা ভাঙ্গাসহ পায়ের রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১১ টা ৪০ মিনিটের দিকে রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের বৌ বাজার এলাকায় এ মারপিটের ঘটনা ঘটে। রাত ৩ টার দিকে স্বজনেরা তৌহিদুলকে উদ্ধার করে আশংকাজনক অবস্থায় বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

রামচন্দ্রপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. আব্দুল আলীম জনান, কামলা গ্রামের আমির হোসেন হাওলাদারের ছেলে তৌহিদুল ইসলাম ঢাকায় বিদ্যুৎ বিভাগের ঠিকাদারি কাজ করে। সে যুবলীগের ত্যাগী কর্মী। রাতে পরিকল্পিতভাবে তার ওপর হামলা করা হয়েছে। তৌহিদুল ইসলামের স্ত্রী সালমা বেগম বলেন, ঘটনার সময় ৫ মাস বয়সী শিশু সন্তানের জন্য ওষুধ কেনার জন্য নিকটস্থ বাজারে গেলে দুর্বৃত্তরা তৌহিদুলের ওপর হামলা করে। তার অবস্থা আশংকাজনক।

এ ঘটনার জের ধরে (৬ ডিসেম্বর আজ বুধবার) সকাল ৯টার দিকে কামাল বাজার এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে দ্#ু৩৯;দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও মারপিটের ঘটনা ঘটে। এখনও এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ওসি মো সাইদুর রহমান বলেন, মারপিটের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি। পরিস্থিতি শান্ত আছে।


আরও খবর

গাংনীতে বালাইনাশক ব্যবহারে উদাসিন কৃষকরা

শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




গণমাধ্যমে আরও পেশাদারিত্ব ও স্বচ্ছতা আনা প্রয়োজন: তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার:তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত বলেছেন, গণমাধ্যমে আরও পেশাদারিত্ব ও স্বচ্ছতা আনা প্রয়োজন। এ বিষয়গুলো অনতিবিলম্বে নজর দিতে হবে। গণমাধ্যমের অপব্যবহারও কখনোই কাম্য নয়। এ বিষয়ে মালিক-সাংবাদিক সব পক্ষেরই সহযোগিতা প্রয়োজন।
 
আজ বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)-এর নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।
 
তিনি আরও বলেন, গণমাধ্যম যে প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে পরিচালিত হয় সেটি যাতে টিকে থাকে, একইসাথে প্রতিষ্ঠানটিতে যারা কাজ করে তারাও যাতে টিকে থাকে সে উদ্যোগ নেওয়া হবে। তাহলে এক ধরণের ভারসাম্য থাকবে। প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা যাতে ভালো একটি জীবন যাপন করতে পারে সেটাও জরুরি। বাস্তবতার মধ্যে থেকে এ বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।
 
এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, মন্ত্রণালয়ের অধীনে যেসব কাজ হয় সেখানে পেশাদারিত্ব ও স্বচ্ছতা আনা হবে। মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন অধিদপ্তরগুলো থেকে যেনো কার্যকর ফলাফল পাওয়া যায় সে চেষ্টা থাকবে।
 
দেশের বিরুদ্ধে যেসব চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র আছে সেগুলো নিয়ে কাজ করার প্রত্যয়ও এ সময় ব্যক্ত করেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী। পাশাপাশি বাংলাদেশের বিপক্ষে যেসব অপপ্রচার আছে তা মোকাবিলা করে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার কৌশলগত পদক্ষেগও নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।  
 
বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)-এর সভাপতি ওমর ফারুক,মহাসচিব দীপ আজাদ, বিএফইজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সোহেল হায়দার চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আখতার হোসেন, বিএফইউজে-এর সহসভাপতি মধুসূদন মন্ডল, যুগ্ম মহাসচিব শেখ মামুনুর রশীদ, দপ্তর সম্পাদক সেবীকা রানী, নির্বাহী পরিষদ সদস্য নূরে জান্নাত আখতার সীমা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর



নতুন বছরে বড় পর্দায় কায়েস আরজু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৫৯জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ  রিপোর্টার:চার বছর পর সিনেমা দর্শকদের সামনে আসছেন চিত্রনায়ক কায়েস আরজু। 'আরজু -পরীমনি" জুটির "আমার প্রেম আমার প্রিয়া" র প্রায় চার বছর পর ২৬ জানুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে " তুমি আছো হৃদয়ে" খ্যাত এই নায়কের "রুখে দাঁড়াও"। সোশ্যাল সেন্টিমেন্টের সাথে প্রেম ও সংঘাতের অনবদ্য গল্পের দ্বন্দ-সংঘাত নিয়ে বিন্যাস্ত হয়েছে সিনেমাটির কাহিনী। 

