Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

মিডল্যান্ড ব্যাংকের দুটি নতুন ডিপোজিট স্কিম উদ্বোধন

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
Image

বাণিজ্যিক কার্যক্রমের নবম বছর পূর্ণ করেছে মিডল্যান্ড ব্যাংক (এমডিবি) । এ উপলক্ষে গত ২০ জুন দুটি নতুন ডিপোজিট স্কিম উদ্বোধন করেছে ব্যাংকটি।

প্রধান কার্যালয়ের বোর্ড কক্ষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ডিপোজিট স্কিম দুটি উদ্বোধন করেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আহসান-উজ জামান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জাহিদ হোসেন ও সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট টিমের সদস্যরা।

অনুষ্ঠানে আহসান-উজ জামান বলেন, আমরা পরিষেবা ও পণ্য উদ্ভাবনের ক্ষেত্রে সবসমই অগ্রগামী। আজ আমরা ‘এমডিবি ডাবল বেনিফিট প্লাস স্কিম’ও ‘এমডিবি সালাম ডাবল বেনিফিট প্লাস (ইসলামি ব্যাংকিং পন্য) স্কিম’উদ্বোধন করতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত। গ্রাহকরা উভয় সঞ্চয় হিসাব দুটি ব্যাংকের যে কোনো শাখা, উপশাখা, এজেন্ট ব্যাংকিং সেন্টারের পাশাপাশি ‘মিডল্যান্ড অনলাইন’ অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে যে কোনো সময় খুলতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে ব্যাংকের রিটেইল ডিস্ট্রিবিউশন বিভাগের প্রধান মো. রাশেদ আক্তার, ইসলামি ব্যাংকিং উইন্ডোর ব্যবস্থাপক সৈয়দ সাকিবুজ্জামান নতুন স্কিম দুটির জন্য ডিজাইন করা প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করেন।


আরও খবর



আমে বাজিমাত রাবি শিক্ষার্থী লিখনের, দুই মাসে আয় আড়াই লাখ

প্রকাশিত:Sunday ০৭ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) লোকপ্রশাসন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী লিখন আহমেদ। ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় তার বাসা। করোনাকালীন বিশ্বে যখন স্থবিরতা বিরাজ করছিল ঠিক সেই মুহূর্তে অবসর সময়টাকে কীভাবে কাজে লাগানো যায় ভাবছিলেন তিনি। অনলাইন প্ল্যাটফর্মকে বেছে নিয়ে ঘরে বসেই দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অর্ডার নিয়ে আমের ব্যবসা শুরু করেন।

রাজশাহী ও নওগাঁর বিভিন্ন উপজেলার বাগান থেকে পাইকারি দরে আম কিনে কুরিয়ারের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতেন লিখন আহমেদ। প্রথমে সেভাবে সাড়া না পেলেও বছর ঘুরতেই ভালো সাড়া পেতে শুরু করেন। ফলে চলতি সিজনে অনলাইনে প্রায় ২৫ লাখ টাকার মতো আম বিক্রি করেন লিখন। এতে তার আয় হয়েছে প্রায় আড়াই লাখ টাকা।

jagonews24

লিখনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, করোনাকালীন বিশ্ব যখন স্থবির তখন থেকেই বাড়িতে বসে নিজেদের জমিতে সবজি চাষ, মাছ চাষ, কলা উৎপাদনসহ বিভিন্ন রকম কৃষিকাজে মনোনিবেশ করেন তিনি। ঘরে বসে থেকে কিছু করার ইচ্ছা থেকেই অনলাইনে ব্যবসা শুরু করেন। প্রথমে খাঁটি মধু, ঘি, ঘানিভাঙা সরিষা তেল, বিভিন্ন রকম খেজুর, মিক্সড ড্রাইফুডসহ ২০-এর বেশি আইটেম নিয়ে কাজ শুরু করেন। প্রথমে সেভাবে সাড়া না পেলেও বছর ঘুরতে না ঘুরতেই ভালো সাড়া পেতে থাকেন।