মোহনা মুভিজের ব্যানারে নির্মিত ও দেবাশীষ সরকারের কাহিনী  সংলাপ,চিত্রনাট্য ও গীত রচনায় ছবিটি পরিচালনা করেছেন সুকুমার চন্দ্র দাশ।ছবিটিতে আরো অভিনয় করেছেন তানহা তাসনিয়া, আঁখি চৌধুরী, কাজী হায়াৎ, আশিক, নাদের চৌধুরী, সুব্রত,,গাংগুয়া প্রমুখ।

সিনেমাটি নিয়ে কায়েস আরজু বলেন, মাটির গল্প, কৃষ্টি কালচারের গল্প ও আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে, পরিবারে ও সমাজে ঘটে যাওয়া গল্পের কারণে সিনেমাটি সবশ্রেণীর দর্শকদের ভালো লাগবে। আমি সিনেমাটির সফলতার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। 

বর্তমানে মুক্তির প্রতীক্ষায় রয়েছে ইফতেখার চৌধুরীর " মুক্তি" মেহেদী হাসানের " আগুনে পোড়া কান্না" মির্জা সাখাওয়াত হোসেনের "অপুর বসন্ত"সহ প্রায় আটটি চলচ্চিত্র।  আর আগামী মাস থেকে আরো  দুইটি  সিনেমার শুটিং শুরু করার কথা রয়েছে বলেও জানান চিত্রনায়ক কায়েস আরজু।

আরও খবর



জয়ার সিনেমা ইরানের জাতীয় পুরস্কার জিতেছে

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩৩জন দেখেছেন

Image

বিনোদন ডেস্ক:জয়া আহসানের সিনেমা ইরান জয় করল। বাংলাদেশ ও ইরানের যৌথ-প্রযোজনায় নির্মিত ‘ফেরেশতে’ সিনেমাটি ইরানের জাতীয় পুরস্কার জিতেছে।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে জয়া আহসান তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে খবরটি নিশ্চিত করেছেন। চলচ্চিত্রটি মানবিক দৃষ্টিভঙ্গির জন্য ইরানের জাতীয় পুরস্কার জিতেছে।

জয়ার ফেসবুক পোস্ট থেকে জানা যায়, প্রতি বছর ফজর চলচ্চিত্র উৎসবের পর, মানবাধিকার, শিক্ষা, পরিবেশ, দাতব্য কাজ ইত্যাদি বিভাগে ‘জাতীয় ইচ্ছার প্রতিফলন/বহিঃপ্রকাশ’ নামে সমাজের জন্য অনুকরণীয় চলচ্চিত্রগুলোকে জাতীয় পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এই পুরস্কারটি ‘খয়র-ই-মান্দেগার’ নামক একটি প্রতিষ্ঠান দ্বারা প্রদান করা হয়, যা ইরানের সমস্ত দাতব্য প্রতিষ্ঠান, দাতা, এনজিওর প্রতিনিধিত্ব করে এবং প্রতিষ্ঠানটি ইরানে ইউনিসেফের মতো সক্রিয়। এই পুরস্কারের পাশাপাশি ‘ফেরেশতে’ চলচ্চিত্রের প্রধান দুই অভিনেতা জয়া আহসান ও সুমন ফারুককে ‘খয়র-ই-মান্দেগার’ স্মারক প্রদান করে সম্মানিত করা হয়।

সিনেমাটির পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজম। চিত্রনাট্য লিখেছেন, বাংলাদেশের মুমিত আল-রশিদ। ফারসি ও বাংলা অনুবাদ করেছেন মুমিত আল-রশিদ ও ফয়সাল ইফরান। যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘ফেরেশতে’ সিনেমাতে সহপ্রযোজক হিসেবে আছে ইমেজ সিনেমা, সি তে সিনেমা এবং ম্যাক্সিমাম এন্টারপ্রাইজ বাংলাদেশ।

এ চলচ্চিত্রে জয়া আহসান ও সুমন ফারুক ছাড়াও বাংলাদেশের আরও বেশ কজন শিল্পী রিকিতা নন্দিনী শিমু, শহীদুজ্জামান সেলিম, শাহেদ আলী, শাহীন মৃধা, শিশুশিল্পী সাথী অভিনয় করেছেন।


আরও খবর



মাতৃভাষা দিবসে ইবি সিআরসির উদ্যোগে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৩১জন দেখেছেন