করোনাকালীন পরিবহন জটিলতা ও পাইকারদের অভাবে আমচাষিরা যখন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল তখন ইতিবাচক চিন্তা থেকে আম সংগ্রহ করে অনলাইনে বিক্রি শুরু করেন লিখন। কিছুদিনের মধ্যে ভালো সাড়া পান তিনি।

jagonews24

রাজশাহী ও নওগাঁ থেকে আম কিনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পাইকারি ও খুচরা বিক্রি করেন এ উদ্যোক্তা। বিভিন্ন জাতের আমের মধ্যে রয়েছে গোপালভোগ, হিমসাগর, হাঁড়িভাঙ্গা, খিরসাপাত, ল্যাংড়া, আম্রপালি, বারি-৪ ও ফজলি। এসব আমের সারাদেশে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। তবে অন্য বছরের চেয়ে এবছর আমের দাম তুলনামূলক কিছুটা বেশি ছিল। ফলে বেশি দাম দিয়ে হলেও অনেকেই রাজশাহীর আম কিনতে অনলাইনে অর্ডার করেন।

এদিকে ব্যবসার পরিচিত বাড়ানোর জন্য ‘পিউর ফুড পয়েন্ট’ নামে একটি পেজ ও ‘নান্দনিক বাজার’ নামে ফেসবুকে একটি গ্রুপ খোলেন লিখন। যেখানে বিভিন্ন প্রোডাক্টের ভিউ দেখানো হয়। ক্রেতারা অনলাইনে প্রোডাক্ট দেখে পছন্দ অনুযায়ী অনলাইনেই অর্ডার করতে পারেন।

কোচিং ও টিউশন বাদ দিয়ে প্রায় দুমাস অনলাইনে অর্ডার নিয়ে আমি বিক্রির কাজ শুরু করেন লিখন। দুমাসে তার বিক্রি হয়েছে প্রায় ২৫ লাখ টাকার মতো। এতে প্রায় আড়াই লাখ টাকার মতো আয় হয়েছে তার।

jagonews24

ঢাকা থেকে অনলাইনে লিখনের কাছ থেকে আম অর্ডার করেন আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ। আম হাতে পেয়ে অনলাইনের এমন সেবার সন্তুষ্টি প্রকাশ করে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি প্রথমে এ উদ্যোক্তার কথা জানতে পেরে তার কাছে অনলাইনে আম অর্ডার করি। তিনি দুদিনের মধ্যে ভালো মানের আম সরবরাহ করে আমাকে কুরিয়ারে পাঠান। আমি আম হাতে পেয়ে তার বিল পরিশোধ করে দেই। ঢাকাতে বসে সহজেই রাজশাহীর সুমিষ্ট আমের স্বাদ ভোগ করতে পেরেছি।’

জানতে চাইলে লিখন আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, “আগাম পরিকল্পনা নিয়ে এ সিজনে আমের ব্যবসা শুরু করি। এ বছর সরাসরি বাগান থেকে আম সরবরাহ করে গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিয়েছি। বিজনেস স্ট্র্যাটেজি ছিল ‘বিক্রি করবো বেশি, লাভ করবো কম’। এটা দারুণ কাজে দিয়েছে। আমার লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও বেশি পরিমাণ আম সারাদেশে পাঠাতে সক্ষম হয়েছি।”

jagonews24

পড়াশোনার পাশাপাশি এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা তারেক নূর জাগো নিউজকে বলেন, ‘উদ্যোক্তা হওয়ার কোনো বিকল্প নেই। প্রতি বছর বাংলাদেশে যে পরিমাণ গ্র্যাজুয়েট কমপ্লিট করে বের হচ্ছে সে পরিমাণ কর্মসংস্থান বাংলাদেশে নেই। পড়াশোনার পাশাপাশি লিখনের এমন উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসার দাবিদার।’


আরও খবর



ডলারের দাম নিয়ন্ত্রণে গভর্নরকে চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতির চিঠি

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

টাকার বিপরীতে ডলারের উচ্চমূল্য নিয়ন্ত্রণে মনিটরিংসহ পদক্ষেপ নিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাহবুবুল আলম। সম্প্রতি গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারকে তিনি এ চিঠি দেন।

চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, দীর্ঘদিন ধরে টাকার বিপরীতে ডলারের মূল্যবৃদ্ধি পাচ্ছে। এরই মধ্যে এ মূল্য নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ ব্যাংক অনেকগুলো নির্দেশনা জারি করেছে। সাম্প্রতিক সময়ে ডলারের মূল্য অতীতের সব রেকর্ড অতিক্রম করেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে ডলারের দাম ৯৪ টাকার মধ্যে থাকলেও অনেক ব্যাংক এখন পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোতে প্রতি ডলারের দাম ১০২ টাকা পর্যন্ত আদায় করা হচ্ছে।