Image
সাব্বির খান,ইবি প্রতিনিধি:ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে কাম ফর রোড চাইল্ড (সি আর সি) বিশ্ববিদ্যালয় শাখা স্কুলের উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার বেদিতে এ অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানটি সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের ইমদাদুল হকের সঞ্চালনায় প্রথমে জাতীয় সংগীত তারপর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা শুরু হয়। 

এই সময় উপস্থিত ছিলেন সিআরসি স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, সাব্বির খান, নবীন শিক্ষক সাঈফুদ্দিনসহ সংগঠনটির  সদস্য আখি আলমগীর, লাময়া, কেয়া প্রমুখ।

নবীন সদস্য আখি আলমগীর তার বক্তব্যে  শিশুদের সাসনে ভাষা আন্দোলনের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরেন। নবীন শিক্ষক সাঈফুদ্দিন ভাষা আন্দোলনের গুরুত্ব বুঝাতে গিয়ে বলেন পৃথিবীর বুকে একমাত্র দেশ! যে দেশটি ভাষার জন্য রক্ত দিয়েছে সেটা হচ্ছে আমাদের বাংলাদেশ, তাই আমাদের উচিত ভাষাকে রক্ষা করা।

সংগঠনটির সভাপতি শাহীদ কাওসার তার বক্তব্য বলেন, 'একুশে ফেব্রুয়ারি আমাদের অনুপ্রেরণা। এই অনুপ্রেরণা আগামী প্রজন্মের মাঝে বাঁচিয়ে রাখার জন্য সি আর সি সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মাঝে এই দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরার জন্যই চিত্রাঙ্গন প্রতিযোগিতার আয়োজন। এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে শিশুরা ভাষা আন্দোলনের গুরুত্ব হাতে কলমে শিখতে পারবে। তিনি আশাবাদী বাংলাদেশের  সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য সি আর সি ইবি শাখা  অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

আরও খবর



দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা প্রায় ৩০ হাজার মেগাওয়াট

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু জানিয়েছেন বর্তমানে দেশে গ্রিডভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ২৬ হাজার ৫০৪ মেগাওয়াট; যা ক্যাপটিভ ও অফগ্রিড নবায়নযোগ্য জ্বালানিসহ ২৯ হাজার ৭২৭ মেগাওয়াট বলে  ।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে আওয়ামী লীগের সদস্য এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

অধিবেশনে নসরুল হামিদ বলেন, ক্যাপটিভ ও অফগ্রিড নবায়নযোগ্য জ্বালানিসহ বর্তমানে মোট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ২৯ হাজার ৭২৭ মেগাওয়াট। আর গ্রিডভিত্তিক উৎপাদন ক্ষমতা ২৬ হাজার ৫০৪ মেগাওয়াট।

এর মধ্যে প্রাকৃতিক গ্যাসভিত্তিক উৎপাদন ক্ষমতা ১১ হাজার ৩৫০ মেগাওয়াট (৪৩ শতাংশ), ফার্নেস অয়েলভিত্তিক ছয় হাজার ৪৯২ মেগাওয়াট (২৪ শতাংশ), ডিজেলভিত্তিক ৮২৬ মেগাওয়াট (৩ শতাংশ), কয়লাভিত্তিক চার হাজার ৪৯১ মেগাওয়াট (১৭ শতাংশ), হাইড্রো ২৩০ মেগাওয়াট (এক শতাংশ), অনগ্রিড সৌর বিদ্যুৎ ৪৫৯ মেগাওয়াট (দুই শতাংশ), বিদ্যুৎ আমদানি দুই ২ হাজার ৬৫৬ মেগাওয়াট (১০ শতাংশ)।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী জানান, চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রাপ্যতা অনুযায়ী উৎপাদন করা হয়ে থাকে। ২০২২-২৩ অর্থবছরে গ্রীষ্মকালে বিদ্যুতের সর্বোচ্চ চাহিদার বিপরীতে ১৯ এপ্রিল সর্বোচ্চ উৎপাদনের পরিমাণ ছিল ১৫ হাজার ৬৪৮ মেগাওয়াট।

শীতকালে বিদ্যুতের চাহিদা কমে যাওয়ায় এ বছর শীতকালে বিদ্যুতের সর্বোচ্চ উৎপাদন ১০ হাজার থেকে ১২ হাজার মেগাওয়াটে নেমে আসে। আসন্ন গ্রীষ্মকালে বিদ্যুতের সম্ভাব্য চাহিদার পরিমাণ প্রায় ১৭ হাজার ৫০০ মেগাওয়াটে উন্নীত হবে।


আরও খবর