এতে আরও বলা হয়, এ অবস্থা অব্যাহত থাকলে শিল্পের কাঁচামাল, নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য, চিকিৎসাসামগ্রী ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় পণ্য আমদানিতে ব্যয় অনেক বাড়বে, যার দায় শেষ পর্যন্ত ভোক্তা সাধারণকেই বহন করতে হবে। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যানুযায়ী বর্তমানে মূল্যস্ফীতি প্রায় ৯ শতাংশ, যা প্রকৃতপক্ষে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ক্ষেত্রে প্রায় ১০ শতাংশ। এ মূল্যস্ফীতির অন্যতম প্রধান কারণ টাকার বিপরীতে ডলারের মূল্যবৃদ্ধি।

‘আমদানি ব্যয় বৃদ্ধির কারণে প্রতিটি পণ্যের দাম বাড়ছে। এ ধারা চলতে থাকলে আগামী দিনগুলোতে মূল্যস্ফীতি আরও বাড়বে। বাংলাদেশ ব্যাংক এডি ব্যাংকগুলোর জন্য ডলার বিনিময়ে একই হার নির্ধারণ করে দিলেও অনেক ব্যাংক সেই নির্দেশনা প্রতিপালন করছে না। তাদের ইচ্ছামতো দর আদায় করছে। এ অবস্থা উত্তোরণে ব্যাংকগুলোর ডলার বিনিময় বাংলাদেশ ব্যাংকের মনিটরিংয়ের আওতায় আনা প্রয়োজন’ বলেও চিঠিতে উল্লেখ করেন মাহবুবুল আলম।


আরও খবর



দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হানিফ বাংলাদেশী এখন বরিশালে

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ০৪ August ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

‘৫০ বছর ধরে চলমান দুর্নীতি-দুঃশাসনের বিরুদ্ধে বদলে যাও, বদলে দাও’ স্লোগানে দেশের জেলা-উপজেলা ঘুরে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিচ্ছেন হানিফ বাংলাদেশী। প্রতিদিন তিন-চারটি উপজেলা প্রদক্ষিণ করে তিনি এ কর্মসূচি পালন করছেন।

এরই ধারাবাহিতায় মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে বরিশাল সদর উপজেলা ও দুপুর ১২টার দিকে বাকেরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর স্মারকলিপি দেন তিনি।

গত ৫ জুন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কক্সবাজারের টেকনাফের জিরো পয়েন্ট (শাপলা চত্বর) এলাকা থেকে এ কর্মসূচি শুরু করেন হানিফ বাংলাদেশী। ওই সময় টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কায়সার খসরুর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর প্রথম স্মারকলিপিটি দেন তিনি।

হানিফ বাংলাদেশী এ পর্যন্ত (২৬ জুলাই দুপুর ১টা) দেশের ১৩ জেলার ১১৬টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন।

প্রতিদিন ৩-৪টি উপজেলা প্রদক্ষিণ করে ২০২৩ সালের মে মাসে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় গিয়ে তার এ কর্মসূচি শেষ করার কথা রয়েছে।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হানিফ বাংলাদেশী এখন বরিশালে

কর্মসূচির বিষয়ে হানিফ বাংলাদেশী জাগো নিউজকে বলেন, সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার সর্বক্ষেত্রে মানবিক মূল্যবোধের চরম অবক্ষয় চলছে। স্বাধীনতার ৫০ বছর ধরে যে দল যখনই রাষ্ট্রক্ষমতায় এসেছে, সে দলই কমবেশি গণতন্ত্রকে বাধাগ্রস্ত করেছে। নগ্ন হস্তক্ষেপ হয়েছে। ঘুস, দুর্নীতি, অর্থ পাচার হয়েছে। সামাজিক, মানবিক, পারিবারিক মূল্যবোধর অবক্ষয় আগেও ছিল, এখন চরম আকার ধারণ করেছে।

তিনি বলেন, আমি দেশের নানা অসঙ্গতি নিয়ে সবসময় প্রতিবাদ করে থাকি। এর আগেও ঢাকা শহরসহ দেশের জনবহুল স্থানে পাবলিক টয়লেট স্থাপনের আন্দোলন করেছি। ২০১৩ থেকে ২০১৪ সালে দেশে যখন জ্বালাও-পোড়াও শুরু হয় তখন দুই নেতৃত্ব বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছি। ২০১৯ সালের মার্চ মাসে ভোটাধিকারের দাবিতে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া হেঁটে পদযাত্রা করেছি। ২০২০ সালে সর্বগ্রাসী দুর্নীতির বিরুদ্ধে ৬৪ জেলা প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসক অফিসে স্মারকলিপি দিয়েছি। ২০২০ সীমান্ত হত্যা বন্ধের দাবিতে প্রতীকী মরদেহ নিয়ে পদযাত্রা, ২০২১ সালে দেশব্যাপী মার্চ ফর ডেমোক্রেসি নামে গণতন্ত্রের জন্য গণস্বাক্ষর সংগ্রহ করছি।

‘২০২১ সালে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়নের দাবিতে মাথায় ভোটের বাক্স নিয়ে ৬৪ জেলা প্রশাসকদের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি বরাবর স্বারকলিপি দিয়েছি। এখন ৫০ বছর ধরে চলমান দুর্নীতি-দুঃশাসনের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপি দেওয়ার উদ্যোগ নিয়ে এ কর্মসূচি শুরু করেছি। আমার এ কর্মসূচিতে সবার সহযোগিতা কামনা করছি।’

নোয়াখালী সদরের জাহানাবাদ গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে মো. হানিফ। তবে এসব কর্মসূচি পালনের কারণে তিনি ‘হানিফ বাংলাদেশী’ নামেই বেশি পরিচিত।


আরও খবর



নরসিংদীতে ময়লার ড্রেন থেকে নবজাতক উদ্ধার

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

নরসিংদীতে ময়লার ড্রেন থেকে একদিন বয়সী এক নবজাতককে জীবিত উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী। রোববার (৩১ জুলাই) রাতে সদর উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নের দাসপাড়া এলাকার একটি ড্রেন হতে ওই নবজাতককে উদ্ধার করা হয়। পরে পুলিশের সহায়তায় তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার রাতে দাসপাড়া নার্সারির মোড়ের কাছে ময়লার ড্রেনের মধ্যে এক নবজাতকের কান্নার শব্দ শুনতে পান ফাতেমা আক্তার নামে স্থানীয় এক নারী। এসময় ওই নারী ও এলাকাবাসী ড্রেন থেকে প্লাস্টিকের ব্যাগে মোড়ানো অবস্থায় ওই নবজাতককে উদ্ধার করেন। পরে জীবিত টের পেয়ে পুলিশের সহায়তায় স্থানীয়রা শিশুটিকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক নবজাতককে হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা শুরু করেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নরসিংদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার বলেন, কে বা কারা নবজাতককে ড্রেনে ফেলে গেছে তা নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা চলছে। পরিচয় না পেলে নবজাতকটি সুস্থ হওয়ার পর সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করে পরবর্তী উদ্যোগ নেওয়া হবে।


আরও খবর



কুষ্টিয়ায় জোড়া খুনের ঘটনায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Sunday ২৪ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় জোড়া খুনের ঘটনায় পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রোববার (২৪ জুলাই) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন। এ মামলায় ১০ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত হলেন- কুষ্টিয়া শহরের আড়ুয়াপাড়া এলাকার মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে তারিক, মোশাররফ হোসেনের ছেলে কামাল রেজা নিপু, আব্দুর রশিদের ছেলে সিরাজুল ইসলাম মাসুদ, নবীর আলীর ছেলে রায়হান আলী ও সদর উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের চাঁদ আলীর ছেলে সিদ্দিক ওরফে (বাংলা ভাই)।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মেহেরুল ইসলাম (৫০) ও কলেজ শিক্ষক বান্দা ফাত্তাহ মোহনকে (৫৫) গুলি করে হত্যা

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী জানান, চাঁদা না দেওয়ায় ২০০৯ সালের ১৫ আগস্ট রাত ৯টার দিকে ভেড়ামারা শহরের রেলবাজার এলাকায় একটি কাপড়ের দোকানে বসে থাকা অবস্থায় ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মেহেরুল ইসলাম (৫০) ও কলেজ শিক্ষক বান্দা ফাত্তাহ মোহনকে (৫৫) এলোপাতাড়ি গুলি করে হত্যা করে আসামিরা। এ ঘটনার তিনদিন পর ১৮ আগস্ট ভেড়ামারা থানার এসআই শেখ আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেন।

মামলার তদন্ত শেষে ২০১১ সালের ২২ জুলাই তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেন। এরপর আদালত এ মামলায় ১৬ জনের সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন। আদালতের বিচারক এ মামলার পাঁচ আসামিকে শাস্তির আদেশ দেন।


আরও খবর